আজঃ বুধবার ২১ এপ্রিল 20২১
শিরোনাম

প্রকাশ্যে চলছে বেনাপোলের কাস্টমস কর্মকর্তার ঘুষ বাণিজ্য

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২০ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

প্রকাশ্যে চলছে বেনাপোলের কাস্টমস কর্মকর্তার ঘুষ বাণিজ্য

নিউজ ট্যাগ: বেনাপোল

আরও খবর



দিল্লির সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ এপ্রিল 2০২1 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ এপ্রিল 2০২1 | ৮১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কাশ্মীর ইস্যুতে ভারতের অবস্থান না বদলালে দিল্লির সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল) মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে এ কথা জানান পাকিস্তান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, নয়াদিল্লি কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা ফিরিয়ে না দিলে বাণিজ্যিক সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে না ইসলামাবাদ।

প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে সুতা ও চিনি আমদানির নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও তা স্থগিত করা হয়। এতে স্থানীয় বাজারে চিনি ও সুতার দাম বাড়লেও কাশ্মীরের সাধারণ মানুষের স্বার্থে পাকিস্তানের জনগণকে এই ভোগান্তি মেনে নেয়ার আহ্বান জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি।

ভারতের সঙ্গে আপাতত বাণিজ্যিক সম্পর্ক স্থগিত রাখা হলেও মন্ত্রিপরিষদের অধিকাংশ সদস্য সম্পর্ক স্বাভাবিক করার পক্ষে মত দিয়েছে বলে সূত্রের বরাত দিয়ে জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।


আরও খবর



গাইবান্ধায় কালবৈশাখী ঝড়ে মৃত্যু বেড়ে ১০

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গাইবান্ধা সদর, পলাশবাড়ী, সুন্দরগঞ্জ ও ফুলছড়ি উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০ জনে দাঁড়িয়েছে। নিহতের মধ্যে গাইবান্ধা সদরে চারজন, ফুলছড়িতে দুইজন, পলাশবাড়ীতে  তিনজন এবং সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় একজন।

সোমবার (৫ এপ্রিল) সকালে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক (ডিসি) আব্দুল মতিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ফুলছড়িতে নিহত দুইজেনের মধ্যে একজন ঝড়ের সময় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। তাই সরকারিভাবে ঝড়ে নিহতের সংখ্যা ৯ জন হিসাব করা হয়েছে।

তারা হলেন- গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ী ইউনিয়নের ঢনঢনিপাড়া গ্রামের মিঠু মিয়ার স্ত্রী সাহারা বেগম (৪১), হরিণসিংগা গ্রামের হিরু মিয়ার ছেলে মুনির (৫), আরিফ খান বাসুদেবপুর গ্রামের রিজু মিয়ার স্ত্রী আর্জিনা বেগম (২৮), রিফাইতপুর গ্রামের খগেন্দ্র চন্দ্রের স্ত্রী জোৎস্না রানী (৫৫), পলাশবাড়ী উপজেলার ডাকেরপাড়া গ্রামের ইউনুস আলীর স্ত্রী জাহানারা বেগম (৫০), মোস্তফাপুর গ্রামের আব্বাস আলীর ছেলে গোফ্ফার (৪২), মনোহরপুর ইউনিয়নের কুমেদপুর গ্রামের মমতা বেগম (৫৫), সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কিশামত হলদিয়া গ্রামের সোলেমান আলীর স্ত্রী ময়না বেগম (৪০), ফুলছড়ি উপজেলার কাতলামারী গ্রামের বিটুল মিয়ার স্ত্রী শিমুলী বেগম (২৫), ফুলছড়ি উপজেলার রেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের ডাকাতিয়ার চর গ্রামের বারেক মিয়ার ছেলে হাফিজ উদ্দিন (৬০)। তাদের মধ্যে হাফিজ উদ্দিন ঝড়ের সময় বাতাসে ইজিবাইজ উল্টে নিহত হন।

এর আগে রবিবার (৪ এপ্রিল) বিকেল ৩টার দিকে গাইবান্ধা সদরসহ সাত উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যায় ঘণ্টাব্যাপী কালবৈশাখী ঝড়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কয়েক হাজার ঘরবাড়ি, বিদ্যুতের খুঁটি, দোকানপাটসহ সরকারি স্থাপনা। নষ্ট হয়েছে আমের মুকুল ও আমন ধানের গাছসহ বিভিন্ন ফসল। সোমবার সকাল পর্যন্ত জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়নি।

জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন জানান, প্রত্যেক মৃত ব্যক্তির পরিবারকে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহযোগিতা করা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে ভেঙে পড়া গাছ অপসারণসহ বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করতে কাজ চলছে।


আরও খবর



বিক্ষোভ কর্মসূচি নিয়ে মামুনুলের ফেসবুক স্ট্যাটাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হেফাজতে ইসলামের পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি শুক্রবার (২ এপ্রিল)। দলটির আমিরে হেফাজত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর নির্দেশে যেভাবে পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে তা জানিয়ে ভেরিফায়েড ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আল্লামা মামুনুল হক।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে মামুনুল হক তার ফেসবুক পেজে লেখেন, পূর্বঘোষিত ওই বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেটে বাদ জুমা সমাবেশ হবে। সমাবেশে আসা বা ফেরার পথে মিছিল হবে না। নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক ব্যবস্থাপনা শক্তিশালী করে সমাবেশ শান্তিপূর্ণভাবে পালন করা হবে।

গত রোববার (২৮ মার্চ) দিনব্যাপী হরতাল পালন শেষে বিকেলে রাজধানীর পল্টনে হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলেন।  

নিউজ ট্যাগ: মামুনুল হক

আরও খবর



সব মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ালেন সুপ্রিম কোর্ট

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
যেসব মামলায় আসামিকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত জামিন প্রদান করা হয়েছে বা যেসব মামলায় উচ্চ আদালত হতে অধস্তন আদালতে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণের শর্তে জামিন প্রদান করা হয়েছে বা যেসব মামলায় নির্দিষ্ট

লকডাউনের মাঝে বিভিন্ন মামলায় আসামিদের জামিনের মেয়াদ ও আদালতের অন্তবর্তীকালীন আদেশের কার্যকারিতা বাড়িয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। সোমবার (৫ এপ্রিল) সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার গোলাম রব্বানী সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যেসব মামলায় আসামিকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত জামিন প্রদান করা হয়েছে বা যেসব মামলায় উচ্চ আদালত হতে অধস্তন আদালতে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আত্মসমর্পণের শর্তে জামিন প্রদান করা হয়েছে বা যেসব মামলায় নির্দিষ্ট সময়ের জন্য অন্তবর্তীকালীন আদেশ প্রদান করা হয়েছে- সেসব মামলার জামিন এবং সব ধরনের অন্তর্বর্তীকালীন আদেশসমূহের কার্যকারিতা আগামী ২ সপ্তাহ পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে।

 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবজনিত পরিস্থিতিতে আগামী ৫ এপ্রিল থেকে ১১ পর্যন্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কার্যক্রম সীমিত করা হয়েছে এবং অন্যান্য সব অধস্তন আদালত ট্রাইব্যুনালের কার্যক্রম পরিচালনা না করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। তবে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় প্রত্যেক চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক শারীরিক উপস্থিতিতে দায়িত্ব পালন করবেন।

 

প্রসঙ্গত, করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে আজ সোমবার থেকে সারাদেশে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার। রবিবার (৪ এপ্রিল) এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

 

ওই প্রজ্ঞাপনের ধারাবাহিকতায় লকডাউন চলাকালে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে ভার্চুয়ালি চারটি বেঞ্চ (তিনটি দ্বৈত ও একটি একক) এবং সপ্তাহে দুদিন আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতের বিচারিক কার্যক্রম চলবে। পাশাপাশি দেশের অধস্তন আদালতসমূহের মধ্যে জেলা ও মহানগর প্রতি একজন চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দ্বারা জরুরি বিষয়ে বিচারকার্য পরিচালিত হবে।

নিউজ ট্যাগ: লকডাউন

আরও খবর



২৯ জেলা করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ১৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের ২৯টি জেলা করোনাভাইরাস সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এই ২৯ জেলার মধ্যে রয়েছে- ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সীগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, ফেনী, চাঁদপুর, নীলফামারী, সিলেট, টাঙ্গাইল, রাজশাহী ও নওগাঁ।

অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস শাখায় গত ২৪ মার্চ পর্যন্ত আসা তথ্য বিশ্লেষণ করে এসব জেলাকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

উচ্চ ঝুঁকির এসব জেলায় সংক্রমণ প্রতিরোধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, জেলা পর্যায়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ কমিটি রয়েছে। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোতে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে সেটা সেই কমিটি ঠিক করবে আর অধিদপ্তর বিষয়টি মনিটর করবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেছেন, দেশের ২৯টি জেলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। সর্বত্র মানুষে মানুষে করোনার সংক্রমণ দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। দেশের শতভাগ মানুষ মাস্ক পরাসহ প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চললে এটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়।

এদিকে, মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ৪৫ জন। যা গত সাত মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৮ হাজার ৯৪৯ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ৫ হাজার ১৮১ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এর আগে দেশে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত হয় গত বছরের ২ জুলাই ৪ হাজার ১৯ জনের শরীরে। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৮৯৫ জনে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ে। গত ৩০ নভেম্বরের পর ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত সংক্রমণ ধারাবাহিকভাবে কমতে থাকে। কিন্তু মার্চের শুরু থেকে দৈনিক শনাক্ত রোগী, মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে।

নিউজ ট্যাগ: করোনা সংক্রমণ

আরও খবর