আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

পিরোজপুরে বঙ্গবন্ধু যুব পরিষদের নেতা শেখ মিরাজের উপর হামলা

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ১৯১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
পিরোজপুর শহরের সিও অফিস মোড়ে ব্রীজের উত্তর পাশে চলন্ত মোটরসাইকেল আরোহী মোঃ শেখ মিরাজকে অতর্কিত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের

পিরোজপুর সদরে প্রতিপক্ষের মধ্যে হামলায় বঙ্গবন্ধু যুব পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মিরাজসহ অন্তত ৪ জন আহত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে এ ঘটনার পর আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শনিবার সকালে রক্তাক্ত জখম বঙ্গবন্ধু যুব পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মিরাজকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আজ শনিবার শেখ মিরাজের ভাই শেখ রিয়াজ উদ্দিন ২১ জন এজাহার ভূক্তসহ অজ্ঞাত আরও ১০-১২ জনকে আসামী করে মামলা করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতদের স্বজনেরা জানান, ৩০ এপ্রিল সন্ধ্যায় পিরোজপুর শহরের সিও অফিস মোড়ে ব্রীজের উত্তর পাশে চলন্ত মোটরসাইকেল আরোহী মোঃ শেখ মিরাজকে অতর্কিত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায় সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সুমন সিকদার ও সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম জিহানের নেতৃত্বে ১৮/২০ জন মোটরসাইকেল আরোহী। পরে আহতদেরকে তাদের আত্মীয়স্বজন ও স্থানীয়রা উদ্বার করে রাতে জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহতদের মধ্যে মিরাজ শেখের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় শনিবার সকালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে কর্তৃপক্ষ।

স্বজনেরা আরও জানান, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি সুমন সিকদার, সহ-সভাপতি জহিরুল ইসলাম জিহান, ছাত্রলীগ সদস্য এমরান সিকদার, আরমান সিকদার, মামুন (ডিম মামুন), আলী, শুভ ফকির, সম্রাট সিকদার, কাইয়ুম শেখ, সাজ্জাদ সর্দার সহ ১৮/২০ জন ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে সুমন গংরা। এদিকে বাড়ির ভিতরে থাকা প্রবাসী রাজু ফকিরের ভাই রনি ফকির সাংবাদিকদের জানান, সন্ত্রাসীরা হঠাৎ করে বাড়ির ভিতরে এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে। এসময় ঘরে থাকা আসবারপত্র ভাংচুর করে।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বাদল জানান, ঘটনাটি জানার পরপরই অকূস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। এ বিষয়ে অভিযোগের তদন্ত শেষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



ইফতারে কাঁচা আম রাখার উপকারিতা

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গ্রীষ্মের তীব্র তাপমাত্রায় কর্ম ব্যস্ততা আর রোজা থাকার পর সন্ধ্যায় ইফতারে কিছু স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার প্রয়োজন হয়। ব্যস্তময় জীবনে মানুষ হাতের কাছে তাৎক্ষণিক প্রস্তুত যা পায় সেটাই স্বাচ্ছন্দ্যে গ্রহণ করে। এবার তাহলে ইফতারে আম রাখার উপকারিতা তুলে ধরা হলো-

ওজন নিয়ন্ত্রণ : যারা অনাকাঙ্ক্ষিত বেড়ে যাওয়া ওজন কমাতে চান তাদের জন্য আম খুবই উপকারী। পাকা মিষ্টি আমের থেকে কাঁচা আমে চিনির পরিমাণ কম থাকে। এটি আপনার ক্যালোরি খরচ করতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।

অম্লতা দূর করা : বুক জ্বালাপোড়া বা অম্লতার সমস্যা থাকলে কাঁচা আম থেকে মুক্তি পাবেন। এ জন্য ইফতারে অন্যান্য ফলমূলের সঙ্গে কাঁচা আম রাখতে পারেন।

অ্যাসিডিটির সমস্যা দূর করবে : খাদ্যাভ্যাসের জন্য অধিকাংশ মানুষই এই অ্যাসিডিটির সমস্যায় ভুগেন। রোজা রেখে ইফতারে কয়েক টুকরো কাঁচা আম খাওয়ার ফলে অ্যাসিডিটি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এছাড়া হজমেও সহায়তা করবে।

রক্তের সমস্যা সমাধান : আয়রন বা লৌহ থাকায় রক্তস্বল্পতা সমস্যা সমাধানে কাঁচা আম বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ : যাদের ডায়াবেটিস রয়েছে তারা কাঁচা আম খেতে পারেন। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে কাঁচা আম।

কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা সমাধান করে : কাঁচা আম খাওয়ার ফলে হজমজনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এটি অন্ত্রকে পরিষ্কার করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্যজনিত সমস্যা দূর করে। কাঁচা আম লবণ মাখিয়ে মধুসহ খেলে এই সমস্যা থেকে দ্রুতই সমাধান পাওয়া যায়।

নিউজ ট্যাগ: কাঁচা আম

আরও খবর



টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে একধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ মে ২০২১ | ৪৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিছুদিন আগেই নিউজিল্যান্ড থেকে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়ে ফিরেছে বাংলাদেশ। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশকে হারিয়ে আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠেছে নিউজিল্যান্ড। এই ফরম্যাটের র‍্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়নি বাংলাদেশের। তবে টি-টোয়েন্টিতে হারলেও র‍্যাঙ্কিংয়ে একধাপ এগিয়েছে লাল-সবুজের দল।

গতকাল সোমবার র‍্যাঙ্কিংয়ে বার্ষিক হালনাগাদ করেছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। যেখানে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের তালিকায় বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে সরিয়ে এক নম্বর জায়গা দখল করেছে নিউজিল্যান্ড।

নতুন হালনাগাদে ২০১৭-১৮ মৌসুমের পারফরম্যান্স বিবেচনার বাইরে চলে গেছে। গত বছরের মে মাস থেকে দলগুলোর পারফরম্যান্স হিসেবে নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১২১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে নিউজিল্যান্ড। এক নম্বর থেকে চারে নেমে গেছে ইংল্যান্ড। দুই ধাপ এগিয়ে ১১৮ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে উঠেছে অস্ট্রেলিয়া। একধাপ পিছিয়ে তিনে আছে ভারত। ১০৭ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ছয় নম্বরে পাকিস্তান। ৯০ পয়েন্ট নিয়ে আগের মতো সাতেই আছে বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কাকে টপকে আটে উঠেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। লঙ্কানরা নেমে গেছে নয় নম্বরে। আগের মতো দশে আছে আফগানিস্তান।

আগের মতোই টি-টোয়েন্টিতে শীর্ষে আছে ইংল্যান্ড। ওয়ানডের পাশাপাশি টি-টোয়েন্টিতেও উন্নতি হয়েছে নিউজিল্যান্ডের। দুই ধাপ এগিয়ে তিনে আছে কিউইরা। দুইয়ে আছে ভারত। চারে পাকিস্তান, পাঁচে অস্ট্রেলিয়া। ছয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা, সাতে আফগানিস্তান, আটে শ্রীলঙ্কা। টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে ১ রেটিং পয়েন্ট হারালেও এক ধাপ এগিয়ে ৯ নম্বরে উঠেছে বাংলাদেশ। দুই ধাপ পিছিয়ে দশ নম্বরে নেমে গেছে দুবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ।


আরও খবর



দুবাই থেকে আসা বিমানে মিললো ২ কোটি টাকার স্বর্ণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ এপ্রিল ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে ২৮টি স্বর্ণবার জব্দ করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর কর্মকর্তারা।

শুক্রবার দুবাই-ঢাকা বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটের সিটের নিচে পরিত্যক্ত অবস্থায় ওই স্বর্ণবার পাওয়া যায়।

বিমানবন্দর শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, জব্দ করা স্বর্ণের বারের ওজন সোয়া ৩ কেজি। যার বর্তমান বাজার মূল্য ২ কোটি ৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা। পাচারের উদ্দেশে উড়োজাহাজের সিটের নিচে এসব স্বর্ণবার লুকিয়ে রেখেছিলেন বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে আসা এক শ্রেশির যাত্রীবেশী চোরাকারবারি।

কর্মকর্তারা জানান, বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে বিমানবন্দরে অবতরণ করে বাংলাদেশ বিমানের এই বিশেষ ফ্লাইট। এসময় গোপন সংবাদে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সহকারী পচিালক মো. ইফতেখার আলম ভুঁইয়ার নেতেৃত্বে বিমানের এ ফ্লাইটে অভিযান চালানো হয়।

এ ব্যপারে শুল্ক গোয়েন্দার সহকারী পরিচালক মো. ইফতেখার আলম ভুঁইয়া জানান, আগে থেকেই গোপন সংবাদ ছিল বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে (দুবাই-ঢাকা) স্বর্ণের চালান বহন করবে যাত্রীবেসী চোরাকারবারি। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বিমানবন্দরে বৃদ্ধি করা হয় শুল্ক গোয়েন্দার নজরদারি। যাত্রীরা নামার পর তাতে অভিযান চালায় শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

তিনি আরও বলেন, জব্দ স্বর্ণবারের বাজার মূল্য ২ কোটি ৬ লাখ ২৫ হাজার টাকা। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, এ নিয়ে গত ৬ মাসে বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশ  বিমানের ভেতর থেকে ৬টি চোরাই স্বর্ণবারের চালান থেকে প্রায় ৩০ কেজির বেশি স্বর্ণবার জব্দ করা হয়েছে। তবে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে শনাক্ত করা যায়নি।

এ ছাড়া বেসরকারি  ইউএস বাংলার এয়ারলাইন্সের একটি খাবারের গাড়ি থেকে  থেকে ৭ কেজি স্বর্ণবার জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় ইউএস বাংলার ৮ কর্মীকে আটক করে বিমানবন্দর থানায় সোর্পদ করা হয়। এ নিয়ে বিমানবন্দর কেন্দ্রিক চোরাকারবারি চক্রের বহন করা মোট ৩৭ কেজি স্বর্ণ জব্দ করা হয়।


আরও খবর



গোসল করতে নেমে তিন শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র নদে গোসল করতে নেমে তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুই শিশুকে জীবিত উদ্ধার করে স্থানীয়রা।   

মৃত শিশুরা হলো শহরের সানকিপাড়া এলাকার নাসিরের ছেলে সায়েম (৭) সহিদুল ইসলামের ছেলে জিহাদ (৫) ও হাবিবুর রহমানের ছেলে রাহাত (৮)। জীবিত উদ্ধার করা শিশুরা হল স্বরণ (৭) ও রিফাত (৭)।

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার মজিবুর রহমান বলেন, আজ দুপুর ২টার দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পাঁচ শিশুকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তিন শিশুকে মৃত ঘোষণা করেন। অন্য দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এস আই) মেহেদী হাসান এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

স্বজনদের বরাত দিয়ে ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা মজিবুর রহমান বলেন, প্রতিদিনই এই শিশুরা পরিবারকে না জানিয়ে শহরের জয়নুল উদ্যান এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদে গোসল করতে আসে। আজ তারা গোসল করতে নেমে আর জীবিত ফিরেনি। অন্য দুজন অপেক্ষাকৃত কম গভীরতায় গোসল করছিল বলে তারা প্রাণে বেঁচে গেছে।


আরও খবর



ভারতে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধিতে ‘ডাবল মিউট্যান্ট’ দায়ী, আশঙ্কা কর্মকর্তাদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে নভেল করোনাভাইরাসের ভয়াল দ্বিতীয় ঢেউ বা তীব্র সংক্রমণের পেছনে ভাইরাসটির ডাবল মিউট্যান্ট ভ্যারিয়ান্ট দায়ী হতে পারে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

ভারতে করোনায় আক্রান্তের উচ্চ হার রয়েছে এমন বেশ কয়েকটি রাজ্যে ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় করোনার মিউট্যান্ট বা বি.১.৬১৭ ভ্যারিয়ান্টের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। ভারতের জাতীয় রোগ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের একজন কর্মকর্তা বলেন, ভাইরাসের এই ধরনটি তাঁরা গত মার্চে শনাক্ত করেছিলেন। ডাবল মিউট্যান্ট বলতে বুঝায়, যখন ভাইরাসটির মিউটেশন একসঙ্গে দুবার ঘটে। তবে কেবল এ ধরনটিই সংক্রমণের তীব্রতার জন্য দায়ী কি না, সে বিষয়ে নিশ্চয়তা দিতে পারেননি ওই কর্মকর্তা।

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ ১২ হাজারের বেশি মানুষ। আর, এ সময়ে মারা গেছে তিন হাজার ৯৮০ জন। এদিকে, ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউ শিগগিরই শুরু হতে পারে বলে সরকারের বিজ্ঞান বিষয়ক একজন উপদেষ্টা হুঁশিয়ার করেছেন। ভারত সরকারের বিজ্ঞানবিষয়ক উপদেষ্টা কে বিজয়রাঘবন দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক ব্রিফিংয়ে স্বীকার করেন যে, ভারতে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির ভয়াবহতার বিষয়ে বিশেষজ্ঞেরা আঁচ করতে পারেননি। কে বিজয়রাঘবন বলেন, ভাইরাস যেভাবে উচ্চ হারে ছড়াচ্ছে, তাতে তৃতীয় পর্যায়ের (তৃতীয় ঢেউ) সংক্রমণ অনিবার্য।

তবে, এই তৃতীয় পর্যায় কখন আসবে, তা স্পষ্ট নয়... আমাদের (সংক্রমণের) নতুন ঢেউয়ের জন্য প্রস্তুত থাকা উচিত, যোগ করেন কে বিজয়রাঘবন। এদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গত সপ্তাহে সারা বিশ্বে যত মানুষ নতুন করে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে, তার প্রায় অর্ধেকই হয়েছে ভারত। কেবল তাই নয়, গত সপ্তাহে বিশ্বে করোনায় মোট মৃত্যুর চার ভাগের এক ভাগ ছিল ভারতে।



আরও খবর