আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

রাজশাহীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ২

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাজশাহী প্রতিনিধি

Image

রাজশাহীতে ক্রসিং পার হওয়ার সময় ট্রেনের ধাক্কায় দুজন নিহত হয়েছেন। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে পবার মোহনপুর রেলক্রসিংয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন পুঠিয়ার ধাধাস এলাকার হানিফের ছেলে হাববি (২৩) ও কামার ধাধাসে এলাকার মো. মোফা (৩৭)। রেলওয়ে জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোপাল কর্মকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, রাজশাহী রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে ঢাকা যাচ্ছিল পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেন। এসময় একটি ইঞ্জিনচালিত নসিমন কাঠের খড়ি নিয়ে ভাটায় যাচ্ছিল। গাড়িতে চালক ও তার সহকারী ছিলেন। পথে মোহনপুর রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলে দুজনের মৃত্যু হয়।

ওসি আরও বলেন, মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



প্রবাল দ্বীপে নিখোঁজ বনবিভাগের নারী কর্মকর্তা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
কক্সবাজার প্রতিনিধি

Image

প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন ভ্রমণে গিয়ে মাহমুদা আক্তার হ্যাপী (৩১) নামে এক নারী বন কর্মকর্তা নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজ মাহমুদা আক্তার হ্যাপী ৪১তম বিসিএস ক্যাডার। তিনি ঢাকা বনবিভাগে কর্মরত আছেন। রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) থেকে তার খোঁজ মিলছে না। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাসুকুর রহমান।

তিনি জানান, ‌গত ২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে ৭১ জনের একটি টিম সেন্টমার্টিন দ্বীপ ভ্রমণে যায়। সে টিমে মাহমুদা আক্তার হ্যাপীও ছিলেন। তারা হোটেলে এবং কয়েকটি রিসোর্টে উঠেন। রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে তিনি বন্ধুর সাথে দেখা করার কথা বলে রিসোর্ট থেকে বের হন। বিকাল পর্যন্ত তিনি ফিরে না আসায় তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বন্ধুর সাথে আছেন বলে জানান। কিন্তু এর এক ঘণ্টা পর তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ উসমান গনি বলেন, গত ৩ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাতে মাহমুদা আক্তার হ্যাপী সহ তিন বান্ধবী একসাথে সেন্টমার্টিন দ্বীপের একটি হোটেলের কক্ষে ছিলেন। সেদিন রাতে হ্যাপী সবার আগে ঘুমিয়ে গেলেও অন্য দুই বান্ধবীর ঘুমাতে দেরি হয়। আর ওই দুই বান্ধবী সোমবার সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখে রুমে হ্যাপী নেই। তার কাপড় চোপড় ও ব্যাগ গোছানো। পরে সাড়ে ৯টার দিকে এক বান্ধবীর ফোনে হ্যাপীর নাম্বার থেকে একটি ম্যাসেজ আসে, আমি গোসল করে রুমে ফিরব। এরপর থেকেই হ্যাপীর আর কোনো হদীস নেই।

তিনি আরও বলেন, হ্যাপীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনের নম্বরটি ট্র্যাকিং করে দেখা গেছে তার সর্বশেষ অবস্থান কক্সবাজার শহরের সুগন্ধা পয়েন্ট। আমরা তার অবস্থান নিশ্চিত করে তাকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আদনান চৌধুরী বলেন, বিষয়টি জানার পর টেকনাফ থানায় একটি ডায়েরি করা হয়। এরই সূত্র ধরে কাজ করছে পুলিশ।


আরও খবর



রাজধানীর চার হাসপাতালে র‍্যাবের অভিযান

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর শেরে বাংলা নগর এলাকায় সরকারি শিশু হাসপাতাল, পঙ্গু হাসপাতাল, হৃদরোগ ইন্সটিটিউট ও সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে একযোগে অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে র‌্যাব-২ এর একাধিক দল অভিযান শুরু করে। অভিযান পরিচালনা করছেন র‌্যাব সদর দপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাজহারুল ইসলাম।

জানা গেছে, সরকারি হাসপাতাল থেকে রোগী ভাগিয়ে বেসরকারি হাসপাতালে নেওয়া, দালালদের দৌরাত্ম্য এবং প্রেসক্রিপশন নিয়ে রোগী-স্বজনদের বিরক্ত করার বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হচ্ছে।

এ ব্যাপারে র‌্যাব-২ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ নাজমুল্লাহেল ওয়াদুদ বলেন, রোগী ও তাদের স্বজনদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে সরকারি হাসপাতাল থেকে বের করে বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে বেশি বিল করে কমিশন বাণিজ্য করা হচ্ছে। সব টেস্ট সরকারি হাসপাতালে হলেও দালাল ও কিছু অসাধু কর্মচারীর যোগসাজশে এসব করা হচ্ছে। অভিযান শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।


আরও খবর



ভারত থেকে এলো টিসিবির ৪৮০ টন ছোলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
এম এ রহিম, বেনাপোল (যশোর)

Image

বেনাপোল বন্দর দিয়ে এবার ৪৮০ টন কাঁচা ছোলা আমদানি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) বিকেলে ভারত থেকে প্রথম চালান আমদানি করে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।

আমদানির বিষয়টি নিশ্চিত করে বেনাপোল উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্রের উপ-সহকারী কর্মকর্তা হেমন্ত কুমার বলেন, প্রথম চালানে ৪৮০ টন ছোলা আমদানি করা হয়েছে। ছোলার গুণগত মান নির্ণয় করে দ্রুত ছাড়ার ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ছোলা আমদানি খরচ প্রতি কেজি ৮৫ টাকা পড়লেও ৪৫ টাকা ভর্তুকি দিয়ে ৫৫ টাকায় খোলাবাজারে টিসিবির কার্ডধারীদের মধ্যে বিক্রি করা হবে। এছাড়া রমজানের মধ্যে ছোলার পাশাপাশি ডাল, পেঁয়াজ, ভোজ্যতেল, চিনি ও খেজুর বিক্রি করবে টিসিবি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দ্রবমূল্যের অস্বাভাবিক বাজারে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে সরকার ২০২২ সালে এক কোটি নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে টিসিবির মাধ্যমে কম মূল্যে নিত্যপণ্য বিক্রির উদ্যোগ নেয়। এবার রমজানে সরবরাহের জন্য বেনাপোল বন্দর দিয়ে টিসিবির ডাল ও পেঁয়াজ আমদানি চলমান আছে। নতুন করে চার হাজার টন কাঁচা ছোলা আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রথম চালানে ৪০০ টন ছোলা বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করে।

এর আগে সাধারণ ব্যবসায়ীদেরও শুল্কমুক্ত সুবিধায় কাঁচা ছোলা আমদানির সুযোগ দিয়েছে সরকার। তবে সে সুযোগের কোনো সুফল পাচ্ছে না ক্রেতারা। গত বছরে ছোলার কেজি ৭৮ থেকে ৮০ টাকা থাকলেও এবার কোনো কারণ ছাড়া তা বেড়েছে ১০০ টাকার ওপরে। অবশেষে রমজান উপলক্ষে সরকার কম মূল্যে বিক্রির জন্য টিসিবির পণ্য তালিকায় কাঁচা ছোলা যুক্ত করে আমদানির উদ্যোগ নেয়।

সরকারিভাবে ছোলা আমদানিতে বাজারে ছোলার দামের ঊর্ধ্বগতি কমবে বলে আশা ক্রেতাদের। আসলাম নামের এক ক্রেতা জানান, রমজানের আগে নিত্যপণ্যের দাম কমলে মানুষ উপকৃত হবে। তবে অসাধু ব্যবসায়ীদের সিন্ডিকেট না ভাঙলে বাজার নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সুলতান মাহামুদ বিপুল জানান, রোজায় টিসিবির অর্ধেক মূল্যের পণ্য নিম্ন আয়ের মানুষ পেলে তাঁরা খুব উপকৃত হবেন।

বেনাপোল বন্দর পরিচালক রেজাউল করিম বলেন, রমজান উপলক্ষে ছোলাসহ বিভিন্ন খাদ্যদ্রবের আমদানি বেড়েছে। বন্দর থেকে যাতে দ্রুত ছাড় হয় কর্তৃপক্ষ কাজ করছে।

টিসিবির পরিবার কার্ডধারী একজন গ্রাহক এত দিন ৩০ টাকা কেজি দরে মাসে পাঁচ কেজি চাল, ১০০ টাকা লিটার দরে দুই লিটার ভোজ্যতেল এবং ৬০ টাকা কেজি দরে দুই কেজি মসুর ডাল কিনতে পারছিলেন। এর সঙ্গে এখন থেকে তিনি ৫৫ টাকা কেজি দরে এক কেজি ছোলাও কিনতে পারবেন।


আরও খবর



ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত পালিত

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মহান আল্লাহ তায়ালার কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা এবং দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মার শান্তি-সমৃদ্ধি কামনার মধ্য দিয়ে পালন হলো মহিমান্বিত রাত পবিত্র শবেবরাত। মহান আল্লাহর রহমত লাভের আশায় ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা রাতভর ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন ছিলেন।

প্রতি বছর হিজরি বর্ষের শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটি শবে বরাত’ হিসেবে পালিত হয়। এবারও যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে সারাদেশে পবিত্র শবে বরাত’ পালিত হয়েছে। এদিন রাতে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মহান আল্লাহর রহমত ও নৈকট্য লাভের আশায় নফল নামাজ আদায়, কোরআন তিলাওয়াত, জিকির, ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিলসহ নানা ইবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে রাতটি অতিবাহিত করেছেন।

সৌভাগ্যের এ রজনীতে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে নারী-পুরুষ-শিশু-বৃদ্ধসহ সর্বস্তরের মুসলমানরা মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহতায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য ইবাদত-বন্দেগিতে মশগুল ছিলেন। কেউ কেউ ইবাদতে মশগুল থেকেছেন ফজরের নামাজ পর্যন্ত। এ উপলক্ষে অনেকে নফল রোজাও রেখেছেন।

মহিমান্বিত এ রাতে মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের মুসলমানরাও বিশেষ মোনাজাত ও দোয়ায় শামিল ছিলেন। এদিন রাতে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে মিলাদ ও বিশেষ মোনাজাত হয়েছে।

এ ছাড়া রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল-ওয়াজ মাহফিল, কোরআন তিলাওয়াত, মিলাদ মাহফিল, হামদ, নাত, নফল নামাজ, তাহাজ্জুদের নামাজ ও আখেরি মোনাজাত।

পবিত্র এ রাতে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের এবাদত বন্দেগির জন্য জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ দেশের সব মসজিদ সারা রাত খোলা রাখা হয়েছিল।

এদিকে পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

এ ছাড়া পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শবে বরাত সম্পর্কে হাদিসে বলা হয়েছে- নবী করিম (সা.) বলেছেন, আল্লাহতায়ালা অর্ধশাবানের রাতে (শবে বরাত) মাখলুকাতের দিকে রহমতের দৃষ্টি দেন এবং মুশরিক ও বিদ্বেষ পোষণকারী ছাড়া আর সবাইকে ক্ষমা করে দেন। যে রাতে বান্দাকে তার প্রতিপালক গোনাহ থেকে মুক্তি দিয়ে ক্ষমা করে দেন।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




মিয়ানমার থেকে ছোড়া মর্টারশেলের আঘাতে বাংলাদেশিসহ নিহত দুই

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

মিয়ানমার থেকে ছোড়া মর্টারশেলের আঘাতে ঘুমধুম সীমান্তের জলপাইতলীর বাসিন্দা হাসিনা বেগমসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। নিহত হাসিনা বেগম (৫৫) একই এলাকার বাদশা মিয়ার স্ত্রী। নিহত অপরজন মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা বৃদ্ধা। তিনি ওই বাড়িতে কাজ করছিলেন। তার পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বাদশা মিয়ার ঘরে একটি মর্টারশেল এসে পড়ে। এ সময় ঘটনাস্থলেই রোহিঙ্গা শ্রমিক নিহত হন। অন্যদিকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান বাদশা মিয়ার স্ত্রী হাসিনা বেগম।

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘাতের জেরে এ পর্যন্ত দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৯৫ জন সদস্য অস্ত্রসহ বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। তাদের নিরস্ত্রীকরণ করে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বিজিবি সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরীফুল ইসলাম জানান, মিয়ানমারের অভ্যন্তরে চলমান সংঘর্ষের জেরে এখন পর্যন্ত দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৯৫ জন সদস্য অস্ত্রসহ বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) তাদের নিরস্ত্রীকরণ করে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়েছে।

মিয়ানমারের অভ্যন্তরে গত কয়েকদিন ধরে সংঘর্ষের জেরে ৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম ইউনিয়নের তুমব্রু সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে প্রথমে ১৪ জন মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সদস্য অস্ত্রসহ বাংলাদেশে প্রবেশ করে। পরে কয়েক দফা মিয়ানমারের সীমান্ত রক্ষীবাহিনীর সদস্যরা তুমব্রু দিয়ে প্রবেশ করে এবং সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দেশটির বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ৯৫ জন সদস্য অস্ত্রসহ পালিয়ে বাংলাদেশের তুমব্রু ক্যাম্পে আশ্রয় গ্রহণ করেছে।

এদিকে সপ্তাহ ধরে হঠাৎ করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সশস্ত্র বিভিন্ন গ্রুপের সঙ্গে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সদস্যদের সংঘর্ষ বেড়েছে। দুপক্ষের ছোড়া গুলি ও মর্টারশেল এসে পড়ছে বাংলাদেশের ভেতরে।

সীমান্তের এমন পরিস্থিতিতে ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম-তুমব্রু সীমান্তের ৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্টে সাধারণ জনগণের চলাচল বন্ধ করার পাশাপাশি স্থানীয়দের নিরাপদে সরে যেতে নির্দেশনা দেয় স্থানীয় প্রশাসন।

সীমান্তের এমন পরিস্থিতিতে বিজিবির টহল জোরদার করার পাশাপাশি স্থানীয়দের নিরাপদে অবস্থানের আহ্বান জানিয়েছেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক শাহ্ মোজাহিদ উদ্দিন।


আরও খবর