আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

রংপুরে মডার্নার টিকা এসেছে, কাল থেকে প্রয়োগ শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ জুলাই ২০২১ | ১৩২জন দেখেছেন
Image

রংপুর প্রতিনিধিঃ

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা কোভ্যাক্স সুবিধায় পাওয়া মডার্নার টিকা এসেছে রংপুরে। প্রাথমিকভাবে আসা মর্ডানার ১২০০০ ডোজ নগরীর আওতায় থাকা বাসিন্দাদের দেয়া হবে।

মঙ্গলবার (১৩ই জুলাই) নগরীর ৪টি কেন্দ্রে এ টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে।

এ তথ্য জানিয়েছে রংপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা হিরম্ব কুমার রায়। এর আগে সিনোফার্ম এবং মডার্নার ৫২ হাজার ডোজ টিকা রংপুরে পৌঁছেছে। সোমবার (১২ জুলাই) রাতে টিকার চালানটি গ্রহণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, সিনোফার্মের ৪০ হাজার ডোজ ও মডার্নার ১২০০০ ডোজ  টিকা রংপুরে এসে পৌঁছেছে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে আসা কোভ্যাক্স সুবিধায় পাওয়া মডার্নার টিকা মাইনাস ১৫ থেকে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রাখতে হয়। তাই আগামীকাল (১৩ই জুলাই) থেকে একমাসের মধ্যে শুধুমাত্র সিটি করপোরেশন এলাকার আওতায় থাকা সাধারণ মানুষকে আগামী একমাসের মধ্যে এই টিকার আওতায় আনা হবে।এক্ষেত্রে যারা অক্সফোর্ড এস্ট্রেজেনাকার টিকার জন্য আবেদন করেছিল তাদেরকে আগে দেয়া হবে। আর চীনের তৈরি সিনোফার্ম দেওয়া হবে জেলার ৭ টি উপজেলায়। ১ম ও ২য় ডোজে এ ৪০০০০ টিকা ব্যবহার করা হবে বলে জানান তিনি।

সিভিল সার্জন  বলেন, মডার্নার টিকা সিটি করপোরেশন এলাকার ৪টি কেন্দ্রে এবং সিনোফার্ম এর টিকা ৭ টি উপজেলার ১৪ টি কেন্দ্রে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে জানান তিনি।


আরও খবর



রাজশাহীতে করোনায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনা সংক্রমণে পাঁচজন ও উপসর্গে দশজনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকালে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী।

তিনি বলেন, হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে পুরুষ ১১ জন ও চারজন নারী মারা গেছেন। এর মধ্যে ২১-৩০ বছর বয়সী একজন যুবক মারা গেছেন, বাকি মৃতদের বয়স ৪১-৬৫ বছরের ওপরে ছিল। মৃতের মধ্যে রাজশাহীর দশজন, নাটোরের দুইজন, নওগাঁর একজন, পাবনার একজন ও মেহেরপুরের একজন ছিলেন।

রামেক পরিচালক বলেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীর দুইজন, নাটোরের একজন, নওগাঁর একজন ও মেহেরপুরের একজন মারা গেছেন। অন্যদিকে উপসর্গে রাজশাহীর আটজন, নাটোর একজন ও পাবনার পাঁচজন মারা গেছেন। মৃতদের পরিবারকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৬১ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬২ জন। রামেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৪২ জন ও উপসর্গ নিয়ে ২৫৬ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে ৪৫৪টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি ছিলেন ৪৯৮ জন।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় করোনায়-উপসর্গে রামেকে আরও ১৩ মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ৩১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ৩১ জুলাই ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গেল ২৪ ঘণ্টায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে শনিবার (৩১ জুলাই) সকাল ৮টার মধ্যে তারা মারা যান।

এর আগের দিনও এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা গিয়েছিল ১৩ জন। রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী শনিবার (৩১ জুলাই) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ১৩ জনের মধ্যে পজিটিভ ছিলেন পাঁচজন। আর আটজন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। ভর্তির পর করোনার নমুনা পরীক্ষার আগেই তাদের মৃত্যু হয়েছে।

করোনা ইউনিটে মারা যাওয়া ১৩ জনের মধ্যে রাজশাহীর তিনজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন, নাটোরের একজন, নওগাঁর তিনজন ও পাবনার পাঁচজন রয়েছেন। মৃত ১৩ জনের মধ্যে সাতজন পুরুষ ও ছয়জন নারী। এর মধ্য ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজনের, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুইজনের, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ছয়জনের এবং ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চলতি জুলাই মাসে এ নিয়ে মোট ৫৩৫ জনের মৃত্যু হলো। গত জুনে মারা গেছেন ৪০৫ জন।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৪৮ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৩২ জন। শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন ৪৩৩ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ২০ জন। হাসপাতালে করোনা ডেডিকেটেড শয্যা ৫১৩টি।



আরও খবর



১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ কাল থেকে শুরু, মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ২১৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আগামীকাল শুক্রবার ভোর ৬টা থেকে আবারও শুরু হচ্ছে ১৪ দিনের কঠোর লকডাউন (বিধিনিষেধ)। এ সময় শিল্প-কলকারখানাসহ বন্ধ থাকবে সব ধরনের যানবাহন ও অফিস-আদালত। মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে মাঠে থাকবে পুলিশ ও বিজিবির পাশাপাশি সেনাবাহিনী।

কঠোর বিধিনিষেধের এই সময়ে সরকারের জারি করা নির্দেশনা পূর্ণরূপে মেনে নিজ নিজ অবস্থানে থাকার জন্য দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। সাংবাদিকদের এক ভিডিও বার্তায় ফরহাদ হোসেন আজ বৃহস্পতিবার বলেন, আগামীকাল (২৩ জুলাই) থেকে পূর্বঘোষিত লকডাউন আগের চেয়ে কঠোরভাবে পালন করা হবে। সরকারি-বেসরকারিসব ধরনের অফিস বন্ধ থাকবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবি মাঠে থাকবে। পোশাক কারখানাসহ সব ধরনের শিল্প-কলকারখানাও বন্ধ থাকবে। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

যাঁরা কর্মস্থল ছেড়ে গ্রামে গেছেন, তাঁদের আসার বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী জানান, বিধিনিষেধের প্রজ্ঞাপন বেশ আগেই জারি করা হয়েছে। কাজেই পূর্বঘোষণা থাকা সত্ত্বেও যাঁরা গ্রামে গেছেন, আমরা ধরে নিচ্ছি তাঁরা নিজ নিজ দায়িত্ব নিয়েই গেছেন। তারা বেশ ভালোভাবেই বিধিনিষেধ আরোপের বিষয়টি জানেন। তাঁরা কর্মস্থলে ফিরতে চাইলে বিধিনিষেধ মেনেই ফিরবেন। যাঁরা নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কর্মস্থলে ফিরতে পারবেন না, তাঁরা নিজ নিজ অবস্থানে থাকবেন।

সবাইকে বিধিনিষেধ মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে ফরহাদ হোসেন বলেন, একটু অবহেলা করলেই করোনা পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে।

এদিকে, গত সোমবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মো. রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে নিম্নোক্ত তিনটি বিষয়কে বিধিনিষেধের আওতামুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

১. খাদ্য ও খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন এবং প্রক্রিয়াজাতকরণ মিল কারখানা।

২. কোরবানির পশুর চামড়া পরিবহণ, সংরক্ষণ ও প্রক্রিয়াজাতকরণ।

৩. ওষুধ, অক্সিজেন ও কোভিড-১৯ প্রতিরোধে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য উৎপাদনকারী শিল্প।

এরআগে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ওই প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ৫ আগস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত ফের কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই ভোর ৬টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করা হলো। তবে, এ সময়ে জনসাধারণকে সতর্কাবস্থায় থাকা এবং মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে।

এ ছাড়া ২৩ দফা নির্দেশনা দিয়ে ঈদের তৃতীয় দিন অর্থাৎ ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়।


আরও খবর



খুব কম দামে চীনের কাছ থেকে টিকা মিলবে : অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের অধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কেন্দ্রীয় ঔষধাগার চীনা প্রতিষ্ঠান সিনোফার্মের কাছ থেকে খুব কম দামে ১৫ মিলিয়ন টিকা (দেড় কোটি) কিনবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (১৪ জুলাই) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা শেষে এ কথা জানান তিনি।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামলের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত সভায় অংশ নেন কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সভা শেষে অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব।

চীনা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে চুক্তিবদ্ধ ১৫ মিলিয়ন ডোজের মধ্যে ২ মিলিয়ন উপহার হিসেবে দিয়েছে চীন। বাকি ১৩ মিলিয়ন ডোজ এবং নতুন প্রস্তাবিত ২ মিলিয়ন ডোজ ভ্যাকসিনসহ মোট ১৫ মিলিয়ন ডোজ পূর্বের চুক্তিপত্রের উল্লিখিত মূল্যের চেয়ে কম মূল্যে সিনোফার্ম ভ্যাকসিন সাপ্লিমেন্ট এগ্রিমেন্ট-১ এর আওতায় সরবরাহ এবং কোভিড-১৯ মোকাবিলায় জরুরি প্রয়োজন মেটানোর জন্য ১৫ মিলিয়ন ডোজের অতিরিক্ত ভ্যাকসিন সরবরাহের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, আপনারা নিশ্চিত থাকেন খুব কম মূল্যে চীনের কাছ থেকে ১৫ মিলিয়ন টিকা মিলবে।

কেমন মূল্যে টিকা কেনা হবে জানতে চাইলে মুস্তফা কামাল বলেন, আগের চেয়ে কম দামে কেনা হবে। তবে টেকনিক্যাল কারণে নির্দিষ্টভাবে কিছু বলা যাবে না। এর আগে এসব কারণে দেরি হয়েছিল। তবে আপনারা নির্দিষ্ট করে কিছু জানতে চাইলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে তথ্য নিতে পারেন।


আরও খবর



অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার দ্বিতীয় ডোজ শুরু আজ

প্রকাশিত:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | ৫৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজের টিকাকরণ কার্যক্রম শুরু হচ্ছে আজ সোমবার থেকে। এরপর আগামী সপ্তাহ থেকে সারা দেশে এই টিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রয়োগের কার্যক্রম শুরু হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত করোনাবিষয়ক বুলেটিনে গতকাল রবিবার দুপুরে এ তথ্য জানান করোনার টিকা ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডিরেক্টর (এমএনসি অ্যান্ড এএইচ) ডা. শামসুল হক। তিনি জানান, এরই মধ্যে জাপান থেকে কোভ্যাক্সের মাধ্যমে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার সোয়া ১০ লাখ ডোজ টিকা বাংলাদেশে এসেছে। আগামীকাল মঙ্গলবার আরও সোয়া ছয় লাখ ডোজ আসবে। এতে ঘাটতি টিকার সংস্থান হয়েছে। ফলে এ টিকার দ্বিতীয় ডোজের জন্য অপেক্ষমানদের পূর্ণাঙ্গ টিকা দেওয়া সম্ভব হবে।

শামসুল হক আরও জানান, সোমবার ঢাকা বিভাগের সব জেলায় এবং আগামী সপ্তাহে দেশের সব কেন্দ্রে ঘাটতি টিকার ডোজ প্রয়োগ শুরু হবে। সে ক্ষেত্রে প্রথম ডোজের পর অপেক্ষমানদের মোবাইল ফোনে খুদে বার্তা পাঠানো হবে। তবে, দ্বিতীয় ডোজের জন্য এর আগে যাঁদের এসএমএস দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু টিকা পাননি, তাঁদের দ্বিতীয় ডোজ নিতে এসএমএস প্রয়োজন হবে না।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১