আজঃ মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে সুপার এইট শুরু বাংলাদেশের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

১৪০ রানের মামুলি পুঁজি দাঁড় করানোর পর দ্রুতই উইকেটের দরকার ছিল বাংলাদেশের। তবে সেটি পারেননি টাইগার বোলাররা। ওপেনিংয়ে হেড ও ওয়ার্নারের ৬৫ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ম্যাচ থেকেই ছিটকে যায় বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসের ১১ দশমিক ২ ওভারের পর অ্যান্টিগায় বৃষ্টিতে আর খেলা হয়নি। ১১ দশমিক ২ ওভার পর ডিএলএস পদ্ধতিতে ২৮ রানে এগিয়ে ছিল অজিরা। শেষ পর্যন্ত ফলে সে ব্যবধানেই অজিদের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ।

শুক্রবার (২১ জুন) স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নাজমুল হাসান শান্তর ৩৬ বলে ৪১ রান এবং হৃদয়ের ২৮ বলে ৪০ রানের ইনিংসে ভর করে ১৪০ রানের পুঁজি দাঁড় করায় বাংলাদেশ। জবাবে ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ১১ দশমিক ২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১০০ রান তোলে অজিরা। এরপর খেলা শুরু না হওয়ায় বৃষ্টি-আইনে ২৮ রানে জিতেছে মিচেল মার্শের দল।

তাওহীদ হৃদয়ের ক্যাচ মিসের সুবাদে উড়ন্ত সূচনা পায় অস্ট্রেলিয়া। তানজিমকে কাট করতে গিয়ে পয়েন্টে ক্যাচ তুলেছিলেন ওয়ার্নার। তবে ক্যারি করা সেই ক্যাচ লুফে নিতে পারেননি হৃদয়। এতে ৫ রানে জীবন পান এই ওপেনার।

জীবন পেয়েই আগ্রাসী হয়ে উঠেন ওয়ার্নার। ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে পাওয়ার প্লেতে কোনো উইকেট না হারিয়ে ৫৯ রান তুলে নেন হেড-ওয়ার্নার জুটি।

এরপর উইকেটের খোঁজে রিশাদকে আক্রমণে এনেছিলেন শান্ত। তবে বেরসিক বৃষ্টিতে বন্ধ হয়ে যায় খেলা। প্রায় ৩০ মিনিট পর ফের খেলা শুরু হয়। এই ওভারের পঞ্চম বলে রিশাদের হাত ধরে প্রথম উইকেটের দেখা পায় বাংলাদেশ। ট্রাভিস হেডের বিদায়ে ভাঙে তাদের ৬৫ রানের জুটি।

হেডের পর অজি অধিনায়কের উইকেটও নিজের ঝুলিতে পুরেন রিশাদ। সুইপের চেষ্টা করে এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন মার্শ। রিভিউ নিলেও তা কাজে আসেনি। আম্পায়ার্স কলে প্যাভিলিয়নে পথ ধরেন তিনি। এতে ৪ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারায় অজিরা। এরপর বিশ্বমঞ্চে নিজের অষ্টম ফিফটি তুলে নেন ওয়ার্নার। ৩৪ বলে এই মাইলফলকে পৌঁছান অজি ওপেনার।

অজিদের দলীয় ১০০-এর পরই ফের হানা দেয় বৃষ্টি। ১১ দশমিক ২ ওভার শেষে ডিএলএস পদ্ধতিতে ২৮ রানে এগিয়ে ছিল অস্ট্রেলিয়া। পরে বৃষ্টিতে আর খেলা না হওয়ায় ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে সে ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অজিরা।

এর আগে, টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি লাল-সবুজ শিবিরের। রানের খাতা খোলার আগেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার তানজিদ। মিচেল স্টার্কের প্রথম দুটি বল লো ফুলটস ছিল, তৃতীয়টি ফুললেংথে। তাতে ব্যাট নামিয়েও আটকাতে পারেননি তরুণ এই ওপেনার। ব্যাটের নিচের অংশে লেগে সরাসরি স্ট্যাম্পে ঢুকে বল।

দ্বিতীয় উইকেটে লিটনকে নিয়ে ৫৮ রানের জুটি গড়েন শান্ত। তবে দশম বলে রানের দেখা পাওয়া লিটনও বেশিক্ষণ টেকেননি। ২৫ বলে মাত্র ১৬ রান করে ফেরেন তিনি। জাম্পার ওপর চড়াও হতে গিয়ে স্লগ সুইপের চেষ্টা করেছিলেন। মিস হয়ে বলটি ঢুকে স্ট্যাম্পে।

সারপ্রাইজ প্যাকেজ হিসেবে চারে ব্যাট করতে রিশাদ হোসেনকে পাঠানো হয়েছিল। তিনিও সুবিধা করতে পারেননি। ম্যাক্সওয়েলকে জোরের ওপর খেলতে গিয়ে ক্যাচ দিয়ে থাকেন তিনি।

এরপর ৫ চার ও এক ছক্কায় ৩৬ বলে ৪১ রান করে শান্ত বিদায় নিলে চাপে পড়ে বাংলাদেশ। জাম্পাকে সুইপ করতে গিয়ে ব্যাটে-বলে হয়নি শান্তর। আবেদনে সাড়া দেন রিচার্ড ইলিংওর্থ। তবে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত রিভিউ করার প্রয়োজন বোধ করেননি বাংলাদেশের অধিনায়ক।

এরপর ১০ বল মোকাবিলা করেও দুই অঙ্কের কোটা পেরোতে পারেননি সাকিব। এদিন মাত্র ৩ বল থিতু হতে পেরেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। চলতি টুর্নামেন্টে প্রথমবার সুযোগ পেয়ে গোল্ডেন ডাক উপহার দেন মেহেদী হাসান।

শেষ ওভারে সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিলে রানের চাকা সচল রাখা হৃদয়কে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন কামিন্স। হৃদয়ের দুটি করে চার-ছক্কায় ২৮ বলে ৪০ রানে ভর করে টেনেটুনে সম্মানজনক পুঁজি পায় টাইগাররা।


আরও খবর



অতিরিক্ত সময়ে গড়ালো আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়ার ফাইনাল

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

প্রথমার্ধের মতো বিরতির পরও কোপা আমেরিকার ফাইনালে গোল হয়নি। আর্জেন্টিনা বনাম কলম্বিয়ার মধ্যকার ফাইনালের দুই অর্ধে উত্তেজনা ছড়ালেও কোনো দল গোল করতে পারেনি। খেলা অতিরিক্ত সময়ে গড়িয়েছে।

আজ সোমবার ফ্লোরিডার মায়ামি গার্ডেন্সের হার্ড রক স্টেডিয়ামে দর্শক বিশৃঙ্খলায় প্রায় দেড় ঘণ্টা পর কোপা আমেরিকার ফাইনাল শুরু হয়েছে। যেখানে খেলার প্রথমার্ধ অবশ্য কলম্বিয়ার আধিপত্য ছিল। বল দখলের লড়াইয়ে কিছুটা এগিয়ে থাকা নেস্তর লরেন্সোর দল প্রথমার্ধে গোলের জন্য নেয় আটটি শট, এর চারটি ছিল লক্ষ্যে। আর আর্জেন্টিনার তিনটি শটের কেবল একটি ছিল লক্ষ্যে।

যদিও আর্জেন্টিনাই শুরুটা ভালো করেছিল। প্রথম মিনিটে গনসালো মন্তিয়েলের ক্রসে ডি-বক্সের মাঝে বল পেয়ে যান হুলিয়ান আলভারেস। কিন্তু তার ডান পায়ের শট বাম পাশ দিয়ে চলে যায় বাইরে।

কিন্তু এরপরর শুরু হয় কলম্বিয়ার দাপট। পঞ্চম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাম পায়ের শট নেন লুইস দিয়াস। তেমন গতি না থাকায় ঠেকাতে সমস্যা হয়নি এমিলিয়ানো মার্তিনেসের। এক মিনিট পর ডি-বক্সের ভেতর থেকে হন কর্দোবার শট দূরের পোস্টে লেগে বাইরে চলে যায়। এরপর আরও দুই দফা আর্জেন্টিনার রক্ষণে হানা দেয় কলম্বিয়া। তবে লিসান্দ্রো মার্তিনেস, নিকোলাস তাগলিয়াফিকোদের রক্ষণ ভাঙতে পারেনি তারা।

আর্জেন্টিনা ২০তম মিনিটে বড় সুযোগ পায়। জায়গা বদলে বাম পাশে চলে আসেন আনহেল দি মারিয়া। তার ঠাণ্ডা মাথার ক্রস ডি-বক্সে পেয়ে বাম পায়ের শট করেন লিওনেল মেসি। কিন্তু আলভারেসের পায়ে লেগে গতি হারায় বল। ফলে সহজেই ঠেকিয়ে দেন কলম্বিয়া গোলরক্ষক কামিলো ভার্গাস।

খেলার ৩৩তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে আচমকা দূরপাল্লার শট নেন লের্মা। ডান দিকে ঝাঁপিয়ে আঙুল ছুঁয়ে দুর্দান্ত সেভ দেন এমিলিয়ানো।

এদিকে দুই মিনিট পর ডি-বক্সের মুখে বল পেয়ে কলম্বিয়ার একজনের চ্যালেঞ্জের মুখে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাইলাইনের কাছে পড়ে যান মেসি। চোট পান ডান পায়ে। বেশ কিছুক্ষণ ধরে মাঠেই শুশ্রূষা নিয়ে নিজ পায়ে দাঁড়ান আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। বিরতির আগের বাকি সময়টায় তাকে খুড়াতে দেখা যায়।

এর আগে টিকেটবিহীন দর্শকদের বিশৃঙ্খলায় দুই দফা পেছানোর পর বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে সাতটায় ফাইনাল শুরু হয়। অতি উৎসাহী দর্শকরা নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে ওঠায় নির্ধারিত সময়ে শুরু করা যায়নি।

আজ সোমবার বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি শুরু হওয়ার কথা ছিল। অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতিতে প্রাথমিকভাবে ৩০ মিনিট পিছিয়ে দেওয়ার কথা জানায় আয়োজকরা। তবে এরপর প্রায় দেড় ঘণ্টা পর খেলা মাঠে গড়ায়।

ফ্লোরিডার মায়ামি গার্ডেন্সের হার্ড রক স্টেডিয়ামে টিকেটবিহীন দর্শকরা দল বেধে স্টেডিয়ামের গেট দিয়ে মাঠে ঢোকার চেষ্টা করলে এক পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তাকর্মীরা। তাই সেসব দর্শককে বের করে শৃঙ্খলা ফেরানোর জন্য নেওয়া হয়েছে বাড়তি সময়।


আরও খবর



দোহারে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হক বেপারীর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নাজনীন শিকদার (দোহার-নবাবগঞ্জ)

Image

ঢাকার দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও মো. নূরুল হক বেপারী ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. আবুল কালামের সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছেন দোহার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধাদের একাংশ।

বুধবার দুপুরে উপজেলার নারিশা পশ্চিমচর এলাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. তোবারক বেপারীর সভাপতিত্বে তার নিজ বাড়িতে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. তোবারক বেপারী বলেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার ৫৩ বছর পর ভুয়া সনদ দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটভুক্তি হলে গত (১৪ জুলাই) রবিবার মো. নূরুল হক বেপারী এক সংবাদ সম্মেলন করে আমাদের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীনভাবে মনগড়া কথা বলে নানা অপপ্রচার করেছেন। আমরা সবাই এর তীব্র নিন্দাসহ প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, নূরুল হক বেপারী একজন প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নন। তিনি একজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। তিনি মুক্তিযোদ্ধা রজ্জব আলী মোল্লাকে দিয়ে টাকার বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে তার নাম লিখেছেন।

তিনি বলেন, নূরুল হক বেপারী বলেছেন, আমরা এখানে উপস্থিত যে সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা রয়েছি তাদের থেকেও তিনি আরো ভালো মুক্তিযোদ্ধা। আমরা এর এমন ভিত্তিহীন বক্তব্যের প্রতি ধীক্কার জানিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

দোহার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা পরিষদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মো. মহিউদ্দিন বলেন, একজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা আমাকে বলেছেন আমি নাকি মুক্তিযোদ্ধা নই। আমি তার এমন মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বক্তব্যর তীব্র নিন্দাসহ প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমি ততকালীন মুক্তিযোদ্ধোর সময় ভারত গিয়ে যমুনা নামক ক্যাম্পে ট্রেনিং করে অস্ত্রসহ দেশে ফিরেছি এবং যুদ্ধ করেছি। সেই ক্যাম্পে আমার ট্রেনিংয়ের সহযোদ্ধাদের মধ্যে এখানে অনেকেই উপস্থিত রয়েছেন। এমনকি ভারতে যমুনা ক্যাম্পে ট্রেনিংয়ে আমার ক্রমিক নম্বার ছিলো ৩৯৫।

সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মোল্লা মো. বেলাল হোসেন বলেন, নূরুল হক বেপারী একজন ভুয়া মক্তিযোদ্ধা। তিনি মুক্তিযোদ্ধের সময় খুবই ছোট ছিলেন। তিনি কোথাও কোনো ট্রেনিং নেননি। তিনি গত ১৪ জুলাই রবিবার সংবাদ সম্মেলন করে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বক্তব্য দিয়েছেন। এমনকি তিনি আমার নামে অনেক মিথ্যা, মনগড়াভাবে বক্তব্য দিয়ে অপপ্রচার করেছেন। আমিসহ আমরা সকলে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ইব্রাহিম খলিল সবুজ বলেন, নূরুল হক বেপারী একজন ভুয়া মক্তিযোদ্ধা। তিনি কখনও মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেননি। তিনি সংবাদ সম্মেলন ডেকে আমাদের নামে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অপপ্রচার করেছেন। আমরা সবাই এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা বোরহান উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গিয়াস উদ্দিন ঘিনু, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. তারিক আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আক্কাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হালিম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল তাহেরসহ আরো অনেকে।


আরও খবর



দেশে ফিরেছেন ৬৮ হাজার হাজি, মৃত্যু বেড়ে ৬৪

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ধর্ম ও জীবন

Image

পবিত্র হজ পালন শেষে এখন পর্যন্ত ৬৭ হাজার ৯৭৪ জন হাজি দেশে ফিরেছেন। সৌদি থেকে ১৮৪টি ফ্লাইটে হাজিরা দেশে ফিরেছেন। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৮৭, সৌদি এয়ারলাইনস ৬৯টি এবং ফ্লাইনাস এয়ারলাইনস ২৮টি ফ্লাইট পরিচালনা করে।

শনিবার (১৩ জুলাই) হজ পোর্টালের সবশেষ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে, চলতি বছর হজ পালন করতে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৬৪ জন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ৫১ এবং মহিলা ১৩ জন। তাদের মধ্যে মক্কায় ৫০ জন, মদিনায় ৫ জন, মিনায় ৭ জন ও জেদ্দায় ২ জন মারা গেছেন।

বুলেটিনে বলা হয়, আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত হাজিদের ফিরতি ফ্লাইট অব্যাহত থাকবে। এবার বাংলাদেশ থেকে মোট ৮৫ হাজার ২২৫ জন (ব্যবস্থাপনা সদস্যসহ) হজযাত্রী সৌদি আরবে গেছেন।

এদিকে, আগামী বছর (২০২৫) বাংলাদেশের জন্য এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জনের কোটা দিয়েছে সৌদি আরব।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম জানান, নির্ধারিত সংখ্যার মধ্যে কতজন সরকারি ব্যবস্থাপনায় আর কতজন বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাবেন তা বাংলাদেশ সরকার পরে নির্ধারণ করে দেবে।


আরও খবর
রাজধানীতে তাজিয়া মিছিল শুরু

বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪

আজ পবিত্র আশুরা

বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪




ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ওপর ক্ষোভ ঝাড়লেন শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ইংলিশ মিডিয়াম ও অভিজাত স্কুলের প্রতি ক্ষোভ ঝাড়লেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। আজ বুধবার ডিএনসিসি স্মার্ট স্কুলবাস সার্ভিস-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ ক্ষোভ ঝাড়লেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ১ হাজার গুণ বেশি ফি নিয়ে অনেক মিডিয়াম স্কুল কেন নিজস্ব ক্যাম্পাস তৈরি করতে পারছে না? বিদ্যালয়ের রুমগুলো কনভার্ট করে পরিচালিত হবে- সেটা সাময়িকভাবে দেওয়া যায়; কিন্তু আজীবন আমি সেখানে থেকে যাব, আর বিদ্যালয়ের যে সারপ্লাস হবে সেটা আমরা যারা উদ্যোক্তা তারা পকেটে করে নিয়ে যাব, বিদ্যালয়ের জন্য কোনো ক্যাম্পাস করব না, সেই অরাজকতা আমরা চলতে দিতে পারি না।

চলমান ষাণ্মাসিক মূল্যায়নের প্রশ্নপত্র সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়া নিয়ে প্রশ্ন করলে মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, নতুন শিক্ষাক্রমে একজন শিক্ষার্থীর নির্ধারিত কার্যক্রমকে অবশ্যই করতে হবে। সে যদি আগে থেকে জানেও তাকে কী কার্যক্রম করতে হবে। সেখানে (নতুন শিক্ষাক্রম) কোনো গতি নেই, এখানে ফাঁস হওয়ার কোনো বিষয় নেই।

তিনি বলেন, এটা পাবলিক পরীক্ষা নয়, এটা শ্রেণিকক্ষভিত্তিক পরীক্ষা। সেখানে প্রত্যেক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষার্থী প্রকাশ করবে তার শিখনফলটি ও লাইন আউটকাম অর্জিত হয়েছে কি না।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এখানে প্রমাণ করার বিষয় নেই, মেধা প্রমাণের বিষয় নেই, শিক্ষক দেখবেন শিক্ষার্থীর শিখনফল অর্জিত হয়েছে কি না। সেখানে একে অপরের থেকে যদি জানার চেষ্টা করে তাতে সমস্যা নেই। তাকে উপস্থাপনার সক্ষমতা যেটা, কমিউনিকেশন্স ও প্রেজেন্টশন স্কিল। সেখানে কিন্তু তাকে নির্ধারিত মাত্রায় পারদর্শিতার যে স্তর, সেটি অতিক্রম করতে হবে। সুতরাং প্রশ্নফাঁস করলেও সেটির কোনো উপকারিতা নেই। একজন শিক্ষার্থীকে অবশ্যই কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে পারদর্শিতার স্তর অতিক্রম করতে হবে।

এ সময় যানজট থেকে মুক্তির জন্য উত্তরের প্রতিটি স্কুলকে দ্রুত নিজস্ব পরিবহন সার্ভিস চালুর করা না হলে স্কুল বন্ধ করে দেয়ার হুঁশিয়ারি দেন ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।


আরও খবর
আরও ৩ দিনের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত

বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪




নাজিরপুরে খালের বর্জ্য অপসারণ ও দখলমুক্ত করতে প্রশাসন, সাংবাদিক ও সুধীদের সাথে মতবিনিময়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নাজিরপুর (পিরোজপুর) প্রতিনিধি

Image

পিরোজপুরের নাজিরপুরে উপজেলা সদরের প্রধান খালসহ বিভিন্ন খালের বর্জ্য অপসারণ ও খালসহ জলাধারের অবৈধ দখলমুক্ত করতে উপজেলার বিভিন্ন কর্মকর্তাসহ সাংবাদিক ও সুধীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কৃষি প্রশিক্ষণ হলরুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরূপ রতন সিংহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুরে আলম সিদ্দিকী শাহীন।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মো. মশিউর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মাসুম বিল্লাহ, উপজেলা প্রকৌশলী মো. জাকির হোসেন মিয়া, জেলা পরিষদ সদস্য সুলতান মাহমুদ খান, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল কান্তি বিশ্বাস, প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, উপজেলা সদরের সরকারী মহিলা কলেজ সংলগ্ন প্রধান খালের একটি অংশ দখল করে অবৈধভাবে ভবন নির্মাণ, খালের পাড় আটকে খাল ছোট করে ফেলাসহ সেখানে বর্জ্য ফেলে পরিবেশ নোংরা করা ফেলেছে। এতে স্থানীয়দের বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ ছাড়া উপজেলার বিভিন্ন খাল ও জলাশয়ের সরকারী জমি দখল করা হয়েছে। এমন বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে উপজেলা চেয়ারম্যানের উদ্যোগে এ কর্মসূচী নেয়া হয়েছে।


আরও খবর