আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

অতিরিক্ত যাত্রী বহনের দায়ে ৪ লঞ্চকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটে বেড়েছে ঘরমুখো মানুষের ভিড়। শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুরে অতিরিক্ত যাত্রী বহনের দায়ে চার লঞ্চ মালিককে পাঁচ হাজার টাকা করে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত এ জরিমানা করেন। এছাড়াও মাস্ক না পরায় দুই যাত্রীকে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়।

জানা যায়, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ও মাস্ক না পরার কারণে দুই যাত্রীকে সময়দণ্ড দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। 

ধারণক্ষমতার বেশি যাত্রী বহন করার কারণে চারটি লঞ্চের মালিককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন ঘাট এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি তদারকি করেন। সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নে লঞ্চ ও ফেরিঘাট পরিদর্শন করেন তিনি। 

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে বাংলাবাজার-শিমুলিয়া ঘাট হয়ে দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীরা আসতে শুরু করেছে। সরকারের নির্দেশনা মানাতে ঘাট এলাকায় কঠোর অবস্থানে আছে প্রশাসন। লঞ্চে ধারণক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী বহনের নির্দেশ রয়েছে। শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ঘাট এলাকায় সার্বক্ষণিক ভ্রাম্যমাণ আদালত থাকবে।

আইন না মানলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোরবানি উপলক্ষে পশুবাহী ট্রাকগুলোকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। ঘাটে যাতে পশুবাহী ট্রাক ও গরু ব্যবসায়ীদের হয়রানি না হতে হয় সে ব্যাপারে সার্বিকভাবে তদারকি করা হচ্ছে।


আরও খবর



৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে টিকাদান শুরু: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | ১২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে করোনার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে চলমান বিধি-নিষেধ নিয়ে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে এনআইডি কার্ড নিয়ে কেন্দ্রে গেলেই তাকে করোনার টিকা দেওয়া হবে। এ সময় তিনি ৫ আগস্টের আগে শিল্পকারখানা খোলা হবে না বলে জানান।

জানা যায়, করোনার টিকা দেওয়ায় গতি বাড়ছে আগামী ৭ আগস্ট থেকে দিনে সাড়ে আট লাখ করে প্রতি সপ্তাহে ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেওয়া হবে। এজন্য দেশে বিদ্যমান সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) কার্যকর করা হবে কভিড টিকার ক্ষেত্রেও। গ্রাম পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিক, ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ অন্য অস্থায়ী টিকাদানকেন্দ্রগুলোকেও কাজে লাগানো হবে। স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের কর্মীরাও টিকাদান কার্যক্রমে অংশ নেবেন।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন ইউএনও মনদীপ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
Image

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুর সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মনদীপ ঘরাই করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে উপহারস্বরূপ খাদ্য-সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৮জুলাই) রাত ৮ টার পরে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে নিয়মিত অভিযান শেষে শরীয়তপুর পৌরসভাধীন পশ্চিম কোটাপাড়ার করোনা আক্রান্ত আল আমিন মুন্সী(২৯), তার মা নাসিমা খানম(৫৩), স্ত্রী মাহমুদা আক্তার(২৫) ও পালং ইউনিয়নের নরবালাখানার রায়হান চৌকিদার(২৩), রেহানা আক্তার, রত্না বেগমের বাড়িতে উপহারস্বরূপ খাদ্য-সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে ধৈর্যসহ বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

করোনা আক্রান্ত রোগীদের সাথে কথা বলে তাদের মনোবল বৃদ্ধি করতে চেষ্টা করে সবাইকে সতর্ক হতে বাড়িতে লাল কাপড়ও বেঁধে দিয়েছেন তিনি।

এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মনদীপ ঘরাই বলেন, করোনা আক্রান্ত এই পরিবারগুলো আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হলেও বাড়িতে খাদ্য সংকট থাকতে পারে। কেননা তারা বাড়ির বাইরে বের হতে পারে না। করোনা আমাদের শিখিয়ে যাচ্ছে ধনসম্পদ সকল বিষয়ের সমাধান করতে পারে না। এই চিন্তা থেকেই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাড়িতে উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তারা সুস্থ্য না হওয়া অবধি তাদের খোঁজ-খবর রাখবে উপজেলা প্রশাসন।

খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্তকর্তা, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যবৃন্দ।

নিউজ ট্যাগ: শরীয়তপুর ইউএনও

আরও খবর



সাগরে নিম্নচাপ, ভারি বৃষ্টি ও বন্যার আশঙ্কা

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১ | ৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগস্ট মাসে ভারি বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন স্থানে স্বল্প থেকে মধ্যমেয়াদি ও আকস্মিক বন্যা দেখা দিতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। একইসঙ্গে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি মৌসুমী নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে পারে।

দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাস দিতে আবহাওয়া অধিদফতরের গঠিত বিশেষজ্ঞ কমিটি এই পূর্বাভাস দিয়েছে। গত ২ আগস্ট ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কমিটির নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অধিদফতরের পরিচালক ও বিশেষজ্ঞ কমিটির চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন আহমেদ এতে সভাপতিত্ব করেন।

বিশেষজ্ঞ কমিটির চলতি মাসের পূর্বাভাস প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আগস্ট মাসে বাংলাদেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। আগস্ট মাসে বঙ্গোপসাগরে এক থেকে দুটি মৌসুমী লঘুচাপ সৃষ্টি হতে পারে। যার মধ্যে একটি মৌসুমী নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে।

আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহে দেশের প্রধান নদনদীর পানি স্থিতিশীল থাকতে পারে জানিয়ে পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, পরবর্তী সময়ে মৌসুমী ভারি বৃষ্টিপাতজনিত কারণে দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলের কতিপয় স্থানে স্বল্প থেকে মধ্যমেয়াদি বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। অপরদিকে উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় পার্বত্য অববাহিকার কতিপয় স্থানে স্বল্পমেয়াদি আকস্মিক বন্যা দেখা দিতে পারে।

জুলাই মাসে সার্বিকভাবে বাংলাদেশে স্বাভাবিকের চেয়ে ৫ দশমিক ১ শতাংশ কম বৃষ্টিপাত হয়েছে জানিয়ে সামছুদ্দিন আহমেদ বলেন, তবে খুলনা ও বরিশাল বিভাগে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে স্বাভাবিকের চেয়ে কম বৃষ্টি হয়েছে।

জুলাইয়ে দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে এক দশমিক ৪ ডিগ্রি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শূন্য দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের চেয়ে বেশি ছিল বলেও জানান আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক।

আবহাওয়ার আগস্ট মাসের প্রতিবেদনে জুলাই মাসের অবস্থা তুলে ধরে বলা হয়, সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ১ ও ২ জুলাই সারাদেশে মাঝারি ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হয়। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি বাংলাদেশ উপকূলীয় এলাকায় সৃষ্ট নিম্নচাপ ও সক্রিয় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে ২৭ থেকে ৩০ জুলাই চট্টগ্রাম, বরিশাল ও খুলনা বিভাগের অনেক স্থানে ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টি হয়। এ সময় এ মাসের দৈনিক সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত ৩২৮ মিলিমিটার টেকনাফে (২৭ জুলাই) রেকর্ড করা হয়। অতিভারি বৃষ্টিজনিত কারণে চট্টগ্রাম অঞ্চলের কোথাও কোথাও ভূমিধস হয়।

এতে আরও বলা হয়, গত ১১ জুলাই সকাল ৬টায় পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়, যা পরবর্তী সময়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে ১৩ জুলাই মৌসুমী অক্ষের সাথে মিলিত হয়।

২২ জুলাই সকাল ৬টায়ও উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশ উপকূলীয় এলাকায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়, যা ২৩ জুলাই সকাল ৬টায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়। এটি পরবর্তী সময়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে ২৪ জুলাই ভারতের মধ্যপ্রদেশ ও কাছাকাছি এলাকায় প্রথমে লঘুচাপে পরিণত হয় এবং আরও দুর্বল হয়ে মৌসুমী অক্ষের সাথে মিলিত হয়।

২৭ জুলাই সকাল ৬টায় উত্তর বঙ্গোপসাগর ও কাছাকাছি বাংলাদেশ উপকূলীয় এলাকায় আরও একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়, যা ২৮ জুলাই সকাল ৬টায় বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাংশ ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়। এটি আরও ঘণীভূত হয়ে ২৯ জুলাই দুপুর ১২টায় খুলনা-সাতক্ষীরা অঞ্চল ও এর পার্শ্ববর্তী এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়।

এরপর এটি উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে ৩০ জুলাই ভারতের বিহার এলাকায় অবস্থান নেয় এবং আরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ আকারে ৩১ জুলাই ভারতের উত্তর প্রদেশ এলাকায় অবস্থান করে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।



আরও খবর



পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা: ফেরির মাস্টার আটক

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১৬৮১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পদ্মা সেতুর একটি পিলারে ধাক্কা দেওয়ার ঘটনায় মাদারীপুরের বাংলাবাজার ও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া নৌপথে চলাচলরত রো রো ফেরি শাহ্ জালালের ইনচার্জ ইনল্যান্ড মাস্টার আবদুর রহমানকে আটক করেছে শিবচর থানা পুলিশ।

শনিবার (২৪ জুলাই) সকালে বাংলাবাজার ঘাট এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন।

পুলিশ ও ঘাট সূত্র জানায়, গতকাল শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল সোয়া ৯টার দিকে মাদারীপুরের বাংলাবাজারঘাট থেকে শিমুলিয়া যাওয়ার পথে রো রো ফেরি শাহ্ জালাল পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারটিকে সজোড়ে ধাক্কা দেয়। এতে ফেরিতে থাকা ৩৩টি যান একটি আরেকটির ওপর ধাক্কা দেয়। এতে ফেরিতে থাকা অর্ধশত যাত্রী আহত হয়।

এ ঘটনায় ফেরিটির ফিটনেস ছিল কি না, চালকের যথাযথ যোগ্যতা, শারীরিক সুস্থতা বা অবহেলা ছিল কি না এইসব বিষয়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়ে শিবচর থানায় শুক্রবার সন্ধ্যায় সেতু বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন।

জিডিতে আব্দুল কাদের জানান, পিলারের সঙ্গে এর আগেও ফেরির সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিয়ে আগেপরে লিখিত ও মৌখিকভাবে সচেতনতার সঙ্গে ফেরি চলাচলের জন্য বিআইডব্লিটিসি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। অথচ এরপরেও এমন ঘটনা আবার ঘটলো। শুক্রবারের ঘটনা ফেরির যাত্রীদের প্রাণহানি ও বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেত পারতো। এছাড়াও পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে।

শনিবার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টায় শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন মুঠোফোনে বলেন, থানায় ডিডি হওয়ার পরে আমরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি। আর এই তদন্তের স্বার্থেই আমরা রো রো ফেরি শাহ্ জালালের ইনচার্জ ইনল্যান্ড মাস্টার আবদুর রহমানকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করি। বর্তমানে তিনি আমাদের হেফাজতে আছেন। থানায় তার জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।


আরও খবর
মুন্সিগঞ্জে শিশু হত্যার অভিযোগ

মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১




রোহিঙ্গাদের সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে পুলিশের ১২ সদস্য আহত

প্রকাশিত:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে নতুন এবং পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে রেশন কার্ড সংগ্রহ নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। এ সময় বিভিন্ন স্থানে রোহিঙ্গা নারী

কক্সবাজারের টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নতুন ও পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ডকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে এপিবিএন সদস্যদের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা চালানো হয়। এ সময় এপিবিএনের ১২ সদস্য আহত হয়েছে।

রবিবার (১ আগস্ট) দুপরে টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

এপিবিএন এর ১৬ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি তারিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে নতুন এবং পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে রেশন কার্ড সংগ্রহ নিয়ে উত্তেজনা তৈরি হয়। এ সময় বিভিন্ন স্থানে রোহিঙ্গা নারী জড়ো হয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এপিবিএন সদস্যরা সর্বোচ্চ ধৈর্য-সহ উশৃঙ্খল রোহিঙ্গা নারীদের শান্ত করার চেষ্টা করে। রোহিঙ্গা নারীরা এতে শান্ত না হয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন স্পটে ইট-পাটকেল মেরে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে।

এক পর্যায়ে রোহিঙ্গা নারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে অতর্কিত অবস্থায় পুলিশের ওপর ইট পাটকেল মেরে ধস্তাধস্তি শুরু করে পুলিশের অস্ত্র টানা হেঁচড়া শুরু করলে পুলিশ জান মাল রক্ষায় ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য ৫ রাউন্ড ওপরের দিকে শট গানের গুলি করে। এতে রোহিঙ্গা নারীরা ছত্র ভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। ইট পাটকেলের আঘাতে এপিবিএন এর ১২ জন সদস্য আহত হয়। আহতদের চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, রেশন কার্ড নিয়ে টেকনাফের নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গাদের মধ্যে অসন্তোষ বিরাজমান রয়েছে। পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড নতুন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ডের পরিমাণে ভিন্নতা রয়েছে। সব রোহিঙ্গাদের মাঝে সমপরিমাণ খাবার বিতরণের জন্য পুরাতন রোহিঙ্গাদের রেশন কার্ড ফেরত নিয়ে গত মাসে নতুন রেশন কার্ড ইস্যু করা হয়। নতুন রেশন কার্ড অন্যান্য ক্যাম্পের সমসাময়িক নতুন রোহিঙ্গাদের কার্ডের অনুরূপ হওয়ায় নয়াপাড়া রেজিস্টার্ড ক্যাম্পের পুরাতন রোহিঙ্গারা নতুন কার্ড এখনও গ্রহণ করেনি। এ নিয়ে মূলত উত্তেজনার সূত্রপাত।


আরও খবর