আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

পাত্র পছন্দ হয়নি, ডেকে নিয়ে গলায় ছুরি চালালেন কনে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | ১৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাত্র অপছন্দ ছিল পাত্রীর। অপছন্দের পাত্রকে বিয়ে নারাজ। বাড়িতে জানানোর পরেও পাত্রীর সেই কথা শুনতে চাননি পরিবারের কোনো সদস্য। তাই হবু বরের গলায় ছুরি চালিয়ে তাকে গুরুতরভাবে জখম করেছেন এক তরুণী।

ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনমের চোডাভরম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বুধবার দেশটির গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।

অভিযুক্ত পাত্রীর নাম পুষ্পা। এ ঘটনায় খুনের চেষ্টার অভিযোগ স্বীকার করেছেন ওই পুষ্পা।

পাত্র রামু নাইডু কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চের (সিএসআইআর) একজন বিজ্ঞানী।

জানা যায়, রামু নাইডুর সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক করেছিল পরিবার। অনেক ছেলে দেখার পর রামুকেই পাত্র হিসেবে বেশি নিয়েছিল পুষ্পার পরিবার। কিন্তু প্রথম থেকে সেই বিয়েতে রাজি ছিলেন না পুষ্পা। পাত্রকে নিয়ে নিজের অপছন্দের কথা পরিবারকে জানালেও অবশ্য তাতে কোনও কাজ হয়নি। অগত্যা পুষ্পার অসম্মতিতেই সম্বন্ধ পাকা করে ফেলে তার পরিবার। বিয়ের দিনক্ষণও ঠিক হয়ে যায়। সামনের মাসেই তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। তাই বিয়ের জন্য কেনাকাটা এবং অন্যান্য তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছিল।

হবু বর এবং দু'পক্ষের পরিবার বিয়ে নিয়ে অনেক পরিকল্পনা সেরে ফেললেও কোনোভাবে এই বিয়ে থেকে নিজেকে বাঁচাতে চাইছিলেন হবু কনে। তারপরে হবু বরকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে পরিকল্পনা করে বসে কনে। এজন্য পাত্রকে একটি সারপ্রাইজ ডেটের জন্য ডাকে পাত্রী। তারপরে ছুরি বের করে হবু বরের গলায় চালিয়ে দেয় পুষ্পা।

এ ঘটনায় যুবকের গলায় গুরুতর ক্ষত তৈরি হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। এখনও ওই যুবক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর পরেই পুলিশ পুষ্পাকে গ্রেফতার করে। পুলিশি জেরায় পুষ্পা স্বীকার করেছে পাত্র পছন্দ না হওয়ার কারণেই সে এই কাণ্ড ঘটিয়েছে।

স্থানীয় পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এস গৌতমী বলেন, পুষ্পার বিরুদ্ধে আগে অপরাধমূলক কোনো কাজের অভিযোগ থানায় নেই।

 

 


আরও খবর



মুন্সীগঞ্জে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে ২ জন নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ২৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুন্সীগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলায় একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে দুজন নিহত হয়েছে। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছে আরও এক জন। উপজেলার পুরাবাজার এলাকার একটি নির্মাণাধীন ব্রিজের ঢালে আজ শনিবার ভোর ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর প্রাইভেটকারটি অনেকটা পানিতে ডুবে যায়।

নিহত দুজন হলোজিসান (১৯) ও ফাহিম (১৬)। তারা মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর চরমশুরা গ্রামের বাসিন্দা। আহত অপরজনের নাম জাহিদ হাসান (১৬)। স্থানীয়রা জানান, বেপরোয়া গতিতে প্রাইভেটকারটি চালানোর কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্রিজের পাশের খাদে পড়ে পানিয়ে ডুবে যায়।

টংগিবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোহেব আলী জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পুরাবাজার এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নির্মাণাধীন ব্রিজের ওপরে উঠে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয় লাল রঙের প্রাইভেটকারটি।

মুন্সীগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তোফাজ্জল হোসেন জানান, আজ সকালের দিকে মরদেহ দুটি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। অনেক আগেই তাঁদের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া আহত আরেকজনের অবস্থা গুরুতর। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরও খবর



ইউক্রেনের অভিযোগ স্বীকার করল রাশিয়া

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে বিদেশি সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহ ব্যাহত করতেই রেলওয়ে অবকাঠামোতে রাশিয়া হামলা চালাচ্ছে বলে এর আগে অভিযোগ করেছিল কিয়েভ। রাশিয়া ইউক্রেনের সেই অভিযোগ স্বীকার করেছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

রয়টার্স রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতির বরাত দিয়ে জানায়, রুশ ক্ষেপণাস্ত্র রেলওয়ের ছয়টি স্থাপনা ধ্বংস করেছে। রেলওয়ের ওই ছয়টি স্থাপনা ইউক্রেনীয় বাহিনীকে বিদেশ থেকে অস্ত্র সরবরাহ করতে ব্যবহৃত হচ্ছিল বলে জানিয়েছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

এর আগে ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, স্থানীয় সময় সোমবার সকালে এক ঘণ্টার মধ্যেই দেশটির কেন্দ্র ও পশ্চিমাঞ্চলের পাঁচটি রেলস্টেশন হামলা চালানো হয়। ওইসব হামলায় পাঁচজন নিহত হয়েছে বলেও জানিয়েছিলেন তারা।

লভিভের কাছে ক্রাসনেতে ওভারহেড লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী একটি বিদ্যুৎ সাবস্টেশনও একটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে জানিয়েছিল ইউক্রেন।


আরও খবর



করোনা: বিশ্বজুড়ে কমেছে মৃত্যুর সংখ্যা

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় কমেছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় দুই হাজার মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা নেমে এসেছে পাঁচ লাখের নিচে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে জার্মানি, যুক্তরাজ্য, ব্রাজিল, রাশিয়া ও ফ্রান্স। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫১ কোটি ৬৩ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬২ লাখ ৭৪ হাজার।

শনিবার (৭ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৯৪৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে সাড়ে তিন শতাধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬২ লাখ ৭৪ হাজার ৩০৩ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৯৭ হাজার ৪৫ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে প্রায় ৪৭ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ কোটি ৬৩ লাখ ৭০ হাজার ৭০৩ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৬ হাজার ২৬ জন এবং মারা গেছেন ২৪৮ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৫২ লাখ ৮৯ হাজার ৫৯০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৬ হাজার ৮১২ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৭ হাজার ১১৬ জন এবং মারা গেছেন ২৯১ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৩৫ লাখ ৩৪ হাজার ৬০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২৪ হাজার ৩৮৬ জন মারা গেছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ২২৪ জন এবং মারা গেছেন ১১০ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৮৮ লাখ ৯০ হাজার ১৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৪৬ হাজার ৬০৮ জন মারা গেছেন। একইসময়ে স্পেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৫২৬ জন এবং মারা গেছেন ৬৭ জন।

ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৩ হাজার ৯৪৭ জন এবং মারা গেছেন ১২৫ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৬৭ লাখ ২৬ হাজার ৯৯০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৬৪ হাজার ৩০৪ জন মারা গেছেন। একইসময়ে জাপানে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২১ হাজার ৩৬৮ জন এবং মারা গেছেন ১৮ জন।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩৬ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৫ হাজার ৫৪১ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮২ লাখ ১৬ হাজার ৭১৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৬ হাজার ৬৯৬ জনের। গত একদিনে অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ১ জন এবং মারা গেছেন ৬ জন।

দক্ষিণ কোরিয়ায় গত একদিনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৬ হাজার ৭১৪ জন এবং মারা গেছেন ৪৮ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৭৪ লাখ ৬৪ হাজার ৭৮২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২৩ হাজার ২০৬ জন মারা গেছেন। একইসময়ে থাইল্যান্ডে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৭০৫ জন এবং মারা গেছেন ৬২ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৭৬ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৯ হাজার ৭২৫ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৫ লাখ ৪৩ হাজার ৯০৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ১৪৩ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৭৩৭ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩০ লাখ ৯৮ হাজার ২৮৫ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৩ হাজার ৯৭৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৮ হাজার ১১৩ জন এবং মারা গেছেন ৩০ জন। একই সময়ে কানাডায় নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২৬২ জন এবং মারা গেছেন ৪৩ জন। গ্রিসে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১৩০ জন এবং মারা গেছেন ৩৪ জন।

এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় পোল্যান্ডে ২৫ জন, ইরানে ১২ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৩৪ জন, আয়ারল্যান্ডে ২৩ জন, নিউজিল্যান্ডে ২৩ জন, চিলিতে ১৭ জন, গুয়েতেমালায় ৩০ জন এবং ইন্দোনেশিয়ায় ১৭ জন মারা গেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



‘বঙ্গবন্ধু ব্রি-১০০’ ধান চাষে ঝুঁকছেন কচুয়ার কৃষক

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের নতুন আবিষ্কার বঙ্গবন্ধু ব্রি-১০০’ ধান এখন শোভা পাচ্ছে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বোরো ক্ষেতগুলোতে। কেউ ব্যক্তিগত আবার কেউ বীজ উৎপাদনের লক্ষ্যে এ ধানের আবাদ করেছেন। ভালো ফলনের আশায় এ ধানের আবাদ নিয়ে রঙিন স্বপ্ন চাষিদের চোখে। 

কৃষিবিভাগ ও বীজ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান বলছে, এতে রোগবালাই ও পোকামাকড় আক্রমণের পরিমাণ কম হওয়ায় অনেক কৃষকই ঝুঁকবেন এই ধান আবাদে।

কচুয়া উপজেলায় ২০২১-২০২২ অর্থবছরের রাজস্ব খাতের অর্থায়নে প্রদর্শনী বাস্তবায়নে পরীক্ষামূলক চাষাবাদ করার লক্ষ্যে হাশিমপুর গ্রামে কৃষক আব্দুস সালাম প্রায় ৩৩ শতক জমিতে এই ধান আবাদ করেছেন। ফলন ভালো হওয়ায় সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে কৃষি অফিস। ওই ৩৩ শতক জমিতে বঙ্গবন্ধু ব্রি-১০০’ জাতের ধানের প্রদর্শনী প্লট করেছে উপজেলা কৃষিবিভাগ।

কৃষক মো. আব্দুস সালাম বলেন, এই ব্লকে কৃষিবিভাগ সার, বীজ ও কারিগরি সহায়তা দিয়ে আমাকে সহযোগিতা করছে। রোগবালাই ও পোকামাকড় আক্রমণের পরিমাণ কম হওয়ায় বঙ্গবন্ধু ব্রি-১০০ ধান আবাদে আগ্রহী হচ্ছেন অনেক কৃষক।  বঙ্গবন্ধু জাতের ধানের ফলন বিঘায় ৩০ থেকে ৩৪ মণ। এবার বীজ ও সার পেয়েছি। আশা আছে সামনের বার এ ধান চাষ আরও বেশি করে আবাদ করব।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধু ১০০ ধানের জীবনকাল ১৪৮ দিন, যা ব্রি ধান-৭৪’র প্রায় সমান। গড় ফলন ৭ দশমিক ৭ টন প্রতি হেক্টর। উপযুক্ত পরিচর্যা পেলে অনুকূল পরিবেশে হেক্টর প্রতি ৮ দশমিক ৮ টন পর্যন্ত ফলন হয়ে থাকে। এ বছর কচুয়াতে পরীক্ষামূলক হাশিমপুর ব্লকে প্রায় ৩৩ শতাংশ জমিতে বঙ্গবন্ধু ধান ১০০-এর চাষাবাদ করা হয়েছে।

উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা মো. সোফাফেল হোসেন বলেন, জিংক সমৃদ্ধ এই ধান মানবদেহে জিংকের অভাব পূরণে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে বলে আশা করা যায়। চাল মাঝারি চিকন ও সাদা। জিংকের পরিমাণ প্রতি কেজিতে ২৫ দশমিক ৭ মিলিগ্রাম। চালে অ্যামাইলোজ ২৬ দশমিক ৮ শতাংশ এবং প্রোটিন ৭ দশমিক ৮ শতাংশ। অনেক চাষিরা তার কাছ থেকে আগামী বছর থেকেই বীজ সংগ্রহ করতে পারবেন। অনেক চাষি এরই মধ্যে বীজ নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলেও জানান এই কর্মকর্তা।


আরও খবর
যেসব কারণে ভেড়া পালন লাভজনক

মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২




বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ কাল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৯০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এ বছরে দুটি সূর্যগ্রহণ রয়েছে। একটি এ মাসেই, অন্যটি অক্টোবরে। এ বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণটি ঘটতে চলেছে ৩০ এপ্রিলে। এটি অবশ্য পূর্ণগ্রাস নয়, আংশিক সূর্যগ্রহণ। এটি বাংলাদেশ থেকে দেখা যাবে না।

গ্রহণ সব সময়ই খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে দেখা যাবে এটি। এবারের প্রথম এ গ্রহণের সঙ্গে ঘটছে আরও এক বিরল মহাজাগতিক ঘটনা। সেটি হল 'ব্ল্যাক মুন'। নাসা বলেছে, এ ব্ল্যাক মুনই এবারে সূর্যকে ঢাকবে।  

'ব্ল্যাক মুন' খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। ২০২১ সালে এ ঘটনার মুখোমুখি আমরা হইনি। এর নানা ব্যাখ্যা মহাকাশবিদেরা দেন। কেউ একে বলেন, নিউ মুন, কেউ বলেন কোনো এক অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সিজনের থার্ড মুন, একই ক্যালেন্ডার মান্থে এটিকে সেকেন্ড নিউ মুনও কেউ কেউ বলেন।

৩০ এপ্রিল রাত ১২টা ১৫ মিনিটে গ্রহণ শুরু হয়ে মধ্যরাত পর্যন্ত চলতে থাকবে। এবারের এ সূর্যগ্রহণ বাংলাদেশসহ এশিয়া থেকে দেখা যাবে না। গ্রহণ দেখা যাবে আর্জেন্টিনা, পেরু, বলিভিয়া, উরুগুয়ে, ব্রাজিলের একাংশ, আন্টার্কটিকা, ফকল্যান্ড থেকে।


আরও খবর