আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

পরীমনির বাসা ছেড়ে দেওয়ার নোটিশ

প্রকাশিত:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কাশিমপুর মহিলা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে সকালে বাসায় আসেন ঢাকাই ছবির নায়িকা পরীমনি। বাসায় এসেই জানতে পারেন তাকে ফ্ল্যাট ছাড়ার নোটিশ দেওয়া হয়েছে। তার মুক্তির চার দিন আগেই নোটিশ দেওয়া হয়।

বুধবার বিকালে একটি গণমাধ্যমকে ক্ষুব্ধ পরীমনি বলেন, আমি তো একা থাকি না। আমার বয়স্ক নানুভাই আছেন। হঠাৎ করে এসব কী! হঠাৎ করে কই যাব, সেটা কি কেউ বলতে পারেন?  

আলোচিত এ নায়িকা বলেন, এখন এই মুহূর্তে আমাকে কে বাসা খুঁজে দেবে? কারাগার থেকে ঘরে ঢোকার পর বাসা ছাড়ার নোটিশ দেখতে পেলাম। এখন কি তাহলে আমার বসবাসের অধিকারটা পর্যন্ত কেড়ে নিচ্ছে ওরা? ওরা যা চেয়েছিল, তা-ই কি হচ্ছে? আমি কি তাহলে ঢাকা ছেড়ে চলে যাব, নাকি দেশ ছেড়ে চলে যাব?

২৭ দিন পর মাদক মামলায় জামিন মেলে পরীমনির। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ কারাগার থেকে পরীমনিকে মুক্তি দেওয়া হয়। এর আগে মঙ্গলবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ পরীমনির জামিনের আদেশ দেন।


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ভিকি কৌশলের সঙ্গে ক্যাটরিনার বাগদান

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভিকি কৌশল এবং ক্যাটরিনা কইফের প্রেমের গুঞ্জন বলিউডে গোপন নয়। শোনা গিয়েছিল, সম্পর্ককে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে বাগদান সারবেন তাঁরা। এই খবরকে যদিও সম্পূর্ণ ভুয়ো বলে উড়িয়ে দিয়েছে ক্যাটরিনার টিম। কিন্তু ভিকি? তিনি কী বলছেন?

ভিকি এ বিষয়ে কিছু না বললেও তাঁর ভাই সানি কৌশল পুরো বিষয়টিকে হেসে উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, তাঁদের মা-বাবাও ভিকির বাগদানের খবর শুনে মজা করে তাঁকে মিষ্টি খাওয়াতে বলেন। এক সাক্ষাৎকারে সানি জানান, আমার মনে আছে, যখন এই গুঞ্জন শুরু হয় তখন ভিকি জিমে ছিল। যখন ও বাড়ি ফিরল মা-বাবা ইয়ার্কি করে বলল, আরে তোমার বাগদানও হয়ে গিয়েছে। আমাদের মিষ্টি খাওয়াও উত্তরে ভিকি বলেছিলেন, বাগদান যেহেতু কাল্পনিক, তাই মিষ্টিটাও কল্পনাতেই খেয়ে নিও। এর পর হঠাৎ উড়ে আসা এই গুঞ্জন নিয়ে নিজেদের মধ্যে ঠাট্টা-মস্করা করেছিলেন তাঁরা।

২০১৯ সাল থেকে ক্যাটরিনার সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন ভিকি। এই বিষয়ে এখনও যদিও তাঁরা মুখ খোলেননি। মাঝেমধ্যেই তাঁদের নানা জায়গায় একসঙ্গে দেখা যায়। এমনকি তাঁরা নতুন বছরের শুরু আলিবাগে একসঙ্গে উদ্‌যাপন করেছিলেন, এমনও দেখা গিয়েছিল।

 


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




স্বাধীনতার পর থেকেই দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত মাহফুজ আনাম

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাহফুজ আনাম একাধারে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে মুছে ফেলার ষড়যন্ত্রকারী, একুশে আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার অন্যতম কুশীলব, অগণতান্ত্রিক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সমস্ত কূটচাল ও এজেন্ডা নির্ধারক, পদ্মাসেতু নিয়ে বিশ্বব্যাপী ষড়যন্ত্র ছড়িয়ে দেওয়ার অন্যতম হোতা। একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমানের রাজনৈতিক উপদেষ্টা ছিলেন এই মাহফুজ আনাম। তবে তার মুখোশ উন্মোচিত হয় ২০০৭ সালে সেনা সমর্থিক তত্ত্বাবধায়ক সরকার ক্ষমতায় এলে। তিনি ছিলেন এককথায় ওই অগণতান্ত্রিক সরকারের প্রাণভ্রোমরা।

মূলত, মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের পর থেকেই বাংলাদেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত হন মাহফুজ আনাম। ১৯৭৫ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার পর তার অপতৎপরতা আরো বাড়তে থাকে। বিদেশে বিভিন্ন এনজিও এবং আন্তর্জাতিক সংস্থায় কাজ করার সময় তিনি বারবার বাংলাদেশের বিরোধিতা করেছেন। বাংলাদেশবিরোধী শক্তিগুলোর সঙ্গে যোগসাজস রেখে ১৯৯১ সালে মাহফুজ আনাম যুক্ত হন ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি স্টারে। সেই থেকে একের পর এক বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ বিদ্বেষী প্রপাগান্ডার নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন।

হীন উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে রাজনীতি থেকে মাইনাস করার মিশনে নামেন তিনি। ২০০৭ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে দেশের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রধান ফখরুদ্দীন আহমদের প্রেস সেক্রেটারি হিসেবে বিশেষ অ্যাসাইনমেন্ট দিয়ে পাঠানো হয় ডেইলি স্টারের পদস্থ নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিম মোনায়েমকে। সেনা শাসনের পুরো সময়জুড়ে সেনা সমর্থিত অগণতান্ত্রিক, একনায়কতান্ত্রিক স্বৈরশাসনকে স্বাগত জানিয়ে এবং উল্টোদিকে গণতান্ত্রিক সরকার ব্যবস্থাকে গালমন্দ করে ডেইলি স্টারে বড় বড় নিবন্ধ ছাপেন।

মিডিয়া ট্রায়ালের মাধ্যমে আদালতে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার আগেই মাহফুজ আনাম বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দুর্নীতিবাজ হিসেবে চিহ্নিত করে নিজের পত্রিকায় রায় দিয়ে গেছেন। সুযোগ বুঝে দেশের দুটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলে ভাঙন ধরানোর অপকৌশলে লিপ্ত হন। তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে দীর্ঘমেয়াদে ক্ষমতায় পাকাপোক্ত করতে চালান নানামুখী অপতৎপরতা। একইসঙ্গে দেশের প্রায় সব শিল্পপতিকে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগে হেনস্থা করতে শুরু করেন ডেইলি স্টারের মাধ্যমে।

শুধু তাই নয়, একপর্যায়ে রাজনীতিতে নামারও শখ হয় মাহফুজ আনামের। তখন দেশের রাজনীতিতে আবির্ভাব আরেক কুশীলব ড. মোহাম্মদ ইউনূসের। শান্তিতে নোবেল পেলেও দেশে অশান্তি ছড়ানোর মন্ত্র নিয়ে মাহফুজ আনামের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মাঠে নামেন। এক-এগারোর খালি মাঠে নতুন দল গঠনের ঘোষণা দেন। সেনাবাহিনীর সমর্থনে সুশীল সরকার প্রতিষ্ঠার সেই ষড়যন্ত্রও জনগণ ভন্ডুল করে দেয়।

২০০৮ সালে নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ঐতিহাসিক বিজয়ের পর অল্প কিছুদিনের মধ্যেই শুরু হয় মাহফুজ আনাম সিন্ডিকেটের নতুন ষড়যন্ত্র। পদ্মাসেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধের ষড়যন্ত্রে ড. ইউনূসের সঙ্গে সরাসরি সম্পৃক্ত ছিলেন মাহফুজ আনাম। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, সেতু নির্মাণ প্রকল্পের অর্থায়ন বন্ধে বিশ্বব্যাংক কর্মকর্তাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেছেন তারা। নিজের পত্রিকায় ক্রমাগত মিডিয়া ট্রায়ালের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশকে দুর্নীতিবাজ আখ্যা দেওয়ার ষড়যন্ত্রের খলনায়কও তিনি। ২০১১ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত সেতু নিয়ে একের পর এক দুর্নীতির মিথ্যা দাবি তুলে সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রের বাস্তবায়ন করা হয়। এর ফলে শুধু বিশ্বব্যাংক নয়, জাইকা, এডিবিসহ দাতাসংস্থাগুলো মুখ ফিরিয়ে নেয়। খোদ সরকারের বিরুদ্ধেই পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। পদত্যাগ করতে বাধ্য হন তৎকালীন যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন। যদিও শেষপর্যন্ত দুদকের অনুসন্ধানে ওইসব অভিযোগের বিন্দুমাত্র সত্যতা মেলেনি।

দুদকের সাবেক কমিশনার মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন চুপ্পু এক সাক্ষাতকারে পদ্মা সেতু ইস্যুতে মাহফুজ আনামের ষড়যন্ত্রের সংশ্লিষ্টতা নিশ্চিত করেন। চুপ্পু বলেছিলেন, নির্বাচনে জিতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর থেকেই সরকার পতন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত ছিলো মাহফুজ আনাম সিন্ডিকেট। পদ্মাসেতু সরকারের সবচেয়ে বড় প্রকল্প হওয়ায় এই সিন্ডিকেটের প্রধান উদ্দেশ্য ছিলো এই সেতুকে ইস্যু বানিয়ে আওয়ামী লীগকে যে কোনভাবে প্রশ্নবিদ্ধ করে ক্ষমতাচ্যূত করা। এর জন্য দেশবিরোধী সব ষড়যন্ত্রের সঙ্গে প্রকাশ্যে অবস্থান নিয়েছিলো ডেইলি স্টার সম্পাদক।

এদিকে, প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ মৃত্যুর আগে একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাতকারে পদ্মা সেতু নিয়ে চারজন ষড়যন্ত্রকারীর নাম উল্লেখ করেন। তাদের মধ্যে ড. মুহাম্মদ ইউনূস ও মাহফুজ আনাম অন্যতম ষড়যন্ত্রকারী বলে দাবি করেন।


আরও খবর



দেশে দ্রুত ভ্যাকসিন তৈরি করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন এমপি বলেছেন, বাংলাদেশে অতি দ্রুত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে দেশে আড়াই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। জাতীয় সংসদ অধিবেশনে আইন প্রণয়নের সময় দেওয়া বক্তব্যে বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী সংসদ সদস্যদের উপস্থাপিত বিভিন্ন অভিযোগ ও প্রশ্নের উত্তর দেন।

সংসদ অধিবেশনে সমালোচনার জন্য সংসদ সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমি সমালোচনা পছন্দ করি। কারণ এটা আমাকে শক্তিশালী করে। এই সমালোচনা অবশ্যই সঠিক হতে হবে।

জাহিদ মালেক স্বপন বলেন, আমরা শুধু ভ্যাকসিন আনছি না, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব দেশে করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করতে। সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। অতি দ্রুত দেশে ভ্যাকসিন তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে আড়াই কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। দেড় কোটি মানুষকে ডাবল ডোজ দেয়া হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, চীন থেকে ৬ কোটি ডোজ টিকার নিশ্চয়তা পাওয়ার পর দেখলাম, এই টিকা আনতে দুই থেকে তিন হাজার কোটি টাকা দরকার। আমি প্রধানমন্ত্রীকে বললাম, আমরা ৬ কোটি ডোজ টিকা আনতে পারি কিন্তু এই পরিমাণ টাকা লাগবে। প্রধানমন্ত্রী বললেন, টাকা যত লাগুক টিকা নিয়ে আস। আমরা কোভ্যাক্স থেকে ৫ কোটি টিকা পাব। সব মিলিয়ে ১৬ কোটি ভ্যাকসিনের অর্ডার আছে।

বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য বাড়তি টাকা নেওয়া হচ্ছেসংসদ সদস্যদের এই অভিযোগের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রাইভেট মেডিকেল কলেজে আঠার লাখ টাকা ধরে দেয়া আছে। কেউ এর বেশি নিলে সেটা আমাদের অবহিত করলে ব্যবস্থা নেব।

চিকিৎসকদের রাজনীতি করা প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির এমপি কাজী ফিরোজ রশীদের বক্তব্যের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ডাক্তারদের অ্যাসোসিয়েশন আছে। রাজনীতি সবাই করতে পারেন, ইঞ্জনিয়াররা রাজনীতি করতে পারেন, ডাক্তাররা রাজনীতি করলে দোষ দেখি না। বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বলি আপনারাও ড্যাব করেন, রাজনীতি করেন। করোনার সময় স্বাস্থ্য সার্ভিস ভালো ছিল। এর সুফলটাও মানুষ পেয়েছে।

সংসদ সদস্যদের স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম-দুনীতির সমালোচনা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভ্যাকসিন হিরো, সাউথ-সাউথ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। কাজ না করলে পুরস্কার পাওয়া যায় না।



আরও খবর
করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু আরও কমল

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুক্তরাষ্ট্র সফরের সকল কর্মসূচি চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে ভাষণ দেবেন তিনি। এটি হবে তার জাতিসংঘে ১৮তম ভাষণ। এর আগে তিনি ১৭ বার জাতিসংঘে ভাষণ দিয়েছেন।

আগামী রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণ করবেন প্রধানমন্ত্রী। তাকে স্বাগত জানাতে সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলে একমাত্র মন্ত্রী হিসেবে আসছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এ মোমেন। এছাড়াও থাকবেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়, অটিস্টিক আন্দোলনের বিশ্বনেতা সায়মা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল এবং সংসদ সদস্য আব্দুস সোবহান গোলাপ। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারাও আসছেন। পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন এবং আরও কয়েকজন কর্মকর্তা আসবেন জাতিসংঘের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের সমন্বয়সাধনের জন্য।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ভাষণের পর নিউইয়র্কে কর্মরত সাংবাদিকদের সংবাদ সম্মেলনে ভার্চ্যুয়ালেই কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি প্রবাসীদের একটি সমাবেশে একইভাবে ভার্চ্যুয়ালেই বক্তব্য দেবেন। এই সমাবেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নতুন নেতৃত্বের নামও ঘোষণা করা হতে পারে।

২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার তার ওয়াশিংটন ডিসির উদ্দেশ্যে নিউইয়র্ক ত্যাগের কথা। সেখানে চিকিৎসার ফলোআপ ছাড়াও মার্কিন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে ভার্চুয়ালে বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে।

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর ভার্জিনিয়া এবং নিউইয়র্কে প্রবাসীরা শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে। কেক কাটা ছাড়াও শেখ হাসিনার বিশ্বনেতা হয়ে উঠার আলোকে একটি সমাবেশ হবে নিউইয়র্কে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার এ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হবে কুইন্সে ওয়ার্ল্ডফেয়ার মেরিনা মিলনায়তনে। প্রধান অতিথি থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এ মোমেন।

উল্লেখ্য, করোনার কারণে একেবারেই কম প্রতিনিধি দল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এবার জাতিসংঘের অধিবেশনে অংশ নেবেন। গণমাধ্যম কর্মীদের সংখ্যাও থাকছে কম। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে অধিবেশনের ডেস্কেও সীমিতসংখ্যক কূটনীতিক ও পদস্থ কর্মকর্তারা বসবেন। শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি বজায় থাকবে সবখানে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঝুঁড়িতে নেতৃত্বে বিচক্ষণতায় মানুষের জীবনমানের উন্নয়নে সাফল্য প্রদর্শনের ২৭টিরও অধিক অ্যাওয়ার্ড রয়েছে।


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবুল বাশারের স্মরণে সিলেটে দোয়া মাহফিল

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৮০জন দেখেছেন
Image

সিলেট ব্যুরো:

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের বড় ভাই মরহুম বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবুল বাশারের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আজকের দর্পণ সিলেট ব্যুরো অফিসে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

দৈনিক আজকের দর্পণ সিলেট ব্যুরো প্রধান মুহাম্মদ আমজাদ হোসাইনের সভাপতিত্বে ও সিলেট প্রতিনিধি আয়ুব আলীর পরিচালনায় দোয়া মাহফিল পূর্ব আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন দৈনিক ইত্তেফাক সিলেটের ব্যুরো প্রধান হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী, পায়রা সমাজকল্যাণ সংঘের সভাপতি এডভোকেট মাহমুদুল হক মাছুম, দৈনিক জালালাবাদের সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার মুহিবুর রহমান, সিলেট প্রেসক্লাবের পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক কবির আহমদ, দৈনিক জৈন্তাবার্তার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার খালেদ আহমদ, দৈনিক বাংলাদেশ খবরের দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি গোলাম মর্তুজা বাচ্চু, পিডিবির কন্ট্রাকটার আইনুল হক, ভাইভাই সেচ প্রকল্পের দোয়ারাবাজারের পরিচালক মহরম আলী সুমন, পায়রা সমাজকল্যাণ সংঘের যুগ্ন সম্পাদক মুছাদ্দিকুননবী ও সিলেট গেজেট এর স্টাফ রিপোর্টার কামরুল হাসান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী আবুল হোসেন, শাহজালাল দরগা রহ. মাজারের খাদেম আব্দুল মঈন চৌধুরী, এম আর কে রাশেদ, জমির হোসেন জমির, জাবেদ আহমদ, আরিফ হোসেন মারুফ, রায়হান আহমদ প্রমুখ। আলোচনা সভায় অংশ নিয়ে বক্তারা দেশের সূর্য সন্তান শেখ আবুল বাশারের স্মৃতিচারণ করে বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অনবধ্য কৃতিত্বের কথা এদেশের মানুষ চিরদির স্বরণ করবে। মুক্তিযোদ্ধাদের অবিস্বরণীয় কৃতিত্বের কারনে আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। তাই সকল বীর সেনানীদের কথা আমাদেরকে আজীবন স্মরণ রাখতে হবে। পরে মরহুমের মাগফেরাত ও দেশের সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করেন মাওলানা আব্দুন নুর।


আরও খবর