আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

পঞ্চম দফার অবরোধে ঢাকায় যান চলাচল স্বাভাবিক

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পঞ্চম দফায় সারাদেশে বিএনপি-জামায়াতের ডাকা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ চলছে। তবে অবরোধেও রাজধানীর সড়কগুলোতে যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। বুধবার (১৫ নভেম্বর) সকাল ৬টা থেকে অবরোধ শুরু হয়।

সকাল থেকেই রাজধানীর গুলিস্তান, পল্টন, প্রেস ক্লাব, শাহবাগ, বাংলামোটর ও কাওরান বাজার, রামপুরা, মালিবাগ, নিউমার্কেট, ধানমন্ডি, আসাদগেট ও মহাখালী এলাকায় যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। অবরোধের অন্যান্য দিনের তুলনায় এদিন রাস্তায় গণপরিবহন ও ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা অনেকটা বেড়েছে। 

আরও পড়ুন>> শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতার দায় নেবে না সরকার

এদিকে পঞ্চম দফা অবরোধ শুরুর আগেই মঙ্গলবার রাতে রাজধানীতে চারটি বাসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এর আগে, সোমবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অবরোধের ঘোষণা দেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। একই দিন জামায়াতে ইসলামীও অবরোধের ডাক দেয়।

উল্লেখ্য, গত ২৮ অক্টোবর রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশ চলছিল। সমাবেশ চলাকালে এক পর্যায়ে দলটির নেতাকর্মীরা পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এর ফলে মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। পরে রোববার (২৯ অক্টোবর) সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করে দলটি। হরতাল শেষে একদিন বিরতি দিয়ে ৩১ অক্টোবর থেকে টানা তিন দিন অবরোধ কর্মসূচি দেওয়া হয়; যা শেষ হয় গত ২ নভেম্বর। এরপর বিরতি দিয়ে দিয়ে তিন দফায় অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে দলটি। পরে চতুর্থ দফায় ১১ ও ১২ নভেম্বর অবরোধ পালন করা হয়। এরপর ১৪ নভেম্বর একদিনের বিরতি দিয়ে ১৫ নভেম্বর সকাল ৬টা থেকে পঞ্চম দফায় ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ ডাকা হয়।


আরও খবর
খারাপ হয়েছে ঢাকার বায়ু

শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪




রাঙ্গুনিয়ায় চার শিশুকে বলাৎকার, শিক্ষকের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রামে মাদ্রাসার চার ছাত্রকে বলাৎকারের দায়ে একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডিত আসামির নাম নাছির উদ্দিন।

রোববার চট্টগ্রাম নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক জয়নাল আবেদিন এ আদেশ দেন।

নাছির উদ্দিন রাঙ্গুনিয়ার মহত পাড়ার শান্তিনিকেতন এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে ও ওই এলাকার আহমদিয়া আজিজুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষক।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি জিকো বড়ুয়া। এদিকে আদালত পর্যবেক্ষণে দণ্ডিত আসামিকে সিরিয়াল রেপিস্ট হিসাবে উল্লেখ করেছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

নাছির উদ্দিন প্রলোভন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ছাত্রদের বলাৎকার করে আসছিলেন। ২০২০ সালের ১৯ আগস্ট  বলাৎকারের শিকার চার ছাত্রের পক্ষে একজন অভিভাবক ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওইদিনই অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্ত শেষে ২০২১ সালের ৪ জুলাই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। ২০২২ সালের ২৫ জানুয়ারি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(১) ধারায় ধর্ষণের অভিযোগে চার্জ গঠন করা হয়। মামলায় ১১ সাক্ষীর সাক্ষ্য নেওয়া শেষে এ আদেশ দেন আদালত।

চট্টগ্রাম নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিশেষ পিপি জিকো বড়ুয়া বলেন, আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও চার লাখ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



দক্ষিণ সুরমায় স্কোয়াশ চাষে সফল কৃষক জহির উদ্দিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় স্কোয়াশ চাষে সফল হয়েছেন প্রবাস ফেরত কৃষক জহির উদ্দিন। উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নে বাড়ির পাশে প্রথমবারের মতো পরীক্ষামূলক ২ বিঘা জমিতে স্কোয়াশ চাষ করেছেন তিনি। দুএকদিন পর পর জমি থেকে ফলন তুলে স্থানীয় বাজারে বিক্রি করছেন। অনেকে এসে জমি থেকে কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের রায়খাইলের জহির উদ্দিনের জমিতে আবাদকৃত স্কোয়াশ গাছে ফলন এসেছে। প্রতি পিস ফলনের ওজন ৫০০ গ্রাম থেকে দেড় কেজি পর্যন্ত। দুজন শ্রমিক নিয়ে জমিতে পরিচর্যা করছেন তিনি। পাশের জমিতে চাষ করেছেন টমেটো, কাঁচা মরিচ, ফুলকপি, বাঁধাকপি ও বেগুনসহ নানা ধরনের শীতকালীন সবজি।

কৃষক জহির উদ্দিন জানান, প্রবাস থেকে ফিরে আর কিছু করতে না পেরে স্থানীয় কিছু পতিত জমিতে সবজি চাষ শুরু করি। প্রাথমিক ভাবে সফলতা লাভ করায়

৪ বছর ধরে কৃষি কাজ করছি। কৃষিকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়েছি। আমার এ সফলতা দেখে এলাকার অনেকেই আজ কৃষি কাজে এগিয়ে এসেছে পাশাপাশি পতিত জমি গুলো ও চাষাবাদের আওতায় চলে এসেছে। আমি এবার প্রথমবারের মতো ২ শতক জমিতে পরীক্ষামূলক স্কোয়াশ চাষ করেছি। বাজার থেকে বীজ নিয়ে বপন করেছি। প্রথমবারই সফল হয়েছি। জমিতে আগে থেকে মালচিং করা ছিল। তাই তেমন খরচ হয়নি। মাত্র ৩ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এরই মধ্যে ২৫ হাজার টাকা বিক্রি করেছি। আরও ৪০ হাজার টাকা বিক্রি করতে পারবো।

তিনি আরো বলেন, একটি গাছে ১০-২০ কেজি পর্যন্ত ফলন হয়। ঢাকার কয়েকটি সুপার শপের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। তারা আগামীতে আমার কাছ থেকে স্কোয়াশ কিনে নেবেন। তাই আগামীতে সিদ্ধান্ত নিয়েছি চাষের পরিধি আরও বাড়াবো।

এছাড়া ৪ বছর ধরে আগাম সবজি চাষ করে যাচ্ছি। প্রথমে সামান্য জায়গায় আগাম টমেটো চাষ শুরু করি। এবছর  ৩ শতক জমিতে টমেটো, ২ শতকে শসা,১ শতকে তাল বেগুন,২ শতকে জালি কুমড়াও ২ শতকে ঢেড়স চাষ করেছি। ফলন ভালো হয়েছে, আশা করি আর্থিক ভাবে লাভবান হতে পারবো।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা গৌতম পাল বলেন, উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের জহির উদ্দিন খুবই পরিশ্রমী একজন কৃষক। তিনি সব সময় আগাম সবজি চাষ করে ভালো লাভবান হয়ে থাকেন। এবার স্কোয়াশ চাষ করে সফল হয়েছেন। তাকে সব সময় কৃষি অফিস থেকে পরামর্শসহ বিভিন্ন ধরনের সহযোগিতা করা হয়।

উল্লেখ্য, জহির উদ্দিন গত বছর তার জমিতে মরুভূমির ফসল সাম্মাম চাষ করে বেশ সাড়া জাগিয়েছিলেন। তার এ ব্যতিক্রমী উদ্যোগ দেখতে বিভাগ ও জেলার কৃষি কর্মকর্তারা পরিদর্শন করেছিলেন।


আরও খবর



ইমরান খানের প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে যা বলছে পিটিআই

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের নির্বাচনে সরকার গঠন নিয়ে এখনো চলছে নানা সমীকরণ। ক্ষমতায় কারা আসছে আর কে হবেন প্রধানমন্ত্রী তা নিয়ে শুরু হয়েছে আরেক চ্যালেঞ্জ। এর মধ্যে ফলে এগিয়ে থাকা পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ব্যারিস্টার গওহর প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে মুখ খুলেছেন। দ্য সিয়াসাতের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পিটিআইয়ের এ নেতা বলেন, ইমরান খানই পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা ঠিক করবেন। তিনি সবসময় নেতা, তাতে তিনি জেলে থাকেন অথবা বাইরেই থাকেন।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিটিআই নির্বাচনে ১৭০ আসনে জয়ী হওয়ার দাবি করেছে। এছাড়া ২২টি আসনে তারা নির্বাচিত হলেও তাদের পরাজিত করে দেওয়া হয়েছে। যদিও নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, পিটিআই ৯৪ আসনে বিজয়ী হয়েছে।

নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন লাভের এমন দাবির পর দ্রুত জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে পিটিআই। সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ঘনিষ্ঠ ও মিডিয়া উপদেষ্টা জুলফি বুখারি জানিয়েছেন, পিটিআই খুব দ্রুতই দলীয় ব্যানারের নাম ঘোষণা করবে। এরপরই স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এ জোটে যোগ দিতে বলা হবে। শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নিজেরা সরকার গঠন করতে পারে না। এজন্য তাদের কোনো দলের সঙ্গে জোট করতে হয়। সরকার গঠনের জন্য বিজয়ী হওয়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের কোনো দলের মনোনয়ন নিতে হবে।

জুলফি বুখারি বলেন, আমাদের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কোথাও যাওয়ার ভয় নেই। কেননা এসব প্রার্থীরা গত ১৮ মাস ধরে সংগ্রাম করে আসছে। তারা সব ধরনের অত্যাচার ও নির্যাতন সহ্য করে এসেছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে এখন পর্যন্ত সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৬৫টি আসনের ফল ঘোষণা করেছে ইসিপি। এতে সর্বোচ্চ ১০৪টি আসন পেয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। তাদের মধ্যে ইমরান সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পেয়েছেন ৯৫টি। নওয়াজ শরিফের পিএমএমএল-এন ৭৪টি আসন নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টোর দল পিপিপি। তারা পেয়েছে ৫৪টি আসন। বাকি আসনগুলো অন্যরা পেয়েছেন। এ ছাড়া একটি আসনের প্রার্থী গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ায় ওই আসনে ভোট স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।


আরও খবর



স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে ধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতাসহ রিমান্ডে ৪ জন

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) মীর মশাররফ হোসেন হলে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুরসহ চার আসামির তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাবেয়া বেগমের আদালত তাদের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ডে নেয়া অপর আসামিরা হলেন- সাব্বির হাসান, সাগর সিদ্দিক ও হাসানুজ্জামান।

এদিন, তাদেরকে আদালতে হাজির করে মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান। অপরদিকে আসামি পক্ষে রিমান্ড বাতিল ও জামিন চেয়ে শুনানি করা হয়।

শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মীর মশাররফ হোসেন হলের 'এ' ব্লকের ৩১৭ নম্বর কক্ষে স্বামীকে আটকে রেখে হল সংলগ্ন পাশের জঙ্গলে নিয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণ করা হয়।

ভুক্তভোগী নারীর স্বামী আশুলিয়া থানায় ছয়জনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তারা হলেন- জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, একই বিভাগের সাগর সিদ্দিকী ও হাসানুজ্জামান এবং উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী সাব্বির হাসান।

পলাতক আছেন ভুক্তভোগীর পূর্বপরিচিত মো. মামুনুর রশিদ এবং স্বামীকে আটকে রাখায় সহায়তা ও মারধর করা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মুরাদ। তাদেরকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর



শহিদ দিবস ও আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের শ্রদ্ধা

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা আন্দোলনে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক পিএলসি.।

বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক পিএলসি এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোঃ হাবিবুর রহমান গাজীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে ব্যাংকের সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।


আরও খবর