আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

অর্থ আত্মসাৎ-পাচার : ডেসটিনির এক মামলার রায় আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডেসটিনি গ্রুপের চেয়ারম্যান হারুন-অর-রশিদ ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমীনসহ ৪৬ জনের বিরুদ্ধে করা অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের মামলার রায় বৃহস্পতিবার (১২ মে) ঘোষণা করা হবে। বেলা ১১টার দিকে ঢাকার চতুর্থ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ নাজমুল আলম এ রায় ঘোষণা করবেন। রায়ে সব আসামিকে সর্বোচ্চ শাস্তি ১২ বছরের কারাদণ্ড আশা করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অন্যদিকে আসামিপক্ষ বলছে, দুদক অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়নি। তাই আসামিরা রায়ে খালাস পাবেন।

দুদকের আইনজীবী মীর আহম্মেদ সালাম জাগো নিউজকে বলেন, ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ ও পাচারের মামলায় গ্রুপের চেয়ারম্যান সাবেক সেনাপ্রধান হারুন-অর-রশিদ এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনসহ ৪৬ জনের বিরুদ্ধে করা মামলার রায় বৃহস্পতিবার হবে। আসামিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য প্রমাণে আমরা অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। যে ধারায় আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে তার সর্বোচ্চ শাস্তি ১২ বছরের কারাদণ্ড। রায়ে আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি প্রত্যাশা করছি।

এর আগে রোববার (২৭ মার্চ) ঢাকার চতুর্থ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক শেখ নাজমুল আলম রাষ্ট্র ও আসামি পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে রায় ঘোষণার জন্য ১২ মে দিন ধার্য করেছিলেন।

মামলায় ডেসটিনির এমডি রফিকুল আমীনসহ আসামি ৪৬ জন। তাদের মধ্যে জামিনে রয়েছেন লে. কর্নেল (অব.) মো. দিদারুল আলম, লে. জেনারেল (অব.) হারুন-অর-রশিদ, মিসেস জেসমিন আক্তার (মিলন), জিয়াউল হক মোল্লা ও সাইফুল ইসলাম রুবেল। কারাগারে আছেন এমডি রফিকুল আমীন ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন। অন্য ৩৯ আসামি পলাতক।

পলাতক আসামিরা হলেন- ডেসটিনির উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোফরানুল হক, পরিচালক মেজবাহ উদ্দিন, ফারাহ দীবা, সাঈদ-উর-রহমান, সৈয়দ সাজ্জাদ হোসেন, জমশেদ আরা চৌধুরী, ইরফান আহমেদ, শেখ তৈয়বুর রহমান, নেপাল চন্দ্র বিশ্বাস, জাকির হোসেন, জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া, এসএম আহসানুল কবির, জুবায়ের হোসেন, মোসাদ্দেক আলী খান, আবদুল মান্নান, আবুল কালাম আজাদ, আজাদ রহমান, মো. আকবর হোসেন সুমন, মো. সুমন আলী খান, শিরীন আকতার, রফিকুল ইসলাম সরকার, মো. মজিবুর রহমান, ড. এম হায়দারুজ্জামান, মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, কাজী মো. ফজলুল করিম, মোল্লা আল আমীন, মো. শফিউল ইসলাম, ওমর ফারুক, সিকদার কবিরুল ইসলাম, মো. ফিরোজ আলম, সুনীল বরণ কর্মকার ওরফে এসবি কর্মকার, ফরিদ আকতার, এস সহিদুজ্জামান চয়ন, আবদুর রহমান তপন, মেজর (অব.) সাকিবুজ্জামান খান, এসএম আহসানুল কবির (বিপ্লব), এএইচএম আতাউর রহমান রেজা, গোলাম কিবরিয়া মিল্টন, মো. আতিকুর রহমান, খন্দকার বেনজীর আহমেদ, একেএম সফিউল্লাহ, শাহ আলম, মো. দেলোয়ার হোসেন ও মো. শফিকুল হক।

দুদকের উপ-পরিচালক মো. মোজাহার আলী সরদার ও সহকারী পরিচালক মো. তৌফিকুল ইসলাম ২০১২ সালের ৩১ জুলাই রাজধানীর কলাবাগান থানায় মানি লন্ডারিং আইনে মামলা দুটি করেছিলেন।

এরপর ২০১৪ সালের ৪ মে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন মোজাহার আলী সরদার। এতে ডেসটিনির গ্রাহকদের চার হাজার ১১৯ কোটি ২৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ করে পাচারের অভিযোগ আনা হয়।

এর মধ্যে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটির মামলায় ৪৬ জন এবং ডেসটিনি ট্রি প্লানটেশন লিমিটেডে দুর্নীতির মামলায় ১৯ জনকে আসামি করা হয়। দুই মামলায়ই আসামি হারুন-অর-রশিদ ও রফিকুল আমিন।

মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়, ২০০৮ সাল থেকে মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ প্রোজেক্টের নামে ডেসটিনি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করেছিল ১ হাজার ৯০১ কোটি টাকা। সেখান থেকে ১ হাজার ৮৬১ কোটি টাকা আত্মসাৎ করা হয় বলে দুদকের অনুসন্ধানে ধরা পড়ে। ওই অর্থ আত্মসাতের ফলে সাড়ে ৮ লাখ বিনিয়োগকারী ক্ষতির মুখে পড়েন।

ডেসটিনি ট্রি প্লান্টেশন প্রোজেক্টের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ২ হাজার ৪৪৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ২ হাজার ২৫৭ কোটি ৭৮ লাখ ৭৭ হাজার টাকা করা হয় আত্মসাৎ। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হন সাড়ে ১৭ লাখ বিনিয়োগকারী।

অভিযোগপত্রে আরও বলা হয়, ডেসটিনি গ্রুপের নামে ২৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বেশ কয়েকটি ছিল নাম সর্বস্ব। আসামিরা প্রথমে প্রোজেক্টের টাকা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হিসাবে জমা করতেন। তারপর বিভিন্ন ব্যাংকের হিসাবে তা স্থানান্তর করা হতো। দুদক ৩৪টি ব্যাংকে এমন ৭২২টি হিসাবের সন্ধান পায়, যেগুলো পরে জব্দ করা হয়।


আরও খবর



তামিলনাড়ুতে রথযাত্রায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ১১

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের একটি মন্দিরে রথযাত্রার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কমপক্ষে ১১ জন নিহত এবং ১৫ জন আহত হয়েছেন। বুধবার (২৭ এপ্রিল) ভোরে তামিলনাড়ুর থাঞ্জাভুর জেলায় কালিমিডুতে আপার ম্যাডাম মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, মন্দিরের রথযাত্রার গাড়ির ওপর দাঁড়িয়ে থাকা লোকেরা একটি উচ্চ-বিভবের বিদ্যুৎ লাইনের সংস্পর্শে আসেন। কর্মকর্তারা জানান, রথযাত্রার গাড়িটি বাঁক নেওয়ার সময় কিছুটা বাধাপ্রাপ্ত হয়ে ওপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুৎলাইনের সংস্পর্শে চলে আসে।

তারা আরও জানান, নিহতদের মধ্যে দুইজন শিশু। আহতদের চিকিৎসার জন্য নিকটস্থ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিরুচিরাপল্লীর সেন্ট্রাল জোনের পুলিশের মহাপরিদর্শক ভি বালাকৃষ্ণান বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তদন্ত চলছে।

পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলেন, সাধারণত অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে রথযাত্রার গাড়ির রুটের বিদ্যুতের লাইন বন্ধ থাকে। তবে গাড়িটি বিদ্যুৎলাইন স্পর্শ করার জন্য যথেষ্ট লম্বা ছিল না এবং ওই সময় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করা হয়নি। কিন্তু মনে হয় সাজসজ্জার কাঠামো গাড়ির উচ্চতা বাড়িয়েছে এবং এটি বিদ্যুৎবাহী তারের সংস্পর্শে এসেছে।

ঘটনার একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, তারের সংস্পর্শে আসার পর রথটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। এ ঘটনায় তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন এবং বলেছেন তিনি গভীরভাবে শোকাহত।

স্ট্যালিন এ ঘটনায় নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা করেছেন। এছাড়া আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষকে নির্দেশও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।


আরও খবর



করোনা আক্রান্ত কমলা হ্যারিস

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হলেন আমেরিকার ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। মঙ্গলবার রাতে হোয়াইট হাউসের তরফে জারি করা প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কমলার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে।

কমলার প্রেস সচিব কার্স্টেন অ্যালেন এক বিবৃতিতে জানান, আমাদের ভাইস প্রেসিডেন্ট এখন বিচ্ছিন্নবাসে থাকবেন এবং নিজের বাসভবনের দফতর থেকেই দায়িত্ব পালন করে যাবেন। কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এলেও ভাইস প্রেসিডেন্টের শরীরে কোনও উপসর্গ নেই বলে তাঁর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে।

মার্চের গোড়ায় কমলার স্বামী ডগলাস এমহফ কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। সে সময় কয়েক সপ্তাহ নিভৃতবাসে ছিলেন আমেরিকার প্রথম মহিলা তথা ভারতীয় বংশোদ্ভূত ভাইস প্রেসিডেন্ট। হোয়াইট হাউসে ইক্যুয়াল পে ডে অনুষ্ঠানেও অংশ নেননি তিনি। যদিও সে সময় কমলার কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল বলে হোয়াইট হাউসের তরফে জানানো হয়।


আরও খবর



বাঁধ উপচে ঢুকছে পানি, ঝুঁকিতে হাওরের ধান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উজানে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় সুনামগঞ্জের হাওরের নদ-নদীর পানি বেড়ে কৃষকের ফসল তলিয়ে যাচ্ছে। রোববার (১৭ এপ্রিল) সকাল থেকেই পাহাড়ি ঢলে তাহিরপুর উপজেলার পাটলাই নদীর পানি বাড়া অব্যাহত রয়েছে। ফলে তাহিরপুরের গুরমার হাওরের স্থায়ী বাঁধ উপচে পানি ঢুকছে। বিকেল পর্যন্ত পানি বাড়ার কারণে এখন ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে সুনামগঞ্জের বৃহত্তম শনির হাওর ও মাটিয়ান হাওরের ধান।   

জানা যায়, রোববার সকাল ৯টার দিকে উজানের পানি বাড়তে থাকায় টাঙ্গুয়ার হাওরের ওয়াচ টাওয়ার সংলগ্ন বর্ধিত গুরমার ২৭ নম্বর প্রকল্পের মাটি দেবে যায় ও স্থায়ী বাঁধ (আপর) উপচে পানি ঢুকতে শুরু করে। যার কারণে গুরমা হাওর অংশের খাউজ্যাউরি, নোয়াল, আইন্যা, কলমা, গলগলিয়া ও ধর্মপাশা উপজেলার বংশীকুণ্ডা এলাকার হাওরগুলোর ফসলেও প্রবেশ করেছে পানি।

গুরমার হাওরের  স্থানীয় কৃষক মতিন বলেন, এটা নতুন কোনো বাঁধ নয়, এটা হাওরের পাড়ে পুরোনো স্থায়ী বাঁধ। ভারী বৃষ্টিপাত ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানি বেড়ে যাওয়ায় হাওরে ব্যাপক পানির চাপ সৃষ্টি হয়। আজ সকাল থেকে বাঁধ উপচে হাওরে পানি ঢুকতে শুরু করে।

সমাজকর্মী আহমদ কবীর বলেন, গুরমার হাওরে বাঁধ উপচে পানি ঢুকছে। আমরা সকাল থেকে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ও স্থানীয় কৃষকদের সঙ্গে নিয়ে বাঁশের চাটাই, বস্তা দিয়ে পানি আটকানোর চেষ্টায় কাজ করছি। গত ১০ দিন ধরে ইউএনও স্যারসহ আমরা বাঁধে দিনরাত পার করছি।

তাহিরপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান জুনাব আলী জানান, আমি বর্তমানে শনির হাওরে অবস্থান করছি পানির চাপে বাঁধগুলো দুর্বল হচ্ছে। এ হাওরের কুমাইরা খাল স্থায়ী বাঁধ (আপর) এর নিচ দিয়ে পানি ঢুকছে এছাড়াও ভগিয়ানীর পশ্চিমের বাঁধের অবস্থাও ভালো না।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রায়হান কবীর জানান, পাটলাই নদীর পানি ক্রমাগত বাড়তে থাকায় অবস্থা এখন খারাপের দিকে যাচ্ছে। ওয়াচ টাওয়ার সংলগ্ন বাঁধে মাটি ও বাঁশের চাটাই দিয়ে পানি আটকানোর চেষ্টা চলছে।

নিউজ ট্যাগ: সুনামগঞ্জ

আরও খবর



গোপালগঞ্জে সড়কে ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ৮

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে বাস-প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের ত্রিমুখী সংঘর্ষে আটজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো অন্তত ২০ জন।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে কাশিয়ানী উপজেলার মিল্টন বাজার এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভাটিয়াপাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আবু নাঈম মোহাম্মদ মুফাজ্জেল হক।

তিনি জানান, রাজিব পরিবহন নামে একটি বাস মাওয়া থেকে খুলনার দিকে যাচ্ছিল। এ সময় কাশিয়ানী উপজেলার মিল্টন বাজার এলাকায় খুলনা থেকে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকার ও মোটরসাইকেলের সাথে বাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে তিনটি বাহনই দুমড়ে-মুচড়ে ঘটনাস্থলেই সাতজন নিহত হন।

এরপর হাসপাতালে নেয়ার পর সেখানে একজন মারা যান বলে জানান কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদি হাসান।

মুফাজ্জেল হক আরো জানান, দুর্ঘটনাস্থলে সড়কের পাশেই ধান মাড়াই করছিল স্থানীয়রা। নিহতদের মধ্যে তাদেরও দু-একজন থাকতে পারে। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার শুরু করে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। এছাড়া নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানান এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



শ্রীলঙ্কায় এমপিদের পালানো ঠেকাতে বিমানবন্দর অবরোধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীলঙ্কায় চলমান বিক্ষোভ-সহিংসতার মধ্যে সংসদ সদস্যরা যেন দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন, সেজন্য দেশটির প্রধান বিমানবন্দর অবরোধ করেছেন সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা।

মঙ্গলবার (১০ মে) লঙ্কান সংবাদমাধ্যম ডেইলি মিরর এ তথ্য জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, কাতুনায়েকে অবস্থিত শ্রীলঙ্কার প্রধান বিমানবন্দর অবরোধ করেছে একদল তরুণ। বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের প্রবেশদ্বারে গাড়ি রেখে অবস্থান নিয়েছে তারা। চলমান বিক্ষোভের মধ্যে এমপিদের দেশত্যাগ ঠেকাতে এ ব্যবস্থা নিয়েছে বিক্ষোভকারীরা।

এর আগে, সোমবার বিক্ষোভে অগ্নিগর্ভ শ্রীলঙ্কায় এক এমপির অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরেকজন। এদিন শ্রীলঙ্কায় অন্তত অর্ধশতাধিক রাজনীতিবিদের বাড়িতে আগুন দিয়েছে বিক্ষোভকারীরা।

শ্রীলঙ্কার পুলিশ জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীরা কলম্বো উপকণ্ঠে সরকার দলীয় এমপি অমরাকীর্তি আথুকোরালার গাড়িতে হামলা চালালে তিনি দুজনকে গুলি করেন। এতে একজন মারা যান। এরপর সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা তাকে ঘিরে ধরেন। পরে নিজের পিস্তল দিয়ে আত্মহত্যা করেন ওই সংসদ সদস্য।

এছাড়া, সোমবার রাতে হোমগমার মহাকুম্বুরা এলাকায় সংসদ সদস্য কুমারা ওয়েল্গামার গাড়িতে হামলা চালিয়েছে একদল লোক। এতে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ওই এমপি।

শ্রীলঙ্কায় দেশব্যাপী কারফিউ সত্ত্বেও ব্যাপক বিক্ষোভ-সহিংসতায় সোমবার থেকে এ পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত সাতজন, আহত হয়েছেন দেড়শর বেশি মানুষ।

নিউজ ট্যাগ: শ্রীলঙ্কা

আরও খবর