আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

পূজার পাঁচ দিনের সাজপোশাক

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
পাঞ্জাবি ছাড়া পূজা যেন ভাবাই যায় না। প্রতি বারের মতো এবার পূজাতেও পাঞ্জাবির কাটছাঁট, ডিজাইন আর কলারে এসেছে পরিবর্তন

দিনগুণে পূজার পোশাক

এবার পূজার সময়টা যেহেতু দিনে গরম আর রাতে হালকা শীতের আমেজে, তাই এ সময় পূজার পোশাক নির্বাচনে আরামের দিকটাতে নজর দিতে হবে। শারদীয় দুর্গাপূজা বেশ কয়েকদিন ধরে চললেও ষষ্ঠী থেকে দশমী এ পাঁচ দিন সাজপোশাকের আয়োজনটা থাকে জোড়ালো। ষষ্ঠী এবং সপ্তমী পূজা শুরুর দিকে হওয়ায় এ দুই দিন সাধারণত সবাই হালকা স্নিগ্ধ সাজপোশাক বেছে নেন। সকালে মণ্ডপে অঞ্জলি দিতে যাওয়ার সময় শাড়ি, সালোয়ার কামিজ যে কোনোটাই পরতে পারেন। সন্ধ্যায় ভালো লাগবে সিল্কের হালকা নকশার মিষ্টি রঙা পোশাক। ছেলেরা পরতে পারেন সুতি কাপড়ের পাঞ্জাবি-পায়জামা কিংবা ট্রাউজার, ফতুয়া। অষ্টমী পূজায় অঞ্জলি বিশেষভাবে পালন হয় এবং এদিন কুমারী পূজা হওয়ায়। তাই সবাই চায় এদিন একটু জমকালো সাজপোশাক পরতে। অষ্টমীতে বেনারসি, কাতানের মতো ভারি শাড়ি পরতে পারেন। সালোয়ার-কামিজ পরলেও একটু ভারি কাজের নকশা বেছে নিন। ছেলেদের এদিন তসর, বলাকা সিল্ক, অ্যান্ডি সিল্ক, অ্যান্ডি সুতি পাঞ্জাবি বেশ মানায়। নবমীতে মেয়েরা পরতে পারেন সালোয়ার-কামিজ, গাউন, লং স্কার্ট প্রভৃতি। ছেলেদের ভালো লাগবে পাঞ্জাবি। তবে এ দিনটিতে পায়জামার বদলে ধুতি কিংবা প্যান্ট পরলে লুক চেঞ্জ হবে। দশমীতে সবাই সিঁদুর খেলায় মেতে ওঠে। তাই গাঢ় রঙের সাজপোশাক বেছে নিন। দশমীতে লাল শাড়ি, সাদা শাড়ি লাল পাড়ের ঐতিহ্য লক্ষ করা যায়। তবে সাদা শাড়ি লাল পাড়ই যে পরতে হবে এমনও কোনো কথা নেই। জমিনে হালকা কাজ, ভারি আঁচলের কাতান, বেনারসিও চলতে পারে। রঙের ক্ষেত্রে কালচে মেরুন, ম্যাজেন্টা, সোনালি ভালো লাগবে। ছেলেরা এদিন ধুতি পরে বৈচিত্র্য আনতে পারেন। ধুতির সঙ্গে মিলিয়ে পরতে পারেন রাজকীয় মোটিফের পাঞ্জাবি। রাতে ফরমাল শার্ট-প্যান্ট, একরঙা পাঞ্জাবির সঙ্গে প্রিন্স কোট পরে বাজিমাত করতে পারেন।

আজও স্বতন্ত্র, অমলিন শাড়ি

আধুনিকা হাজারো নকশার পোশাকের ভিড়ে শাড়ি আজও স্বতন্ত্র, অমলিন। আর দুর্গোৎসবে শাড়ির সাজ চিরন্তন। ঐতিহ্যবাহী গরদের সাদা জমিনে লাল পাড়ের শাড়ির পাশাপাশি ভিন্নতা আনতে পূজার শাড়িতে এখন ডিজাইনাররা শরতের নীল, সবুজ, লাল, কমলাসহ বিভিন্ন রং ব্যবহার করছেন। জনপ্রিয় এখন দেশি সিল্ক, সুতি, মসলিন, জামদানি, কাতান শাড়ি। শঙ্খ, দুর্গা মায়ের গহনা, পদ্ম, ওম, অস্ত্র প্রভৃতি মোটিভ ব্যবহার হয়েছে পূজার শাড়িতে। নকশা ফুটিয়ে তুলতে এবার স্ক্রিন প্রিন্ট এবং হ্যান্ড অ্যাম্ব্র্র্রয়ডারির ব্যবহার বেশি হয়েছে। এ ছাড়া টাই-ডাই, অ্যাপলিক, মেশিন অ্যাম্ব্রয়ডারি, আড়িও নান্দনিক রূপে এসেছে শাড়ির নকশায়। পূজার শাড়ির সঙ্গে বেশ মানায় থ্রি-কোয়ার্টার হাতা, ঘটি হাতা, টিউলিপ হাতা, লম্বা হাতায় কুঁচি দেওয়া নকশার ব্লাউজ।

পূজার পাঞ্জাবি

পাঞ্জাবি ছাড়া পূজা যেন ভাবাই যায় না। প্রতি বারের মতো এবার পূজাতেও পাঞ্জাবির কাটছাঁট, ডিজাইন আর কলারে এসেছে পরিবর্তন। লং প্যাটার্নের পাশাপাশি সেমি লংও চলছে। রেগুলার ফিটের পাশাপাশি স্লিমফিট এখন ফ্যাশনেবল। পাঞ্জাবির গলায় এবার ব্যান্ড কলার, শার্টের কলার ছাড়াও সাদামাটা কাট চোখে পড়বে।

শেরওয়ানি গলার পাঞ্জাবি এখন অনেকেরই পছন্দ। সুতার কাজ ছাড়াও ভিন্ন কাপড়ের প্যাঁচওয়ার্ক, মেশিন অ্যাম্ব্রয়ডারি, ব্লক বেশ চলছে। স্ট্রাইপ ও প্রিন্ট পাঞ্জাবিও রয়েছে। পূজা কিছুটা গরম আর বৃষ্টির সময়টাতে হওয়ায় পাঞ্জাবির কাপড় যাতে আরামদায়ক হয় সেদিকে বিশেষ লক্ষ্য রাখা হয়েছে।

কুর্তি-কামিজে নতুনত্ব

মেয়েদের পূজার পোশাকে এবার শুধু সিঙ্গেল বা থ্রি-পিস নয়, ফোর পিসও নজর কাড়বে। ভারি কাজের লং ফোর পিসগুলো বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। অনেকটা কামিজের আদলে তৈরি নতুন প্যাটার্নের গাউনও নজর কাড়ছে। নতুন নকশার এ গাউনগুলোর ওপরে আলাদাভাবে কলার দেওয়া শর্ট কোটি ব্যবহার করা হয়েছে। জর্জেটের টিউনিকও জনপ্রিয়তা পেয়েছে। গোল গলা, ল্যান্টার্ন হাতা, উঁচু-নিচু ছাঁটে কাটা হেম আর পিনটাকের কাজের এ টিউনিকগুলোতে ফ্লোরাল মোটিফের পাশাপাশি আল্পনা ধাঁচের নকশা করা হয়েছে। প্যাঁচওয়ার্কের কাজ করা লম্বা ধাঁচের কোটিতে নতুনত্ব পাওয়া যাবে। এর সঙ্গে বেল্ট দিয়ে স্টাইল করে পরলে গর্জিয়াস লুক আসবে। মিডি কামিজ কিংবা ফ্রক কুর্তির প্রতি আগ্রহ তৈরি হয়েছে তরুণীদের। পূজার কালেকশনে মেয়েদের বিভিন্ন ধরনের পোশাকে লাইন, সিমেট্রিক, অ্যাসিমেট্রিক প্যাটার্নে তৈরি হয়েছে। বরাবরের মতো অধিকাংশ হাতা ঢোলা এবং ছড়ানো স্টাইলে করা হয়েছে। ফেব্রিক হিসাবে ব্যবহার হয়েছে সুতি, ভয়েল, লিনেন, জর্জেট, সফট সিল্ক ছাড়াও বিভিন্ন রকম অর্নামেন্টেড কাপড়। পূজায় শুধু যে দেশীয় ঘরানার সাজপোশাকই পরতে হবে, সেই ধারা ভেঙেছে অনেক আগেই। দুর্গোৎসবে অনেকেই এখন প্রতিদিন শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ না পরে দু’একদিন ফিউশন পোশাক পরেন।

ক্যাজুয়ালে নজরকাড়া

ছেলেরা ষষ্ঠী থেকে নবমীতে পরতে পারেন ক্যাজুয়াল পোশাক। ক্যাজুয়াল পোশাকের মধ্যে গোল গলা ও কলার দুই ধরনের টি-শার্টই এখন চলছে। একরঙা ও চেকের টি-শার্টেরও কদর বেশ। চাইলে যে কোনো পূজায় দুপুরে বন্ধুবান্ধবের আড্ডায় কিংবা পূজামণ্ডপে ঘোরার সময় টি-শার্ট, শার্ট, ফতুয়া পরা যায়। এখন ব্লক, বাটিক, স্কিনপ্রিন্টসহ নানা ধরনের কাজ হচ্ছে টি-শার্টগুলোতে।

বয়স্কদের পূজার পোশাক

বয়স্কদের জন্য হালকা রং নকশার আরামদায়ক ফেব্রিকে তৈরি করা হয়েছে পূজার পোশাক। বিভিন্ন ধরনের সুতি শাড়ি, তাঁতের শাড়ি, সিল্ক শাড়িতে চিকন পাড়ে হালকা রং নকশা যেমন চোখে পড়বে তেমনি চওড়া পাড়ের শাড়িও আছে। তবে বয়স্কদের শাড়ির পাড় হালকা রাখা হয়েছে। নকশায় তুলে আনা হয়েছে পূজার পটভূমিতে তৈরি বিভিন্ন মোটিভ। পাঞ্জাবির ক্ষেত্রে আরামদায়ক ফেব্রিক এবং লুজ ফিটিংয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। কলারে চিকন কাজ হালকা রং ব্যবহার হয়েছে। শার্টে ব্যবহার হয়েছে পূজার বিভিন্ন মোটিভ।

শিশুর পোশাকে স্টাইলিশ লুক

শিশুদের জন্য নানা ধরনের স্টাইলিশ পোশাক পাওয়া যাচ্ছে। আরাম পেতে সুতি কাপড়ে তৈরি হয়েছে অধিকাংশ পোশাক। রঙের ক্ষেত্রে উজ্জ্বল রংকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। শিশুদের জন্য অ্যালাইন কাট, হাতাকাটা পোশাক ছাড়াও ঘটি হাতার ফ্রক, টপসের কালেকশন বেড়েছে। পার্টির জন্য কিনতে পারেন অ্যান্ডি সিল্ক, জর্জেট, লিনেনের ফ্রক, স্কার্ট, গাউন। ছেলে শিশুদের শার্ট, টি-শার্ট, ফতুয়া, কাতুয়ায় প্রাধান্য পেয়েছে শর্ট ও ফুল স্লিভ। সাদা পাঞ্জাবির পাশাপাশি ভাইব্রেন্ট কালারের পাঞ্জাবি রাখা হয়েছে।

আছে ফ্যামিলি পোশাক

বিভিন্ন উৎসবে এখন একই নকশার পোশাকে পরিবারের সবাই সাজার সুযোগ রয়েছে। বরাবরের মতো বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজ এবারও পূজা উপলক্ষ্যে নিয়ে এসেছে দারুণ সব ডিজাইনের পূজার পোশাক। শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, পাঞ্জাবি, বাচ্চাদের পোশাক সব ড্রেসেই একই মোটিভে নকশা করা হয়েছে এসব পোশাকে। গতবারের মতো এবারও পূজা উদযাপিত হতে যাচ্ছে করোনা মহামারির মধ্যেই। তাই কেনাকাটার ক্ষেত্রে এবং পরে পূজামণ্ডপে ঘুরে বেড়াতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। জমকালো পোশাক আর ভরপুর সাজগোজ করলেও অবশ্যই মাস্ক পরুন।


আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




সামি-তাসনিমসহ চারজনের সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
১৩ জানুয়ারি এ মামলার অভিযোগপত্র জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা। সেখানে তিনজনকে অভিযুক্ত করা হয়। তারা হলেন- কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার ঢাকার সমন্বয়ক দিদারুল ভূঁইয়া ও লেখক মুশতাক আহমেদ

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সরকারবিরোধী পোস্ট দেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরায় প্রচারিত প্রতিবেদনের অন্যতম প্রধান চরিত্র সামিউল ওরফে জুলকারনাইন সায়ের খানসহ চারজনের সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাদের সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দেওয়া হয়। ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আস সামছ জগলুল হোসেন এ আদেশ দেন।

অপর তিন আসামি হলেন-নেত্র নিউজের এডিটর ইন চিফ তাসনিম খলিল, আশিক ইমরান ও স্বপন ওয়াহিদ।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) ট্রাইব্যুনালের পেশকার শামীম আল মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিচারক চার আসামির সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ দেন। ক্রোক সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৮ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

এর আগে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সামিউল ওরফে জুলকারনাইন সায়ের খানসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল। অন্যদিকে, লেখক মুশতাক আহমেদসহ চারজনকে অব্যাহতি দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। একই সঙ্গে লেখক মুশতাক আহমেদসহ চারজনকে অব্যাহতি দেন। মামলার চার্জ গঠনের জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত। লেখক মুশতাক গত ২৫ ফেব্রুয়ারি রাতে মারা যান। অব্যাহতি প্রাপ্ত অপর তিন আসামি হলেন- যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সাংবাদিক সাহেদ আলম, জার্মান প্রবাসী ব্লগার আসিফ মহিউদ্দিন ও ফিলিপ শুমাখার।

আর আদালতে উপস্থিত না হওয়ায় নেত্র নিউজের এডিটর ইন চিফ তাসনিম খলিল, সামিউল ওরফে জুলকারনাইন সায়ের খান, আশিক ইমরান ও স্বপন ওয়াহিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

এরআগে রোববার (১৩ জুন) ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে এ অভিযোগ জমা দেন মামলার তদন্ত সংস্থা কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) উপ-পরিদর্শক আফসার আহম্মদ।

অভিযুক্ত আসামিরা হলেন- আল জাজিরা টেলিভিশনে সম্প্রতি প্রচারিত একটি প্রতিবেদনের অন্যতম প্রধান চরিত্র সামিউল ওরফে জুলকারনাইন সায়ের খান, কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার ঢাকার সমন্বয়ক দিদারুল ভূঁইয়া, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক পরিচালক মিনহাজ মান্নান, নেত্র নিউজের এডিটর ইন চিফ তাসনিম খলিল, আশিক ইমরান ও স্বপন ওয়াহিদ।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন গ্রহণের জন্য দিন ধার্য ছিল। রাষ্ট্রপক্ষের মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য আবেদন করেন। ১০ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটকে (সিটিটিসি) তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি এ মামলার অভিযোগপত্র জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা। সেখানে তিনজনকে অভিযুক্ত করা হয়। তারা হলেন- কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোর, রাষ্ট্রচিন্তার ঢাকার সমন্বয়ক দিদারুল ভূঁইয়া ও লেখক মুশতাক আহমেদ।

তবে প্রমাণ না পাওয়ায় এজাহারভুক্ত আট আসামিকে অব্যাহতির আবেদন করে পুলিশ। তারা হলেন- ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের সাবেক পরিচালক মিনহাজ মান্নান, নেত্র নিউজের এডিটর ইন চিফ তাসনিম খলিল, যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী সাংবাদিক সাহেদ আলম, জার্মানপ্রবাসী ব্লগার আসিফ মহিউদ্দিন, জুলকারনাইন সায়ের খান, আশিক ইমরান, স্বপন ওয়াহিদ ও ফিলিপ শুমাখার।

২০২০ সালের ৫ মে র‌্যাব-৩ সিপিসি-১ এর ওয়ারেন্ট অফিসার মো. আবু বকর সিদ্দিক বাদী হয়ে ১১ জনের নামে রমনা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাত আরও ৫/৬ জনকে আসামি করা হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আই এম বাংলাদেশি’ নামে একটি ফেসবুক পেজে আসামিরা রাষ্ট্রের ভাবমূর্তি বা সুনাম ক্ষুণ্ন করতে বা বিভ্রান্তি ছড়ানোর উদ্দেশ্যে অপপ্রচার বা গুজবসহ বিভিন্ন ধরনের পোস্ট করেন। যা জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি এবং আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটায়। ওই পেজের অ্যাডমিন সায়ের জুলকারনাইন এবং আমি কিশোর, আশিক ইমরান, ফিলিপ শুমাখার, স্বপন ওয়াহিদ, মুশতাক আহমেদ নামীয় ফেসবুক আইডিসহ পাঁচজন এডিটর পরস্পর যোগসাজশে ফেসবুক পেজটি দীর্ঘদিন পরিচালনা করছেন।

আহমেদ কবীর কিশোর, তাসনিম খলিল, জুলকারনাইন সায়ের খান, সাহেদ আলম ও আসিফ মহিউদ্দিনের মধ্যে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক চ্যাটিং’ এর প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে উল্লেখ করা হয়।

এজাহারে আরও বলা হয়, তাদের ব্যবহৃত স্যামসাং মোবাইল ফোনে আমি কিশোর’ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগইন অবস্থায় পাওয়া যায়। আলামত পর্যালোচনা করে রাষ্ট্রবিরোধী পোস্ট, মহামারি করোনাভাইরাস, সরকারদলীয় বিভিন্ন নেতার কার্টুন দিয়ে গুজব ছড়িয়ে জনগণের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টির প্রমাণ পাওয়া যায়। এছাড়াও হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুক মেসেঞ্জারে তাসনিম খলিল, সায়ের জুলকারনাইন (জুলকারনাইন সায়ের খান), সাহেদ আলম, আসিফ মহিউদ্দিনের সঙ্গে রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক চ্যাটিংয়ের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

নিউজ ট্যাগ: আল জাজিরা

আরও খবর



১৬৫ রানের টার্গেটে নামিবিয়া

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুই দলের জন্যই বাঁচা-মরার লড়াই। আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৪ উইকেটে ১৬৪ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে নেদারল্যান্ডস। অর্থাৎ জিততে হলে নামিবিয়ার করতে হবে ১৬৫ রান।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খারাপ হয়নি ডাচদের। স্টিফেন মাইবার্গ আর ম্যাক্স ও'দাউদ ৩৪ বলে দলকে এনে দেন ৪২ রান।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে এসে ফেরেন মাইবার্গ (১৬ বলে ১৭)। এরপর সুবিধা করতে পারেননি ফন ডার মারউইও (৪ বলে ৬)। ১৩ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে নেদারল্যান্ডস।

তবে ও'দাউদ আর কলিন অ্যাকারম্যান এরপর দেখেশুনে খেলা শুরু করেন। ৪২ বলে ফিফটি পূরণ করেন ও'দাউদ। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তারা তোলেন ৬৭ বলে ৮২ রান।

১৮তম ওভারে এসে জুটিটি ভাঙে অ্যাকারম্যান সাজঘরের পথ ধরলে। ৩২ বলে তার উইলো থেকে আসে ৩৫ রান। তবে ওপেনিংয়ে নামা ও'দাউদ একদম শেষ ওভার পর্যন্ত খেলেছেন।

ইনিংসের ৩ বাকি থাকতে অবশেষে আউট হন ও'দাউদ, পড়েন রানআউটের কবলে। ডাচ ওপেনার ৫৬ বলে ৬ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় করেন ৭০ রান। তার ইনিংসটিই মূলত লড়াকু পুঁজি এনে দিয়েছে নেদারল্যান্ডসকে। ১১ বলে ২১ রানে অপরাজিত থাকেন স্কট অ্যাডওয়ার্ডস।

নামিবিয়ার বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল ছিলেন জ্যান ফ্রাইলিংক। ৩৬ রান দিয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন তিনি।


আরও খবর



আজ আপনার জন্মদিন হলে

প্রকাশিত:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৮০জন দেখেছেন
Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি তুলা রাশির জাতক/জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৯। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : শুক্র ও মঙ্গল। আপনার শুভ সংখ্যা : ৬ ও ৯। শুভ বার : শুক্র ও মঙ্গল। শুভ রত্ন : হীরা ও রক্তপ্রবাল।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। আইনগত ঝামেলা এড়িয়ে চলুন। ব্যয় কমানোর চেষ্টা করুন। দূরের যাত্রা হতে পারে। গোপন শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

শ্রমিক নেতাদের জন্য সময় অনুকূল থাকতে পারে। সাংগঠনিক কাজে সুফল হবেন। কোনো আশা পূরণ হতে পারে। ভবিষ্যতের জন্য কোনো পরিকল্পনা গ্রহণ করতে পারেন। আর্থিক দিক ভালো যাবে।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

কর্মপরিবেশ অনুকূল থাকবে। কর্মস্থলে নিজের কর্তৃত্ব বজায় রাখতে পারবেন। বেকারদের কারো কারো চাকরি হতে পারে। পিতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। সামাজিক অবস্থান সুদৃঢ় হতে পারে।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

মন ভালো থাকবে। পেশাগত দিক ভালো যাবে। কোনো আশা পূরণ হতে পারে। ভ্রমণের সুযোগ পেতে পারেন। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। অতীন্দ্রিয় শাস্ত্রাদির প্রতি আগ্রহ বোধ করতে পারেন। সামাজিক সংকট এড়িয়ে চলুন। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে না। বিক্রয়-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

কোনো ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সহযোগিতা পেতে পারেন। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে। যৌথ ও অংশীদারী কারবারের সুফল পাবেন। রোমান্স ও বিনোদন শুভ।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

শত্রুরা ক্ষতি করার চেষ্টা করতে পারেন। শত্রুকে দুর্বল ভাববেন না। সীমা লংঘন করা ঠিক হবে না। ব্যক্তিগত দায় দায়িত্ব বৃদ্ধি পেতে পারে। কর্মস্থলে যাবতীয় ঝামেলা। এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

নিজের মনোভাব স্পষ্টভাবে প্রকাশ করুন। ধর্মীয় কাজে আনন্দ পাবেন। সন্তানকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করুন। বিদ্যার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

কোনো প্রত্যাশা পূরণ হতে পারে। কোনো স্থাবর সম্পত্তি ক্রয় করতে পারেন। মন ভালো থাকবে। পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বোধ করতে পারেন। পারিবারিক পরিবেশ অনুকূল থাকতে পারে।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

বন্ধুদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকতে পারে। কাজকর্মে উৎসাহ বোধ করতে পারেন। প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় উপকৃত হতে পারেন। প্রবাসী আপনজনের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। প্রাপ্ত তথ্যের ওপর নির্ভর করা যেতে পারে।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

আর্থিক দিক ভালো যাবে। প্রাপ্তিযোগ আছে। অধীনদের কাজে লাগাতে পারবেন। প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার চেষ্টা করুন। পড়াশোনা আনন্দ পাবেন।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

আত্মপ্রতিষ্ঠার চেষ্টা জোরদার করুন। সেক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। ব্যক্তিত্ব দিয়ে অন্যকে প্রভাবিত করতে পারবেন। ভালো ব্যবহার দিয়ে কাজ আদায় করার চেষ্টা করুন। শরীর ভালো থাকবে।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




সরকারি কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করবে তালেবান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইসলামিক আমিরাত অব আফগানিস্তানের দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী আবদুস সালাম হানাফি বলেছেন, জনগণের সমস্যা সমাধানে সাহায্য করার জন্য সরকার তার কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করবে।

আবদুস সালাম হানাফি বলেন, শীত মৌসুম ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে সরকার উন্নয়ন কর্মসূচি পুনরায় চালুর পরিকল্পনা করছে। সরকারি কর্মকর্তারা বলছেন, কিছু উন্নয়ন কর্মসূচি আবার চালু হয়েছে। আর সপ্তাহে সাত দিন, ২৪ ঘণ্টা কাস্টমসের কার্যক্রম চলবে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সভায় হানাফি যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশকে আটকে রাখা আফগানিস্তানের সম্পদ ফেরত দেওয়ার আহ্বান জানান। হানাফি বলেন, আফগানিস্তানের সম্পদ জব্দের যে সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্র নিয়েছে, তা আন্তর্জাতিক আইনের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

ইসলামিক আমিরাত অব আফগানিস্তানের দ্বিতীয় উপপ্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বর্তমান সরকার উজবেকিস্তানসহ আঞ্চলিক দেশগুলোর সঙ্গে বড় ধরনের প্রকল্প চালু এবং তহবিল স্থানান্তরে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে।

দীর্ঘ ২০ বছর পর যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেয়। এর মধ্যে ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এর পর তারা সরকার গঠন করে দেশটি। যদিও নতুন সরকারকে কোনো দেশ এখনও স্বীকৃতি দেয়নি।


আরও খবর



মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে বিচ্ছেদের কারণ জানালেন ইভা

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৯৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিছুদিন হলো এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর আবারও বিয়ে করেছেন সঙ্গীত শিল্পী ইভা। তবে ঠিক কি কারণে তাদের এই বিচ্ছেদ- তা নিয়ে পরিস্কার করে কেউই এর আগে কিছু বলেননি। এবার বিচ্ছেদের কারণ ব্যাখ্যা করলেন ইভা।

জানালেন, দীর্ঘ ৯ বছর সন্তানকে নিয়ে নিঃসঙ্গ দিন কাটাচ্ছিলেন ইভা। এরপর সন্তান ও নিজের স্বাভাবিক ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

ইভা বলেছেন,২০১২ থেকে আমরা আলাদা থাকা শুরু করি। আমি আর আমার ছেলে থাকতাম গুলশানে আর উনি থাকতেন বনানীতে। এভাবে একটি সম্পর্ক ঝুলে থাকতে পারে না। নয় বছর চেষ্টা করেও সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে পারিনি। এজন্য উনার অসহযোগিতা দায়ী।

ইভা আরও বলেন,নতুন স্বামীর কাছে গানের ব্যাপারে অনেক অনুপ্রেরণা পাচ্ছি।

আগামীতে আরও গান করার আশা প্রকাশ করে ইভা বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে ট্রল করে আমাকে গানের পাখি বলেছেন। এতে হতাশ হয়েছি। তবে গঠনমূলক সমালোচনাকে আমি স্বাগত জানাই।

উল্লেখ্য, গত ৪ জুন মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়। এরপর ১৭ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিক ডিভোর্স সার্টিফিকেট হাতে পান। এরপর গত ১৯ সেপ্টেম্বর ইভার গুলশানের বাসায় দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে সোহেল আরমানের সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। আরমান ঢাকার ছেলে। পেশায় ব্যবসায়ী।

ইভার এ পর্যন্ত ৩০টি গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। অ্যালবামের বাছাই করা কিছু গানের ভিডিও চিত্রায়ণ হয়েছে দেশে ও দেশের বাইরে।


আরও খবর