আজঃ মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

অক্টোবর থেকে ১১ টোল প্লাজায় বাধ্যতামূলক হচ্ছে ই-টোল

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ মে ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সারা দেশে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) আওতাধীন ১১টি টোল প্লাজায় আগামী অক্টোবর থেকে ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন (ইটিসি) ব্যবহার ছাড়া কোনো যানবাহন টোল প্লাজা অতিক্রম করতে পারবে না।

শনিবার (২৭ মে) সওজ-এর এক জরুরি গণবিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সড়ক ও জনপথের আওতাধীন নয়টি সেতু ও দুটি সড়কে ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন সিস্টেম চালু করা হয়েছে। এসব টোল প্লাজায় ইটিসি ব্যবহার ছাড়া আগামী অক্টোবর মাসের পর কোনো যানবাহন অতিক্রম করতে পারবে না।

আরও পড়ুন>> পরামর্শক না নিলে বিদেশি ঋণ মেলে না : পরিকল্পনামন্ত্রী

নয়টি সেতু ও দুটি মহাসড়ক হলো চট্টগ্রামের কর্ণফুলী সেতু, নারায়ণগঞ্জের মেঘনা সেতু, কুমিল্লার গোমতী সেতু, নরসিংদীর ভৈরব সেতু, পটুয়াখালীর পায়রা সেতু, খুলনার খান জাহান আলী (রুপসা) সেতু, নরসিংদীর চরসিন্দুর সেতু, শহীদ ময়েজ উদ্দিন সেতু, নাটোরের আত্রাই টোল প্লাজা, পাবনার লালন শাহ সেতু এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মহাসড়ক।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, উল্লিখিত টোল প্লাজাগুলোতে ইটিসি ব্যবহারকারীকে নির্ধারিত টোল থেকে প্রণোদনা হিসেবে ১০ শতাংশ ছাড় প্রদান করা হচ্ছে। নেক্সাস-পে, রকেট এবং উপায় অ্যাপের মাধ্যমে এ সুবিধা গ্রহণ করা যাবে। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান এবং ই-পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে ইটিসি ব্যবহার করা যাবে।


আরও খবর
মেট্রোরেল চলাচল পুরোপুরি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিলেন কিয়ার স্টারমার

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

সাধারণ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয়লাভের পর রাজকীয় প্রথার মাধ্যমে চূড়ান্তাবে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেলেন স্যার কিয়ার স্টারমার। শুক্রবার (৫ জুলাই) বাকিংহাম প্রাসাদে রাজা তৃতীয় চার্লস আনুষ্ঠানিকভাবে লেবার পার্টির এই নেতাকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন।

বাকিংহাম প্রাসাদের প্রকাশ করা একটি ছবিতে দেখা গেছে, রাজা চার্লস স্টারমারের সঙ্গে করমর্দন করছেন। এর আগে রাজা প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে কনজারভেটিভ পার্টির নেতা ঋষি সুনাকের পদপত্যাগপত্র গ্রহণ করেন।

বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে ৪১২টি আসন পেয়ে জয়ী হয়েছে লেবার পার্টি। অন্যদিকে, কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ১২১টি আসন। যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের মোট ৬৫০টি আসনের মধ্যে সরকার গঠনের জন্য কোনো দলকে এককভাবে পেতে হবে ৩২৬টি আসন।

জয়ী হওয়ার পর কিয়ার স্টারমার বলেছিলেন, এখন থেকে পরিবর্তন শুরু হলো। আর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার প্রথম ভাষণে স্টারমার বলেছেন, জনগণ সুচিন্তিতভাবে পরিবর্তন এবং জনগণের সেবামূলক রাজনীতির জন্য ভোট দিয়েছে। তবে দেশকে পরিবর্তন করা সুইচ চাপার মতো নয়। এর জন্য সময় প্রয়োজন হবে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচনের ভোট শুরু হয়। ১৯৪৫ সালের পর এই প্রথম দেশটিতে জুলাই মাসে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের নির্বাচনে হেরে যুক্তরাজ্যে টানা ১৪ বছর পর ক্ষমতা থেকে সরে গেলো কনজারভেটিভ পার্টি।


আরও খবর
আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন!

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




বলিভিয়ায় অভ্যুত্থানচেষ্টা ব্যর্থ, সেনাপ্রধান গ্রেফতার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

বলিভিয়ায় সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার বিকেলে গ্রেফতার করা হয়েছে অভ্যুত্থান প্রচেষ্টায় নেতৃত্ব দেওয়া সেনাপ্রধান জেনারেল হুয়ান হোসে জুনিগাকে।

এর আগেই জেনারেল জুয়ানকে সেনাপ্রধানের পদ থেকে বরখাস্ত করেন বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট লুইস আর্চি। আটকের পর সদ্য সাবেক সেনাপ্রধানকে কোথায় নেওয়া হয়েছে, তা জানা যায়নি।

বলিভিয়া সরকার ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় দেশটিতে অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে।

রাজধানী লাপাজের ঐতিহাসিক সেন্ট্রাল প্লাজা মুরিলো চত্বরে গতকাল জড়ো হতে থাকেন সেনাসদস্যরা। এ সময় তাঁদের সঙ্গে ট্যাংকসহ অন্যান্য সাঁজোয়া যানও ছিল। এই চত্বরে বলিভিয়ার প্রেসিডেন্টের বাসভবন ও কংগ্রেস ভবন রয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা রয়টার্সকে জানান, অভিযানের একপর্যায়ে একটি ট্যাংক প্রেসিডেন্টের বাসভবনের ধাতব ফটক ভেঙে ফেলার চেষ্টা চালায়।

সেনারা যখন প্লাজা মুরিলো চত্বরে ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান নিয়ে জড়ো হন, তখন নিজের বাসভবনেই ছিলেন প্রেসিডেন্ট লুইস আর্চি। প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ থেকে তিনি এক বার্তায় বলেন, দেশ আজ অভ্যুত্থান প্রচেষ্টার মুখোমুখি হয়েছে। আবারও বলিভিয়ার গণতন্ত্রকে কাটছাঁট করার স্বার্থের মুখে পড়েছে আমাদের দেশ।

এ সময় জনগণের সহায়তা চান প্রেসিডেন্ট লুইস আর্চি। তিনি বলেন, আমি বলিভিয়ার জনগণের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, আজ সংঘটিত হওয়া এবং গণতন্ত্রের পক্ষে থেকে অভ্যুত্থানচেষ্টায় জড়িতদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়া প্রয়োজন।

এর কয়েক ঘণ্টা পর প্লাজা মুরিলো চত্বর থেকে সেনাসদস্য ও ট্যাংকগুলোকে সরিয়ে নিতে দেখা যায়। আলজাজিরার প্রতিবেদনের তথ্য, অভিযানের সময় প্রেসিডেন্টের বাসভবনের বাইরে অবস্থান করছিলেন জেনারেল হুয়ান। তাঁকে ঘিরে ছিল সেনাসদস্যসহ আটটি ট্যাংক। এ সময় সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেন তিনি।

সেনাবাহিনীর এই অভিযানের পরপরই জেনারেল হুয়ানকে তাঁর পদ থেকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট লুইস আর্চি। নতুন সেনাপ্রধান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় হোসে উইলসন সানচেজকে। তিনি সেনাসদস্যদের ব্যারাকে ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এ আহ্বান জানান প্রেসিডেন্টও। এর কিছুক্ষণ পরই সেনাসদস্য ও ট্যাংকগুলোকে প্লাজা মুরিলো চত্বর থেকে সরিয়ে নিতে দেখা যায়।


আরও খবর
আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন!

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




দুর্নীতিতে অভিযুক্তদের বিদেশ যাত্রা বন্ধে নির্দেশনা পেলে ব্যবস্থা: আইজিপি

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন বলেছেন, দুর্নীতির অভিযোগ ওঠা ব্যক্তিদের বিদেশ যাত্রার নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে নির্দেশনা পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

সোমবার (২৪ জুন) সকালে রাজধানীতে এক অনুষ্ঠান শেষে তিনি এ সব কথা বলেন।

সেগুনবাগিচায় ঢাকা রেঞ্জের ১১০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে র‍্যালি শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি আরও বলেন, পুলিশ চাইলে যে কাউকে যেকোনো সময় স্টপ করতে পারে না। আইনের মধ্য দিয়ে যেতে হয়।

এ সময় তিনি আরও বলেন, ঢাকা রেঞ্জ ১১০ বছর ধরে মানুষের সেবা দিয়ে আসছে। আমি নিজেও এক সময় এই রেঞ্জের ডিআইজি ছিলাম। আমার সময় চেষ্টা করেছি ঢাকা রেঞ্জের ইতিহাসটা বের করার। এটি ছিল অনেক কঠিন একটি কাজ। বর্তমান ডিআইজি অনেক তথ্য সংগ্রহ করেছেন। বর্তমানে ৯৬টি থানা নিয়ে পরিচালিত হচ্ছে ঢাকা রেঞ্জ।


আরও খবর



লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ, স্বামী আটক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

Image

লক্ষ্মীপুরে পারিবারিক কলহের জের ধরে গৃহবধূ সালমা আক্তারকে মারধরের পর শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী কামরুল হাসান সুমনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্বামী কামরুলকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকালে সদর হাসপাতাল থেকে তাকে আটক করা হয়।

বুধবার (৩ জুলাই) দিবাগত রাত ৩ টার দিকে সালমাকে মারধর ও পরে গলা টিপে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ স্বজনদের। কামরুলের দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে পারিবারিক কলহ থেকেই ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানিয়েছে পরিবার ও স্থানীয় লোকজন।

সালমা সদর উপজেলার টুমচর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের টুমচর গ্রামের আলমগীর হোসেনের মেয়ে। কামরুল একই এলাকার মো. খোকনের ছেলে। তাদের সংসারে একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

সালমার স্বজনরা জানায়, প্রায় ৪ বছর আগে প্রেম করে কামরুল ও সালমা বিয়ে করে। তাদের বিবাহিত জীবন ভালোই চলছিল। এরমধ্যে গত ৬ মাস আগে টিকটকের মাধ্যমে পরিচিত অন্য এক মেয়েকে কামরুল বিয়ে করে। ঘটনাটি জানাজানি হলে সালমার সঙ্গে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এতে কামরুল তাকে নানানভাবে অত্যাচার করতো। বিষয়টি সালমা তার পরিবারকেও জানায়।

তার পরিবারের অভিযোগ, দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে কলহের জের ধরেই কামরুল সালমাকে মারধর করে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

টুমচর ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) মাকছুদুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমি হাসপাতাল যাই। সেখানে সালমার স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেছি। পরিবারের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত কামরুলকে আটক করে নিয়ে গেছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুদ্দিন আনোয়ার বলেন, সালমার পরিবারের অভিযোগে কামরুলকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। তদন্ত করে এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজ ট্যাগ: লক্ষ্মীপুর

আরও খবর



নামাজ পড়তে গিয়ে ঈশ্বরদীতে মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৯ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি

Image

ঈশ্বরদীতে হুসাইন মোঃ হুজ্জাতুল্লাহ্ নামের এক মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে। তিন দিন পেরিয়ে গেলেও তার কোনো সন্ধান পাননি তার পরিবার।

গত বুধবার (২৬ জুন) উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের বাড়ির পাশের একটি মসজিদে এশার নামাজ পড়তে গিয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি হুসাইন মোঃ হুজ্জাতুল্লাহ্ ওরফে উদয় (১৩) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্র।

নিখোঁজ মাদ্রাসা ছাত্র হুসাইন মোঃ হুজ্জাতুল্লাহ পাবনার বলরামপুর (মোহাম্মদপুর) তাহফিজে সিলসিলায়ে মোজাদ্দিদ জামান পীর আবু বকর সিদ্দিকী (রহ:) ফুরফুরা কুরআন সুন্নাহ্ মিশন মাদ্রাসার হিফজ বিভাগের ছাত্র ও ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের মোঃ আফজাল হোসেন ও হোসনেয়ারা পারভীন পল্লবীর ছেলে।

নিখোঁজ ছাত্রের বাবা মোঃ আফজাল হোসেন জানান, বুধবার সন্ধা ৭.৪৫ এ আমার ছেলে বাড়ির সাথে (৩০০ গজ দুরত্বে) অবস্থিত জান্নাতুল মাওয়া জামে মসজিদে এশার নামাজ পড়তে যায়। নামাজ শেষ হলেও আমার ছেলে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। সকল আত্বীয়স্বজন ও আমার ছেলের মাদ্রাসায় খোঁজ নিয়ে না পেয়ে ২৮ তারিখে ঈশ্বরদী থানায় একটি জিডি কেরেছি। জিডি নং: ১৯৫০।

নিখোঁজ ছাত্রের মা হোসনেয়ারা পারভীন পল্লবী জানান, আমার ছেলে পাবনায় একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে। হিফজ করতেছে। ঈদের ছুটিতে বাড়ি এসেছে। এখন সে নিখোঁজ রয়েছে। আমার ছেলের সন্ধান চাই।

হোসনেয়ারা খাতুন আরো জানান, আমার স্বামীর স্থায়ী ঠিকানা : বিশ্বাস পাড়া, কোলেরকান্দি, সলিমপুর ইউনিয়ন, ঈশ্বরদী, পাবনা। আমার মায়ের সুত্রধরে এখানে প্রায় ১০ বছর যাবত বাড়ি করে বসবাস করছি।

ছেলেটির সন্ধান পেলে নিম্নোক্ত নাম্বারে জানানোর অনুরোধ জানিয়েছেন নিখোঁজ ছাত্রের বাবা ০১৭৯৪৯৩২৫৪৩, ০১৭২৫০৯৬৩১২, ০১৭৯৮৪৫২৬৪৯।

ঈশ্বরদী থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম জানান, মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ সংক্রান্ত একটি জিডি হয়েছে। তদন্ত চলছে।


আরও খবর