আজঃ বুধবার ২১ এপ্রিল 20২১
শিরোনাম

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৬৩৫, মৃত্যু ৬

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে আট হাজার ৪৪১ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৬৩৫ জন। সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৪৯ হাজার ১৮৪ জনে।

শুক্রবার (৫ মার্চ) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



বিএনপি ইতিহাস অস্বীকার করতে চায়: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
১৯৭১ সালের এইদিনে তৎকালীন মেহেরপুর মহকুমার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপরাষ্ট্রপতি, তাজউদ্দীন আহমদকে প্রধানমন্ত্রী করে সরকার গঠিত হয়েছিল

মুজিবনগর সরকারের অধীনে মাসে চারশ' টাকার চাকুরে জিয়াউর রহমানের বিএনপি আজ ইতিহাসকে অস্বীকার করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার মুজিবনগর দিবসে সকালে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণে অংশগ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এই মন্তব্য করেন।

আজ বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠনের সুবর্ণজয়ন্তী উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ১৯৭১ সালের এইদিনে তৎকালীন মেহেরপুর মহকুমার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপরাষ্ট্রপতি, তাজউদ্দীন আহমদকে প্রধানমন্ত্রী করে সরকার গঠিত হয়েছিল। এই সরকারের অধীনেই মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হয়। যুদ্ধের সেক্টর কমান্ডারসহ অন্যান্যরা এই সরকারের অধীনেই মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনা করেছিলেন। জিয়াউর রহমানও এ সরকারের অধীনে চারশ" টাকা বেতনে সেক্টর কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেছেন। দুঃখজনক হলেও সত্য যে, এই ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসটি বিএনপি পালন করে না।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি অনেক কিছুই পালন করে না। তারা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন করে না, ৭ই মার্চ পালন করে না, মুজিবনগর দিবসও পালন করে না। এতে এটাই প্রমাণিত হয় যে, তারা ইতিহাসকে অস্বীকার করতে চায়।

'কিন্তু ইতিহাস হচ্ছে, জিয়াউর রহমান এই সরকারের অধীনেই চারশ' টাকা বেতনে চাকরি করতেন এবং আজকে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী যারা দেশকে সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়, তাদের মূল পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপি' বলেন তিনি। 

দেশকে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় এগিয়ে নেবার প্রত্যয় ব্যক্ত করে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠনের সুবর্ণজয়ন্তীর এইদিনে আমাদের প্রত্যয় হচ্ছে, যে স্বপ্ন বুকে এঁকে আমাদের পূর্বসুরী মুক্তিযোদ্ধারা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ রচনা করে গেছেন, সমস্ত অপশক্তিকে পরাভূত করে এদেশকে আমরা সেই অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবেই এগিয়ে নিয়ে যাবো।


আরও খবর



লকডাউনেও যানজট!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সারাদেশে চলছে সরকার ঘোষিত লকডাউন। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) লকডাউনের এই দ্বিতীয় দিন। এদিন সকাল থেকে রাজধানীর সড়কগুলোতে প্রচুর পরিমাণে ব্যক্তিগত গাড়ি, রিকশা ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা দেখা গেছে। বেশিরভাগ সড়কে তিন রাস্তা ও চৌরাস্তায় জ্যাম দেখা গেছে। পাশাপাশি ট্রাফিক সিগন্যালগুলোতেও জ্যাম দেখা গেছে।

সকাল সাতটার দিকে রাজধানীর মিরপুর, শেওড়াপাড়া, আগারগাঁও, চন্দ্রিমা উদ্যান, বিজয় সরণী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও মহাখালী এলাকা ঘুরে দেখা গেছে- সড়কে গণপরিবহন ছাড়া সব ধরনের গাড়ি চলাচল করছে। রাজধানীতে যথারীতি যে ট্রাফিক জ্যাম থাকে তা আজ না থাকলেও বিভিন্ন পয়েন্টে বেশ গাড়ির চাপ রয়েছে। এই স্পটগুলোর বেশিরভাগ পয়েন্টে ট্রাফিক সিগন্যালে গাড়িগুলোর দীর্ঘ সারি দেখা গেছে।

এছাড়া বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর মহাখালী, নাবিস্কো, সাতরাস্তা, মগবাজার, বেইলি রোড, কাকরাইল, নাইটিঙ্গেল মোড় ও পল্টন মোড় এলাকা ঘুরে দেখা গেছে- বেশিরভাগ পয়েন্টে গাড়ির চাপ রয়েছে। তিন রাস্তা এবং চৌরাস্তায় ট্রাফিক সিগন্যালে দীর্ঘ গাড়ির লাইন। বেশ জ্যামও পরিলক্ষিত হয়েছে।

উল্লেখ্য, সোমবার (৫ এপ্রিল) থেকে এক সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।


আরও খবর



মামুনুল হককে গ্রেপ্তার, দেশে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে পুলিশ!

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সব এসপি ও রেঞ্জের ডিআইজিকে স্ব স্ব জেলার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কেউ যাতে কোনোভাবেই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে না পারে

গ্রেপ্তার হয়েছেন হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক। রবিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটের দিকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই ঘটনায় সারা দেশে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ সদস্যরা।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরকে কেন্দ্র করে গেলো ২৬ মার্চ বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলাম। খবর ছড়িয়ে পড়লে চট্টগ্রামে হাটহাজারী মাদরাসার ছাত্ররা বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন। সেখানে পুলিশের গুলিতে চার ছাত্রের মৃত্যু হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ হয়। সেখানেও সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হয়। হামলা ও হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২৭ মার্চ বিক্ষোভ ও ২৮ মার্চ হরতাল পালন করে ইসলামী সংগঠনটি। হরতালে দেশব্যাপী হামলা, ভাঙচুর ও সড়ক অবরোধ করে হেফাজতের নেতাকর্মীরা।

এতো সব ঘটনার পর গেলো ৩ এপ্রিল বিকেলে সোনারগাঁওয়ের রয়েল রিসোর্টের ৫০১ নম্বর কক্ষে নারীসহ মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করে স্থানীয়রা। পরে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ। সেই সঙ্গে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারীকে দ্বিতীয় স্ত্রী বলে দাবি করেন মামুনুল হক।

সবশেষ ১৭ জনের বিরুদ্ধে রাজধানীর পল্টন থানায় হত্যাচেষ্টা ও বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়। মামলায় তার বিরুদ্ধে নাশকতার হুকুমদাতা, বিস্ফোরণের হুকুমদাতা এবং নিরীহ মানুষকে হত্যাচেষ্টার হুকুমদাতা বলা হয়েছে। এছাড়া দ্বিতীয় স্ত্রীকাণ্ডে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাওয়ে রয়েল রিসোর্টের ঘটনায়ও তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এছাড়া মামুনুলের বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে শাপলা চত্বরে নাশকতা অভিযোগে মামলা হয়।

অতীতের তাণ্ডবের অভিজ্ঞতা থেকেই ইতোমধ্যে চট্টগ্রামসহ হেফাজত অধ্যুষিত এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের একাধিক সূত্র থেকে এই সতর্কতার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। জানা গেছে, এদিন সকালে সব এসপি ও রেঞ্জের ডিআইজিকে স্ব স্ব জেলার আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কেউ যাতে কোনোভাবেই অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাতে না পারে, মানুষ ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি না করতে পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে বলা হয়েছে। প্রয়োজনে আইনশৃঙ্খলা বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিভিন্ন থানা এলাকার মাদরাসা ও মসজিদগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পর মসজিদ ও মাদরাসাগুলোতে যাতে কেউ জড়ো হতে না পারে সে বিষয়ে আমাদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


আরও খবর



১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ১৫৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আজ শুক্রবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে বিষয়টি জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন জানান, ১৪ এপ্রিল থেকে দেশে জরুরি সেবা ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। গার্মেন্টস কারখানা বন্ধ থাকবে। অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সকল গণপরিবহনও বন্ধ থাকবে। তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই কঠোর লকডাউন। করোনার ঊর্ধ্বগতি ঠেকানোর জন্য এর কোনো বিকল্প নেই।

করোনা ভাইরাসের ঊর্ধ্বগতির কারণে গত ৫ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ১১ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত সারাদেশে শপিংমল, দোকানপাট, হোটেল-রেস্তারাঁসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পাশাপাশি গণপরিবহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছিল।

এরপর বুধবার (৭ এপ্রিল) থেকে সিটি করপোরেশন এলাকায় সকাল-সন্ধ্যা গণপরিবহন সেবা চালু রাখার সিদ্ধান্ত দেয় সরকার। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) থেকে সকাল ৯টা হতে বিকেল ৫টা পর্যন্ত শপিংমল ও দোকান খোলা রাখা জন্য বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।


আরও খবর



বিধানসভা নির্বাচন : আজ প্রাণ গেল ৫ জনের

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এই হামলা তৃণমূলের সন্ত্রাসীরা চালিয়েছে। স্থানীয় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা এই হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে

শনিবার (১০ এপ্রিল) সকালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার চতুর্থ দফার নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। হামলা-সংঘর্ষের মধ্য দিয়েই শুরু হয়েছে ভোট গ্রহণ। নির্বাচনে হামলা-সহিংসতায় এ পর্যন্ত এক তরুণসহ মোট পাঁচ জন নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। ভারতের উত্তরবঙ্গে কাঠগড়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে চারজন নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সিআরপিএফের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এছাড়া জোড়পাটকিতে গুলির ঘটনায় আরও চার জন আহত হয়েছেন।

এছাড়াও কোচবিহারের শীতলকুচিতে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। জীবনে প্রথমবার ভোট দেয়ার জন্য কেন্দ্রে গিয়েছিলেন। নিয়ম মেনে ভোট দিতে লাইনে দাঁড়াতে গিয়ে হামলায় প্রাণ যায় আনন্দ বর্মণ নামের এক তরুণের। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের শীতলকুচিতে। শনিবার আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদন থেকে নিশ্চিত হওয়া গেছে এ বিষয়ে।

এদিকে প্রতিবেদনে তরুণের পরিবারের অভিযোগ তুলে ধরা হয়েছে। বলা হয়েছে, এই হামলা তৃণমূলের সন্ত্রাসীরা চালিয়েছে। স্থানীয় তৃণমূলের নেতাকর্মীরা এই হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পুলিশ সদস্যরা।

নিহত তরুণ আনন্দ বর্মণ ও তার পরিবারের সদস্যরা বিজেপির সমর্থক বলে জানা গেছে। আনন্দ বর্মণের চাচাতো ভাই জানিয়েছেন, তারা পাঠানটুলি শালবাড়ির ২৮৫ নম্বর কেন্দ্রে ভোট দিতে গিয়েছিলেন। ভোটের লাইনে দাঁড়ানোর কিছুক্ষণ পরই হঠাৎ করে তৃণর্মূল-বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে ঝামেলা বাধে। এসময় দুপক্ষই এলাপাতাড়ি গুলি ছুড়ে।

এ ঘটনায় সকল ভোটাররা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। সকলেই প্রাণ বাঁচাতে ছুটতে শুরু করেন। এমন সময় আনন্দের পিঠে গুলি লাগে। আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে পাঠানো হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত আনন্দের পরিবার থেকে তৃণমূল সমর্থিত সন্ত্রাসীদের দায়ি করছেন।


আরও খবর