আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে অচল মিয়ানমার

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মিয়ানমারে সামরিক জান্তাদের হুমকির পরেও অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। এরই মধ্যে সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দেশটিতে সাধারণ ধর্মঘটে ব্যবসা-বাণিজ্য সব বন্ধ হয়ে গেছে। স্থানীয় দোকানগুলো বন্ধ রয়েছে। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক চেইনগুলোও সোমবার ঘোষণা দিয়েছে, নিজেদের ব্যবসা বন্ধ রাখবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, অভ্যুত্থানকারীদের একই সঙ্গে অং সান সু চির মুক্তি দাবিতে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। কর্তৃপক্ষের হুমকি এড়িয়ে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমেছেন। এ থেকে যে কোনো সময় আরও প্রাণহানি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিক্ষোভ ঠেকাতে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে শনিবার দুই বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে বিক্ষোভে তিনজন নিহত আছেন। তবে একজন পুলিশ সদস্যও বিক্ষোভে আহত হয়ে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে সেনাবাহিনী।

এদিকে শনিবার দুজনের মৃত্যুও বিক্ষোভকারীদের পেছনে ফেরাতে পারেনি। এ দিন ইয়াঙ্গুনে যেমন তারা জড়ো হয়েছিলেন, তার চেয়ে আরও বেশি জড়ো হয়েছেন রোববার। সোমবার এর চেয়েও বেশি মানুষ অংশ নিয়েছেন ওই বিক্ষোভে।

নিউজ ট্যাগ: অচল মিয়ানমার
Share

আরও খবর



‘স্বাধীনতা অর্জনের শেকড় নিহিত ছিল ভাষা আন্দোলনে’

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাধীনতা অর্জনের শেকড় নিহিত ছিল ভাষা আন্দোলনে। ভাষা আন্দোলনের ঐতিহ্য ধরে রেখেই সামনে এগিয়ে যেতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাধীনতাকে অর্থবহ করতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, শহীদের রক্ত বৃথা যায়নি, যেতে পারে না।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আওয়ামী লীগের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, টিকা নিলেও মাস্ক পরা, হাত ধোয়াসহ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে চলতে হবে। অন্তত নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে হবে। কারণ দ্বিতীয় ডোজ রয়েছে। আবার করোনা টিকার কার্যকারিতা কতটুকু বা কী, এটিও গবেষণার পর্যায়ে আছে।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনার টিকা সবাই নেবেন। টিকা সংগ্রহ আমরা আগাম করেছিলাম, অনেক দেশ করতে পারেনি। কিন্তু টিকা নিলেও সুরক্ষা বিধি মেনে চলতে হবে।

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন- আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সিরাজুল মোস্তফা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি প্রমুখ।

Share

আরও খবর
ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু

সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১




সাতক্ষীরায় ট্রাক্টরের ধাক্কায় দুই ভাটা শ্রমিক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাতক্ষীরায় মাটি বহনকারী ট্রাক্টরের ধাক্কায় ইটভাটার দুই শ্রমিক নিহত হয়েছেন। শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) ভোর সাড়ে ৫টায় সাতক্ষীরার তালতলায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শ্রমিকরা হলেন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বকচরা গ্রামের আব্দুস সামাদ খার ছেলে মনিরুল ইসলাম (৪০) ও ইশরাফ আলীর ছেলে মোহাম্মদ আলী (৩৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোরে মনিরুল ও মোহাম্মদ আলী বাইসাইকেলে বিনেরপোতার লিয়াকতের ভাটায় কাজ করতে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে তালতলায় পৌঁছালে ইটভাটার মাটি বহনকারী একটি ট্রাক্টর তাদের পিছন দিক থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।

সাতক্ষীরা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মেহেদী বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এলাকাবাসী ঘাতক ট্রাকটি জব্দ করতে না পারলেও একই ভাটার অন্য দুটি ট্রাক্টর পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।

Share

আরও খবর



পরমাণু চুক্তিতে ফিরতে কোনো আলোচনায় বসবে না ইরান

প্রকাশিত:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০১৮ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের সঙ্গে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর পরমাণু বিষয়ক চুক্তি থেকে বের করে নেওয়ার ঘোষণা দিলে চুক্তিটির বিষয়ে স্থবিরতা দেখা দেয়

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) নেতাদের সঙ্গে পরমাণু চুক্তিতে ফিরতে অনানুষ্ঠানিক কোনো আলোচনায় বসবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে ইরান। দেশটি যুক্তরাষ্ট্রকে আগে তাদের দেওয়া একপক্ষীয় সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে। সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে এ কথা জানানো হয়েছে।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, এখন ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রস্তাবিত আলোচনায় বসার উপযুক্ত সময় নয়। ইরানের এমন অবস্থানে যুক্তরাষ্ট্র অসন্তুষ্ট হলেও তারা অর্থবহ কূটনৈতিক উপায়ে আলাপ-আলোচনা শুরুর বিষয়ে আগ্রহী বলে জানিয়ে রেখেছে।

২০১৮ সালে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের সঙ্গে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলোর পরমাণু বিষয়ক চুক্তি থেকে বের করে নেওয়ার ঘোষণা দিলে চুক্তিটির বিষয়ে স্থবিরতা দেখা দেয়। ট্রাম্প সেসময় ইরানের ওপর কড়া অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন।

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এখন ২০১৫ সালের সেই চুক্তিতে ফিরতে চাইছেন। ওয়াশিংটন বলছে, তেহরানকে অবশ্যই চুক্তির পূর্ণাঙ্গ মেনে চলা শুরু করতে হবে। উল্টোদিকে তেহরান বলছে, এটা একমাত্র তখনই সম্ভব যখন যুক্তরাষ্ট্র ইরানের ওপর জারি করা সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে।

ইরানি সংবাদমাধ্যমকে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খাতিবজাদেহ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের তিন ক্ষমতাধর দেশের (যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও ফ্রান্স) কর্মকাণ্ড ও কথাবার্তা বিবেচনায় ইরান ইইউ পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধানের প্রস্তাবিত অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় বসার সময় এখনও এসেছে বলে মনে করছে না।

পরমাণু প্রযুক্তির প্রসার ও ব্যবহার নিয়ে ২০১৫ সালের অক্টোবরে ইরান জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ সদস্য দেশযুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স ও জার্মানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়। ছয়টি দেশ আর ইউরোপীয় ইউনিয়ন ইরানের সঙ্গে ওই চুক্তিতে সাক্ষর করে। ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে চুক্তির বাস্তবায়ন শুরু হয়। ২০১৮ সালে এসে ট্রাম্প জয়েন্ট কম্প্রিহেন্সিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন (জিসিপিওএ) নামের ওই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে নিয়ে ইরানের ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন।

Share

আরও খবর



ওজন কমাতে টমেটো তুলনাহীন

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাজারে টমেটোর সরবরাহ প্রচুর, দামও খুবই কম। এই টমেটো গুণে ভরপুর। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি ও খনিজ পদার্থ। টমেটো দেহের রক্তচাপের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে, ত্বক উজ্জ্বল করতে সিদ্ধহস্ত। তবে ওজন কমানোর উপকরণ হিসাবে টমেটো তুলনাহীন।

টমেটো শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। বিটা-ক্যারোটিন ও লাইকোপেনে সমৃদ্ধ টমেটো চোখের দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। তবে এক গ্লাস টমেটোর রস দ্রুত মেদ কমাতে সহয়তা করে। টমেটোর রসে ক্যালরির পরিমাণ খুবই কম। একটি ১০০ গ্রাম টমেটোতে মাত্র ১৭ গ্রাম ক্যালরি থাকে। এতে মূলত পানির পরিমাণই বেশি। একটি টমেটোতে প্রায় ৯৪ শতাংশ শুধু পানিই থাকে। তাই এটি ওজন কমাতে সাহায্য করে।

টমেটোতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট লাইকপেনে, যা কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ, চোখ ও ত্বকের সুরক্ষা এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। গবেষণায় দেখা যায়, লাইকোপেনে প্রাকৃতিকভাবে মেটাবলিজম নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। এর ফলে শরীরের মেদ ঝরে ওজন দ্রুত কমে। 

গবেষকদের মতে, টমেটো শরীরে কারনিটাইন নামক একটি অ্যামাইনো এসিড তৈরি করে, যা শরীরের মেদ কমাতে সাহায্য করে। 

নিউজ ট্যাগ: টমেটো
Share

আরও খবর



জিয়া ২৫ ও ২৬ মার্চ মানুষ হত্যা করেছেন : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১ | ১২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২৫ মার্চ চট্টগ্রামে যারা ব্যারিকেড দিচ্ছিল তাদের অনেককে জিয়াউর রহমান গুলি করে হত্যা করেন। শুধু তাই নয়, জিয়া ২৫ ও ২৬ দুই দিনই হত্যাকাণ্ড চালান। ২৭ তারিখ সোয়াত জাহাজ থেকে অস্ত্র নামাতে গিয়েছিলেন জিয়া। তিনি যাতে অস্ত্র নামাতে না পারেন, আমাদের স্বাধীনতাকামীরা তাকে আটকান। বলছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ সোমবার (৮ মার্চ) আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ৭ মার্চ উপলক্ষে আয়োজিত দলটির আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, সেদিন চট্টগ্রামের হান্নান সাহেব গংরা ঘোষণা দিয়েছিলেন। তখন জহুর আহমেদ চৌধুরী সাহেব বলেছিলেন, আমরা তো ঘোষণা দিয়েই যাচ্ছি। সেনাবাহিনীর একজনকে এনে ঘোষণা দিলে একটা যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব থাকবে। ওই সময় মেজর রফিক সাহেব অ্যাম্বুশ (আক্রমণ) করে বসেছিলেন।

সে সময় তিনি বলেছিলেন, যদি আমি এখান থেকে সরে যাই পাকিস্তানিরা জায়গাটা দখল করে নেবে। ফলে জিয়াউর রহমান যেহেতু জনগণের কাছে ধরা ছিলেন, তাকে ধরে নিয়ে এসে ঘোষণা পাঠ করতে বলা হয়। সেই থেকে তাকে ঘোষক বলে প্রচার চালায়। কিন্তু তিনি (জিয়াউর রহমান) যে ২৫ ও ২৬ মার্চ মানুষ হত্যা করেছেন, সে কথা ভুলে যায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতাকে হত্যা করে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করেছেনযেই জিয়া, সেই জিয়ার দলের নেতারা ৭ মার্চের ভাষণের মর্ম বুঝবে না, এটাই স্বাভাবিক। সুতরাং ধরেই নিতে হবে তারা তাদের পুরোনো প্রভুদের ভুলে যায়নি। তাদের পালিত দল হিসেবে তারা এখনও আছে।

Share

আরও খবর