আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

রাজধানীর রায়েরবাজারে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ১৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর রায়েরবাজারে মেকাপ খান রোডে ছুরিকাঘাতে আহত হোসেন (১৯) নামের এক যুবক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। আজ শনিবার ভোর ৪টার দিকে ধানমণ্ডির একটি বেসরকারি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁর মৃত্যু হয়। মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) লিটন মাতবর এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এসআই লিটন মাতবর বলেন, শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ছুরিকাঘাতের এ ঘটনা ঘটে। চার-পাঁচ জনের একটি দল হোসেনের ডান পাঁজরে আঘাত করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

লিটন মাতবর আরও বলেন, ঘটনাটি পূর্বশত্রুতার জের ধরে ঘটতে পারে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া বলেন, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে।

নিহত হোসেনের বোন মোমেনার বরাত দিয়ে লিটন মাতবর বলেন, হোসেন রায়েরবাজার এলাকাতে থাকতেন। গদিঘর এলাকায় একটি জুয়েলারি কারখানায় কাজ করতেন তিনি। শুক্রবার সকালে বাসা থেকে বের হয়ে কারখানায় যাচ্ছিলেন। পথে মেকাপ খান রোডে চার জন যুবক তাঁর ডান পাঁজরে ছুরিকাঘাত করে তাঁর মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগ হাতিয়ে পালিয়ে যায়। শোনা যাচ্ছে, দুর্বৃত্তেরা হোসেনের পরিচিত। পরে আহত অবস্থায় তাঁকে প্রথমে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখান থেকে ঢামেকে নিয়ে তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়। অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকেরা তাঁর আইসিইউ সাপোর্ট লাগবে বলে জানালে স্বজনেরা ধানমণ্ডি-২৭ নম্বরে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান।


আরও খবর



আজ ঢাকায় আসছেন ডেনমার্কের রাজকুমারী

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তিনদিনের সফরে সোমবার (২৫ এপ্রিল) ডেনমার্কের রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ ঢাকায় আসছেন। এ সফরে তিনি রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনসহ জলবায়ু ইস্যুতে গুরুত্ব দেবেন।

কূটনৈতিক সূত্র বলছে, সকাল ১০টা নাগাদ ঢাকায় পৌঁছাবেন রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ। বাংলাদেশ সফরকালে ডেনমার্কের রাজকুমার ফ্রেডরিকের স্ত্রী এলিজাবেথকে অতি গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির (ভিআইপি) মর্যাদা দেওয়া হবে।

জানা যায়, ঢাকায় পৌঁছার পর ডেনমার্কের রাজকুমারী প্রথম কর্মসূচীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে সাক্ষাৎ করবেন। দুপুরে রাজকুমারী ঢাকায় ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত কর্তৃক আয়োজিত মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন। বিকেলে  রাজধানীর একটি হোটেলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন এবং বিকেল ৫টার দিকে তার কক্সবাজারে যাওয়ার কথা রয়েছে।

পরদিন মঙ্গলবার সকালে তিনি ডেনিশ রিফিউজি কাউন্সিলের (ডিআরসি) ব্রিফিংয়ে যোগ দেবেন। তিনি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গিয়ে ক্যাম্প ৫-এ বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে মাটি ক্ষয় নিয়ন্ত্রণ ও ডিআরসির পরিবেশ পুনরুদ্ধার কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করবেন। রাজকুমারী কয়েকজন রোহিঙ্গা সুবিধাভোগীর সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

কক্সবাজার থেকে বুধবার সকালে রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ সাতক্ষীরা যাবেন এবং জলবায়ু-ঝুঁকিপূর্ণ মানুষের সঙ্গে দেখা করতে কুলতী গ্রামে যাবেন। রাজকুমারী জলবায়ু ঝুঁকিপূর্ণ ওই এলাকার জনপদে ঘুরবেন এবং সেখানকার সাইক্লোন সেন্টার ও বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করবেন। সেখানে তিনি বাঁধের পাশে বসবাস করা প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনের সঙ্গে কথা বলবেন।

পরে বুধবার রাতে ইস্তাম্বুলের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করার কথা রয়েছে রাজকুমারীর।


আরও খবর



সম্রাটের জামিন বাতিল

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের জামিন বাতিল করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। সাতদিনের মধ্যে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৭ মে)  হাইকোর্টের বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজহারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার সম্রাটের জামিন বাতিল চেয়ে দুদকের করা আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে আদেশের জন্য বুধবার (১৮ মে) দিন ধার্য্য করেন আদালত।

এর আগে বিচারিক আদালতের দেওয়া জামিনের বিরুদ্ধে রিভিশন চেয়ে সোমবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয়।

গত ১১ মে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬-এর বিচারক আল আসাদ মো. আসিফুজ্জামান সম্রাটের অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচারের দুই মামলায় জামিন দেন। তিনটি শর্তে তাকে জামিন দেওয়া হয়। ওই দিন কারাগারে জামিনের কাগজ পৌঁছালে বিকালেই তাকে মুক্ত করে দেওয়া হয়। আগে থেকেই সম্রাট ঢাকা কেরানীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারের আওতায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) হৃদরোগ বিভাগে ভর্তি ছিলেন। জামিনের পরও তিনি সেখানে ভর্তি আছেন।

ক্যাসিনোকাণ্ডে ২০১৯ সালের ৭ অক্টোবর সম্রাটকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তাকে নিয়ে কাকরাইলে তার কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। এসময় কার্যালয়ের ভেতর থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, পিস্তল ও বিরল প্রজাতির বন্যপ্রাণীর চামড়া উদ্ধার করা হয়। তখন থেকে প্রায় আড়াই বছর কারাগারে ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সাবেক এই নেতা।

সম্রাটের জামিনের তিন শর্তের মধ্যে রয়েছে- আদালতের অনুমতি ছাড়া দেশত্যাগ করতে পারবেন না, পাসপোর্ট জমা দিতে হবে এবং স্বাস্থ্যগত পরীক্ষার প্রতিবেদন আগামী ধার্য তারিখে জমা দিতে হবে।

এর আগে ২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর দুই কোটি ৯৪ লাখ ৮০ হাজার ৮৭ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সম্রাটের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন দুদকের উপপরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম।

এদিকে গত ১১ এপ্রিল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় সম্রাটের জামিন মঞ্জুর করেন ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ তেসিন ইফতেখার। এ ছাড়া গত ১০ এপ্রিল অস্ত্র মামলায় ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ ফায়সাল আতিক বিন কাদের ও অর্থপাচার মামলায় ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন জামিন মঞ্জুর করেছিলেন।


আরও খবর



মাদকের বিরুদ্ধে সামিজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: খাদ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৩১০জন দেখেছেন

Image

নওগাঁ প্রতিনিধি:

মাদকের বিরুদ্ধে সামিজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে এবং একই সাথে সকলকে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার আহবান জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

আজ বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আহ্বান জানান মন্ত্রী।

এসময় মন্ত্রী আরও বলেন শুধু অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে বা সাজা দিয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। যে যার জায়গা থেকে সামিজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। তবেই মাদক নিয়ন্ত্রণ সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী মাদক নিরসনে দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্যেশে কঠোর হুশিয়ারী করে বলেন জেলা বা উপজেলা আওয়ামীলীগের কোন নেতাকর্মী কোন মাদক ব্যাবসায়ীর পক্ষে সুপারিশ করতে পারবে না। যদি কোন নেতাকর্মী কোন মাদক ব্যবসায়ীর পক্ষে সুপারিশ করতে যায় ঐ মামলার চার্জশীটে তার নাম অন্তর্ভুক্ত করার জন্যও তিনি প্রশাসনকে নির্দেশ দেন।

তিনি সকল অবিভাবকদের উদ্যেশে বলেন আগামী প্রজন্মকে মাদকের ভয়াল প্রভাব থেকে মুক্ত রেখে একটি সুন্দর জাতি ও সুষ্ঠু বাংলাদেশ গঠনে পরিবার থেকেই আন্দোলন শুরু হওয়া দরকার। পরিবারের সুশিক্ষা এবং সচেতনতা নতুন প্রজন্মকে মাদক থেকে দুরে রাখবে। মাদকের বিরুদ্ধে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে এক সাথে কাজ করারও আহবান জানান মন্ত্রী।

জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান পিএএ এর সভাপতিত্বে সভায় পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়াসহ জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তা, বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ নওগাঁ ও পত্নীতলা ব্যটালিয়ন এর কমান্ডিং অফিসারবৃন্দ, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



জ্যাকলিনের সাড়ে ৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে হাত মেলানোর অভিযোগে ইডি এবার তলব করল শ্রীলঙ্কান অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজকে। জানা গিয়েছে, প্রায় সাড়ে ৭ কোটি টাকার অবৈধ সম্পত্তির মালিকানা রয়েছে তাঁর। যার মধ্যে ৫ কোটি ৭১ লক্ষ টাকার সম্পদ সুকেশই তাঁকে উপহার দিয়েছিলেন, কালো টাকা সাদা করতে।

ইডির অনুমান, সুকেশ তোলাবাজির অর্থ ব্যবহার করেই জ্যাকলিনের জন্য উপহার কিনেছেন। শুধু তাই নয়, তিনি জ্যাকলিনের পরিবারের সদস্যদের জন্যও ১৭৩,০০০ মার্কিন ডলার এবং প্রায় ২৭,০০০ অস্ট্রেলিয়ান ডলারের কাছাকাছি খরচ করেছেন। যার সবটাই বেআইনি পথে উপার্জন করা বলে জানা গিয়েছে। অতএব সেই সমস্ত সম্পত্তি এখন বাজেয়াপ্ত করার উদ্যোগ নিয়েছে ইডি।

ওদিকে সুকেশের নামও অপরাধের খাতায় পরপর। রাজনীতিবিদ টিটিভি ধীনাকরণের সঙ্গে একটি পাঁচ বছরের পুরনো প্রতারণার মামলায় নাম জড়িয়ে রয়েছে সুকেশের। এবছর ৪ এপ্রিল তাঁকে গ্রেফতার করে ইডি।

গত বছর, ছদ্মবেশে দিল্লির এক ব্যবসায়ীর স্ত্রীর কাছ থেকে ২১৫ কোটি টাকা তোলার জন্য সুকেশকে গ্রেফতার করেছিল ইডি। তাঁর সঙ্গে এবার জ্যাকলিনের নাম জড়াতে নতুন করে শোরগোল পড়ল।


আরও খবর



কোন ডালের পুষ্টিগুণ বেশি

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডাল প্রোটিনের অন্যতম প্রধান উৎস। শুধু প্রোটিনই নয়, ডালের গুণও অনেক। বাজারে বিভিন্ন ধরনের ডাল পাওয়া যায়। এক এক ডালের স্বাদ এক রকম। শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন পুষ্টি, ভিটামিন ও খনিজ আমরা এই ডাল থেকেই পেয়ে থাকি। শরীরকে সুস্থ সবল রাখতে ডালের গুরুত্ব অপরিসীম।

এক একজনের পছন্দের তালিকায় এক এক রকম ডাল রয়েছে। তবে আপনি যে ডালই পছন্দ করুন না কেন, তার পুষ্টি গুণ কতটা সেটা অবশ্যই যাচাই করে নেবেন। বাজারে সাধারণত ৫ রকম ডাল পাওয়া যায়। সেই গুলো সম্পর্কে একটু জেনে নিন। তারপর আপনিই পছন্দ করুন কোন ডাল খাবেন।

ছোলা

ছোলায় বিশ শতাংশের কাছাকাছি প্রোটিন থাকে। এ কারণেই ক্রীড়াবিদরা সকালে খেলাধুলা করার আগে নিয়মিত ভিজিয়ে রাখা ছোলা খান। কারণ, এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। যারা নিরামিষ খাবার খান, তাদের দেহে প্রোটিনের ঘাটতি পূরণ করতে পারে ছোলা।

মসুর ডাল

যারা ওজন কমাতে চাইছেন,তাদের জন্য প্রোটিন অত্যন্ত জরুরি। তার জন্য একটি বিকল্প হল মসুর ডাল। ১০০ গ্রাম মসুর ডালে প্রায় ২৬ গ্রাম প্রোটিন থাকে। পাশাপাশি, মসুর ডালে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম ও ফাইবার পাওয়া যায়। মসুর ডালে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের পরিমাণও ভালো।

মুগ ডাল

মুগ ডাল কোলেসিস্টোকাইনইন হরমোনের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে। এতে বিপাক হার বাড়ে। পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আয়রন, কপার ও ভিটামিন বি কমপ্লেক্সে ভরপুর মুগ ডাল রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ও মস্তিষ্ক ভালো রাখতে সাহায্য করে।

অড়হর ডাল

সব ডালের মধ্যে অড়হর ডালে সবচেয়ে বেশি পরিমাণ প্রোটিন পাওয়া যায়। পাশাপাশি এতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন বি থাকে। এই ডালে খুবই কম পরিমাণে ফ্যাট এবং ক্যালরি রয়েছে। এতে থাকা আয়রন, ফলিক অ্যাসিড, ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম কর্মশক্তি বাড়াতে ভূমিকা রাখে।

নিউজ ট্যাগ: ডালের পুষ্টিগুণ

আরও খবর
‘আম’ চিনুন তারপর কিনুন

বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২