আজঃ শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

অবশেষে হামাসের সঙ্গে সমঝোতা করতে রাজি হলো ইসরাইল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

গত দেড় মাস ধরে চলা যুদ্ধে এই প্রথমবারের মতো ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী রাজনৈতিক গোষ্ঠী হামাসের সঙ্গে সমঝোতায় যেতে রাজি হয়েছে ইসরাইল।

সোমবার ইসরায়েলভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল কানের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মূলত হামাসের হাতে থাকা জিম্মিদের মুক্ত করতেই ইসরাইলের শাসকগোষ্ঠী এই সমঝোতায় আসতে আগ্রহী।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, হামাস যদি তার হাতে থাকা জিম্মিদের মুক্তি দেয়, তাহলে ইসরাইলের বিভিন্ন কারাগারে বন্দি ফিলিস্তিনিদেরও ছেড়ে দেবে মধ্যপ্রাচ্যের ইহুদি অধ্যুষিত ভূখণ্ডটির সরকার। এখন অপেক্ষা কেবল হামাসের জবাবের।

জিম্মিদের মুক্ত করতে হামাসের সঙ্গে একটি সমঝোতায় পৌঁছানোর ব্যাপারটি ইসরাইল যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করছে দাবি করে নিজেদের প্রতিবেদনে কান জানিয়েছে, বল এখন হামাসের কোর্টে। হামাস যদি ইতিবাচক সাড়া দেয়, সেক্ষেত্রে সহজেই একটি সমঝোতা হতে পারে।

এর আগে একই দিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকেও এই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন কিরবি জানিয়েছিলেন, গাজায় ইসরাইলি জিম্মিদের মুক্ত করতে যুক্তরাষ্ট্র তার প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, দুপক্ষের মধ্যে একটি সমঝোতার একটি পরিবেশ তৈরি হচ্ছে। আমরা আশা করছি এটি হবে। তবে এখনো অনেক কাজ বাকি রয়ে গেছে।

গত ৭ অক্টোবর ভোরে ইসরাইলে অতর্কিত হামলা চালায় গাজা উপত্যকার নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাসের যোদ্ধারা। উপত্যকার উত্তরাঞ্চলীয় ইরেজ সীমান্ত বেড়া ভেঙে ইসরায়েলে প্রবেশ করে নির্বিচারে সামরিক-বেসামরিক লোকজনকে হত্যা করে তারা। সেই সঙ্গে জিম্মি হিসেবে গাজায় ধরে নিয়ে যায় ২৪২ জনকে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) জানিয়েছে, এই জিম্মিদের মধ্যে ইসরাইলিদের সংখ্যা ১০৪ জন। বাকি ১৩৮ জনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, থাইল্যান্ড, জার্মানি, ফ্রান্স, আর্জেন্টিনা, রাশিয়া ও ইউক্রেনের নাগরিকরা রয়েছেন।


আরও খবর



ইউক্রেনের গোয়েন্দাপ্রধানের স্ত্রীর শরীরে বিষ প্রয়োগ

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের গোয়েন্দাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল কিরিলো বুদানভের স্ত্রীকে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে। মূলত ভারী কোনও ধাতু দিয়ে তার শরীরে এই বিষ প্রয়োগ করা হয়। এছাড়া গোয়েন্দা সংস্থার আরও কয়েকজন কর্মীর শরীরেও বিষক্রিয়ার হালকা লক্ষণ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) রাতে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের গোয়েন্দাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল কিরিলো বুদানভের স্ত্রী মারিয়ানা বুদানোভাকে ভারী ধাতু দিয়ে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে বলে দেশটির সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার একজন মুখপাত্র বিবিসি ইউক্রেনীয়কে জানিয়েছেন। 

আরও পড়ুন>> মালয়েশিয়ায় নির্মাণাধীন ভবন ধসে নিহত ৩

আন্দ্রি ইউসভ জানিয়েছেন, সংস্থার অন্য কয়েকজন কর্মীর শরীরেও বিষক্রিয়ার হালকা লক্ষণ রয়েছে। তবে তাদের সংখ্যা ঠিক কত তা উল্লেখ করেননি তিনি।

কথিত এই হামলার পেছনে রাশিয়া জড়িত কিনা তা ইউক্রেনীয় মিডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়নি। এছাড়া জেনারেল বুদানভকেও এমন হামলার লক্ষ্যবস্তু করা হতে পারে বলে কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

বিবিসি বলছে, লেফটেন্যান্ট জেনারেল কিরিলো বুদানভ ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মেইন ডিরেক্টরেট অব ইন্টেলিজেন্স (ডিআইইউ)-এর নেতৃত্বে রয়েছেন। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে মস্কোর আক্রমণ শুরুর পর থেকে রাশিয়ান বাহিনীর বিরুদ্ধে বড় সামরিক অভিযানের পরিকল্পনা এবং কখনও কখনও সেটি কার্যকর করার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন তিনি।

ইউক্রেনের একটি গোয়েন্দা সূত্র এর আগে বিবিসিকে বলেছিল, কিরিলো বুদানভের স্ত্রী মারিয়ানা বুদানোভা অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাবেল নামের একটি নিউজ ওয়েবসাইট মঙ্গলবার এই বিষক্রিয়ার অভিযোগটি প্রথম সামনে আনে।

নিউজ ওয়েবসাইটটি বলছে, দীর্ঘ সময় ধরে অসুস্থ বোধ করার পরে মারিয়ানা বুদানোভাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ইউক্রেনীয় গোয়েন্দাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বাবেল আরও জানায়, তিনি সেখানে চিকিৎসা নিচ্ছেন এবং তাকে ডাক্তারদের পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। 

আরও পড়ুন>> মুক্তি পেল আরও ৩০ ফিলিস্তিনি ও ১০ ইসরায়েলি

বিবিসি বলছে, মারিয়ানা বুদানোভার বিষক্রিয়ায় সন্দেহজনক ভারী ধাতুর ধরন সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা স্পষ্ট করে বলেছেন , বিষক্রিয়ায় ব্যবহৃত পদার্থগুলো দৈনন্দিন জীবনে বা সামরিক অভিযানে কোনোভাবেই ব্যবহৃত হয় না


আরও খবর



লোকালয়ে বাঘের পায়ের ছাপ, আতঙ্কে গ্রামবাসী

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বাগেরহাট প্রতিনিধি

Image

শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের সুন্দরবনসংলগ্ন সোনাতলা গ্রামে আবারো বাঘের পায়ের ছাপ দেখা গেছে। রোববার বিকাল ও সোমবার সকালে গ্রামের বিভিন্ন স্থানে অসংখ্য পায়ের ছাপ দেখতে পান গ্রামবাসী। এতে গ্রামের মানুষের মধ্যে বাঘ আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে মাইকিং করা হয়েছে। এছাড়া ওয়াইল্ড টিম, ভিলেজ টাইগার রেসপন্স টিম (ভিটিআরটি) ও কমিউনিটি প্যাট্রলিং গ্রুপের (সিপিজি) সদস্যরা গ্রাম পাহারায় নিয়োজিত রয়েছেন। বাঘটি শনিবার রাতে গ্রামে ঢুকে আবার বনে ফিরে গেছে বলে ধারণা করছেন বন সুরক্ষা কমিটির সদস্যরা। এর আগেও চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি রাতে একই গ্রামে বাঘ এসেছিল।

সোনাতলা মডেল বাজারের ওষুধ ব্যবসায়ী ও ভিটিআরটি সদস্য মো. মাহাবুব হাসান জানান, রোববার বিকালে তিনি প্রথমে ভোলা নদী তীরের বাসিন্দা মজিবর হাওলাদারের বসতঘরের পেছনে বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পান। এসময় তিনি মাটি খুঁড়ে বাঘের পায়ের একটি ছাপ সংগ্রহ করেন। রাতে মসজিদের মাইকে বিষয়টি প্রচার করে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলেছেন তিনি।

বেড়িবাঁধের বাইরে বনসংলগ্ন ভোলা নদীর চরে বসবাসকারী ওহিদুল মোল্লা, ইউনুচ মোল্লা, শেফালী বেগম, ময়না বেগমসহ অনেকেই জানান, তাদের ঘরের আশপাশেই বাঘের পায়ের ছাপ দেখতে পেয়েছেন। তারা সবাই আতঙ্কে আছেন।

পূর্ব বনবিভাগের শরণখোলা রেঞ্জ কর্মকর্তা (এসিএফ) শেখ মাহাবুব হাসান বলেন, সোনতলা গ্রামে বাঘের পায়ের ছাপ দেখার পর ভোলা ফরেস্ট ক্যাম্পের বনরক্ষীদের খোঁজখবর নিতে বলা হয়েছে। এছাড়া বন সুরক্ষায় নিয়োজিতসহ ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের গ্রামে পাহারায় থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



আ.লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর 20২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ নভেম্বর 20২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) বেলা ১১টা থেকে অনুষ্ঠিত হবে।

সভায় ৩০০ সংসদীয় আসনে নৌকার প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে জানিয়ে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া জানান, সভায় সভাপতিত্ব করবেন মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের তেজগাঁওয়ের কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

মনোনয়ন বোর্ডের সভা সরকারি বাসভবন গণভবনে হওয়ার কথা থাকলেও নির্বাচনকালে প্রধানমন্ত্রী গণভবনে রাজনৈতিক কোনো কাজ করবেন না বলে জানা গেছে। এ কারণে সভাটি ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের তেজগাঁওয়ের কার্যালয়ে হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনে মনোনয়নপত্র ফরম দেওয়ার শেষ তারিখ ৩০ নভেম্বর। এ জন্য দুদিন সময় হাতে রেখে প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত করতে চায় ক্ষমতাসীনরা।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী বছরের ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ ১৮ ডিসেম্বর, নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত এবং ভোটগ্রহণ ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে।

সংসদ নির্বাচনের জন্য ৬৬ জন রিটার্নিং কর্মকর্তা এবং ৫৯২ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: আওয়ামী লীগ

আরও খবর
রবিবার হরতাল-অবরোধ দিচ্ছে না বিএনপি

বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩




অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপ

ফ্রান্সকে হারিয়ে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানি

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

গত জুনের পর আরও একবার পেনাল্টিতে ফ্রান্সকে কাঁদালো জার্মানি। জুনেই অনূর্ধ্ব-১৭ ইউরোর ফাইনালে পেনাল্টি শ্যুটআউটে ফরাসিদের পরাজিত করে জার্মান তরুণরা। একই গল্প দেখা গেল ইন্দোনেশিয়ার অনূর্ধব-১৭ বিশ্বকাপেও। ২-২ গোলে ড্রয়ের পর পেনাল্টিতে ৪-৩ ব্যবধানে ফ্রান্সকে হারিয়ে ছোটদের বিশ্বকাপ জয় করলো জার্মানি।

সুরাকার্তায় অনুষ্ঠিত এই ফাইনালে আরও একবার জার্মানির নায়ক হলেন গোলরক্ষক কনস্ট্যান্টিন হেইডি। দীর্ঘদেহী এই গোলরক্ষক আর্জেন্টিনার বিপক্ষেও শ্যুটআউটে নায়ক হয়েছিলেন। ফাইনালেও দুই পেনাল্টি ঠেকিয়ে নায়ক বনে গিয়েছেন তিনিই। ফ্রেঞ্চ গোলরক্ষক অ্যাগনিও এদিন নায়ক হতে পারতেন। তবে সেটা হয়নি হেইডির কল্যাণেই।

ফাইনালের শুরুটা অবশ্য খুব বেশি জমজমাট ছিল না। কিছুটা ধীরগতির ফুটবলই দেখা গিয়েছে অল-ইউরোপিয়ান ফাইনালে। শুরুতেই নায়ক হয়েছিলেন হেইডি। ফ্রেঞ্চ মিডফিল্ডার বাউব্রির দুর্দান্ত এক শট ফিরিয়ে দিয়েছিলেন এই গোলরক্ষক। গোল না পেলেও ফ্রান্সই ছিল বল দখলে এগিয়ে। অন্যদিকে নোয়াহ দারউইচ-প্যারিস ব্রুনাররা খেলেছেন চিরায়ত জার্মান কাউন্টার অ্যাটাক।

আরও পড়ুন>> ইউরো ২০২৪ এর ড্র অনুষ্ঠিত

২৯ মিনিটে জার্মানির গোলটাও এসেছে সেই সূত্র ধরেই। জার্মানির আক্রমণ ঠেকাতে গিয়ে ফাউল হয় বক্সে। ভিএআর চেকের পর আসে পেনাল্টি। স্পটকিকে দলকে এগিয়ে নেন ব্রুনার। প্রথমার্ধে আরও কিছু সুযোগ পেলেও তা কাজে লাগানো হয়নি জার্মানির। পেনাল্টির সম্ভাবনাও এসেছিল, তাতে এ দফায় সাড়া মেলেনি।

বিরতির পর ৫১ মিনিটে গোল করে বসেন জার্মান অধিনায়ক দারউইচ। বার্সেলোনার এই তরুণের গোলের সুবাদে ২-০ গোলের লিড পেয়ে  যায় ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। সুরাকার্তার হাজারখানেক দর্শক তখন অপেক্ষায় একপেশে ফাইনালের।

কিন্তু এরপরেই যেন দৃশ্যপট বদলে যায়। দুই মিনিটের ব্যবধানে জালের ঠিকানা খুঁজে পান সাইমন বাউব্রে। এই মিডফিল্ডারের গোলটাই যেন ফ্রেঞ্চ শিবিরে যুক্ত করে বাড়তি উন্মাদনা। ম্যাচের নিয়ন্ত্রণটাও তখন পুরোপুরি ফ্রান্সের হাতে। একের পর এক আক্রমণ করে ৮টি কর্ণারও পেয়ে যায় ফ্রান্স। তবে গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছিল ৮৫ মিনিট পর্যন্ত। ম্যাথিস অ্যামাগোর শেষ সময়ের গোলটা ম্যাচকে নিয়ে যায় পেনাল্টি শ্যুটআউটে।

এখানেই আবার নায়ক হেইডি। শুরুতে জার্মানি পেনাল্টি মিস করলেও সেটা কাজে লাগানো হয়নি ফ্রান্সের। বরং তাদের টানা তিন পেনাল্টি মিসে বিশ্বকাপ শিরোপা চলে যায় জার্মানির হাতে। ইউরোপ সেরা দলটা এবার জয় করল বিশ্বকাপও।


আরও খবর
অবশেষে শুরু হতে যাচ্ছে খেলা

শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩




কালিয়াকৈরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি

Image

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বৃহস্পতিবার দুপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এসময় অপর একজন আহত হয়েছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের উপজেলার পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালিয়াকৈর উপজেলার পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় রেডিমিক্সড পরিবহনের একটি গাড়ি সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এসময় অপর একজন গুরুতর আহত হন। আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে এলাকাবাসী। এছাড়াও ওই দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িটি মহাসড়কের ওপর উল্টে যাওয়ায় মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে।

পরে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়ি সরিয়ে নিলে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে নিহতের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

নাওজোড় হাইওয়ে থানার ওসি শাহাদাত হোসেন এ দুর্ঘটনা ও নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিউজ ট্যাগ: গাজীপুর

আরও খবর