আজঃ শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১
শিরোনাম
কিশোরগঞ্জের পাগলা মসজিদ

পাঁচ মাসে দান বাক্সে দুই কোটি ৩৮ লাখ টাকা

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৬৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক থেকে এবার দুই কোটি ৩৮ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৫ টাকা পাওয়া গেছে। যা দান সিন্দুক থেকে পাওয়া দানের হিসাবে এ যাবতকালের সর্বোচ্চ।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় দান সিন্দুক খোলার পর গণনা শেষে বিকেলে টাকার এই হিসেব পাওয়া যায়। বিপুল পরিমাণ দানের এই নগদ টাকা ছাড়াও বিভিন্ন বৈদেশিক মুদ্রা ও দান হিসেবে বেশ কিছু স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গেছে। বৈদেশিক মুদ্রা ও স্বর্ণালঙ্কারও অন্যবারের চেয়ে পরিমাণে বেশি পাওয়া গেছে।

এর আগে, সর্বশেষ গত বছরের ২২ আগস্ট দান সিন্দুক খোলা হয়েছিল। তখন সর্বোচ্চ এক কোটি ৭৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭১ টাকা পাওয়া গিয়েছিল। সাধারণত তিন মাস পরপর পাগলা মসজিদের দান সিন্দুক খোলা হয়। কিন্তু বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবার ৫ মাস ৪ দিন পর এসব দান সিন্দুক খোলা হয়েছে। করোনাকালে এর আগে গত বছরের ২২ আগস্ট ৬ মাস ৭ দিন পর দান সিন্দুক খোলা হয়েছিল।

সংশ্লিষ্টরা জানান, শনিবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে মসজিদের আটটি দান সিন্দুক খোলা হয়। দান সিন্দুক থেকে টাকা খুলে প্রথমে বস্তায় ভরা হয়। এবার সবচেয়ে বেশি ১৪ বস্তা টাকা হয়েছে। এরপর শুরু হয় দিনব্যাপী টাকা গণনা। টাকা গণনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে মসজিদ মাদরাসার ৬০ জন ছাত্রশিক্ষক ছাড়াও রূপালী ব্যাংকের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদ কমিটির সভাপতি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম পাগলা মসজিদের টাকা গণনার কাজ পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসক বলেন, পাগলা মসজিদকে একটি অন্যতম আধুনিক ইসলামিক স্থাপত্য হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে। বিশিষ্টজনসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে বসে এ ব্যাপারে করণীয় নির্ধারণ করা হবে।

এ সময় পাগলা মসজিদের সদস্য সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলুসহ জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কিশোরগঞ্জ শহরের ঐতিহাসিক স্থাপনার মধ্যে পাগলা মসজিদ অন্যতম একটি প্রতিষ্ঠান। শহরের পশ্চিমে হারুয়া এলাকায় নরসুন্দা নদীর তীরে মাত্র ১০ শতাংশ ভূমির ওপর এই মসজিদটি গড়ে উঠেছিল। সময়ের বিবর্তনে আজ এ মসজিদের পরিধির সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে এর খ্যাতি ও ঐতিহাসিক মূল্যও। মসজিদকে কেন্দ্র করে একটি অত্যাধুনিক ধর্মীয় কমপ্লেক্স এখানে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সম্প্রসারিত হয়েছে মূল মসজিদ ভবন। দেশের অন্যতম আয়কারী ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত মসজিদটিকে পাগলা মসজিদ ইসলামী কমপ্লেক্স নামকরণ করা হয়েছে। এ মসজিদের আয় দিয়ে কমপ্লেক্সের বিশাল ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে মসজিদটিকে ঘিরে চলছে ব্যাপক উন্নয়নযজ্ঞ। এছাড়া মসজিদের আয় থেকে বিভিন্ন সেবামূলক খাতে অর্থ সাহায্য করা হয়।

Share

আরও খবর
ভালোবাসা সম্পর্কে ইসলামের আইন

বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১

আজ সরস্বতী পূজা

মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১




কানাডায় সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ওই তিন শিক্ষার্থীরা হলেন- আল নোমান আদিত্য, রসুল বাধন ও অরণ্য আসাদ চৌধুরী। তারা সবাই ইউনিভার্সিটি অব ম্যানিটোবায় পড়াশোনা করতেন

কানাডার ম্যানিটোবায় সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে আরবর্গ থেকে ১০ কিলোমিটার দক্ষিণে ইন্টারলাক এলাকায় দুটি গাড়ির সংঘর্ষে ওই প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। ম্যানিটোবা ইসলামিক এ্যাসোসিয়েশন এমন তথ্য জানিয়েছে।

নিহত হওয়া ওই তিন শিক্ষার্থীরা হলেন- আল নোমান আদিত্য, রসুল বাধন ও অরণ্য আসাদ চৌধুরী। তারা সবাই ইউনিভার্সিটি অব ম্যানিটোবায় পড়াশোনা করতেন। তিন বন্ধু উইনিপেগ থেকে প্রায় ১১৫ কিলোমিটার উত্তরে হেকলা অঞ্চল থেকে ফেরার সময় এই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়। তদন্তের জন্য এসময় মহাসড়কের একটি অংশ কয়েক ঘণ্টা বন্ধ ছিল। দুর্ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধারের পর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদের মৃত ঘোষণা করে।

নিহতদের বয়স ২৩ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। দুর্ঘটনার পর ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। এদিকে অপর গাড়ির চালক ৫৩ বছর বয়সী এক নারীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উইনিপেগের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদিকে এই তিন শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় কানাডা প্রবাসীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Share

আরও খবর
ব্রিটেনে আর ফিরতে পারবেন না শামীমা

শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১




শহীদ মিনার ভেঙে ফেললো দুর্বৃত্তরা

প্রকাশিত:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ ফেব্রুয়ারী 20২১ | ১০৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাতের আঁধারে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ভেঙে ফেললো শহীদ মিনার। একুশের রাতে মাগুরা সদর উপজেলার বুজরুক শ্রীকুন্ডি কলেজে এ ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সদর থানার  ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জয়নাল আবেদীন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

কলেজ অধ্যক্ষ পল্লব কুমার দে জানান, কলেজ প্রতিষ্ঠার পর ২০০২ শহীদ মিনারটি নির্মাণ করা হয়। শনিবার বিকালে তিনি শহীদ মিনারটি অক্ষত অবস্থায় দেখেছেন। রবিবার সকাল ৯টার দিকে ফুল দিতে এসে দেখেন শহীদ মিনারের তিনটি স্তম্ভ ভেঙে মাটিতে পড়ে আছে। ঘটনাটি তিনি পুলিশকে জানালে পুলিশ এসে অস্থায়ীভাবে শহীদ মিনারটি পুনর্নির্মাণ করে। পরে পুনর্নির্মিত শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে মাগুরা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, জাতীয় রবীন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ মাগুরা শাখা, আবৃত্তি সংগঠন কণ্ঠবীথিসহ বিভিন্ন সামাজিক- সাংস্কৃতিক সংস্থা।

সাংস্কৃতিক সংগঠক অ্যাডভোকেট মোখলেছুর রহমান বলেন, এটি শুধু শহীদ মিনার নয়, গোটা জাতির ওপর হামলা। অবিলম্বে দোষীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া প্রয়োজন।

সদর থানার ওসি জানান, তারা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের আঁধারে কেউ এ ঘটনা ঘটিয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

Share

আরও খবর
মাগুরায় হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন

মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১

মহম্মদপুরে নির্বাচনী প্রচারণা

শনিবার ৩০ জানুয়ারী ২০২১




স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতির জনক বিএনপি : কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপিই এদেশে স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতির জনক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি শনিবার সকালে রাজধানীর সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন।

সরকার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ইচ্ছেমত রচনা করছে-বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির নেতৃত্বে স্বাধীনতার চেতনাবিরোধী অপশক্তি যেভাবে ইতিহাস বিকৃতি ঘটিয়েছে, তার বিপরীতে নতুন প্রজন্ম এখন সত্যিকারের ইতিহাস জানতে পারছে।

তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, কারা মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ককে সপরিবারে হত্যার বেনিফিশিয়ারি? কারা এদেশে খুনিদের বিচার চাওয়ার অধিকার হরণ করেছিলো- তা নতুন প্রজন্ম জানতে পারছে বলে বিএনপির গাত্রদাহ শুরু হয়েছে।

বিএনপি মুখোশের আড়ালে স্বাধীনতা বিরোধী উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর এজেন্ডা বাস্তবায়নের পৃষ্ঠপোষক বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে বিএনপিই কৃত্রিম বাধা তৈরি করছে বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন বিএনপির একদিকে নির্বাচন বিমুখ রাজনীতি, অপরদিকে অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্র অব্যাহত রাখায় দেশের গণতন্ত্র বারবার হোঁচট খাচ্ছে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মীমাংসিত বিষয় প্রশ্নবিদ্ধ করার অধিকার কারো নেই।

Share

আরও খবর
গণফোরামের ভাগ্য নির্ধারণ আজ

শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১




ইরফান সেলিমসহ ৫ জননের বিরুদ্ধে চার্জশিট

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর কলাবাগানে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেছে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের উপ-পপরিদর্শক (এসআই) এস এম মুবিনুল হক গত বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন পুলিশ আদালতে এ অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

মামলায় ইরফানসহ পাঁচজনকে অভিযুক্ত করা হয়। ইরফান ছাড়া অপর আসামিরা হলেন- তার দেহরক্ষী জাহিদুল মোল্লা, এ বি সিদ্দিক দিপু, গাড়িচালক মিজানুর ও রিপন কাজী। রিপন কাজী ছাড়া অপর আসামিরা গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন।

মারধর ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে গত ২৬ অক্টোবর ভোরে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান বাদী হয়ে ধানমণ্ডি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলার আসামিরা হলেন- সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিম (৩৭), তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ জাহিদ (৩৫), হাজী সেলিমের মদীনা গ্রুপের প্রটোকল অফিসার এ বি সিদ্দিক দিপু (৪৫), গাড়িচালক মিজানুর রহমানসহ (৩০) অজ্ঞাতপরিচয়ের দুই-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ইরফানের গাড়ি ওয়াসিমকে ধাক্কা মারার পর নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিম সড়কের পাশে মোটরসাইকেলটি থামান এবং গাড়ির সামনে দাঁড়ান। নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে আসামিরা একসঙ্গে বলতে থাকেন, তোর নৌবাহিনী/সেনাবাহিনী বের করতেছি, তোর লেফটেন্যান্ট/ক্যাপ্টেন বের করতেছি। তোকে এখনই মেরে ফেলব

এরপর বের হয়ে ওয়াসিমকে কিল-ঘুষি মারেন ও তার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন। তারা মারধর করে ওয়াসিমকে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যান। তার স্ত্রী, স্থানীয় জনতা ও পাশে ডিউটিরত ধানমণ্ডির ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা তাকে উদ্ধার করে আনোয়ার খান মডেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

এ মামলায় গত বছর ২৮ অক্টোবর দেহরক্ষী জাহিদ ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করে আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

Share

আরও খবর
অবশেষে জামিন পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১




তীব্র তুষারঝড়ে যুক্তরাষ্ট্রে নিহত ২১

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ তুষারঝড়ে বেশ কয়েকটি রাজ্যে অন্তত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে টেক্সাসে অগ্নিকাণ্ডে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তুষারঝড়ে টেক্সাস, লুইজিয়ানা, কেন্টাকি ও মিসৌরিতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

এই শীতকালীন ঝড়ের পর লাখ লাখ টেক্সাসবাসী বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে। প্রাণঘাতী এই টর্নেডো মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে রীতিমতো তাণ্ডব চালায়।

ভয়াবহ এই ঝড়ে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় করোনা টিকা সরবরাহ এবং টিকাদান কর্মসূচি স্থগিত হয়ে গেছে। এই সপ্তাহান্তের আগে এই সেবাগুলো পুনরায় চালু করা সম্ভব হবে না।

তীব্র ঝড়ের পর টেক্সাস বিদ্যুৎহীন হয়ে যাওয়ার পর রাজ্যের কর্মকর্তারা ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে। কারণ সেখানকার জ্বালানি গ্রিড বারবার ফেইল করে। তীব্র ঠাণ্ডায় পশ্চিম টেক্সাসে বড় বায়ুচালিত টারবাইনগুলো থেমে গেছে। এর ফলে বৃদ্ধি পাওয়া বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে পারছে না বিদ্যুৎ কোম্পানিগুলো।

এদিকে ঘরের ভেতর গ্রিল বা প্রোপেন হিটার ব্যবহার না করতে বাসিন্দাদের সতর্ক করে দিয়েছে দক্ষিণ টেক্সাসের কর্মকর্তারা। বরফে জমে থাকা ঘরবাড়িকে গরম করতে এসব সামগ্রী ব্যবহারের পর মানুষজন কার্বন মনোক্সাইড বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে বলেও জানাচ্ছে তারা।

অন্যদিকে ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যগুলোকে যেকোনো সহায়তা করতে কেন্দ্রীয় সরকার প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যগুলোর গভর্নরদের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট।

নিউজ ট্যাগ: তুষারঝড়
Share

আরও খবর