আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

নতুন নীতি না মানলে ব্যবস্থা নেবে হোয়াটসঅ্যাপ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৭৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্যবহারকারীদের জন্য নিজেদের নীতিমালায় পরিবর্তন আনার ঘোষণা দিয়েছে তাৎক্ষণিক বার্তা আদান প্রদানের জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। তবে নতুন নিয়ম ব্যবহারকারীরা মেনে না নিলে তাদের আইডির পরিণতি কী হতো সেটা এতদিন অনিশ্চিত ছিল।

অবশেষে প্রযুক্তি বিষয়ক অনলাইন পোর্টাল টেকক্রাঞ্চ এর জবাব দিয়েছে।

টেকক্রাঞ্চ বলছে, সম্প্রতি এ বিষয়ে হোয়াটস অ্যাপের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে, এক ই-মেইল বার্তায় ফেসবুক মালিকানাধীন হোয়াটসঅ্যাপ নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেছে।

হোয়াটসঅ্যাপ বলছে, যেসব ব্যবহারকারী আগামী ১৫ মে এর মধ্যে নতুন এ নিয়ম মেনে নেবেন না, তাদের আইডি শুরুতেই বন্ধ হয়ে যাবে না। তবে বেশ কিছু ফিচার তাদের জন্য সীমিত করে দেবে প্ল্যাটফর্মটি। পুরো বিষয়টি থাকছে এখানে:

১) শুরুর দিকেই হোয়াটসঅ্যাপ আইডি বা অ্যাকাউন্ট পুরোপুরি বন্ধ বা মুছে যাবে না।

২) ব্যবহারকারীরা ইনকামিং কল রিসিভ করতে পারবেন। এছাড়াও নোটিফিকেশন দেখতে পারবেন। তবে নিজেরা কোনো মেসেজ (বার্তা) পাঠাতে বা অন্যের পাঠানো বার্তা পড়তে পারবেন না।

৩) নিয়ম মেনে না নেওয়ার কারণে কোনো অ্যাকাউন্ট যদি একবার মুছে ফেলা হয়, সেটি আর ফেরত পাওয়া যাবে না।

৪) ব্যবহারকারীর সব মেসেজ বা বার্তা মুছে ফেলা হবে।

৫) ব্যবহারকারীর আইডি সব হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ থেকে বের করে দেওয়া হবে।

৬) অনেক ব্যবহারকারীই হোয়াটসঅ্যাপের ব্যাকআপ রাখেন। তবে আগে থেকে সংরক্ষণ করে রাখা ব্যাকআপও মুছে ফেলা হবে।

৭) তবে ব্যবহারকারীরা চাইলে আগামী ১৫ মে এর পূর্বে নিজেদের চ্যাটের যাবতীয় তথ্য ডাউনলোড করে রাখতে পারবেন।

৮) যেসব ব্যবহারকারীর আইডি সাময়িকভাবে স্থগিত আছে, তাদের ক্ষেত্রে নতুন নিয়মের এসব শর্তাবলী আগামী ১৫ মে এর পর থেকে কার্যকর হবে।

নিউজ ট্যাগ: হোয়াটসঅ্যাপ

আরও খবর



রাজধানীতে আজ যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানী সংলগ্ন আমিনবাজারে সড়ক ও জনপথ বিভাগ রাস্তার উন্নয়ন কাজের সময় তিতাস গ্যাসের উচ্চচাপ লাইন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ফলে রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় সকাল থেকে গ্যাস সরবরাহের সমস্যা দেখা দিয়েছে। রাজধানীতে গ্যাস বিতরণকারী সংস্থা তিতাস গ্যাস মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকালে এ তথ্য জানিয়েছে।

তিতাস কর্তৃপক্ষ জানায়, গ্যাসলাইন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, হাজারীবাগ, মিরপুর, গ্রিন রোডসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত গ্যাসের চাপ কম থাকবে। লিকেজ মেরামত কাজ শেষ হলে গ্যাসের অবস্থা স্বাভাবিক হবে।

নিউজ ট্যাগ: তিতাস গ্যাস

আরও খবর



কাল সিঙ্গাপুর যাচ্ছে বিমানের বিশেষ ফ্লাইট

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৩৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামীকাল মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) থেকে বিমানের বিশেষ ফ্লাইট সিঙ্গাপুর যাবে। আজ সোমবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে সংস্থাটির জনসংযোগ কর্মকর্তা তানভীর আহমেদ।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় গত ১৪ এপ্রিল থেকে সব আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়। তার আগে গত ১১ এপ্রিল আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের কথা জানায় বেবিচক।

এরপর গত ১৫ এপ্রিল আন্তঃমন্ত্রলায়ের এক বৈঠকে শনিবার থেকে পরবর্তী এক সপ্তাহ সৌদি আরব, ওমান, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও সিঙ্গাপুরে প্রায় ১০০টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার সিদ্ধান্ত হয়।

মহামারি করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ ঠেকাতে ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া দেশব্যাপী কঠোর লকডাউনের কারণে প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার অভিবাসী শ্রমিক তাদের নিজ নিজ কর্মস্থলে ফেরার সুযোগ করে দিতে সরকার এ সিদ্ধান্ত নেয়।


আরও খবর



করোনা পরিস্থিতিতে সব ধরনের মাদ্রাসা বন্ধ রাখার নির্দেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | ১২১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা পরিস্থিতিতে এতিমখানা ছাড়া কওমি মাদ্রাসাসহ সব আবাসিক ও অনাবাসিক মাদ্রাসা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে আজ মঙ্গলবার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় মাদ্রাসাসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় গত ২৯ মার্চ প্রজ্ঞাপন জারি করে। বর্তমানে দেশে লকডাউন বলবৎ আছে। এর আগে সরকার আগামী ২২ মে পর্যন্ত দেশের সব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। কিন্তু সরকারি নির্দেশ সত্ত্বেও দেশের বিভিন্ন স্থানে কিছু আবাসিক ও অনাবাসিক মাদ্রাসা এখনও খোলা রয়েছে মর্মে জানা যায়, যা বর্তমান কোভিড পরিস্থিতিতে অত্যন্ত স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ।

এ অবস্থায় পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কওমি মাদ্রাসাসহ (এতিমখানা ব্যতীত) সব মাদ্রাসা (আবাসিক ও অনাবাসিক) বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করা হলো। এ নির্দেশ পালনে কোনোরূপ শৈথিল্য প্রদর্শন করা যাবে না।

যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে এ নির্দেশ জারি করা হলো এবং এটা অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: মাদ্রাসাশিক্ষক

আরও খবর



শুক্রবার গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৭৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় নারায়ণগঞ্জের হরিপুরে ভালভ প্রতিস্থাপনের কাজ করবে গ্যাস সঞ্চালন কোম্পানি জিটিসিএল ও বিতরণ কোম্পানি তিতাস গ্যাস

নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের বড় একটি অংশে আগামী শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) টানা সাড়ে ৭ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না। এদিন রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য ভোর থেকে সাড়ে ৭ ঘণ্টার জন্য গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। এ সময়ে গ্যাসের চাপ কম থাকবে ঢাকার বেশকিছু এলাকায়।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় নারায়ণগঞ্জের হরিপুরে ভালভ প্রতিস্থাপনের কাজ করবে গ্যাস সঞ্চালন কোম্পানি জিটিসিএল ও বিতরণ কোম্পানি তিতাস গ্যাস। আর এ কারণে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সিগঞ্জের বড় একটি এলাকায় গ্যাস সরবরাহ করতে পারবে না তিতাস গ্যাস।

এ সময় শীতলক্ষ্যা নদীর পশ্চিম পাশে নারায়ণগঞ্জ শহর, সিদ্ধিরগঞ্জ, আদমজী ইপিজেড, গোদনাইল, পাগলা, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ বিসিক, পঞ্চবটি থেকে মুক্তারপুর পর্যন্ত, মুন্সিগঞ্জ সদর, মুন্সিগঞ্জ বিসিক, রেকাবী বাজার ও আশেপাশের এলাকায় সব শ্রেণির গ্রাহকদের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। আর শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব পাশে গ্যাস থাকবে না কাঁচপুর, হরিপুর, কুতুবপুর, মদনপুর, বন্দর, কেওডালা, নাঙ্গলবন্দ ও আশেপাশের এলাকায়। ঢাকার কেরানীগঞ্জ ও শ্যামপুর এলাকায় গ্যাসের চাপ কম থাকবে।

এদিকে গ্রাহকদের 'সাময়িক অসুবিধার' জন্য 'আন্তরিকভাবে' দুঃখ প্রকাশ করেছে ঢাকা ও আশেপাশের এলাকায় গ্যাস বিতরণ প্রতিষ্ঠান তিতাস গ্যাস কোম্পানি।

নিউজ ট্যাগ: নারায়ণগঞ্জ

আরও খবর



মিয়ানমারের প্যাগোডা প্রাঙ্গণে লাশের স্তূপ

প্রকাশিত:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
শনিবার সকাল নাগাদ মৃতের সংখ্যা জানা সম্ভব হয়নি। পরে এসব তথ্য উদ্ধার হয়। তবে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। বাগো শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর ভারী অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা

মিয়ানমারের বাগো শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর সেনাবাহিনীর সাঁড়াশি অভিযানে অন্তত ৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ কথা জানিয়েছে।

গত শুক্রবার বাগো শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়ন চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। বিক্ষোভকারীদের হত্যার পর তাদের মরদেহ লুকিয়ে রাখে সেনাবাহিনী। এ কারণে মৃত্যুর তথ্য জানতে দেরি হয়।

বাগো শহরের নিহত বিক্ষোভকারীদের লাশ সেখানকার জেয়র মুনি প্যাগোডা প্রাঙ্গণে স্তূপ করে রাখে সেনাবাহিনী। পুরো এলাকা ঘিরে রাখা হয়। স্বেচ্ছাসেবী পর্যবেক্ষক সংস্থা অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনারস (এএপিপি) এমনটি জানায়।

এএপিপি জানায়, শনিবার সকাল নাগাদ মৃতের সংখ্যা জানা সম্ভব হয়নি। পরে এসব তথ্য উদ্ধার হয়। তবে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে। বাগো শহরে বিক্ষোভকারীদের ওপর ভারী অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

বাগো শহরের বিক্ষোভের অন্যতম সংগঠক ইয়ে তুত দেশটির সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার নাউকে বলেন, এটা গণহত্যা ছাড়া কিছু নয়। প্রতিটি জায়গায় গুলি করে মানুষকে হত্যা করা হয়।

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সেনাবাহিনী অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে এক বছরের জন্য দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে। তখন থেকে প্রায় প্রত্যেকদিন মিয়ানমারের গণতন্ত্রকামী বিক্ষোভকারীরা অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে আসছেন।

গত বছরের নভেম্বরের নির্বাচনে দেশটির নেত্রী অং সান সু চি নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে আবারও ক্ষমতায় আসে। সামরিক বাহিনী এই নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুললেও নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে জানিয়ে দেয়। পরে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতায় বসে সেনাবাহিনী। মিয়ানমারের জান্তা সরকার এ পর্যন্ত ৬০০ জনের বেশি মানুষ হত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে গত শুক্রবার রাজধানী নাইপিদোয় সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল জ মিন তুন দাবি করেন, বিক্ষোভে এ পর্যন্ত ২৪৮ জন বেসামরিক লোক এবং ১৬ জন পুলিশ সদস্য মারা গেছেন।


আরও খবর