আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

প্রাণিসম্পদ খাতকে বিশ্বমানে উন্নয়নের লক্ষ্যে চুক্তি

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জুলাই 20২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জুলাই 20২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশের প্রাণিসম্পদ খাতকে বিশ্বমানে উন্নয়নের লক্ষ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় এবং জেনটিয়াম সলিউশন ও লাইভস্টক সার্ভিস অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার উন্নত প্রযুক্তি বাংলাদেশের প্রাণিসম্পদ খাতে ব্যবহার করার উদ্দেশে এই চুক্তি হয়েছে। এই চুক্তি স্বাক্ষরের পরিপ্রেক্ষিতে এখন এর সম্ভাব্যতা যাচাই করা হবে।

রবিবার (২৩ জুলাই) মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এতে স্বাক্ষর করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব ড. নাহিদ রশীদ, জেনটিয়াম সলিউশন প্রাইভেট লিমিটেডের চেয়ারম্যান মো. ইকতেদার হাসান মুরাদ ও লাইভস্টক সার্ভিস অস্ট্রেলিয়ার পরিচালক জন থম্পসন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

 মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐকান্তিক ইচ্ছা ও উদ্যোগে ১৯৭৩ সালে গবাদিপশুতে যুগান্তকারী কৃত্রিম প্রজনন প্রযুক্তি প্রবর্তন ও ব্যাপকভাবে সম্প্রসারণের মাধ্যমে গবাদিপশুর জাত উন্নয়ন ও উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির বহুমাত্রিক কার্যক্রম গ্রহণ করার ফলে দেশি গরুর উন্নয়ন ঘটেছে। প্রথমে অস্ট্রেলিয়ান গরু বাংলাদেশে এনে এদেশের গরুর জাত সমৃদ্ধকরণ শুরু হয়।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব বলেন, অস্ট্রেলিয়ার উন্নত প্রযুক্তি কিভাবে বাংলাদেশে ব্যবহার করা যায় তারই উদ্যোগে এই চুক্তি হয়েছে। কারণ, অস্ট্রেলিয়ার লাইভস্টক খাত খুবই উন্নত। অস্ট্রেলিয়ার অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে আমাদের দেশে লাইভস্টক খাত আরও উন্নত করা সম্ভব।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নৃপেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ, তোফাজ্জলে হোসেন, এ. টি.এম. মোস্তফা কামাল, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের পরচিালক, ডা. মলয় কুমার শূর।

জেনটিয়াম সলিউশনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র উপদেষ্টা কায়কোবাদ হোসেন, উপদেষ্টা ড. মোহাম্মদ বেলায়তে হোসেন, পরিচালন অধিকর্তা ইফতখোর হাসান তারেক, পরিচালক কেভিন প্যাট্রিক হিগিন্স, ব্যবসা উন্নয়ন পরিচালক ড. আরফিুল হক, ব্যবসায়িক সহযোগী আন্তোনিও গিয়াচি, ব্যবসা উন্নয়ন পরার্মশদাতা মোহাম্মদ হোসাইন কেনি এবং লাইভস্টক সার্ভিস অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক জন থম্পসন, জ্যেষ্ঠ পরার্মশদাতা মার্ক লুইস, প্রকল্প পরিচালক ড. বেন মাদিন।


আরও খবর



নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার কারণ জানালেন রওশন

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

জাতীয় পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ অবশেষে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার বিষয়টি পরিষ্কার করেছেন।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর কাকরাইলে নিজ বাসভবনে আয়োজিত বর্ধিত সভায় তিনি বলেন, অনেকে প্রশ্ন করেন আমি কেন নির্বাচনে অংশ নিলাম না। মূলত ভোটে জয়ী হওয়ার মতো জাপার অনেক নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি, তাদের বাদ দিয়ে তো আমি নির্বাচন করতে পারি না।

তাছাড়া আমার ছেলের আসনও কেড়ে নেওয়া হয়েছে। তাকে ফেলে রেখে আমি নির্বাচনে যেতে পারি না।

তিনি আরও বলেন, এতকিছুর পরেও সব কিছু মেনে নিতে পারতাম, যদি নির্বাচনে জাতীয় পার্টির ভরাডুবি না হতো। পার্টিকে ধ্বংসের শেষ সীমানায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এটা আমি কীভাবে মেনে নেব?

রওশন বলেন, জাপার নেতাকর্মীদের দাবির মুখে আমি পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিতে বাধ্য হয়েছি। আপনারাই জাপার সব ক্ষমতার উৎস। আপনাদের চাওয়া মতেই পার্টি পরিচালিত হবে।

জাতীয় পার্টিতে পূর্ণাঙ্গ গণতান্ত্রিক চর্চা হবে বলেও জানান তিনি।


আরও খবর



‘সুপার টুইসডে’র আগে আবারও ধাক্কা খেলেন ট্রাম্প

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

সুপার টুইসডের আগে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে গিয়ে আবারও ধাক্কা খেলেন রিপাবলিকান দলের সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। ক্যাপিটল হিল দাঙ্গায় তার ভূমিকার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের একজন বিচারক গতকাল বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ট্রাম্পের প্রাইমারি ব্যালট বাতিল ঘোষণা করেছেন। খবর এএফপির।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের আরও কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে এ ধরনের আদেশের পর ইলিনয়ের কুক কাউন্টি জজ ট্রেসি পোর্টার একই ধরনের আদেশ দিলেন। এ ছাড়া কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের একটি রুলিং এখনও যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টে অপেক্ষমান রয়েছে। 

আরও পড়ুন>> ঘানায় সমকামী হিসেবে চিহ্নিত হলেই তিন বছরের কারাদণ্ড

২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল হিলে ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থকরা হামলা চালালে তার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ উসকে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এরপর কলোরাডোর আদালত ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্সয়াল প্রাইমারিতে অযোগ্য ঘোষণা করে। এ মাসের শুরুতে কলোরাডোর আদালতের সেই রুলিংটি নিয়ে হাইকোর্ট সন্দেহ প্রকাশ করে সংকেতও দেয়। তবে ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের আদালতের সিদ্ধান্তকে অন্যায্য ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত দাবি করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এ বিষয়ে ট্রাম্পের নির্বাচনি প্রচার অফিস এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছে। এক বার্তায় বলা হয়, এর মাধ্যমে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ব্যালটে তার অধিকার থেকে তাকে বঞ্চিত করতে ডেমোক্রেট দলের সামনের সারির নেতারা নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করছে।

এদিকে, প্রত্যাশিত পাল্টা ব্যবস্থার মুখে আপিলের জন্য ইলিনয়ের বিচারক আগামী শুক্রবার নাগাদ তার সিদ্ধান্ত স্থগিত রেখেছেন। এ ব্যাপারে ট্রাম্পের নির্বাচনি অফিস থেকে বলা হয়, এই সময়ের মধ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্প ব্যালটে থাকবেন এবং তার মেইক আমেরিকা গ্রেট এগেইন প্রচারণা চালিয়ে যাবেন। নির্বাচনি প্রচারণায় তিনিই এগিয়ে আছেন। 

আরও পড়ুন>> মধ্যপ্রদেশে পিকআপ উল্টে নিহত ১৪, আহত ২১

আগামী ৫ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোসহ আরও এক ডজনেরও বেশি রাজ্যে অনুষ্ঠিত হবে প্রেসিডেন্সিয়াল প্রাইমারি। সুপার টুইসডে হিসেবে পরিচিত এই দিনটির আগেই সুপ্রিমকোর্ট তার কাঙ্ক্ষিত রুলিং দেবে বলে আশা করা হচ্ছে।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪




বেইলি রোডে আগুন: ভিকারুননিসার শিক্ষিকা ও তার মেয়ে নিহত

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর বেইলি রোডের বহুতল ভবনে আগুনের ঘটনায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষিকা লুৎফুর নাহার করিম (৪৭) ও তার মেয়ে ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী জান্নাতি তাজরিন (২৩) নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রী ও মেয়ের মরদেহ শনাক্ত করেন এম. এ. এইচ গোলাম মহিউদ্দিন।

বিলাপ করতে করতে তিনি জানান, তার স্ত্রী দাঁতের ব্যথায় ভুগছিলেন। দাঁত দেখাতে হাসপাতালে যান মেয়েকে নিয়ে। ফেরার পথে কাচ্চি খেয়ে আসার পরামর্শ দেন মহিউদ্দিনই। এখন স্ত্রী-মেয়ের মৃত্যুর জন্য তিনি নিজেকে অপরাধী মনে করছেন।

কলাবাগান থানার উপপরিদর্শক (এএসআই) গোলাম হোসেন বলেন, নিহতদের স্বজনেরা যাদের শনাক্ত করেছেন আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তাদের মরদেহ হস্তান্তর করা হচ্ছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে বেইলি রোডে একটি বহুতল ভবনে আগুন লাগে। এতে অন্তত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর আহত হয়েছেন অন্তত ২২ জন। এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।


আরও খবর



নিউইয়র্কে গোলাগুলিতে একজন নিহত, আহত ৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক সিটির একটি সাবওয়ে স্টেশনে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন নিহত এবং আরও পাঁচজন আহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় শহরটির স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর এএফপি, আল জাজিরা।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নিউইয়র্কের একটি সাবওয়ে স্টেশনে বন্দুকধারীর গুলিতে একজন নিহত ও পাঁচজন আহত হয়।

দমকল বিভাগ জানিয়েছে, হামলার ঘটনার পর বিকেল সাড়ে ৪টার পর স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়। এই ঘটনায় ছয়জনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

নিউইয়র্ক শহরের পুলিশ ট্রানজিট প্রধান মাইকেল কেম্পার বলেন, আমরা বিশ্বাস করি না যে, এটা লক্ষ্যহীন কোনো হামলা। একটি ট্রেনে দুই গ্রুপের মধ্যে বিবাদ থেকেই এই হামলার সূত্রপাত হয়েছে।

তিনি বলেন, দূর্ভাগ্যবশত হামলায় ৩৪ বছর বয়সী এক তরুণ নিহত হয়েছে। এছাড়া আহতদের মধ্যে ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরী, ১৫ বছর বয়সী এক কিশোর এবং ৭১ বছর বয়সী এক ব্যক্তি রয়েছেন।

এই ঘটনায় জড়িতদের খুঁজছে পুলিশ। যুক্তরাষ্ট্রে গোলাগুলির ঘটনা যেন সাধারণ ঘটনা হয়ে উঠেছে। যেখানে মানুষের চেয়ে বন্দুকের সংখ্যাই বেশি এবং প্রায় এক তৃতীয়াংশ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির কাছেই আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে।

তবে যুক্তরাষ্ট্রের অন্যান্য শহরের তুলনায় নিউইয়র্কে বন্দুক হামলায় হত্যার ঘটনা কম। দেশটিতে প্রায় সব ক্ষেত্রেই বেসামরিক নাগরিকদের জনসমক্ষে আগ্নেয়াস্ত্র রাখা বেআইনি।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪




স্পেসএক্সে যৌন হয়রানি ও বৈষম্যের অভিযোগ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

রকেট ও স্যাটেলাইট নির্মাতা ইলন মাস্ক স্পেসএক্স প্রতিষ্ঠানে কর্মচারীদের সঙ্গে ব্যাপক বৈষম্য ও যৌন হয়রানি মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়েছেন বলে ওঠা অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক নাগরিক অধিকার সংস্থা। প্রতিষ্ঠানটির ইঞ্জিনিয়ারদের একটি গ্রুপ নাগরিক অধিকার সংস্থার কাছে অভিযোগ করে, স্পেসএক্স ও প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহীর সমালোচনা করায় তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যম রয়টার্সে বরখাস্ত হওয়া ইঞ্জিনিয়ারদের আইনজীবী লরি বার্গেস এ তথ্য জানিয়েছেন।

স্পেসএক্সের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো- স্পেসএক্সে চাকরি ও পদোন্নতির ক্ষেত্রে নারীদের চেয়ে পুরুষদের প্রাধান্য, তুলনামূলকভাবে পুরুষদের চেয়ে নারী কর্মীদের বেতন কম, যৌন হয়রানিমূলক মন্তব্য করা ও প্রতিশোধ নেওয়ার প্রবণতা। সাবেক কর্মচারীদের তোলা এ সব অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক নাগরিক অধিকার সংস্থা। 

রয়টার্সের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ইঞ্জিনিয়ারদের একটি গ্রুপটি মার্কিন ন্যাশনাল লেবার রিলেশনস বোর্ডে (এনএলআরবি) স্পেসএক্সের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। মামলায় উল্লেখ করা হয়, ফেডারেল শ্রম আইন লঙ্ঘন করে তাদের বরখাস্ত করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

তবে সাবেক কর্মীদের মামলায় দমে যায়নি স্পেসএক্স। উল্টো মার্কিন ন্যাশনাল লেবার রিলেশনস বোর্ডের বিরুদ্ধে মামলা করেছে প্রতিষ্ঠান, যাতে এজেন্সিটি সাবেক কর্মীদের দায়ের মামলা এগিয়ে নিতে না পারে। একই সঙ্গে দাবি করা হয়েছে যে, এনএলআরবি বোর্ডের সদস্য এবং অভ্যন্তরীণ বিচারকদের মার্কিন সংবিধান মেনে নিয়োগ দেওয়া হয়নি।

তবে স্পেসএক্স অভিযোগের বিষয়ে মন্তব্য জানতে যোগাযোগ করা হলেও সাড়া দেয়নি। আর সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা থাকায় তদন্তের বিষয়ে কথা বলেনি এনএলআরবি।

সার্বিক বিষয়ে আইনজীবী লরি বার্গেস বলেন, প্রকৌশলীদের অভিযোগ সত্য তা প্রমাণ করা ও স্পেসএক্সে কর্মীদের জন্য একটি নিরাপদ কর্মক্ষেত্র তৈরি করা তাদের উদ্দেশ্য। 


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪