আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রী গরীব বান্ধব এবং জনবান্ধব সরকার: রেজাউল করিম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | ৪৭১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
কেউ যদি মাছ চাষ করতে চায় আমরা তার পুকুর খনন করে বিনা মূল্যে মাছের পোনাও সরবরাহ করব। চাকুরির পিছনে না ঘুরে আমাদের নিজেই নিজের উদ্যোক্তা হওয়া উচিত এবং আমরা স্বাবলম্বী

পিরোজপুর সদর উপজেলায় প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী দিন ব্যাপী মেলার আয়োজন করা হয়। জেলা প্রাণিসম্পদ মিলনায়তনে এ প্রদর্শনী মেলার উদ্বোধন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বশির আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মো.সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান।

প্রদর্শনী মেলায় বিভিন্ন খামারীদের ২৫টি স্টল অংশ গ্রহণ করে। এসময় মন্ত্রী খামারীদের স্টলগুলো ঘুরে দেখেন এবং তিনি প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিতগ্রস্ত গোখামারীদের হাতে গোখাদ্য ও ভিটামিন তুলে দেন। পরে সদর উপজেলা পরিষদের আয়োজনে প্রাকৃতিক দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ঢেউটিন ও চেক বিতরণ, বিভিন্ন কর্মসংস্থানের নিমিত্তে সুফলভোগীদের মাঝে বকনাগরু বিতরণ এবং মন্দিরভিত্তিক শিক্ষাকার্যক্রমের পুরস্কার ও সাউন্ডসিস্টেম বিতরণ করেন।

এসময় মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হলেন গরীব বান্ধব এবং জনবান্ধব সরকার। তিনি আছেন বিধায় আজকে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে। তিনি আছেন বলেই এ দেশে একটা লোকও না খেয়ে মারা যায় না। বাজার সহনীয় পর্যায় এবং খামারীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে বাজারে ভ্রাম্যমাণ বিক্রয় কেন্দ্র করা হয়েছে। করোনা মহামারির পরিস্থিতিতে জীবন ও জীবিকা নির্বাহের মধ্য দিয়ে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে সামনের দিকে।

মন্ত্রী বলেন, কেউ যদি মাছ চাষ করতে চায় আমরা তার পুকুর খনন করে বিনা মূল্যে মাছের পোনাও সরবরাহ করব। চাকুরির পিছনে না ঘুরে আমাদের নিজেই নিজের উদ্যোক্তা হওয়া উচিত এবং আমরা স্বাবলম্বী হয়ে গ্রামীন অর্থনীতিকে স্বচল রাখবো।

তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারন করতে না পারলে, আমাদের উন্নতি ব্যহত হবে। তাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারন করে দেশটাকে সবাই মিলে এগিয়ে নিতে হবে। 

নিউজ ট্যাগ: শ ম রেজাউল করিম

আরও খবর



ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে ক্ষতিগ্রস্ত সুন্দরবন, মৃত ৪ হরিণ উদ্ধার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৭ মে ২০২১ | ১৪৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ঠ জলোচ্ছ্বাস ও প্রবল বাতাসে সুন্দরবনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

সুন্দরবনের ওপর দিয়ে ৫-৬ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে কয়েকটি জলযান, ওয়াচ টাওয়ার, গোলঘর, রাস্তা, ফুট রেইল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এবং জোয়ারের পানিতে ডুবে মারা গেছে অন্তত চারটি হরিণ।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) সকালে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন বিষয়টি জানিয়েছেন।

মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব শুরু হওয়ার পর থেকে সুন্দরবন সংলগ্ন নদ-নদী ও খালে পানি বাড়তে থাকে। বুধবার প্রায় ৫-৬ ফুট পানি উঠে যায় সুন্দরবনে। পানির তোড়ে পূর্ব সুন্দরবনের ১৯টি জেটি, ৬টি জলযান (ট্রলার) দুটি গোলঘর, একটি ফুট রেইল, একটি ওয়াচ টাওয়ার, চারটি স্টাফ ব্যারাক ও একটি রেস্ট হাউজ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। অন্তত দশটি অফিসের টিনের চালা উড়ে গেছে। সুন্দরবনের মধ্যে সুপেয় পানির সংস্থান হিসেবে পরিচিত ৯টি পুকুরে লবণ পানি প্রবেশ করেছে। সুন্দরবন থেকে দুটি এবং লোকালয় থেকে ২টি হরিণের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সুন্দরবনের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের দুটি কুমিরের শেড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই হিসেবে পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের অন্তত ৬০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। তবে আশার কথা হচ্ছে সুন্দরবনের একমাত্র বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্র করমজলের কোনো প্রাণীর ক্ষতি হয়নি।

সুন্দরবনের করমজল বন্য প্রাণি প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির জানান, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বাস ও বাতাসে কুমিরের দুটি শেড নষ্ট হয়েছে। পানি বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বন্য প্রাণিগুলোকে নিরাপদ স্থানে নেওয়া হয়েছে। এ যাত্রায় কোনো বন্যপ্রাণীর ক্ষতি হয়নি।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. জয়নাল আবেদিন জানান, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাব ও পূর্ণিমা তিথির জোয়ারের কারণে বনে স্বাভাবিকের চেয়ে ৫ থেকে ৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পায়। এই পানিতে বনের প্রায় সব এলাকা প্লাবিত হয়েছে। সুন্দরবনসংলগ্ন বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার বলেশ্বর নদীর তীরবর্তী রাজেশ্বরে একটি হরিণের, উত্তর তাফালবাড়িতে একটি, সুন্দরবনের দুবলা ও কচিখালী এলাকায় একটি করে হরিণের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত আর কোনো বন্যপ্রাণী মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে, সেব দ্যা সুন্দরবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম জানান, প্রতিটি ঝড় জলোচ্ছ্বাস থেকে সুন্দরবন আমাদের রক্ষা করে। তবে আমাদের রক্ষা করলেও ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখিন হয় সুন্দরবন। ইয়াসের প্রভাবে এখন পর্যন্ত ৪টি হরিণ মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।



আরও খবর



আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে তরুণীকে গণধর্ষণ

প্রকাশিত:শনিবার ২৯ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৯ মে ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে এক তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়ার থানার ওসি (তদন্ত) জিয়াউল হক।

এ ঘটনায় ওই বাসটি জব্দ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আশুলিয়ার ছোট বাজার এলাকা থেকে একটি মিনিবাসে নিজ গন্তব্যে যাচ্ছিলেন ওই তরুণী। পথের মধ্যে ফাঁকা রাস্তায় তাকে ৬ জন  গণধর্ষণ করে। পরে মিনিবাসটি জাহাঙ্গীরনগরের বিশমাইলের দিকে যাওয়ার সময় পুলিশ চেকপোস্টে থামানোর সংকেত দেয়। সেখানে বাসটি থামার পরই পুলিশ সদস্যরা তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৬ ব্যক্তিকে আটক করে। এ সময় বাসটিও জব্দ করে থানা নিয়ে যাওয়া হয়।

পরে ওই তরুণীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।


নিউজ ট্যাগ: গণধর্ষণ

আরও খবর



সুদানকে ৬৫ কোটি টাকা দিলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | ৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে সুদান। দেশটির দারিদ্র্য বিমোচনে ৬৫ কোটি টাকা দিয়েছে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) মাধ্যমে এই টাকা দেয়া হয়েছে।

আজ বুধবার(১৬ জুন) অর্থমন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আইএমএফ-এর আহ্বানে ঋণগ্রস্ত দরিদ্র রাষ্ট্র এবং ওআইসি সদস্যভুক্ত বন্ধুপ্রতীম সুদানের ঋণ মওকুফের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার ৬৫ কোটি টাকা দিয়েছে। সরকার প্রত্যাশা করে ডেবিট রিলিফ হিসেবে বাংলাদেশের এ অর্থায়ন দারিদ্র্য বিমোচনে সুদানের সংগ্রাম আরও শক্তিশালী করবে।

উল্লেখ্য, গেলো বছরও আইএমএফ-এর উদ্যোগের অংশ হিসেবে আফ্রিকান দেশ সোমালিয়ার দারিদ্র্যমুক্তির জন্য বাংলাদেশ সরকার ৮ কোটি টাকার অধিক অর্থ দিয়েছিল।


আরও খবর



চাঁপাইনবাবগঞ্জে লকডাউন অমান্য করায় ৩৮ জনকে জরিমানা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৪ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৪ জুন ২০২১ | ১৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আব্দুল্লাহ আল মামুন

বিশেষ লকডাউনে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। লকডাউন অমান্য ও মাস্ক না পড়ার দায়ে ৩৮ জনকে ২৭ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ -এর নির্দেশে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত এ অভিযান চালায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ জাকিউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দেবেন্দ্রনাথ উরাঁও, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ লিয়াকত আলী সেখ, সহকারী কমিশনার চন্দন কর সহ জেলা উপজেলার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেটগণ ।

জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে ৮টা পর্যন্ত ১২ জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের দল চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরসহ বিভিন্ন উপজেলায় অভিযান চালিয়ে লকডাউন অমান্য করে দোকান-পাট খোলা, বিনাপ্রয়োজনে রাস্তায় মোটরসাইকেল নিয়ে বের হওয়া এবং মাস্ক না পরার দায়ে ৩৮ জনকে ২৭ হাজার ৫শ টাকা জরিমানা করা হয়। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ১১টি মামলায় ৪ হাজার ৬শ টাকা, শিবগঞ্জে ১১টি মামলায় ১১ হাজার টাকা, নাচোলে ৮টি মামলায় ৫ হাজার ৭শ টাকা, ভোলাহাটে ৪টি মামলায় ৪ হাজার টাকা এবং গোমস্তাপুরে ৪টি মামলায় ২ হাজার ২শত টাকা। এসময় ভ্রাম্যমান আদালতকে সহায়তা প্রদান করেন পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা।

এদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং আরটিপিসিআর ল্যাবে ১৫১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ২১, শিবগঞ্জে ১৮, গোমস্তাপুরে ২৪ ও ভোলাহাটে ১৭ জন। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার প্রায় ৫৩ শতাংশ। আর র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ১০৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ৫, গোমস্তাপুরে ১০, নাচোলে ৭ ও ভোলাহাটে ৩ জন। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার প্রায় ২৪ শতাংশ। এছাড়া, জিন এক্সপার্ট টেস্টে ৫ জনের নমুনার পরীক্ষায় ৪ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরে ৪ জন। সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী জানান, করোনায় আক্রান্ত হয়ে জেলার ৫ জন ২৫০ শয্যার জেলা হাসপাতালে ভর্তির পর তাদের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয় এবং গত বৃহস্পতিবার পর্যায়ক্রমে তারা মারা যান। আক্রান্ত ব্যক্তিদের উপসর্গ না থাকায় আজ শুক্রবার সকাল থেকে তার বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনের মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়া শুরু করা হয়েছে। আর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ৩০ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছে।

উল্লেখ্য, জেলায় এ পর্যন্ত মোট ২২৪০ জনের দেহে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। আর ১১২৯ জন সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। মারা গেছে ৪৫ জন।


আরও খবর



করোনায় ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু কমলো

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | ১৪৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ জনের মৃত্যুতে দেশে মোট মৃত্যু বেড়ে ১২ হাজার ৫৮৩ জন হলো। আর নতুন এক হাজার ৪৪৪ জন শনাক্তসহ এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩০ জনে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৪৪৪ জন। রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ জনের মৃত্যুতে দেশে মোট মৃত্যু বেড়ে ১২ হাজার ৫৮৩ জন হলো। আর নতুন এক হাজার ৪৪৪ জন শনাক্তসহ এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৮৩০ জনে। 

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ২৭৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষার অনুপাতে শনাক্তের হার ১০ দশমিক ১১ শতাংশ।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১