আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া সেই তরুণী গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৮২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিয়ের দাবিতে জামালপুর থেকে বরগুনায় প্রেমিকের বাড়িতে এসে অবস্থান নেওয়া সেই তরুণী শিখা আক্তার মৌকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৩ মে) সকালে বেতাগী থানা পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম।

তিনি জানান, বিয়ের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মাহমুদুল হাসানের ভাড়া বাসায় অবস্থান নেওয়া শিখা আক্তার মৌ নামের ওই তরুণীকে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে, গত মঙ্গলবার (১০ মে) বরগুনা আদালতে প্রেমিক মাহমুদুল হাসানের বাবা মোশাররফ হোসেন খান কথিত বিয়ের দাবিতে তাদের পরিবারকে অবরুদ্ধ করে অবস্থান নেওয়ার অভিযোগ করেন ওই তরুণীর বিরুদ্ধে। ওই দিনই বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন বরগুনার মূখ্য বিচারিক হাকিম আদালতের বিচারক মুহাম্মদ মাহবুব আলম। একই সঙ্গে একসপ্তাহের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ প্রদান করেন বিচারক।

বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম বলেন, আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে আদালতের নির্দেশ পেয়ে ওই তরুণীকে শুক্রবার সকালে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গত ২৯ এপ্রিল বরগুনার বেতাগী উপজেলার চান্দখালিতে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া মাহমুদ হাসানের ভাড়া বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থায় নেয় জামালপুরের তরুণী শিখা আক্তার মৌ। ছেলে ও তার বাবা-মা আত্মগোপনে থাকায় স্থানীয়রা ওই বাড়ির তালা ভেঙে একটি রুমে ঢুকিয়ে দেন ওই তরুণীকে। একপর্যায়ে গত বৃহস্পতিবার (৫ মে) রাতে মাহমুদুল হাসানের বাবা মোশাররফ হোসেন ওই বাড়িতে আসেন এবং ওই তরুণীকে পুত্রবধূ বানাতে তার সাবেক স্বামীকে তালাকের কাগজ ও অবিভাবকদের নিয়ে আসার শর্ত দেন। ওই তরুণী শর্ত পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন। অবশেষে ১৪ দিন পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: জামালপুর

আরও খবর



মারিয়ুপোলের ইস্পাত কারখানায় আদৌ কেউ কি বেঁচে আছে ?

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রুশ বাহিনীর গোলা থেকে বাঁচতে আজ ভস্টল ইস্পাত কারখানার নীচে বাঙ্কারে আশ্রয় নিয়েছিলেন মারিয়ুপোলের হাজার খানেক মানুষ। বন্দর-শহরটি রাশিয়ার দখলে যাওয়ার পরে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নির্দেশ দিয়েছিলেন, কোনও হামলা যেন না-করা হয়। শুধু কারখানা থেকে বেরনোর সব পথ বন্ধ করে দেওয়া হোক।

বাস্তব পরিস্থিতি তার থেকেও ভয়ঙ্কর। উপগ্রহচিত্রে ধরা পড়েছে, কারখানার প্রতিটি ব্লকের ছাদে বড় বড় গর্ত। আকাশপথে বোমা ফেলে কার্যত গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে পুরো অঞ্চল। কারখানার ভিতরে এক-এক জায়গা ধসে গিয়েছে। এক-একটি বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংসস্তূপ।  ভরেজিমেন্টের আশঙ্কা, মাটির নীচে আদৌ কেউ বেঁচে আছে কি না সন্দেহ! কমান্ডার শিতোস্লাভ পালামার বলেন, ৪ মাসের বাচ্চাও ছিল ওখানে। ১৬ বছরের কিশোরও ছিল। ওরা এমন ভাবে আটকে, বেঁচে থাকলেও উদ্ধার করতে যাওয়ার কোনও পথ নেই।

পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বন্দর-শহর মারিয়ুপোল। যুদ্ধের গোড়া থেকে এটিকে দখল করতে মরিয়া ছিল রাশিয়া। কিন্তু ইউক্রেনের বাহিনী ও সাধারণ মানুষের প্রতিরোধে প্রায় দুমাস লেগে গিয়েছে লক্ষ্যপূরণে। পরিণতি হিসেবে রোজই শোনা যাচ্ছে, রুশ হামলার নৃশংস বয়ান। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জ়েলেনস্কি আজ বলেন, ‘‘ডনবাসে যাতে কোনও প্রাণ না-বাঁচে, তা নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর রাশিয়া।

আজ ডনবাস এলাকায় পোপাসনায় দুটি উদ্ধারকারী বাস পাঠানো হয়েছিল। খোঁজ নেই কোনওটির। সেনাকর্তা মিকোলা খানাতোভ জানিয়েছেন, একটি বাস রুশ হামলার মুখে পড়েছে। এটুকু খবর তাদের কাছে আছে। কিন্তু দ্বিতীয় বাসটির সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। মিকোলা জানান, স্থানীয় এক ইতিহাসের শিক্ষক বাসটি নিয়ে উদ্ধারে গিয়েছিলেন।

আর একটি বাসও পাঠানো হয়েছিল। সেটি ৩১ জনকে উদ্ধার করে এনেছে। নিখোঁজ বাস দুটিকে খোঁজার চেষ্টা করারও উপায় নেই। ইউক্রেন প্রশাসন জানিয়েছে, গোটা ডনবাস এলাকা জ্বলছে। উত্তর-পূর্বে খারকিভ শহরেও হামলা চলছে। একটি হাসপাতালে বোমা ফেলে শত্রুরা। দুটি নতলা আবাসনেও আকাশপথে হামলা করা হয়।

আগুন ধরে যায় বাড়ি দুটিতে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রক নিজেরাও ঘোষণা করেছে, তারা ডনবাস এলাকায় একাধিক ইউক্রেনীয় সেনাঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। আজ জানা গিয়েছে, রাশিয়ার হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন কিভের ভূত। ২৯ বছর বয়সি স্টেফান তারাবালকাকে এই নামেই ডাকা হত। একা ৪০টি রুশ যুদ্ধবিমানকে ঘায়েল করেছিলেন এই ফাইটার পাইলট। গত ১৩ মার্চ তাঁর মিগ-২৯-কে গুলি করে নামায় রুশ বাহিনী। তারাবালকাকে ইউক্রেনীয়রা ভালবেসে বলতেন ঈশ্বরের পাঠানো রক্ষক

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের আজ ৬৬তম দিন। কার্যত ধ্বংসস্তূপের উপরে দাঁড়িয়ে দেশটা। মস্কো অবশ্য এই গোটা পর্বকে বলে চলেছে বিশেষ সেনা অভিযান। পশ্চিমি রাষ্ট্রগুলোর আশঙ্কা, এ ভাবে আর বেশি দিন নয়। সামনেই ৯ মে রাশিয়ার বিজয় দিবস। ওই দিন যুদ্ধ ঘোষণা করতে পারে ক্রেমলিন। গত দুমাসে সেই অর্থে ইউক্রেনের খুব অল্প অংশ দখল করতে পেরেছে রাশিয়া। তারা যুদ্ধ ঘোষণা করলে রাশিয়ার মিত্র দেশগুলোও অংশ নেবে লড়াইয়ে। এখন শুধুমাত্র পুতিনের অঙ্গুলি হেলনের অপেক্ষা।


আরও খবর



ধামরাইয়ে শিয়ালের কামড়ে আহত ৯

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকার ধামরাই উপজেলায় শিয়ালের কামড়ে শিশুসহ নয় জন আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। উপজেলার বাড়িগাঁও গ্রামে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঝোঁপঝাড় থেকে লোকালয়ে এসে পড়ে শিয়াল। এরপর থেকে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

এদিকে, এ ঘটনার পর পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে শিয়াল-আতঙ্ক। এরই মধ্যে একটি শিয়াল ধরে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে গ্রামবাসী। শিয়ালের কামড় থেকে রক্ষায় রাত জেগে পাহারা দিচ্ছেন গ্রামের মানুষেরা।

স্থানীয়রা বলছেন, বেশ কয়েকদিন ধরেই শিয়ালের আতঙ্কে অতিষ্ঠ ছিলেন এলাকাবাসী।

এদিকে, ঘটনার পর আহত শিশুসহ অন্যান্যদের ধামরাই ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও মানিকগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। এর মধ্যে উন্নত চিকিৎসার জন্য দুই নারীকে ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়।

ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকী শিয়াল-আতঙ্কের তথ্য নিশ্চিত করে জানান, আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



কেন মানুষ বারবার প্রেমে পড়ে?

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানুষের জীবনে কিছু শব্দ বেশ গুরুত্বপূর্ণ, কিছু শব্দের সঙ্গে জুড়ে রয়েছে আমাদের আবেগ, উত্থান, পতন, চাওয়া যাওয়া বা ভালোবাসা। প্রেম তেমনই একটি শব্দ। তবে মানব প্রেম বৈচিত্র্যময়। এই প্রেম কখনো সুখের হয়ে আসে, আবার কখনো সব ছিন্নভিন্নও করে দিতে পারে। আবার কখনো সে প্রেম দীর্ঘস্থায়ী, কখনো ক্ষণস্থায়ী হয়।  ভালোবাসা, আস্থা, বিশ্বাসের ওপর নির্ভর করে প্রেমের গভীরতা কেমন হবে।

এ তো গেল সাধারণ প্রেমের কথা। প্রশ্ন হলো, প্রেম কি জীবনে একবার আসে? বোধহয় না। কিছু মানুষের জীবনে প্রেম একাধিক বা বহুবার আসতেই পারে। এটাকে অনেকে নেতিবাচক মনে করতেই পারেন। কিন্তু এটা ভুল কথা। কারণ বিভিন্ন সময়ে মন মানসিকতা, পরিস্থিতির কারণে প্রেম বহুবার আসতেই পারে। একে খারাপ ভাবার কিছু নেই। কেননা মনের ওপর নিয়ন্ত্রণ কি সবসময় রাখা সম্ভব? আর একবার প্রেম ভেঙে গেলে অন্য কারও প্রতি আবার ভালোলাগা কাজ করতেই পারে। এটাকে বাধা দেওয়ার কিছু নেই।

মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, মানুষের বহু প্রেমে পড়ার কারণ হলো একাকীত্ব। কেননা মানুষ একা হয়ে পড়লে সে তার জীবনে সবচেয়ে ভালো কিছুটাই খোঁজে। ভালো সঙ্গী খুঁজে নিতে মানুষ বহু প্রেমে পড়ে।

বিশেষজ্ঞরা আরও বলছেন, যারা আবেগ প্রবণ কিংবা কল্পনার জগতে থাকতে পছন্দ করেন তারা ঘন ঘন প্রেমে পড়েন। এরাই পরকীয়া বা টেলিভিশনে বিভিন্ন প্রকার প্রেম দেখে প্রেমে পড়েন। এই প্রেম অনেকটা যুদ্ধ। কেননা অন্যের ভালো কিছু দেখলে নিজের জীবনেও সেই ভালোটাকে চায় তারা। তাই বারবার ভালো খুঁজতে গিয়ে মানুষ বারবার প্রেমে পড়া।

বর্তমান আধুনিক সময়ে সম্পর্কে নতুনত্ব খুঁজতে গিয়ে তরুণ সমাজ বিভিন্ন প্রেম বা সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তেই পারে। একই ভালোবাসার সম্পর্কে জড়িয়ে থাকতে পছন্দ করেন না। বৈচিত্র্যময় ভালোবাসা খুঁজতে পছন্দ করেন তারা। যারা যত বেশি নিজের ক্যারিয়ারের পেছনে হন্যে হয়ে ঘুরছেন, ভালো জীবন যাপনের জন্য বেশি বেশি প্রতিযোগিতা করছেন তারা তত বেশি একা হয়ে পড়ছেন। এটিকে শরীরের একটি চাওয়াও বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

মানুষের বহুবার প্রেমে পড়ার কারণ হলো একাকীত্ব। প্রথম একজনের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে গেলে সে একাকীত্ব হয়ে পড়ে। তখন তার একাকীত্ব জীবন বেদনাদায়ক করে তোলে। এ সময় একাকীত্বকে দূর করতে সে আবারও প্রেমে পড়তে চায়।

বিশেষজ্ঞদের ভাষায়, অনেকেই শরীরের উত্তাপ পাওয়ার আশায় প্রেম করেন। চাহিদা পূরণ না হলে নতুন করে প্রেমে পড়েন। সোজা কথায়, ব্যস্ত জীবনে বদলে যাচ্ছে প্রেমও।

জীবনের প্রতিটা প্রেমই খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রেম জীবনে একাধিকবার হতে পারে। কারণ যতক্ষণ না কেউ তার সত্যিকার মনের মতো সঙ্গী খুঁজে পায়, ততক্ষণ সে পর্যন্ত প্রেমে পড়তেই থাকে।

অনেকে আবার প্রেম থেকে শিক্ষা নিতে চায়। প্রত্যেক সম্পর্কের মধ্যে ভিন্নতা থাকে। কারণ প্রতিবার প্রেমে পড়লে নিজেকে নতুন করে জানা যায়। কিছু না কিছু শিক্ষা লাভ করা যায় প্রতিটা সম্পর্ক থেকে। বিভিন্ন অভিজ্ঞতার মুখে পড়তেই মানুষ বারবার প্রেমে পড়ে।


আরও খবর
‘আম’ চিনুন তারপর কিনুন

বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২




আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক নার্স দিবস আজ (১২ মে)। আধুনিক নার্সিং পেশার রূপকার ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের জন্মদিন উপলক্ষে প্রতিবছর বিশ্বব্যাপী এ তারিখে আন্তর্জাতিক নার্স দিবস উদযাপন করা হয়।

মানবসেবায় অনন্য দায়িত্ব পালনকারী নার্সদের স্বীকৃতি ও সম্মান প্রদর্শনে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশেও দিবসটি উদযাপন করা হবে।

দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য, ‌স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় শক্তিশালী নার্স নেতৃত্বের বিকল্প নেই- বিশ্ব স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে নার্সিং খাতে বিনিয়োগ বাড়ান ও নার্সের অধিকার সুরক্ষিত করুন

নার্স দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় মহাখালীতে নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অডিটরিয়ামে এক আলোচনা সভা ও সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

এদিকে সোসাইটি ফর নার্সেস সেফটি অ্যান্ড রাইটস (এসএনএসআর) নার্স দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা, কেক কাটা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করবে।

বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) ১৯৭৪ সাল থেকে বাংলাদেশে দিবসটি পালন করে আসছে। অতীতে ঢাকায় স্বল্প পরিসরে দিবসটি পালিত হলেও বর্তমানে সরকারি-বেসরকারি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন ইনস্টিটিউশনে দিবসটি উদযাপন করা হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: নার্স দিবস

আরও খবর



মৃত্যুর খবরের ৩০ মিনিট পর টুইট, এখনো মরিনি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৃহস্পতিবার দাবানলের মতো খবর ছড়িয়ে পড়ে হরলান্ড-পগবাদের এজেন্ট মিনো রাইওলা মৃত্যুবরণ করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে কত টুইট, স্ট্যাটাসই না দেখা গেল। কিন্তু খবর ছড়িয়ে পড়ার ৩০ মিনিট পর রাইওলা নিজেই টুইট করে জানালেন, তিনি মারা যাননি, বেঁচে আছেন।

ইতালিয়ান সুপার এজেন্টের মৃত্যুর খবর বিশ্বাস করার কারণ, বেশ কয়েক মাস ধরেই অসুস্থ ছিলেন রাইওলা। হাসপাতালে ছিলেন এক মাসের বেশি।

গত জানুয়ারি থেকেই অসুস্থ রাইওলা। মিলানের এক হাসপাতালে তাকে নেওয়া হলে সেখানে জটিল এক অস্ত্রোপচার করা হয়।  এর পর থেকেই ঘরেই বিশ্রাম নিচ্ছিলেন তিনি। তাই বৃহস্পতিবার তার মৃত্যুর খবরটি অবিশ্বাস করতে পারেননি অনেকে।

গুজব ছড়ানোর পর রাইওলার ঘনিষ্ঠ বন্ধু হোসে ফোর্তেস রদ্রিগেজ এক ডাচ সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, তার অবস্থা খুব খারাপ, কিন্তু এখনো মারা যাননি। এখনো লড়ে যাচ্ছেন তিনি। যারা মৃত্যুর খবর ছড়িয়েছে, তাদের ওপর খেপেছি আমি।

এরপর মিনো রাইওলার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেই পোস্ট করা হয়েছে, যারা আমার বর্তমান স্বাস্থ্যের অবস্থা জানতে চাচ্ছেন, তাদের উদ্দেশে বলছি: চার মাসে দ্বিতীয়বারের মতো মেরে ফেলায় চরম বিরক্ত। মনে হচ্ছে, (আমার) পুনরুজ্জীবিত হওয়ার ক্ষমতা আছে। মরিনি, এখনো বেঁচে আছি।

প্রসঙ্গত, ইব্রাহিমোভিচ, পগবা, হরলান্ড, ডি লিখট ছাড়াও রোমেলু লুকাকু, মারিও বালোতেল্লি, মার্কো ভেরাত্তি ও হেনরিখ মেখিতারিয়ানও এজেন্ট রাইওলা।ফোর্বস জানিয়েছিল, তারকাদের এজেন্ট হিসেবে গত বছর ৬ কোটি ২০ লাখ পাউন্ড আয় করেছিলেন রাইওলা।


আরও খবর