আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

অস্ট্রেলিয়াকে ১২১ রানে গুটিয়ে দিল টাইগাররা

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১ | ৮৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
৩১ রানে দুই ওপেনারের বিদায়ের পর তৃতীয় উইকেটে মিসেল মার্শের সঙ্গে ৫২ বলে ৫৭ রানের জুটি গড়েন হেনরিক্স। অনবদ্য ব্যাটিং করে যাওয়া এই জুটির বিচ্ছেদ ঘটান সাকিব

অস্ট্রেলিয়াকে ১২১ রানে গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় খেলায় জয় পেতে হলে টাইগারদের ১২২ রান করতে হবে।

মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২১ রান করে সফরকারীরা।

এদিন ২.৩ ওভারে দলীয় ১৩ রানে অফ স্পিনার মেহেদি হাসানের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার অ্যালেক্স ক্যারি। সাজঘরে ফেরার আগে ১১ বলে ১১ রান করার সুযোগ পান তিনি। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ইনিংসের প্রথম বলে এই ক্যারিকেই সাজঘরে ফেরান মেহেদি।

শুরুর এই ধাক্কা সামলিয়ে ওঠার আগেই অস্ট্রেলিয়া শিবিরে দ্বিতীয় আঘাত হানেন কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। ফিজের গতির বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার জশ পিলিপি। দলীয় ৩১ রানে সাজঘরে ফেরার আগে ১৪ বলে ১০ রান করার সুযোগ পান এ ওপেনার। 

৩১ রানে দুই ওপেনারের বিদায়ের পর তৃতীয় উইকেটে মিসেল মার্শের সঙ্গে ৫২ বলে ৫৭ রানের জুটি গড়েন হেনরিক্স। অনবদ্য ব্যাটিং করে যাওয়া এই জুটির বিচ্ছেদ ঘটান সাকিব। ১৪.২ ওভারে দলীয় ৮৮ রানে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে সাজঘরে ফেরার আগে ২৫ বলে তিন চার ও এক ছক্কায় ৩০ রান করেন ময়েস হেনরিক্স।

প্রথম ম্যাচের মতো দ্বিতীয় খেলায়ও ব্যাটিং বিপর্যয়ে লড়াই করে যান মিসেল মার্শ। প্রথম ম্যাচে নাসুম আহমেদের শিকার হওয়ার আগে ৪৫ রান করা এ তারকা ব্যাটসম্যানকে এদিনও সেই ৪৫ রানে ফেরান শরিফুল ইসলাম। 

এরপর কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের গতির শিকার জয়ে পরপর দুই বলে সাজঘরে ফেরেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড ও অ্যাস্টন অ্যাগার।

এরপর ৩ রানের ব্যবধানে ৩ রান করে শরিফুলের দ্বিতীয় শিকার হন অ্যাস্ট টার্নার। ব্যাটসম্যানদের এই আসা-যাওয়ার মিছিলে ২০ ওভারে ১২১ রানে ইনিংস গুটায় অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশ দলের হয়ে মোস্তাফিজ নেন ৩ উইকেট, দুই উইকেট শিকার করেন তরুণ পেসার শরিফুল। একটি করে উইকেট নেন সাকিব আল হাসান ও মেহেদি হাসান।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




সফল তরুণ রাজনীতিকরাই বদলে দিক অচলায়তন

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আতাতুর্ক পাশা:

রাজনীতির সামনে এখন গুণগত পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ। আর এই পরিবর্তনের জন্য সবার আগে এগিয়ে আসতে হবে তরুণদেরই। ভোটের সময় যদিও অনেক বাকি। তবুও বেশ আগেভাগেই গণমানুষের মাঝে দেখা যাচ্ছে তরুণ, উদীয়মান, সম্ভাবনাময়, প্রতিশ্রুতিশীল অনেককেই।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান ও দৈনিক বাংলাদেশ সময়-এর সম্পাদক ড. মিঠুন মোস্তাফিজ। তিনি দ্বিতীয় দফায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কৃষি ও সমবায়-বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা উপ-কমিটি (সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া)-এর সদস্য ছিলেন তিনি।

নিজ সংসদীয় এলাকা-৬৪, সিরাজগঞ্জ-৩ (তাড়াশ-রায়গঞ্জ-সলঙ্গা) গণমানুষের সাথেই এখন সময় পার করছেন তিনি। আওয়ামী লীগের তরুণ নেতৃত্বের পছন্দের তালিকায় রয়েছেন এই সাংবাদিক, শিক্ষক ও গবেষক; যার আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও রয়েছে মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান। ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম ফর সোস্যাল ডেভেলপমেন্ট-আইসিএসডি-এর নির্বাচিত ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসেবে এই বৈশ্বিক ফোরামে তিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন যা বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত গর্বের, সম্মানের।

বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার আগে তিনি বৈশাখী টেলিভিশনের নিউজ কনসালট্যান্ট, একই প্রতিষ্ঠানের অ্যাসাইনমেন্ট এডিটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ছিলেন বিদেশি টেলিভিশনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি। অলাভজনক ও স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান হিন্দু-মুসলিম মৈত্রী বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের ভাইস-প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

দেশের টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে প্রতিভাবান ও উচ্চশিক্ষিত তারকা ব্রডকাস্ট সাংবাদিক হিসেবে তিনি সুনাম কুড়িয়েছেন। শিক্ষক হিসেবেও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিজের অবস্থান তৈরি করেছেন এরই মধ্যে। বহুমুখী গুণসম্পন্ন, তরুণ এই সাংবাদিক নতুন প্রজন্মের টেলিভিশন সাংবাদিকদের কাছে একটি অনুকরণীয় নাম। স্বীয় যোগ্যতায় দেশের সীমানা ছাড়িয়ে তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও গণমাধ্যম পেশাদার হিসেবে মর্যাদা ও সম্মান অর্জন করেছেন। ইলেকট্র্রনিক মিডিয়ায় দ্যুতি ছড়িয়েছেন প্রায় দেড় যুগ।

তিনি একাধারে ছিলেন টেলিভিশনের প্রধান প্রতিবেদক, অনুষ্ঠান উপস্থাপক, টিভি অনুষ্ঠান ও প্রামাণ্যচিত্র নির্মাতা ও প্রযোজক। দেশের বেসরকারি টেলিভিশনের ইতিহাসে তিনিই প্রথম বাংলার পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায়ও সরেজমিন রিপোর্টিং করেছেন এক দশককাল এবং এ উদ্যোগের অগ্রণী হিসেবে আসীন হয়েছেন। তাঁর পরে দেশে এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় কেউ এমন দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে দেখিনি আমরা। ইংরেজি অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ঈর্ষণীয় খ্যাতি তাঁর ঝুড়িতেই। নির্মাণ ও উপস্থাপনা করেছেন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অবদান রাখা মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননামুক্তিযুদ্ধ মৈত্রী সম্মাননা প্রাপ্ত বিদেশি বন্ধুদের নিয়ে বৈশাখী টেলিভিশনে প্রচারিত বিশেষ অনুষ্ঠান যুদ্ধ দিনের বন্ধুরা। যা বিদেশিদের বর্ণনায় এখন পর্যন্ত একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম দৃষ্টান্তমূলক ভিজ্যুয়াল দলিল ও সাক্ষী। তার এই কর্মের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ ও দেশপ্রেমের এক অনন্য ধারা খুঁজে পায় তরুণ প্রজন্ম।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বাংলাদেশ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে নিয়মিত অতিথি প্রতিবেদক ও আলোচক হিসেবে সুনাম কুড়ানো মিঠুন মোস্তাফিজ পেয়েছেন আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও ধর্মীয় উগ্রপন্থার মতো বৈশ্বিক নানা চ্যালেঞ্জিং ইস্যুতে বাংলাদেশসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অনবদ্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের সিটি অব প্যাটারসন কর্তৃপক্ষ ২০১৬ সালের অক্টোবরে তাকে বিশেষ নাগরিক সম্মাননা জানায়।

সিটি অব প্যাটারসন কর্তৃক মিঠুন মোস্তাফিজকে প্রদত্ত মানপত্রে বলা হয়, সন্ত্রাস, ধর্মীয় উগ্রপন্থা ও আন্তর্জাতিক জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন তৈরি এবং নিজ দেশের সীমানা পেড়িয়ে বৈশ্বিক ইস্যুতে নানা চ্যালেঞ্জ মাথায় নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে শক্তিশালী ও দৃঢ় মতামত প্রদান, আইনের শাসন ও মানবাধিকার সুরক্ষা এবং গণমাধ্যমের সহায়তায় আক্রান্ত মানুষের অধিকারের পক্ষে তিনি নিবেদিত রয়েছেন। তাঁকে সম্মাননা জানাতে পেরে গর্বিত সিটি অব প্যাটারসন আশা করে সাধারণ মানুষের পক্ষে তাঁর এই বলিষ্ঠ ভমিকা আগামী দিনগুলোতেও অব্যাহত থাকবে।

এদিকে, ২০১৬ সালের ২৪ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের দ্য পেড্রো রড্রিগুয়েজ ফাউন্ডেশন ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে মিঠুন মোস্তাফিজকে সম্মাননা জানানো হয়। ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান মি. পেড্রো রড্রিগুয়েজ আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁকে সম্মাননা জানান।

ব্রডকাস্ট জার্নালিজমে বহুমুখী ভমিকা-বিশেষ করে দীর্ঘদিন ধরে একইসঙ্গে দায়িত্বশীল টিভি রিপোর্টিং ও সংবাদ উপস্থাপনা, ক্রিয়েটিভ ডিরেকশন, অনুষ্ঠান নির্মাণ, বাংলা ভাষার মূল স্রোতের টেলিভিশনের পাশাপাশি ইংরেজি ভাষায় রিপোর্টিং, ইংরেজি সংবাদ ও অনুষ্ঠান উপস্থাপনা তদুপরি আন্তর্জাতিক টেলিভিশনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে সৃষ্টিশীল ভমিকার জন্য গণমাধ্যমে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ আলফা তারকা পুরস্কার ২০১৭ অর্জন করেন তিনি।

রাজনৈতিক প্রতিবেদনের পাশাপাশি, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নির্বাচন, পররাষ্ট্র ও কটনীতি, সুবিধাবঞ্চিত নারী ও শিশু অধিকার, আদিবাসী ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর অধিকার, অর্থনীতি, শিক্ষা,  পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন ও বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ উন্নয়ন সাংবাদিকতায় মিঠুন মোস্তাফিজ নিরন্তর দায়িত্বশীল বহুমুখী প্রতিভার স্বাক্ষর প্রমাণিত। আইলা, সিডর, মহাসেন, নার্গিস-এর মতো জাতীয় বিভিন্ন দুর্যোগে তার সাংবাদিকতা মানবিকতাকে স্পর্শ করেছে এক সময়। সুন্দরবনের শ্যালা দুর্ঘটনায় তার রিপোর্টিংয়ে পরিবেশ সুরক্ষার প্রতি সাংবাদিকতার দায়িত্ববোধের প্রকাশ ঘটেছে।

এক সময়ের মঙ্গাকবলিত উত্তরের কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাটের বেকারত্ব, খাদ্যাভাব ও কর্মস্থানের অভাবের ওপর তার নির্মিত টেলিভিশন প্রতিবেদন এসব এলাকায় সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগ গ্রহণে পথ দেখিয়েছে। দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিম বাংলাদেশে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে গণহত্যা, গণকবর ও রাজাকারদের ওপর তার গবেষণা ও অনুসন্ধানধর্মী প্রতিবেদন এখনো মানবতাবিরোধীদের ভীত-সন্ত্রস্ত করে। বিশ্বের সংসদীয় গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম-১৭৩টি দেশের সংগঠন ইন্টারপার্লামেন্টারি ইউনিয়ন-আইপিইউ-এর ১৩৬তম ঢাকা সম্মেলন ২০১৭-এর বহুমাত্রিক কাভারেজের জন্য তিনি বহুল প্রশংসিত। নবম ও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন, দেশের সবগুলো সিটি করপোরেশনের নির্বাচন, উপজেলা নির্বাচন কাভার করেছেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের নির্বাচন কাভারেজ এবং ইউরোপজুড়ে অর্থনৈতিক মন্দা, পর্যটন ও সংস্কৃতি, ইউরোপে বাংলাদেশি কমিউনিটির অর্থনৈতিক অবদান, শিক্ষা, পর্যটন ও সংস্কৃতি নিয়ে সংবাদ কাভারেজের অভিজ্ঞতা রয়েছে এই সাংবাদিকের। ব্রিটেনের রাজনীতি ও কমিউনিটি পলিটিক্সের উপরও বিশ্লেষণধর্মী সংবাদ কাভারেজের অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সার্ক শীর্ষ সম্মেলন, ব্রিকস-বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলন, আইপিইউ সম্মেলন, দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন ইস্যুতে দক্ষতার সাথে রিপোর্টিং করেছেন। মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার এবং সে দেশে অর্থপাচার ও বাংলাদেশিদের সেকেন্ড হোম নিয়ে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করেছেন তিনি। তিনিই প্রথম ভুটান থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানির সম্ভাব্যতা নিয়ে টেলিভিশন প্রতিবেদন করেন। পেশাগত কাজে ভ্রমণ করেছেন পৃথিবীর বহু ডজন দেশ। তিনি ২০০৬-এর শেষ দিক থেকে একুশে টেলিভিশনে যুক্ত হবার পর রাজনৈতিক সংবাদ কাভার করতেন। পাশপাশি টেলিভিশনে প্রাইমটাইম সংবাদ উপস্থাপনা করতেন। ২০০২ সাল থেকে সংবাদ পাঠ শুরু তাঁর।

রাজনৈতিক বিষয়ের খবর সংগ্রহে পরিপক্ব হয়ে ওঠার সাথে সাথে পর্যায়ক্রমে একুশে টেলিভিশনের জনপ্রিয় টকশো একুশে সময়ে প্রতিবেদক হিসেবে অংশ নেন গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক আলোচনায়। এরপর টেলিভিশনটিতে এই সপ্তাহের বিশ্ব, সপ্তাহজুড়ে, আজকের পত্রিকা অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করতেন তিনি।

তাঁর পরিচালনা, প্রযোজনা ও উপস্থাপনায় শুরু হয় বেসরকারি টেলিভিশনের ইতিহাসে সাধারণ মানুষের অংশগ্রহণে ইস্যুভিত্তিক মতামতধর্মী অনুষ্ঠান জনতার কথা। এরপর যখন বৈশাখী টেলিভিশনের সাথে যুক্ত হন ২০১০ সালে, তখন থেকে সাংবাদিকদের নিয়ে নির্মিত ও প্রচারিত জনপ্রিয় সরাসরি অনুষ্ঠান রিপোর্টার্স ডায়েরি উপস্থাপনা করেন তিনি। উপস্থাপনা করেন বিজনেস বাংলাদেশসহ বিভিন্ন সময়ের বিষয়ভিত্তিক টেলিভিশন অনুষ্ঠান। এর ফাঁকে বাংলাদেশ টেলিভিশনেও বেশকিছু অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করা হয়েছে তাঁর। তাছাড়া ২০১১ থেকে ২০১৫ সাল নাগাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিভিন্ন অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন বাংলা ও ইংরেজিতে। তিনি পোপ ষোড়শ বেনেডিক্টের বিশেষ দূত ভ্যাটিক্যানের জ্যাঁ লুই তুরনের সাক্ষাৎকার-ভিত্তিক অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করেন। পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেন আমেরিকার জনপ্রিয় সুপার মডেল ক্রিস্টি টার্লিংটনের সাক্ষাৎকার -ভিত্তিক অনুষ্ঠান- ক্রিস্টি টার্লিংটন স্পেশাল

পত্রিকায় কলাম লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন একাডেমিক জার্নালেও মিঠুন মোস্তাফিজের একাধিক গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া গবেষণা, গণমাধ্যমও সাংবাদিকতা, গণতন্ত্র ও সুশাসন এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা নিয়ে তার অধ্যবসায় চলমান রয়েছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় হতে সমাজকর্ম বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর শেষ করার পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পিজিডিডিএম সম্পন্ন করেন তিনি। পরে ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় হতে এমফিল এবং পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন ২০১৮ সালে।

রাজনৈতিক নেতৃত্বে মিঠুন মোস্তাফিজের মতো এমন তরুণদের সম্পৃক্ততা জরুরি এবং আশা জাগানিয়া। তার মতো তরুণরাই পারে ডিজিটাল বাংলাদেশে জাতির পিতার স্বপ্ন পূরণে নেতৃত্ব দিতে। উচ্চশিক্ষিত, তরুণ নেতৃত্বকে খুঁজে নেয়া হলে রাজনীতির ধারা বদলাতে বাধ্য। তবে, আমি মনে করি তরুণদের প্রতি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, বিশেষ করে দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে অঙ্গীকার তার বাস্তবায়ন ঘটাতেই আমাদের মতো গ্রামীণ জনপদে এমন প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ নেতৃত্বের ভীষণ প্রয়োজন।



আরও খবর
শেখ ফজিলাতুন নেছা, আমার মা

রবিবার ০৮ আগস্ট ২০২১




রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৫৩

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ৫৩ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।  বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম জানান, অভিযানে আটক ব্যক্তিদের কাছ থেকে নয় হাজার ৮০৭ পিস ইয়াবা, ১৪১ গ্রাম ৩৬ পুরিয়া হেরোইন, তিন কেজি ৫৭০ গ্রাম গাঁজা, নেশাজাতীয় ১৫ অ্যাম্পুল ইনজেকশন ও ৪৫ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়।

তাদের বিরুদ্ধে ডিএমপির থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪৩ টি মামলা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর
ই-অরেঞ্জ গ্রাহকদের পুলিশের লাঠিপেটা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




তৃতীয় বিয়ে থেকে মুক্তি চান শ্রাবন্তী

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রায় এক বছর ধরে স্বামী রোশন সিংয়ের সঙ্গে এক ছাদের তলায় থাকছেন না টালিউড অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। 

ফের সংসার জুড়তে আদালতের দারস্থ হয়েছিলেন শ্রাবন্তীর তৃতীয় স্বামী রোশন সিং। এবার আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন শ্রাবন্তী নিজেও। তবে সংসার জুড়তে নয়, ভেঙে বিচ্ছিন্ন করে দিতে।

কাগজ-কলমে তিন নম্বর বিয়ের পাট চুকিয়ে ফেলতে চান অভিনেত্রী।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবর, কলকাতার আলিপুর আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছেন শ্রাবন্তী। মামলার শুনানি হবে ১০ ডিসেম্বর। ডিভোর্সের মামলা করার পাশাপাশি রোশনের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগও এনেছেন শ্রাবন্তী। গত জুন মাসে বৈবাহিক অধিকারের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ধারায় শিয়ালদহ ফাস্ট ট্র্যাক ফাস্ট কোর্টে মামলা করেছিলেন রোশন। 

তারই জবাবে এবার পাল্টা মামলা করলেন শ্রাবন্তী। গত এক বছর ধরেই শ্রাবন্তীর সঙ্গে আবারও সংসার করতে মরিয়া রোশন। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার নানা ইঙ্গিতপূর্ণ পোস্ট সেই বার্তাই দেয়। 

যদিও রোশনের সেসব পোস্ট ও তর্জনগর্জনে বরাবরই নীরব থেকেছেন শ্রাবন্তী।  কিন্তু কয়েকদিন আগে রোশনের করা দুটি পোস্টের পর ইনস্টাগ্রামে শ্রাবন্তী যে বার্তা দেন, তাতে মনে হয়েছিল মন গলেছে নায়িকার।

শ্রাবন্তীর অভাববোধটা বুঝিয়ে দিতে কয়েক দিন আগে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে যুগলদের ভিড়ে একা দাঁড়িয়ে থাকা এক যুবকের ছবি পোস্ট করে রোশন লেখেন মাই কন্ডিশন। রোশন বোঝাতে চাইছেন, শ্রাবন্তীকে ছাড়া তিনি বড় একা! এর পর গত বুধবার প্রয়াত বলিউড অভিনেত্রী সুশান্ত সিং রাজপুতের সঙ্গে নিজের ছবি শেয়ার করেন রোশন।

প্রয়াত এ তারকার ছবিটি দিয়ে রোশন বোঝাতে চান, সুশান্তের মতো তিনিও নিঃসঙ্গ। সুশান্তের মতো হতাশা, অবসাদে ডুবে যাচ্ছেন তিনি। নিজেকে শেষ করেও দিতে পারেন সুশান্তের মতো!

রোশনের ওই দুটি পোস্টের পরই শ্রাবন্তী আবেগী পোস্ট দেন।  লেখেন বুঝেছি, তুমি নীরবতার মানে বুঝতে শুরু করেছ। এর থেকে শিক্ষাও নিচ্ছ। নীরবতারও নিজস্ব অর্থ ও আলাদা মাত্রা রয়েছে।

ভক্ত-অনুরাগীদের ধারণা ছিল, এবার হয়তো মন গলেছে শ্রাবন্তীর।  সুখবর পেতে যাচ্ছেন রোশন। কিন্তু উল্টোটাই ঘটল।  বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করে বসলেন টালিউডের এই কনট্রোভার্সি কুইন।

প্রসঙ্গত, মাত্র ১৬ বছর বয়সে পরিচালক রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী।  এর পর ২০১৬ সালে মডেল কৃষাণ ব্রজকে বিয়ে করেন তিনি। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই বিচ্ছেদের আবেদন নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিনেত্রী। ২০১৯ সালের গোড়ার দিয়েই চূড়ান্ত হয় কৃষাণ-শ্রাবন্তীর ডিভোর্স। কয়েক মাসের মাথাতেই রোশনের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন অভিনেত্রী।


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে খুলছে বিশ্ববিদ্যালয় : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | ৭৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী এক মাসের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের টিকার বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে। এরপর অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া হবে। এ ছাড়া আগামী সপ্তাহে জাতীয় পরামর্শ কমিটির সভা আহ্বান করা হয়েছে, তাদের মতামত পেলে স্কুল খুলে দেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

শুক্রবার (২৭ আগস্ট) গাজীপুরের উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিজ্ঞানসম্মতভাবে বলা হয়- শতকরা আক্রান্ত ৫ শতাংশের নিচে নামলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া যায়। কিন্তু এমন পরিস্থিতি এখনও বাংলাদেশে হয়নি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও শিক্ষক সমিতিসহ জাতীয় কমিটির সভা শেষে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যৌথ বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে ১৫ অক্টোবরের পর বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বৈঠকে মন্ত্রী বলেছিলেন, আগামী ১৫ অক্টোবরের পর থেকে ধাপে ধাপে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা যাবে। তবে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের টিকা নেয়ার বিষয়টি ছক আকারে ইউজিসিতে পাঠাতে হবে। যাদের টিকা কার্যক্রম শেষ হবে না তাদের বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেন তিনি।

একই বৈঠকে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি বলবৎ থাকবে।

এদিকে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে খুলছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হল।

তবে, আবাসিক হল খুললেও করোনা টিকা নেয়া সাপেক্ষে শুরুতে হলে উঠবে স্নাতক (সম্মান) চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীরা। পরে বাকি শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের হলে থাকার অনুমতি দেয়া হবে।


আরও খবর



করোনায় আরও ১১৪ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | ৬২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ১২ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৯ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৩ শতাংশ

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২৫ হাজার ৫১৩ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ২৪৯ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৪ লাখ ৭২ হাজার ৯৬৪ জন। মৃত ১১৪ জনের মধ্যে পুরুষ ৫৬ জন ও ৫৮ জন নারী।      

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাছিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আট হাজার ৯০৭ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৩ লাখ ৮১ হাজার ৭৬৩ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭৩৬টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৩৫টি, জিন এক্সপার্ট ৫৪টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ৫৪৭টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৩৪ হাজার ২২৯টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৭০৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮৭ লাখ ২১ হাজার ১৪টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ১২ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৮৯ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৩ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৭৩ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ১১৪ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ৪২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ২৯ জন, রাজশাহী বিভাগে ছয় জন, খুলনা বিভাগে ১৩ জন, বরিশাল বিভাগে পাঁচ জন, সিলেট বিভাগে নয় জন, রংপুর বিভাগে ছয় জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে চার জন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ৮৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ২৪ জন এবং বাড়িতে তিন জন মারা যান।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন এক হাজার ৩৪৬ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন তিন হাজার ৪০৬ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন তিন লাখ ৫৭ হাজার ১৬০ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন দুই লাখ ৯১ হাজার ৪০৬ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৬৫ হাজার ৭৫৪ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। এরপর ধীরে ধীরে আক্রান্তের হার বাড়তে থাকে।


আরও খবর
করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু আরও কমল

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১