আজঃ শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশে অসাংবিধানিক ধারায় ক্ষমতা দখলের পথ বন্ধ হয়েছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৬৮৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের করে এনে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত করেছেন

জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের করে এনে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

গতকাল ছিল রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনার ৭ম দিন।

গত ১৮ জানুয়ারি বছরের প্রথম অধিবেশনের প্রথম দিন রাষ্ট্রপতি সংসদে ভাষণ দেন। গত ১৯ জানুয়ারি চীফ হুইপ নুর-ই-আলম চৌধুরী রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করলে সরকারি দলের সদস্য উপাধ্যক্ষ মো. আবদুস শহীদ এ প্রস্তাব সমর্থন করেন।

আজ স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকের শুরুতে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা ও উত্তর টেবিলে উপস্থাপন ও ৭১ বিধিতে নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করা হয়।

এর পর আইন প্রণয়ন কার্যাবলী শেষে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা শুরু হয়।

আজ আলোচনায় অংশ নেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান, সরকারি দলের মুজিবুল হক, এনামুল হক, বেনজির আহমেদ, জহিরুল হক ভূইয়া মোহন, নুরুল আমিন, শেখ এ্যানি রহমান, জাতীয় পার্টির রানা মো. সোহেল ও নাজমা আখতার।

আলোচনায় অংশ নিয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অসংখ্য সাফল্যের মধ্যে সব চেয়ে বড় সাফল্য হচ্ছে দেশকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকে বের করে এনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ সুপ্রতিষ্ঠিত করেছেন।

তিনি বলেন, এছাড়া তাঁর নেতৃত্বে দেশে অসাংবিধানিক ধারায় ক্ষমতা দখলের পথ বন্ধ হয়েছে। দেশের সর্বোচ্চ আদালত সংবিধানের ৫ম সংশোধনী বাতিল করায় সে অনুযায়ী সংবিধান সংশোধন করে অবৈধ পন্থায় ক্ষমতা দখলের পথ বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর খুনীসহ জেল হত্যার খুনীদের বিচার নিশ্চিত করেছেন। সাথে সাথে দীর্ঘদিন পর যুধাপরাধীদের বিচার ও তা কার্যকর করে দেশ ও জাতিকে কলংকমুক্ত করেছেন। বিচার হয়েছে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার। এভাবে তিনি আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সুশাসন নিশ্চিত করেছেন।

মন্ত্রী বলেন, এ সরকারের অসংখ্য অর্জনের মধ্যে বর্তমান সময় সবচেয়ে বড় অর্জন নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ। এ সেতু শুধু উন্নয়নের মেলবন্ধ নয়। দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে এ সেতু নির্মাণ করে শেখ হাসিনা তাঁর সততা, সাহস, দৃঢ়তা, দক্ষতা, আত্মবিশ্বাস এবং দেশপ্রেমের প্রমাণ দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জনগণের সংবিধানে উল্লেখিত অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা এ পাঁচটি মৌলিক অধিকারও নিশ্চিত করে যাচ্ছেন। এর অংশ হিসাবে মুজিববর্ষে দেশের প্রায় ৯ লাখ গৃহহীনকে গৃহ প্রদান করা হচ্ছে। এরমধ্যে ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবারকে ইতোমধ্যে গৃহ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, তাঁর নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশে এখন বাস্তব। এর সুফল দেশের জনগণ ভোগ করছে। দেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলায় পরিণত হচ্ছে।

আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারি দলের সদস্যরা বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ মোকাবেলায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের সাফল্যের কথা তুলে ধরে বলেন, এ মহামারিতে যখন গোটা বিশ্ব পর্যদুস্ত তখন প্রধামন্ত্রীর বলিষ্ট ও দক্ষ নেতৃত্ব এবং সময়োপযোগি পদক্ষেপের ফলে দেশ আবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

তারা বলেন, এসব পদক্ষেপ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় প্রশংসিত হয়েছে। এ জন্য বিশ্বে ৮ জন সফল নারী নেতৃত্বের তালিকায় প্রধানমন্ত্রীর নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এছাড়া আমেরিকার সংবাদ সংস্থা ব্লুমবার্গের সমীক্ষায় বিশ্বের ১৮৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ করোনাকালের সাফল্যের দিক থেকে ২০তম স্থান অর্জন করে।

Share

আরও খবর



করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ২৬ লাখ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ২৬ লাখ ৩৮ হাজার ৪৪৬ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ লাখ ৯৫ হাজার ৩৩৯ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৮ কোটি ৮২ লাখ ২৫ হাজার ৪৬৮ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৫ লাখ ১৪ হাজার ৯৯৬ জন এখন পর্যন্ত মারা গেছেন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এই পর্যন্ত ২ কোটি ৮৮ লাখ ৯৭ হাজার ৭১৮ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ২ লাখ ৬০ হাজার ৬২১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৪৮ হাজার ৬৪৬ জনের। তবে মৃত্যু বিবেচনায় মেক্সিকোর অবস্থান তৃতীয়।

আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে চতুর্থ অবস্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ১০ লাখ ২৯ হাজার ৩২৬ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৫৬ হাজার ৫৯৮ জনের।

দেশে করোনাভাইরাসের আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮ হাজার ৩৭৪ জনে। এছাড়াও এখন পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৪৪ হাজার ১১৬ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

Share

আরও খবর



১৩ ফেব্রুয়ারি ডিগ্রি ২য় বর্ষের পরীক্ষা শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৬১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সারাদেশে মোট ১ হাজার ৮৭৭টি কলেজের ৭০২টি কেন্দ্রে ১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮৮জন শিক্ষার্থী ২য় বর্ষের পরীক্ষায় অংশ নেবেন। পরীক্ষার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৯ সালের ২য় বর্ষ ডিগ্রী পাস ও সার্টিফিকেট কোর্স পরীক্ষা আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি থেকে সারাদেশে একযোগে শুরু হবে। পরীক্ষা চলবে ২৩ মার্চ পর্যন্ত। শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন দুপুর ২টা থেকে পরীক্ষা শুরু হবে। বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সারাদেশে মোট ১ হাজার ৮৭৭টি কলেজের ৭০২টি কেন্দ্রে ১ লাখ ৯০ হাজার ৪৮৮জন শিক্ষার্থী ২য় বর্ষের পরীক্ষায় অংশ নেবেন। পরীক্ষার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুর ক্যাম্পাসে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। জরুরি যেকোন সমস্যা ০২-৯২৯১০১৭ এবং ০২-৯২৯১০৩৮ নম্বরে যোগাযোগের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

Share

আরও খবর



করোনা: সুস্থ হয়েছে ৮ কোটি ১৪ লাখ

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৪ লাখ ৯৭ হাজার ১৭৪ জন এখন পর্যন্ত মারা গেছেন

বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই থামছে না। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ কোটি ৯৩ লাখ ৮৭ হাজার। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ লাখ ১১ হাজার ৪৩৬ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ৮ কোটি ১৪ লাখ ৭০ হাজার ৬০০ জন। করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৪ লাখ ৯৭ হাজার ১৭৪ জন এখন পর্যন্ত মারা গেছেন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। এই পর্যন্ত ২ কোটি ৮২ লাখ ৬১ হাজার ৪৭০ জন এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যু বিবেচনায় করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ হচ্ছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৯৮ লাখ ৩৪ হাজার ৫১৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৩৯ হাজার ২৯৪ জনের। তবে মৃত্যু বিবেচনায় মেক্সিকোর অবস্থান তৃতীয়। আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা ভারত মৃত্যু বিবেচনায় আছে চতুর্থ অবস্থানে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৯১ লাখ ৬ হাজার ১৭২ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৫৫ হাজার ৭৬৪ জনের।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী এ পর্যন্ত ১৮৮টি দেশে ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

Share

আরও খবর



মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছেন বিজেপি নেতারা, সামনে নেই শ্রোতা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১১১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মঞ্চে বক্তব্য দিচ্ছেন বিজেপির এক নেতা। তার পাশে আরও অনেক নেতা। কিন্তু যাদের উদ্দেশে বক্তব্য তারা নেই। চেয়ারগুলো ফাঁকা। গোটা মাঠে একজন মাত্র দর্শক। আরেকজন মঞ্চের নিচে। তিনি মাইক সার্ভিসের লোক। আলোচিত এই ভিডিওটি পশ্চিমবঙ্গে ভাইরাল হয়েছে।

এমনই একটি ছবি শেয়ার করে ট্রোল করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের তারকা সাংসদ নুসরাত জাহান। গেরুয়া শিবিরের দিকে কটাক্ষ ভরা এই মিম ছুঁড়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন নুসরাত। জনপ্রিয় পাওরি মিমের ধাঁচে একটি মিম শেয়ার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আর নুসরাতের সৌজন্যে সেই মিম ভাইরাল হয়েছে।

বাংলায় যে বিজেপির কোনও জায়গা নেই, এটাই দেখানো হয়েছে মিমে। ফাঁকা মাঠে বিজেপির সভা হচ্ছে- এমন একটি ছবির নিচে ক্যাপশন, ইয়ে বিজেপি ফর বেঙ্গল হ্যায়। ইয়ে উনকি জনসভা হ্যায়। ঔর ইঁহা ইনকি পাওরি হো রহি হ্যায়।

হিন্দিতে ক্যাপশন লেখার কারণ হলো- অধিকাংশ বিজেপিই হিন্দি ভাষার লোক। কিছু দিন আগে পাকিস্তানি মডেল দানানীর একটি ভিডিওতে একদম বিদেশি উচ্চারণে পার্টিকে পাওরি উচ্চারণ করে বলেছিলেন, এই আমি। এটা আমার গাড়ি। আর এখানে পার্টি চলছে।

রাতারাতি ভাইরাল সেই ভিডিওতে ইউটিউবার যশরাজ মুখাটে ফান এলিমেন্ট যোগ করতেই রমরমিয়ে চলছে পাওরি ভার্সান। যুব সম্প্রদায়ের নজর টানতে তাই শাসকদলের হাতিয়ার নয়া পাওরি ভার্সান। ঠিক যেভাবে বাম দল ২৮ ফেব্রুয়ারির বিগ্রেড মিটিংয়ের প্রচারে দ্বারস্থ হয়েছে টুম্পা সোনার।

Share

আরও খবর
নেপালি পুলিশের গুলিতে যুবক নিহত

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১

কুয়েতে মাসজুড়ে কারফিউ ঘোষণা

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১




করোনার নতুন রূপের বিরুদ্ধে আস্ট্রাজেনেকার টিকা কার্যকর

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসের নতুন রূপটির বিরুদ্ধে আস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন করা টিকা কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে। করোনার প্রথম রূপটির বিরুদ্ধে যেই মাত্রায় টিকাটি কার্যকর, ঠিক সেই মাত্রায় রূপান্তরিত নতুন রূপটির বিরুদ্ধেও এটি কার্যকর।

শুক্রবার অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এ তথ্য জানিয়েছে।

ইংল্যান্ডের দক্ষিণে কেন্ট শহরে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনার নতুন রূপটি অনেক বেশি সংক্রামক। ভাইরাসের বিস্তার রোধে ইতোমধ্যে অনেক দেশ ব্রিটেনে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এছাড়া গত মাসে ইংল্যান্ডে নতুন করে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এরই মধ্যে যুক্তরাজ্যে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। এই টিকা করোনার নতুন রূপটির বিরুদ্ধে কতটুকু কার্যকর তা নিয়ে সংশয় ছিল।

অক্সফোর্ড টিকার ট্রায়ালের প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা অ্যান্ড্রিউ পোলার্ড বলেছেন, আমাদের ট্রায়াল থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যে ChAdOx1 টিকাতে দেখা গেছে, এটি কেবল মহামারির আদি ভাইরাসের বিরুদ্ধেই কার্যকর নয়, বরং নতুন রূপ B.1.1.7 এর বিরুদ্ধেও কার্যকর, যেটি ২০২০ সালের শেষ দিকে যুক্তরাজ্যজুড়ে বিস্তার ঘটিয়ে চলছে।

Share

আরও খবর
নেপালি পুলিশের গুলিতে যুবক নিহত

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১

কুয়েতে মাসজুড়ে কারফিউ ঘোষণা

শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১