আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

পিবিআইয়ের তদন্তে বাদীরাই আসামি হয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বনজ কুমার মজুমদার পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের মহাপরিচালক। একজন দক্ষ তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে এবং সৎ পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে তাঁর সুনাম রয়েছে। পিবিআইকে পুলিশের একটি ফ্ল্যাগশিপ প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছেন নিজ নেতৃত্ব এবং কর্মদক্ষতার গুনে। কিন্তু পিবিআই যে মামলাগুলো তদন্ত করেছে তার একটি বড় অংশই দেখা যাচ্ছে তদন্তে উল্টো ফল হয়। সততার সঙ্গে নিষ্ঠার সঙ্গে তদন্ত হয় জন্য অনেকেই বাদী এই তদন্তে বিভাগ আসামিতে পরিণত হয়। পিবিআই সাম্প্রতিক সময়ে যতগুলো তদন্ত করেছে তার অনেকগুলোতেই এরকম ঘটনা ঘটেছে। তবে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয়েছে মিতু হত্যাকাণ্ড নিয়ে। পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু চট্টগ্রামে আততায়ীর হাতে প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। তার হত্যাকাণ্ডের পর তার স্বামী বাবুল আক্তার বাদী হয়ে মামলা করেন। এই মামলার তদন্তের এক পর্যায়ে বাবুল আক্তারকে পুলিশ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। বাবুল আক্তার সাধারণ জীবনযাপন শুরু করেন। কিন্তু একপর্যায়ে এই মামলার তদন্ত দেওয়া হয়েছিল পিবিআইকে। পিবিআই এই মামলার তদন্ত করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় এবং এক পর্যায়ে মামলার বাদী হয়ে যান আসামি, এরপর নতুন করে মামলা দায়ের করেন।

সাম্প্রতিক সময়ে আরেকটি মামলা নিয়ে পিবিআই আলোচনায় এসেছে। তাহলো মুনিয়ার মৃত্যুর মামলা। গত ১৯ এপ্রিল গুলশানের একটি ফ্ল্যাটে মারা যান মুনিয়া। মুনিয়ার মৃত্যুর পর তা বোন নুসরাত তানিয়া একটি আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলা দায়ের করেছিলেন গুলশান থানায়। গুলশান থানা এই মামলার নানারকম তদন্ত শেষে এবং পোস্টমর্টেম রিপোর্টের ভিত্তিতে আত্মহত্যার কোন প্ররোচনা ঘটেনি মর্মে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেন আদালতে। নুসরাত এই পুলিশ রিপোর্টের বিরুদ্ধে নারাজি দরখাস্ত দেন এবং তার নারাজি দরখাস্তটি যখন আদালত খারিজ করে দেন তখন গত ৬ সেপ্টেম্বর তিনি আরেকটি মামলা দায়ের করেন ৮ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে। সেখানে তিনি নুসরাতকে হত্যা এবং ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন।

উল্লেখ্য যে, একই অভিযোগে মুনিয়ার ভাই সবুজ একটি মামলা করেছিলেন সিএমএম আদালতে। যে মামলাটি আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা তদন্তের স্বার্থে স্থগিত রাখা হয়েছিল। কিন্তু একই বিষয়ে একটি হত্যা মামলা থাকার পরও আবার নতুন করে কেন হত্যা মামলা নেয়া হলো সেটি একটি আইনগত বিতর্কের বিষয়। কিন্তু এই মামলা তদন্ত করতে যেয়ে পিবিআই অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাচ্ছে। বিশেষ করে মুনিয়ার মৃত্যুর অন্যতম আলামত বলে মনে করা হচ্ছে গুলশানের ওই ফ্ল্যাটের সিসিটিভি ফুটেজ। কারণ একটি হত্যাকাণ্ড যদি ঘটে তাহলে অবশ্যই সেই হত্যাকাণ্ডের জন্য কিছু ব্যক্তিকে সশরীরে সেখানে যেতে হবে। বিভিন্ন সূত্র বলছে যে, মুনিয়া হত্যাকাণ্ডের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ঘর থেকে বের হন নাই। কাজেই যদি এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তাহলে এই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কাউকে না কাউকে গুলশানে তার ফ্ল্যাটে যেতে হবে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় যে, যারা মুনিয়ার ফ্ল্যাটে বা ওই বিল্ডিং এ গিয়েছিল তাদের মধ্যে অন্তত তিনজন নুসরাতের পরিচিত এবং নুসরাতের সাথে ঘনিষ্ঠ। এই তিনজনকেই পরবর্তীতে গুলশান থানায় নুসরাতের সঙ্গে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা করতে দেখা গেছে। এই তিনজনকেই আবার নুসরাতের সঙ্গে সিএমএম আদালতে দেখা গেছে। একটি সূত্র বলছে যে, পিবিআই এই তিনটি সিসি ফুটেজ দেখে এই তিনজন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করবে। এরা যদি নুসরাতের লোক হয় তাহলে নুসরাতের পরিণতিও বাবুলের মত হবে। কারণ পিবিআইয়ের তদন্তে বাদী যদি অভিযুক্ত হন তাহলে তাকে আসামি করতে পিছপা হয়না এই এলিট তদন্তকারী সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: পিবিআই

আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আদালতে হাজির করা হচ্ছে ইভ্যালির রাসেলকে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




চাঁপাইনবাবগঞ্জে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আব্দুল্লাহ আল মামুন

আগামী ২০২১/২২ অর্থবছরে সদর উপজেলায় উচ্চ ফলনশীল পাট ও পাট বীজ আবাদ বৃদ্ধি ও উৎপাদনের লক্ষে বাংলাদেশ সরকারের কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে পাট বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১১ টায় সদর উপজেলা পরিষদের হলরুমের সামনে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ তসিকুল ইসলাম (তসি)।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহানের সভাপতিত্বে সার বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কানিজ তাসনোভা এবং সিনিয়র সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাসুদ রানা।

এ সময় নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহান বলেন, কৃষিবান্ধব সরকার কৃষকদের দুর্দশার কথা চিন্তা করে এই করোনাকালীন সময়ে কৃষি প্রণোদনা বিতরণের নির্দেশনা দিয়েছে কৃষি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের। কৃষিকে আধুনিক ও বাণিজ্যিকভাবে লাভবান করার জন্য সরকার কৃষকদের প্রণোদনার মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করছে। কৃষকদের বিনামূল্যে সার, বীজ দিয়ে সহায়তা করছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ কৃষকদের মধ্যে এ সব উপকরণ বিতরণ করা হলো।

তিনি আরও বলেন, একটা সময় ছিলো যখন সারের দাবীতে ১৬ জন কৃষকের মৃত্যু হয়। বীজের জন্য ছিলো হাহাকার। কৃষিমন্ত্রী বলেছিলেন, সারের জন্য কৃষক ছুটবে না, সার কৃষকের বাসায় চলে যাবে। আর প্রধানমন্ত্রী দিন-রাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, কৃষক বাঁচলেই দেশ বাঁচবে। তাই কৃষকদের সার ও বীজ যথাযথভাবে ব্যবহার করার অনুরোধ রইলো।


আরও খবর



পরীমনি-সাকলায়েনের ভিডিও সরানোর নির্দেশনা চেয়ে রিট

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | ৮১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি ও ডিবি পুলিশ কর্মকর্তা গোলাম সাকলায়েন শিথিলের ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সব প্ল্যাটফর্ম থেকে সরানোর নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

একইসঙ্গে ওই ঘটনা নিয়ে করা সব প্রতিবেদনও সরানোর নির্দেশনা চাওয়া হয়।

বুধবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তাসমিয়া নুহাইয়া আহমেদ এ রিট দায়ের করেন। রিটে তথ্য মন্ত্রণালয় ও বিটিআরসিসহ সশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

আইনজীবী তাসমিয়া জানান, সব মাধ্যম থেকে চরিত্রহানিকর রিপোর্ট/ব্যক্তিগত ছবি/ভিডিও সরিয়ে ফেলার নির্দেশনা চেয়ে রিট করা হয়েছে।

একুশে টেলিভিশনের সাবেক সাংবাদিক ও বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ইলিয়াস হোসেনের ইউটিউব চ্যানেলে গত ১০ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে পরীমনি-সাকলায়েনের ব্যক্তিগত মুহূর্তের একটি ভিডিওটি আপলোড করা হয়।

ফাঁস হওয়া ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা হয়, পরীমনি ও পুলিশ কর্মকর্তা সাকলায়েনের গোপন ভিডিও! সাকলায়েন পরীমনির সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্কের কথা অস্বীকার করলেও তাদের গোপন একটি ভিডিও আমাদের কাছে পাঠান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেকজন পুলিশ কর্মকর্তা।


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত আরও ২৬৬ জন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | ৬০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে আরও ২৬৬ জন ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ২৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ২২০ জন ও ঢাকার বাইরে ৪৬ জন ভর্তি হয়েছেন। এর আগে সোমবার (৩০ আগস্ট) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল ২৩৩ জন।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত হাসপাতালে মোট রোগী ভর্তি হয়েছে ১০ হাজার ৩৫৬ জন ডেঙ্গু রোগী। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯ হাজার ১১০ জন। আর ডেঙ্গুতে ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ডেঙ্গু বাসায় থাকা এডিস মশার কামড়ে হয়। নগরীর চার পাশের ময়লা-আবর্জনার স্তূপ থাকা, নোংরা ড্রেন পরিষ্কার না করায় চলতি বর্ষা মৌসুমে মশার প্রজনন বেড়ে গেছে। অথচ নগরীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখলে এবং মশার প্রজননক্ষেত্র ধ্বংস করলেই মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।


আরও খবর
করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু আরও কমল

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




দশম শ্রেণির পড়া দিয়েই এসএসসি, গ্রুপ বিভাজন নেই

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাজন থাকবে না। ২০২৩ সাল থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত নতুন শিক্ষাক্রম চালু করবে সরকার। 

নতুন শিক্ষাক্রম অনুযায়ী, এইচএসসি পরীক্ষার নাম ও গ্রেডিং পদ্ধতির পরিবর্তন হতে পারে। 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সোমবার জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা উপস্থাপনের পর সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

দীপু মনি বলেন, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির চূড়ান্ত পরীক্ষার ফল মিলে হবে এইচএসসির ফল। এইচএসসি পরীক্ষার নাম ও গ্রেডিং পদ্ধতির পরিবর্তন হতে পারে। 

তিনি বলেন, দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাজন থাকবে না। তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত বার্ষিক পরীক্ষাও হবে না।

পঞ্চম শ্রেণির প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) এবং অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষাও থাকবে না বলে জানান মন্ত্রী। এছাড়া শুধু ১০ শ্রেণির পাঠ্যক্রমে হবে পাবলিক পরীক্ষা হবে বলে জানান তিনি।  


নিউজ ট্যাগ: এসএসসি

আরও খবর



ভাণ্ডরিয়ায় মাদক ব্যবসায়ীর মুক্তির দাবিতে জাতীয় পার্টি (জেপি)র মানববন্ধন!

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মধ্য ভাণ্ডরিয়া এলাকার বাসিন্দা মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে মাসুদ সরদারকে ভাণ্ডরিয়া পুলিশ গত ৪ আগস্ট দিবাগত রাতে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের মধ্য ভাণ্ডরিয়া এলাকা থেকে ৩০৫ পিস

পিরোজপুরের ভাণ্ডরিয়ায় ৩০৫ পিস ইয়াবাসহ পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হওয়া মাদক ব্যবসায়ী ও হত্যা মামলার আসামি দুই সহোদরের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে উপজেলা জাতীয় পার্টি (জেপি), জাতীয় যুব সংহতি ও জাতীয় ছাত্র সমাজ। মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিকালে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া মাসুদ সরদার ও মামুন সরদার জাতীয় যুব সংহতির নেতা দাবি করে তাদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ এবং মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন করা হয়েছে।

ভাণ্ডরিয়া উপজেলার কলেমা চত্বরে যুব সংহতির আহ্বায়ক মো. রেজাউল হক রেজভি জোমাদ্দারের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, যুব সংহতি নেতা মো. মাহবুব শরীফ শুভ, পৌর ছাত্র সমাজের আহ্বায়ক মেহেদী হাসান রাজু, ছাত্র সমাজের নেতা মো. রায়হান আকন, যুব সংহতি নেতা বাবু তালুকদার, বাদশা খান, মামুন হাওলাদার, মির্জা রিপন প্রমুখ।

এসময় বক্তারা বলেন, মামুনুর রশিদ সরদার ভাণ্ডরিয়া উপজেলা যুব সংহতির সদস্য সচিব আর তার ভাই মাসুদ সরদার যুব সংহতির স্থানীয় নেতা। তাদেরকে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমরা গ্রেপ্তারকৃতদের মুক্তির দাবি জানাই।

মানববন্ধন শেষে একটি মিছিল কলেমা চত্বর থেকে শুরু করে উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রধান কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

প্রসঙ্গত, মধ্য ভাণ্ডরিয়া এলাকার বাসিন্দা মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে মাসুদ সরদারকে ভাণ্ডরিয়া পুলিশ গত ৪ আগস্ট দিবাগত রাতে পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের মধ্য ভাণ্ডরিয়া এলাকা থেকে ৩০৫ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠায়। সে বর্তমানে পিরোজপুর জেলে রয়েছে।

অন্যদিকে, মাসুদ সরদারের ভাই মামুনুর রশিদ সরদারকে বরিশালের উজিরপুর থানার একটি মাদক মামলার এজাহারভুক্ত আসামি হিসেবে গ্রেপ্তার করে বরিশাল কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। গত ২৩ আগস্ট র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) এর একটি দল ঢাকা থেকে মামুন সরদারকে গ্রেপ্তার করে বরিশালের উজিরপুর পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

ভান্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মেহেদী হাসান জানান, মাসুদ সরদারকে ভাণ্ডরিয়া থানা পুলিশ ৩০৫ পিস ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করেছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে ভান্ডারিয়া থানায় একটি হত্যা মামলাসহ মাদক ও বিভিন্ন অপরাধে আরও ১১টি মামলা রয়েছে।


আরও খবর