আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

অনেক ওষুধ কেনার খরচ বাঁচাবে তেজপাতা

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৬৮৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রান্নায় অনেকেই তেজপাতা ব্যবহার করেন। বিশেষ করে ডালে তো এই পাতার একচেটিয়া রাজত্ব। কিন্তু মৃদু ঝাঁঝালো সুগন্ধের বাইরেও এই পাতার আরও অনেক গুণ রয়েছে। বিশেষ করে এই পাতা শরীরের ছোটখাটো কিছু সমস্যা সহজেই সারিয়ে দিতে পারে।

কোন কোন রোগ তেজপাতা সহজেই সারাতে পারে? দেখে নেওয়া যাক। ঘরোয়া রান্না খেয়েও লেগেই থাকে পেটের সমস্যা? অতিরিক্ত শাক-সব্জি খাচ্ছেন কি

ত্বকে নানা ধরনের ছত্রাকঘটিত সংক্রমণ হয়। বিশেষ করে দাদের সমস্যা হয় অনেকেরই। তাঁরা একটি করে তেজপাতা চার কাপ জলে ফুটিয়ে নিয়ে, সেই জলটি খেতে পারেন। দিনে চার-পাঁচ বার এই জল খেতে হয়। সপ্তাহ পাঁচেক এ ভাবে চললেই সুফল পাওয়া যায়। এমনকি ওই জল দাদের উপর লাগালেও লাভ হয়।

ফোঁড়ার সমস্যায় কষ্ট পাচ্ছেন? তেজপাতা বেটে তার উপরে প্রলেপ দিন। ব্যথা কমবে। ফোঁড়া তাড়াতাড়ি শুকিয়েও যাবে।

কাশি হলে বা জোরে কথা বললে অনেকের গলা ভেঙে যায়। তেজপাতা ফুটিয়ে নিয়ে সেই জল খেলে গলাব্যথা কমে যেতে পারে।

গায়ে দুর্গন্ধ হচ্ছে? বা ত্বক শুষ্ক হয়ে গিয়েছে? তেজপাতা বেটে নিয়ে চন্দনের প্রলেপের মতো লাগান। দুটো সমস্যাই কমবে।

শরীর শুকিয়ে গিয়েছে? প্রস্রাবের রং হলুদ? দু-তিন কাপ গরম জলে তেজপাতা দুঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। তার পরে ছেঁকে নিয়ে দু-তিন ঘণ্টা অন্তর জলটি পান করুন। সমস্যা কমবে।

প্রচণ্ড ঘামেন? তেজপাতা বাটা মেখে নিন সারা গায়ে। আধ ঘণ্টা রাখার পরে স্নান করে নিন। ঘামের সমস্যা কমবে।

নিউজ ট্যাগ: তেজপাতা

আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




গ্রুপ সিডিংয়ের নিয়ম বদলে ফেলল আইসিসি

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ১৭ অগাস্ট টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশের দিনই আইসিসি জানিয়েছিল, বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা যেকোনোভাবে প্রথম রাউন্ডে পার হতে পারলেই যথাক্রমে 'বি-১' ও 'এ-১' হিসেবে বিবেচিত হবে। অর্থাৎ গ্রুপ রানার্সআপ হলেও 'বি-১' হিসেবে সুপার টুয়েলভে 'গ্রুপ-২'তে পড়ার কথা বাংলাদেশের। কিন্তু বুধবার সংশোধনী পাঠিয়ে আইসিসি জানাল, এমনটি হচ্ছে না। টুর্নামেন্টের তিন দিন পার হওয়ার পর বদলে ফেলা হয়েছে গ্রুপ সিডিং।

সংশোধনী অনুসারে, 'বি' গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হলেই কেবল সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশের গন্তব্য 'গ্রুপ-১'। যেখানে আগে থেকেই আছে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ড। রানার্সআপ হলে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে গড়া 'গ্রুপ-২'তে যাবে মাহমুদউল্লাহর দল।

বিশ্বকাপের তিন দিনের খেলা চলে যাওয়ার পর গণমাধ্যমে পাঠানো মেইলে গ্রুপ সিডিং নিয়ে এমন সংশোধনের কথা জানায় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। প্রথম রাউন্ডে অবস্থানের ভিত্তিতেই করা হবে সিডিং।

১৭ অগাস্ট পাঠানো আইসিসির প্রথম মেইলে ছিল শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ 'এ-১' ও 'বি-১' হিসেবে বিবেচিত হবে।

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ হেরে যাওয়ায় প্রথম পর্বে 'বি' গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হওয়া বাংলাদেশের জন্য কিছুটা কঠিন। এমনকি বিষয়টা পুরোটা নিজেদের হাতেও নেই। শেষ ম্যাচে স্কটল্যান্ড যদি ওমানকে হারায় তাহলে সব ম্যাচ জেতায় তারাই হবে গ্রুপ সেরা। তবে ওমান জিতে গেলে আসবে রানরেটের হিসাবনিকাশ।

সংশোধনীতে ভিন্ন কথা তাদের

আইসিসির প্রথম ঘোষণার পর বাংলাদেশকে 'বি-১' ধরে বিশ্বকাপ কাভার করার ইচ্ছার কথা জানিয়ে ম্যাচ সিলেকশন করেছিলেন সাংবাদিকরা। তাদের ম্যাচ সিলেকশন করার ফের সুযোগ দিচ্ছে আইসিসি। তবে বাংলাদেশকে 'বি-১' ধরে বিশ্বকাপের টিকেট কাটা দর্শকদের বেলায় কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তা জানায়নি সংস্থাটি। কেন এমন বদল, আগের জানানো ঘোষণায় কি কোনো ভুল ছিল- এসব কোনো কিছুই পরিষ্কার করেনি তারা।

 

 


আরও খবর



গায়ক নোবেলকে ডিভোর্স দিলেন স্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ১৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নানা কারণে বনিবনা না হওয়ায় নোবেলকে ডিভোর্স নোটিশ পাঠিয়েছেন মেহরুবা সালসাবিল। গত ১১ সেপ্টেম্বর এ নোটিশ পাঠান সালসাবিল।

বুধবার দুপুরে গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি নিজেই।

সালসাবিল বলেন, নোবেলের সঙ্গে সংসার করা সম্ভব না। তাই তাকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছি। এখন যদি সে সিগনেচার করে দেয় তাহলে ডিভোর্স হয়ে যাবে। আর সিগনেচার না করলে তিনমাস পর অটোমেটিক ডিভোর্স কার্যকর হবে।

ডিভোর্স লেটারের কারণ সম্পর্কে সালসাবিল বলেন, নোবেল মানসিক অসুস্থ। সে মাদক এবং নারীতে আসক্ত। বিভিন্ন সময় আমাকে নির্যাতন করেছে। এসব কারণে ওর সাথে সংসার করা সম্ভব না। তাই ডিভোর্স লেটার (তালাক নোটিশ) পাঠিয়েছি।


আরও খবর



গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘ক’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গেল ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হওয়া দেশের ২০ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় বিজ্ঞান অনুষদের (ক ইউনিট) ফল প্রকাশ করা হয়েছে।

আজ বুধবার (২০ অক্টোবর) বিকেল ৫টার পর গুচ্ছ ভর্তির ওয়েবসাইটে এই ফল প্রকাশ করা হয়।

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উপাচার্যদের নিয়ে গঠিত কোর কমিটির আহ্বায়ক এবং শাহাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, এখানে কোনো পাস ফেল নেই। কাউকে কোনো প্লেস দেওয়া হয়নি, শুধু নম্বর দিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত 'ক' ইউনিটের ও এমআর শিট দেখার কাজ শেষ করে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। বুধবার সকালে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের নিয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকের মাধ্যমে ফলাফলের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ওয়েবসাইটে ফলাফল আপলোড হতে সময় লাগাতে বিকেল ৫টায় ফলাফল শিক্ষার্থীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে।

ওএমআর শিট বাতিলের বিষয়ে অধ্যাপক ড. মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, মাত্র ২৪ জন শিক্ষার্থীর ওএমআর বাতিল হয়েছে। এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। কেবল যাদের সমস্যা কোনোভাবেই সমাধান করা যায়নি কেবল তাদের ওএমআর বাতিল বলে গণ্য হয়েছে।

মোট ১ লাখ ৩১ হাজার ৯০৫ জন শিক্ষার্থী বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তির জন্য আবেদন করেছিলেন। গত রবিবার সারা দেশের ২৭টি কেন্দ্রে তাদের পরীক্ষা হয়। আবেদনকারীদের আনুমানিক ৯০ শতাংশ সেদিন পরীক্ষায় উপস্থিত ছিলেন বলে পরীক্ষা কমিটি জানিয়েছিল।


আরও খবর



ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় মডেল পিয়াসা রিমান্ডে

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ অক্টোবর ২০২১ | ৫৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গুলশান দুই নম্বর এভিনিউয়ের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর প্লটের একটি ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন মুনিয়া। চলতি বছরের মার্চ মাসে এক লাখ টাকা মাসিক ভাড়ায় তিনি ওই ফ্ল্যাটে ওঠেন

রাজধানীর গুলশানে বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে কলেজ ছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার লাশ উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের হওয়া ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার (৩ অক্টোবর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসীর আদালতে রিমান্ডের আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখা থেকে তথ্য জানা গেছে।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক গোলাম মুক্তার আশরাফ উদ্দিন আসামিকে আদালতে হাজির করে এই মামলার গ্রেফতারসহ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত গ্রেফতারের আবেদনসহ আসামির দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গুলশান দুই নম্বর এভিনিউয়ের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর প্লটের একটি ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন মুনিয়া। চলতি বছরের মার্চ মাসে এক লাখ টাকা মাসিক ভাড়ায় তিনি ওই ফ্ল্যাটে ওঠেন। সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় ওই বাসা থেকে মুনিয়ার সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়।

মুনিয়া মিরপুরের ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থী ছিল। তার বাবার নাম মৃত শফিকুর রহমান। গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা সদরের দক্ষিণপাড়া উজির দিঘি এলাকায়।


আরও খবর



গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২০৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে আরও ২০৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

বুধবার (৬ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন ২০৩ জন। এর মধ্যে ঢাকাতে ১৭০ জন এবং ঢাকার বাইরের সারাদেশে ভর্তি হয়েছেন ৩৩ জন।

এতে আরও বলা হয়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ৮৬৩ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ৭২০ জন এবং অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে সর্বমোট ১৪৩ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

এ বছর ১ জানুয়ারি থেকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ১৯ হাজার ৩৩৬ জন। একই সময়ে তাদের মধ্যে থেকে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৮ হাজার ৪০০ জন রোগী। এ পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে ৭৩ জনের মৃত্যুর হয়েছে।


আরও খবর
২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত‌্যু

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

ডেঙ্গু: আরও ১২৩ জন হাসপাতালে

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১