আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

রাজশাহী মেডিকেলে করোনায় আরও ৮ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে আটজন মারা গেছেন। সোমবার (৭ জুন) সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার (৮ জুন) সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক সাইফুল ফেরদৌস এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সাইফুল ফেরদৌস বলেন, তাদের মধ্যে তিনজন করোনা আক্রান্ত ছিলেন। বাকিরা করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। তাদের মধ্যে রাজশাহীর ৪ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৩ জন ও পাবনার ১ জন রয়েছেন।

গত ২৪ মে থেকে ৮ জুন পর্যন্ত ১৬ দিনে রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিট ও আইসিউতে মারা গেলেন ১১৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৩৩ জন, রাজশাহীর ১৬, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১৪, নওগাঁর এক ও নাটোরের দুইজন।

রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি আছে ২৫৭ জন। রাজশাহীর ১২৭, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ১০২, নাটোরের ১১, নওগাঁর নয়, পাবনার চারজন, কুষ্টিয়ার তিন, জয়পুরহাটের একজন। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন ১৮ জন।


আরও খবর



১ জনে ভারতে নারী পাচার করেছেন ১ হাজর এরও বেশি

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ৯২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে পাচার হওয়া এক কিশোরী ৩ মাসের নির্যাতন ও বন্দিদশা থেকে পালিয়ে দেশে ফিরে হাতিরঝিল থানায় মামলা করেছেন। এই পাচারচক্রে জড়িত ৩ আসামিকে সাতক্ষীরার সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতদের একজন ১ হাজারেরও বেশি নারীকে বিদেশে পাচারে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (২ জুন) ভোরে সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের হাতিরঝিল জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার হাফিজ আল ফারুক।

তিনি জানান, আজ সকাল ৯টা ৫০ মিনিটের দিকে সংবাদ সম্মেলন করে তেজগাঁও বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের (ডিসি) কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।

নিউজ ট্যাগ: নারী পাচার

আরও খবর



রাজশাহীতে ধসে পড়ল চারতলা ভবন

প্রকাশিত:রবিবার ২০ জুন ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ভবনটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ ফুট। প্রস্থেও ছিল ৪০ ফুট। চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছিল। ওপরে আরেকতলা তোলার জন্য বিম ওঠানো হয়েছিল। ধারনা করা হচ্ছে নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছি। এ কারণে ভবনটি ভেঙে মাটির সাথে মিশে পড়েছে।

রাজশাহী মহানগরীতে আকস্মিক ভেঙে পড়েছে একটি চারতলা ভবন। ভবনটিতে কেউ না থাকায় হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে মাটিতে ধসে পড়া ভবনের চাপে কয়েকটি প্রাইভেট কার মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। রবিবার (২০ জুন) বিকেল ৩টার দিকে মহানগরীর কয়েরদাঁড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ভবনটির মালিক ছিলেন মরহুম আক্তারুজ্জামান বাবলু। প্রায় এক বছর আগে তিনি মারা যান। এখন ভবনের মালিকানায় আছেন তার ছোট ভাই নুরুজ্জামান পিটার। তবে আক্তারুজ্জামান বাবলুর মৃত্যুর পর থেকে ভবনটিতে আর কাজ হয়নি।

এদিকে ধসে পড়া ভবন মালিকের ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল হোসেন মডি দাবি করেন, ভবনটিতে ভালমানের সামগ্রীই ব্যবহার করা হয়েছিল। তিনি বলেন, ভবন আগেই নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু কেউ থাকত না। তবে রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (আরডিএ) থেকে ওই ভবনটির নির্মাণের জন্য ডিজাইন ও নঁকশার অনুমোদন নেয়া হয়েছিল কিনা তা তিনি জানেন না।

রাজশাহী সদর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবদুর রউফ জানান, ভবনটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ ফুট। প্রস্থেও ছিল ৪০ ফুট। চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছিল। ওপরে আরেকতলা তোলার জন্য বিম ওঠানো হয়েছিল। ধারনা করা হচ্ছে নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছি। এ কারণে ভবনটি ভেঙে মাটির সাথে মিশে পড়েছে।

তিনি আরও বলেন, ভবনের নকশা অনুমোদন ছিল কিনা, কোন ধরনের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার হয়েছিল- এসব তারা তদন্ত করে দেখবেন।

নিউজ ট্যাগ: রাজশাহী ভবন ধস

আরও খবর



করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৬০, শনাক্ত প্রায় ৪ হাজার

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে আরও ৬০ জন মারা গেছেন। তাদের মধ্যে পুরুষ ৩৬ জন ও নারী ২৪ জন। ৬০ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ৪৬ জন, বেসরকারি হাসপাতালে নয়জন ও বাসায় পাঁচজন মারা যান। এ নিয়ে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৩ হাজার ২৮২ জনে।

এই সময়ে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও তিন হাজার ৯৫৬ জন। আক্রান্তের সংখ্যা মোট বেড়ে দাঁড়িয়েছে আট লাখ ৩৭ হাজার ২৪৭ জনে। শনাক্তের হার ১৬.৬২ শতাংশ।

বুধবার (১৬ জুন) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ৫১২টি ল্যাবরেটরিতে ২৩ হাজার ৯৬৭টি নমুনা সংগ্রহ ও ২৩ হাজার ৮০৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৬২ লাখ ৪২ হাজার ৭৮৬টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৬২ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৩ দশমিক ৪১ শতাংশ।

এই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন দুই হাজার ৬৭৯ জন। এ নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা সাত লাখ ৭৩ হাজার ৭৫২ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৪২ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৬০ জনের মধ্যে দশোর্ধ্ব তিনজন, বিশোর্ধ্ব একজন, ত্রিশোর্ধ্ব সাতজন, চল্লিশোর্ধ্ব ১০ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১৬ জন ও ষাটোর্র্ধ্ব ২৩ জন রয়েছেন।

বিভাগওয়ারী দেখা গেছে, মৃত ৬০ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে আটজন, চট্টগ্রামে আটজন, রাজশাহীতে ১৭ জন, খুলনায় ১৪ জন, সিলেটে ছয়জন, রংপুরে চারজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে তিনজনের মৃত্যু হয়।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১




করোনাকালে ফুসফুস সুস্থ রাখতে উপকারী যেসব পানীয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ১৬৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাতাসে দূষণের কারণে প্রতিনিয়ত আমাদের ফুসফুস কোনও না কোনওভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তার উপরে আবার করোনার সংক্রমণ ফুসফুসকে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। ফুসফুস শরীরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। ফুসফুস অক্সিজেন গ্রহণ করে এবং শরীর থেকে কার্বন-ডাই-অক্সাইড বের করে দেয়। তাই সুস্থ ও ফিট থাকতে গেলে ফুসফুসের যত্ন নেওয়া উচিত। এমন কিছু পানীয় আছে যেগুলি ফুসফুস সুস্থ রাখতে সহায়তা করে। যেমন-

লেবু, আদা এবং গোলমরিচ: লেবু, আদা এবং গোলমরিচের চা মুলত প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসেবে বিবেচিত হয়। এই চা শরীরকে বিষমুক্ত করে। লেবু চা মনকে সতেজ করে, আদা শক্তি বাড়ায় এবং গোরমরিচ গলা পরিষ্কার করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

মধু এবং গরম পানি: মধু এবং গরম পানি ফুসফুসকে দূষণের হাত থেকে রক্ষা করতে খুবই কার্যকরী। মধুতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান প্রদাহ কমায়। অন্যদিকে শরীরকে ডিটক্সিফাই করার জন্য হালকা গরম পানি বেশ উপকারী।

হলুদ এবং আদা: হলুদে শরীরের জন্য উপকারী কারকিউমিনে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি, অ্যান্টিটক্সিসিটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এটি শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ গুলিকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে এবং শরীর থেকে বিষাক্ত টক্সিন বের করে দিতেও সহায়তা করে। অপরদিকে, আদা বমি ভাব দূর করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

গ্রিন টি: গ্রিন টিতে প্রচুর স্বাস্থ্যকর উপকারিতা রয়েছে, যার মধ্যে ফুসফুস পরিষ্কার রাখা অন্যতম। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন টি, ফুসফুসের প্রদাহ কমাতেও বিশেষভাবে উপযোগী। আদা, লেবু অথবা মধু দিয়ে প্রতিদিন অন্তত এক কাপ গ্রিন টি পান করলে উপকারিতা পাওয়া যায়।

যষ্টিমধু: যষ্টিমধুর চা সর্দি-কাশি, নাক বন্ধ কিংবা জ্বর কমাতে দারুন কাজ করে। এমনকি এই পানীয়টি নিয়মিত গ্রহণ করলে, হৃদরোগ  হওয়ার ঝুঁকি কমায় এবং ফুসফুস পরিষ্কার রাখতেও সহায়তা করে।

এসব পানীয় ছাড়াও ফুসফুস সুস্থ রাখতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম, নিয়মিত ব্যায়াম এবং ধূমপানের অভ্যাস ত্যাগ অত্যন্ত জরুরি।



আরও খবর
বাবার জন্য ভালোবাসা

রবিবার ২০ জুন ২০21




বঙ্গবন্ধুর ৪ খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিল করে প্রজ্ঞাপন

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৬ জুন ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত ৪ খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব ও পদক বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। আজ রবিবার মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। প্রজ্ঞাপনে যে ৪ জনের খেতাব ও পদক বাতিল হয়েছে তারা হলেন- শরিফুল হক ডালিম, নূর চৌধুরী, রাশেদ চৌধুরী ও মোসলেহ উদ্দিন।

প্রসঙ্গত, মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য স্বাধীনতার পর শরিফুল হক ডালিম বীর উত্তম, নূর চৌধুরী বীর বিক্রম, রাশেদ চৌধুরী বীর প্রতীক ও মোসলেহ উদ্দিন বীর প্রতীক খেতাব পান।

এর আগে গত ৯ ফেব্রুয়ারি জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) ৭২তম সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত চার খুনির রাষ্ট্রীয় খেতাব বাতিলের সুপারিশ করা হয়।


আরও খবর