আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

প্রথমবারের মতো স্ক্রীন সেয়ার করবেন শ্রাবন্তী-প্রিয়াঙ্কা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এই প্রথম শ্রাবন্তী চক্রবর্তী এবং প্রিয়াঙ্কা সরকার একসঙ্গে কাজ করবেন। দুই নায়িকাকে নিয়ে সাইকোলজিক্যাল থ্রিলার তৈরি করছেন পরিচালক অংশুমান প্রত্যুষ। তাঁর নতুন ছবির নাম ধাপ্পা। ছবিতে কোনও নায়ক নেই।

টলিউডে শুধু নায়িকাদের নিয়ে তৈরি ছবির সংখ্যা কমই। পরিচালকের কথায়, ‘‘গল্পটি দুজন নারীর মনস্তত্ত্ব নিয়ে। নির্ভয়া করতে গিয়ে প্রিয়াঙ্কার অভিনয়ের ধার দেখেছি। আর শ্রাবন্তীর সঙ্গে কাজ করারও ইচ্ছে ছিল বহু দিন ধরেই। একসঙ্গে দুই বলিষ্ঠ অভিনেত্রীকে নিয়ে শুরু করতে চলেছি ছবির কাজ।

ছবিতে শ্রাবন্তী এমন একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন, যে নিজেকে বাইরের জগৎ থেকে দূরে রাখতে ভালবাসে। আর প্রিয়াঙ্কা এক আধুনিক কর্মরতা নারীর চরিত্রে। ছবিতে দুই নারীকে মিলিয়ে দেবে একটি ঝড়-বৃষ্টির রাত। সেই রাতে প্রিয়াঙ্কার চরিত্রটি আশ্রয় নেয় শ্রাবন্তীর বাড়িতে। শ্রাবন্তীর কথায়, ‘‘টানটান গল্প। ছবির শেষ অবধি উত্তেজনা ধরে রাখা হয়েছে। এ রকম কাজ আগে করিনি। প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে কাজ করব, শুনেই খুব ভাল লেগেছে।’’ চরিত্রের জন্য টোনড বডি পেতে কড়া ডায়েটে রয়েছেন শ্রাবন্তী। জানালেন, খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছেন অনেকটাই। আর প্রচুর পরিমাণে লিকুইড খাচ্ছেন। প্রিয়াঙ্কা এই নতুন ছবি প্রসঙ্গে বললেন, ‘‘খুবই চ্যালেঞ্জিং প্রজেক্ট। এমন একটা চরিত্রে অভিনয় করতে যে কোনও অভিনেত্রীই চাইবেন।’’ দুই অভিনেত্রীই চান, টলিউডে এই ধরনের নারীকেন্দ্রিক ছবির সংখ্যা আরও বাড়ুক। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুটিং শুরু, দক্ষিণ ২৪ পরগনার শাসনে।


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার দল ঘোষণা

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | ৭৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার কারণে স্থগিত ছিল লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সব খেলা। আগামী সেপ্টেম্বর থেকে যা শুরু হতে যাচ্ছে।

কাতার বিশ্বকাপে জায়গা করে নিতে আগামী ৩, ৬ ও ১০ সেপ্টেম্বর যথাক্রমে ভেনেজুয়েলা, ব্রাজিল ও বলিভিয়ার মুখোমুখি হবে আর্জেন্টিনা।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এই তিন ম্যাচের জন্য ৩০ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা। দলে ফিরেছেন পাওলো দিবালা, জেরোনিমো রুলি, হুয়ান ফয়েথ এবং এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া। তবে চোটের কারণে নেই মাওরো ইকার্দি, লুকাস আলারিও।

এক নজরে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে আর্জেন্টিনা দল :

এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, ফ্রাঙ্কো আরমানি, হুয়ান মুসো, জেরোনিমো রুলি, গঞ্জালো মন্টিল, নাহুয়েল মলিনা লুসেরো, জার্মেই পেজ্জেলা, হুয়ান ফয়েথ, ক্রিশ্চিয়ান রোমেরো, নিকোলাস ওতামেন্দি, লুকাস মার্টিনেজ কুয়ার্তা, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ, মার্কোস একোনা, নিকোলাস তাগলিয়াফিকো, রদ্রিগো ডি পল, এক্সেকুয়েল পালাসিওস, লিয়ান্দ্রো পারেদেস, গুইদো রদ্রিগেজ, নিকোলাস ডমিঙ্গেজ, জিওভানি লো সেলসো, অ্যানজেল ডি মারিয়া, অ্যানজেল কোরেয়া, আলেজান্দ্রো গোমেজ, নিকোলাস গঞ্জালেস, জুলিয়ান আলভারেজ, জোয়াকুইন কোরেয়া, এমিলিয়ানো বোয়েন্দিয়া, লতারো মার্টিনেজ, লিওনেল মেসি, পাওলো দিবালা।


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে মৃত্যু ৬

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ | ৬১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৬ জন মারা গেছেন। আর একই সময়ে নতুন করে ২৬৯ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

শুক্রবার (২৭ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে, বৃহস্পতিবার  করোনায় মারা গিয়েছিলেন ৭ জন, শনাক্ত হয়েছিলেন ৩০৬ জন।

এ বিষয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, চট্টগ্রামের ১০টি ও কক্সবাজারের একটি ল্যাবে ১ হাজার ৬৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২৬৯ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম নগরেরই ১২১ জন। বাকিরা বিভিন্ন উপজেলার। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ০৭ শতাংশ।

লোহাগড়া ১০, সাতকানিয়ায় ১৭, বাঁশখালী ১৪, আনোয়ারায় ১১, চন্দনাইশে ৭, পটিয়ায় ৪, বোয়ালখালীতে ৯, রাউজানে ২৭, ফটিকছড়িতে ১৪, হাটহাজারীতে ৩০, সীতাকুণ্ডে ৪ ও সন্দ্বীপ ১ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯৮ হাজার ৫৩৭ জন। মোট শনাক্তের মধ্যে চট্টগ্রাম নগরেরই ৭১ হাজার ৭৫৫ জন। বাকি ২৬ হাজার ৭৮২ জন বিভিন্ন উপজেলার।

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়াদের ২ জন নগরের বাসিন্দা, বাকি ৪ জন বিভিন্ন উপজেলার। করোনা আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত মোট ১ হাজার ২০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৬৮২ জন চট্টগ্রাম নগরের। আর বিভিন্ন উপজেলায় মারা গেছেন ৫২৭ জন।


আরও খবর
কক্সবাজারে পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি

বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

ঘরে আগুন লেগে কলেজছাত্রের মৃত্যু

বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১




রাশিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুক হামলায় নিহত ৮

প্রকাশিত:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | ২৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাশিয়ার উরাল অঞ্চলের পের্ম শহরের বিশ্ববিদ্যালয়ে এক বন্দুক হামলায় আটজন নিহত হয়েছেন। পাশাপাশি হামলায় আরো ছয়জন আহত হয়েছেন।

সোমবার পের্ম স্টেট ইউনিভার্সিটি নামের এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এক বন্দুকধারী হামলা করলে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

এদিকে হামলার সাথে জড়িত বন্দুকধারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে খবরে জানানো হয়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, গোলাগুলি শুরু হলে ভীত লোকজন বিশ্ববিদ্যালয় ভবনের জানালা দিয়ে টপকে বাইরে পালাচ্ছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভবনের ভেতর থেকে ধারণ করা অপর এক ভিডিওতে দেখা যায়, হেলমেট মাথায় কালো পোশাক পরা অস্ত্রধারী এক ব্যক্তি ধীরে ধীরে বিশ্ববিদ্যালয় ভবনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এই সময় ক্যামেরার পেছনে থাকা ব্যক্তিরা তাদের আতঙ্ক প্রকাশ করছেন।

এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, তারা হামলাকারীকে গ্রেফতার করেছে। হামলাকারী ওই বিশ্ববিদ্যালয়েরও একজন শিক্ষার্থী বলে জানায় তারা।

হামলাকারীর বিষয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।


আরও খবর
বিশ্বজুড়ে বেড়েছে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




পাঁচ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৭৭৯ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম ৫টি বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করেছেন। রবিবার সকাল ১০টায় গণভবন থেকে ভিডিওকনফারেন্সের মাধ্যমে এই বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো উদ্বোধন করেন তিনি।

বিদ্যুৎকেন্দ্র পাঁচটি হচ্ছে- হবিগঞ্জের জুলদায় বিবিয়ানা-৩ ৪০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র, চট্টগ্রাম ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র ইউনিট-২, নারায়ণগঞ্জে মেঘনাঘাট ১০৪ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্ট, বাগেরহাটে মধুমতি ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র এবং সিলেটের ১৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১৫০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উত্তরণ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ ভবনের বিজয় হল থেকে প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বীর বিক্রম, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ওয়াসেকা আয়েশা খান, জ্বালানি বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আনিসুর রহমান, বিদ্যুৎ সচিব মো. হাবিবুর রহমান ও বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি)'র চেয়ারম্যান এবং গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ২০০৯ সালে কাজ শুরুর পর সরকার সফলভাবেই ২০ হাজার ২৯৩ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে সক্ষম ১১৯টি বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে সরকার ২০২১ সাল নাগাদ ২৪ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা গ্রহণ করেছিল। তবে এরই মধ্যে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়েছে।  বিদ্যুৎ উৎপাদন ২৫ হাজার ২৩৫ মেগাওয়াটে পৌঁছেছে- যা ২০০৯ সালে ছিল ৪ হাজার ৯৪২ মেগাওয়াট। 


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




পিবিআইয়ের তদন্তে বাদীরাই আসামি হয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বনজ কুমার মজুমদার পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের মহাপরিচালক। একজন দক্ষ তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে এবং সৎ পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে তাঁর সুনাম রয়েছে। পিবিআইকে পুলিশের একটি ফ্ল্যাগশিপ প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছেন নিজ নেতৃত্ব এবং কর্মদক্ষতার গুনে। কিন্তু পিবিআই যে মামলাগুলো তদন্ত করেছে তার একটি বড় অংশই দেখা যাচ্ছে তদন্তে উল্টো ফল হয়। সততার সঙ্গে নিষ্ঠার সঙ্গে তদন্ত হয় জন্য অনেকেই বাদী এই তদন্তে বিভাগ আসামিতে পরিণত হয়। পিবিআই সাম্প্রতিক সময়ে যতগুলো তদন্ত করেছে তার অনেকগুলোতেই এরকম ঘটনা ঘটেছে। তবে সবচেয়ে বেশি আলোচিত হয়েছে মিতু হত্যাকাণ্ড নিয়ে। পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মিতু চট্টগ্রামে আততায়ীর হাতে প্রকাশ্য দিবালোকে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। তার হত্যাকাণ্ডের পর তার স্বামী বাবুল আক্তার বাদী হয়ে মামলা করেন। এই মামলার তদন্তের এক পর্যায়ে বাবুল আক্তারকে পুলিশ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। বাবুল আক্তার সাধারণ জীবনযাপন শুরু করেন। কিন্তু একপর্যায়ে এই মামলার তদন্ত দেওয়া হয়েছিল পিবিআইকে। পিবিআই এই মামলার তদন্ত করতে গিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য পায় এবং এক পর্যায়ে মামলার বাদী হয়ে যান আসামি, এরপর নতুন করে মামলা দায়ের করেন।

সাম্প্রতিক সময়ে আরেকটি মামলা নিয়ে পিবিআই আলোচনায় এসেছে। তাহলো মুনিয়ার মৃত্যুর মামলা। গত ১৯ এপ্রিল গুলশানের একটি ফ্ল্যাটে মারা যান মুনিয়া। মুনিয়ার মৃত্যুর পর তা বোন নুসরাত তানিয়া একটি আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলা দায়ের করেছিলেন গুলশান থানায়। গুলশান থানা এই মামলার নানারকম তদন্ত শেষে এবং পোস্টমর্টেম রিপোর্টের ভিত্তিতে আত্মহত্যার কোন প্ররোচনা ঘটেনি মর্মে চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেন আদালতে। নুসরাত এই পুলিশ রিপোর্টের বিরুদ্ধে নারাজি দরখাস্ত দেন এবং তার নারাজি দরখাস্তটি যখন আদালত খারিজ করে দেন তখন গত ৬ সেপ্টেম্বর তিনি আরেকটি মামলা দায়ের করেন ৮ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে। সেখানে তিনি নুসরাতকে হত্যা এবং ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন।

উল্লেখ্য যে, একই অভিযোগে মুনিয়ার ভাই সবুজ একটি মামলা করেছিলেন সিএমএম আদালতে। যে মামলাটি আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা তদন্তের স্বার্থে স্থগিত রাখা হয়েছিল। কিন্তু একই বিষয়ে একটি হত্যা মামলা থাকার পরও আবার নতুন করে কেন হত্যা মামলা নেয়া হলো সেটি একটি আইনগত বিতর্কের বিষয়। কিন্তু এই মামলা তদন্ত করতে যেয়ে পিবিআই অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য পাচ্ছে। বিশেষ করে মুনিয়ার মৃত্যুর অন্যতম আলামত বলে মনে করা হচ্ছে গুলশানের ওই ফ্ল্যাটের সিসিটিভি ফুটেজ। কারণ একটি হত্যাকাণ্ড যদি ঘটে তাহলে অবশ্যই সেই হত্যাকাণ্ডের জন্য কিছু ব্যক্তিকে সশরীরে সেখানে যেতে হবে। বিভিন্ন সূত্র বলছে যে, মুনিয়া হত্যাকাণ্ডের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ঘর থেকে বের হন নাই। কাজেই যদি এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সত্যি হয়ে থাকে তাহলে এই ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কাউকে না কাউকে গুলশানে তার ফ্ল্যাটে যেতে হবে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় যে, যারা মুনিয়ার ফ্ল্যাটে বা ওই বিল্ডিং এ গিয়েছিল তাদের মধ্যে অন্তত তিনজন নুসরাতের পরিচিত এবং নুসরাতের সাথে ঘনিষ্ঠ। এই তিনজনকেই পরবর্তীতে গুলশান থানায় নুসরাতের সঙ্গে আত্মহত্যা প্ররোচনার মামলা করতে দেখা গেছে। এই তিনজনকেই আবার নুসরাতের সঙ্গে সিএমএম আদালতে দেখা গেছে। একটি সূত্র বলছে যে, পিবিআই এই তিনটি সিসি ফুটেজ দেখে এই তিনজন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করবে। এরা যদি নুসরাতের লোক হয় তাহলে নুসরাতের পরিণতিও বাবুলের মত হবে। কারণ পিবিআইয়ের তদন্তে বাদী যদি অভিযুক্ত হন তাহলে তাকে আসামি করতে পিছপা হয়না এই এলিট তদন্তকারী সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: পিবিআই

আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আদালতে হাজির করা হচ্ছে ইভ্যালির রাসেলকে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১