আজঃ সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

রমজানের জন্য ভোগ্যপণ্যের পর্যাপ্ত মজুত আছে : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, রমজান মাসের চাহিদা সামাল দিতে ব্যবসায়ী ও টিসিবির কাছে ভোজ্যতেল, চিনি, গুড়, খেজুর, পেঁয়াজসহ সব ধরনের পণ্যের পর্যাপ্ত মজুত আছে। ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা আশ্বাস দিয়েছেন, রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম যৌক্তিক পর্যায়ে রাখবেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ চা বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি গ্যালারিবঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ভোগ্যপণ্যের দর নির্ধারণে মন্ত্রণালয়ে একটি কমিটি আছে। যেখানে ব্যবসায়ীরাও আছেন। এ কমিটি বসে মূল্য নির্ধারণ করে থাকে। সমস্ত ডাটা নিয়ে বিস্তৃত আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে এটা করা হয়।

আন্তর্জাতিক বাজারে গত ৬ মাসে তেলের দাম ৬৭ শতাংশ বেড়েছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, যেটা ৭০০ ডলার ছিল, সেটা এখন বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ১১ শ ডলার। সেই দামসহ সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে তেলের দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। যেহেতু, দেশে প্রয়োজনের ৯০ ভাগ তেল আমদানি করতে হয়, তাই আন্তর্জাতিক বাজারের ওপর নির্ভর করতে হয়।

আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশে খুচরা পর্যায়ে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ করা হলেও সাধারণ মানুষের জন্য টিসিবির মাধ্যমে ভর্তুকি মূল্যে তেল বিক্রি অব্যাহত থাকবে বলেও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, এখন মানুষের কষ্ট হচ্ছে। তারপরেও আমরা টিসিবির মাধ্যমে ভর্তুকি দিয়ে সাধারণ মানুষকে তেল দেয়ার চেষ্টা করেছি। আগামীতেও আমরা এটি করব।

খুচরা বাজারে চালের দাম প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আমদানির চাল দেশে আসা শুরু হয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারেও চালের দাম কিছুটা বাড়তি। আমাদের বোরো ধান উঠে গেলে আর সমস্যা হবে না। আশা করি আর দাম বাড়বে না।

Share

আরও খবর
স্বর্ণের দাম আরেক দফা কমলো

শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১




৪ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত ‘জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ’

প্রকাশিত:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ২৮৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গতবছর মা ইলিশ সংরক্ষণে সফল অভিযানের ফলে ৩৭ হাজার আটশ কোটি ইলিশের পোনা ইলিশ সম্পদে যুক্ত হয়েছে। ইলিশ উৎপাদন বাড়াতে জাটকা সংরক্ষণেও আমাদের সাফল্য নিয়ে

ইলিশ সম্পদ উন্নয়নে আগামী ০৪ থেকে ১০ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের জাটকা সম্পৃক্ত জেলাসমূহে জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ ২০২১ উদযাপন করা হবে। এ বছর জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহের স্লোগান নির্ধারন করা হয়েছে মুজিববর্ষে শপথ নেবো, জাটকা নয় ইলিশ খাবো।

সোমবার (০১ মার্চ) রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য অধিদপ্তরের সভা কক্ষে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন সংক্রান্ত জাতীয় টাস্কফোর্স কমিটির সভায় এসকল সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, যুগ্মসচিব সুবোধ চন্দ্র ঢালী, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সংশ্লিষ্ট দপ্তরসমূহের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও গবেষকবৃন্দ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, নৌ পুলিশ, বাংলাদেশ আনসার ও ভিডিপি, র‌্যাব, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী, বাংলাদেশ কোস্টগার্ড, বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতার, পরিবহন মালিক সমিতি, লঞ্চ মালিক সমিতি, মৎস্যজীবী সমিতি, মৎস্যজীবী লীগসহ ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন সংক্রান্ত জাতীয় টাস্কফোর্স কমিটির অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব বলেন, গতবছর মা ইলিশ সংরক্ষণে সফল অভিযানের ফলে ৩৭ হাজার আটশ কোটি ইলিশের পোনা ইলিশ সম্পদে যুক্ত হয়েছে। ইলিশ উৎপাদন বাড়াতে জাটকা সংরক্ষণেও আমাদের সাফল্য নিয়ে আসতে হবে। সকলের সম্মিলিত উদ্যোগে আগামীতে ইলিশের উৎপাদন ৬ লক্ষ মেট্রিক টন হবে।

এসময় ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সকলকে নিজ নিজ জায়গা থেকে ভূমিকা রাখার অনুরোধ জানান মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ ২০২১-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠান আগামী ০৫ এপ্রিল পটুয়াখালীতে অনুষ্ঠিত হবে। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে এদিন বর্ণাঢ্য নৌর‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। সপ্তাহের উদ্বোধনী দিনে (০৪ এপ্রিল) সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে এবং জাতীয় দৈনিকে ক্রোড়পত্র প্রকাশ করা হবে। এছাড়া জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষ্যে জাটকা সংরক্ষণবিষয়ক ভিডিওচিত্র ও ডকুমেন্টারী প্রদর্শন, বেতার-টেলিভিশনে আলোচনা অনুষ্ঠান আয়োজন, ইলিশবিষয়ক কর্মশালা, সভা-সেমিনার আয়োজন, ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন মৎস্য আড়ৎ, বাজার ও অবতরণ কেন্দ্রে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করার ব্যাপারে সভায় সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। জাটকা সংরক্ষণ কার্যক্রম সমন্বয়ের জন্য মৎস্য অধিদপ্তরে একটি কন্ট্রোল রুম খোলার ব্যাপারেও সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

উল্লেখ্য, দেশের আপামর জনসাধারণের কাছে ইলিশ তথা মৎস্য সম্পদের উন্নয়নে অবৈধ জাল ব্যবহারের ক্ষতিকর দিক ও জাটকা রক্ষার গুরুত্ব তুলে ধরতে ২০০৭ সাল থেকে প্রতিবছর জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ উদযাপন হয়ে আসছে।

Share

আরও খবর
ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু

সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১




নিজের যৌনপল্লী নিয়ে আলোচনায় আলিয়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সঞ্জয় লীলা বানসালি প্রকাশ করলেন তার নতুন সিনেমার টিজার। সেখানে মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বাই গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি চরিত্রে হাজির হয়ে চমকে দিয়েছেন আলিয়া ভাট। বলিউড মেতেছে তার বন্দনায়। এক ঝলকেই মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন তিনি।

টিজারে দেখা গেল কপালে বড় লাল টিপ। লম্বা বিনুনি। পরনে ঘাগরা, মাথা ঢাকা ওড়নায়। চেয়ারের উপর পা তুলে বসে রয়েছেন গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি ওরফে আলিয়া ভাট।

নিজের ইনস্টাগ্রাম পেজে গাঙ্গুবাঈয়ের পোস্টার শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। যা দেখে উচ্ছ্বসিত নেটিজেনরা। প্রশংসা করছেন শাহরুখ খানের মতো বলিউড তারকারাও। সবাই শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন আলিয়া ভাটকে।

বুধবারই দর্শকদের চমকে দেবেন বলে আগেই ঘোষণা করেছিলেন সঞ্জয় লীলা বানসালি। আর করেছেনও তিনি। জন্মদিনের দিন সামনে এনেছেন এই ছবির টিজার।

হুসেন জাইদির লেখা বই মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বই থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে পরিচালক সঞ্জয় তৈরি করেছেন গাঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি। মুখ্য চরিত্রে আলিয়া ভাট। আর এই ছবির মাধ্যমেই অন্য এক আলিয়া ভাটকে পেতে চলেছেন সিনেপ্রেমীরা।

ষাট দশকের কামাথিপুরা যৌনপল্লীর প্রভাবশালী মালকিনের জীবনের উপর তৈরি হয়েছে এই ছবি। এটি পরিচালকের দশ নম্বর ছবি। আলিয়া ছাড়াও অনান্য চরিত্রে রয়েছেন অজয় দেবগণ, ইমরান হাশমি, হুমা কুরেশির মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা।

Share

আরও খবর



পুলিশের সাথে কথা বলুন: অ্যাটর্নি জেনারেলকে প্রধান বিচারপতি

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ মার্চ ২০২১ | ১৪১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফৌজদারি মামলায় ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির জীবিত ফেরার ঘটনা নিয়ে পুলিশ ডিপার্টমেন্টের সাথে অ্যাটর্নি জেনারেলকে কথা বলতে বলেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।

রোববার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বেঞ্চে একটি ফৌজদারি মামলার শুনানিকালে এক আসামির ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীর প্রসঙ্গ তুলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। তখন প্রধান বিচারপতি বলেন, এখানে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী আছে বুঝলাম। কিন্তু ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী অনুযায়ী মৃত ব্যক্তির জীবিত ফেরার ঘটনাও তো আমরা শুনি।

এসময় অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, মাই লর্ড, এরকম মাত্র দুই একটা ঘটনা হয়ত হয়েছে। তখন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, দুই একটা যাই হোক, মিস্টার অ্যাটর্নি জেনারেল আপনি পুলিশ ডিপার্টমেন্টের সাথে এ বিষয় নিয়ে কথা বলবেন। আমরা বলছি, আপনি বললে এটা গুরুত্ব পাবে।

সম্প্রতি কয়েকটি মামলার প্রশ্নবিদ্ধ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী আলোচনায় আসে। যার মধ্যে নারায়ণগঞ্জের একটি ঘটনায় এক কিশোরীকে অপহরণ ও হত্যার অভিযোগে করা মামলায় আসামিকে মারধর ও ভয় দেখিয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি আদায় করেছে বলে বিচার বিভাগীয় তদন্তে উঠে আসে। এক্ষেত্রে যে কিশোরী অপহরণ ও হত্যা শিকার হয়েছিল বলে দাবি করা হয়, ঘটনার ৪৯ দিন পর সে কিশোরী জীবিত ফিরে আসে।

Share

আরও খবর



কোম্পানীগঞ্জে শনিবার হরতাল ডাকলেন আবদুল কাদের মির্জা

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ১০৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ডাকে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলছে।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চাপরাশির হাটে কাদের মির্জা ও মিজানুর রহমান বাদল অনুসারী আওয়ামী লীগের দুগ্রুপের সংঘর্ষে ৩৫ জন নেতাকর্মী আহত হন। আহতদের কাদের মির্জা নিজের অনুসারী দাবি করে এবং তাকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ তুলে এর প্রতিবাদে শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টায় ফেসবুক লাইভে এসে এ হরতাল কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট বাজারে শুক্রবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কাদের মির্জা ও মিজানুর রহমান বাদল সমর্থিত আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে স্থানীয় এক সংবাদকর্মীসহ উভয় পক্ষের কমপক্ষে অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন। আহতদের কোম্পানীগঞ্জ, নোয়াখালী ও ঢাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠিচার্জ, শর্টগানের ফাঁকা গুলি ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করেছে।

Share

আরও খবর



সব মহাসড়কে টোল আদায়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৪৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ দেশের বড় সড়কগুলোতে টোল আদায়ের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে তিনি এই নির্দেশ দেন। সভা শেষে সাংবাদিকের সামনে প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য তুলে ধরেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমাদের এমন মনোভাব সবকিছুর সেবা চাই কিন্তু পয়সা দিতে রাজি না। বিশেষ করে যাদের পকেটে পয়সা আছে, তারা দেয়ই না। এটা আমাদের কালচার, এ থেকে বেরিয়ে আসা উচিত। প্রধানমন্ত্রী চান, সড়ক যেগুলো নির্মাণ করছি বড় বড়, এগুলোতে টোল আদায় করবো।

মন্ত্রী জানান প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এই টোল আদায় করে শুধু সরকারের রাজস্ব আদায়ের জন্য নয়, ইয়ারমার্ক একটা অ্যামাউন্ট থাকে। যাতে করে ওই সড়কগুলোর মেরামতে এই টাকা ব্যয় করা যায়।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষের যখন ভাল সময় আসে, দেশের মানুষ যখন ভালো থাকে, যখন মানুষের জীবনের মান একটু উন্নত হয়, তখনই আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে। এবারও সেটা মোকাবিলার জন্য সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন আনতে পারেনি। ভ্যাকসিন নিয়ে যখন গবেষণা হচ্ছে, যে জায়গায় গবেষণা হচ্ছে সেখান থেকে ক্রয় করার জন্য আমরা চেষ্টা করেছি। পাশাপাশি আগাম টাকা দিয়েছি ভ্যাকসিনের জন্য। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যখন ভ্যাকসিন অনুমোদন দেবে তখনই আমরা যেন ভ্যাকসিন পেতে পারি সেই ব্যবস্থা করেছি, যেন দেশবাসীকে ভ্যাকসিন যথাসময়ে দিতে পারি এবং আমরা এ কাজ করতে সক্ষম হয়েছি।

আজকের একনেক সভায় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সাসেক ঢাকা-সিলেট করিডোর সড়ক উন্নয়ন প্রকল্পটি ১৬ হাজার ৯১৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা খরচে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২৬ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হবে। এই প্রকল্পের বিষয়ে আলোচনা করতে গিয়ে পুনরায় মহাসড়কে টোল আদায়ের বিষয়টি বলেন প্রধানমন্ত্রী।

পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, ঢাকা-সিলেটে যে এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করা হবে, সেটা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এগুলো থেকে আমরা টোল আদায় করব। এ ব্যাপারে আজকে আবারও বলেছেন তিনি (প্রধানমন্ত্রী)।

Share

আরও খবর
ঢাবিতে ভর্তির আবেদন শুরু

সোমবার ০৮ মার্চ ২০২১