আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

রূপপুরে বেলারুশ নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৫ এপ্রিল ২০২২ | ১৫৪০জন দেখেছেন

Image

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি:

পাবনার ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত ইভানু মাকসিম (৫১) নামের এক বেলারুশ নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার উপজেলার সাহাপুরের নতুনহাট মোড়ে নির্মাণাধীন বিদেশিদের আবাসন প্রকল্প গ্রিনসিটি ভবনের একটি কক্ষ থেকে ওই বেলারুশ নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মাকসিম রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের রুইনওয়ার্ল্ড নামের একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ জানায়, গ্রিনসিটি আবাসিকের ১ নম্বর ভবনের ১৫ তলার ১৫২ নম্বর কক্ষে ওই বেলারুশ নাগরিক বসবাস করতেন। গতকাল শুক্রবার সকালে ডিউটি করার কথা থাকলেও কাজে যোগ দেননি তিনি। সকাল ৭টার দিকে তার ফ্ল্যাটের পাশের এক রুমমেট তাঁকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। এ খবর গ্রিনসিটি প্রকল্পসহ-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে জানানো হয়। খবর পেয়ে ঈশ্বরদী থানার পুলিশ গ্রিনসিটির ভবন থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

রূপপুর প্রকল্পের সাইট ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস বলেন, হৃদ্যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মাকসিমের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি অজ্ঞান হয়ে বিছানার ওপর পড়েছিলেন। পরে চিকিৎসক এসে মৃত ঘোষণা করেন।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্ত করতে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সম্পন্ন হলে দূতাবাসে যোগাযোগ করে তাঁর মরদেহ নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।


আরও খবর



চলতি দশকে বিক্রি দ্বিগুণ করার লক্ষ্য ক্যাসিওর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২০৩০ সালের মধ্যে বার্ষিক পণ্য বিক্রি ৫০ হাজার কোটি ইয়েনে (৩৮৩ কোটি ডলার) উন্নীত করতে চায় ক্যাসিও কম্পিউটার। এ বিক্রি লক্ষ্যমাত্রা ৩১ মার্চ শেষ হওয়া অর্থবছরের প্রায় দ্বিগুণ। উচ্চমূল্যের ঘড়ি এবং উদীয়মান বাজারগুলোয় নতুন গ্রাহকদের কাছে ব্যবসা বিস্তৃত করার লক্ষ্য জাপানি বহুজাতিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটির। খবর নিক্কেই এশিয়া। দীর্ঘমেয়াদি লক্ষ্য অনুসারে, ক্যাসিওর অর্ধেক রাজস্ব আসবে টাইমপিস বিভাগ থেকে। যেখানে গত অর্থবছরে এ বিভাগ থেকেই সংস্থাটির বেশির ভাগ আয় এসেছে। সংস্থাটির লক্ষ্য সামগ্রিক পরিচালন মার্জিন ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশে উন্নীত করা। ক্যাসিওর কৌশল হলো বিদ্যমান ব্যবসার প্রতিযোগিতাপূর্ণ সক্ষমতা বাড়িয়ে তোলা এবং উদীয়মান বাজারে ব্যবসা আরো প্রসারিত করা। বিশেষ করে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অব্যাহত থাকা দেশগুলোকে লক্ষ্য করে পরিকল্পনা সাজাচ্ছে ঘড়ি নির্মাতা হিসেবে পরিচিত প্রতিষ্ঠানটি।

চলতি দশকের মধ্যে টাইমপিসগুলো সংস্থাটির বার্ষিক আয়ে ২৫ হাজার কোটি ইয়েন অবদান রাখবে। এ বিক্রির পরিমাণ ২০২১ অর্থবছরে বিক্রির তুলনায় প্রায় ৬০ শতাংশ বেশি। জাপানের বাইরে বিশ্বজুড়ে সংস্থাটির জি-শক ব্র্যান্ডের তুমুল চাহিদা রয়েছে। সংস্থাটির মোট রফতানির প্রায় ৯০ শতাংশ অবদান রাখে এ ঘড়িগুলো।

প্রতিষ্ঠানটির লক্ষ্য, উদীয়মান বাজারে মধ্যম আয়ের লোকদের কাছে উচ্চমূল্যের জি-শক ঘড়ি বিক্রি করা। ক্যাসিও নারী ভোক্তাদের আকর্ষণ করতেও বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণের পরিকল্পনা করছে। নারীরা সংস্থাটির মোট আয়ে ১০ শতাংশ বা তার কিছুটা বেশি অবদান রাখে। বিদ্যমান পণ্যের পাশাপাশি সংস্থাটি আরো বেশি পণ্য যুক্ত করবে। বিশেষ করে সংস্থাটি এমন ঘড়ি তৈরিতে মনোযোগ দিচ্ছে, যেগুলো নারী-পুরুষ নির্বিশেষে ব্যবহার করতে পারে। এজন্য সংস্থাটি ঘড়িতে ব্যবহূত ধাতুর উজ্জ্বলতা কমিয়ে আনবে।

ক্যাসিও কম্পিউটারের লক্ষ্য, শিক্ষা সম্পৃক্ত পণ্যগুলোর বিক্রি ৮০ শতাংশ বাড়িয়ে ১০ হাজার কোটি ইয়েনে উন্নীত করা। এর অংশ হিসেবে সফটওয়্যার ব্যবসা প্রায় ৩০ শতাংশ বাড়িয়ে তোলা হবে। এ বিভাগ হার্ডওয়্যারের তুলনায় অধিক লাভজনক। এর মধ্যে প্রতিষ্ঠানটির সুপরিচিত ইলেকট্রনিক অভিধান অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ব্যক্তিগত কম্পিউটার ও স্মার্টফোনে অভিধানগুলো সহজলভ্য করার পরিকল্পনা রয়েছে। প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের জন্য সাবস্ক্রিপশনভিত্তিক অনলাইন শিক্ষার প্লাটফর্মও তৈরি করছে ক্যাসিও। গত বছরের মাঝামাঝিতে সংস্থাটি ২০২৩ অর্থবছরে ৩২ হাজার ৫০০ কোটি ইয়েন বিক্রয় লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করেছিল। তবে কভিড-১৯ মহামারীসহ বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতার কারণে লক্ষ্যের তারিখটি ২০২৩ কিংবা তার পরের অর্থবছরে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

ক্যাসিও নতুন কার্যক্রম থেকে ৩০০ কোটি ইয়েন বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল। তবে সংস্থাটি গত অর্থবছরের এ লক্ষ্যমাত্রা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে। প্রধানত বিজনেস টু বিজনেস (বিটুবি) কার্যক্রমে পিছিয়ে গেছে সংস্থাটি। ক্যাসিওর প্রেসিডেন্ট কাজুহিরো ক্যাশিও বলেন, অভিজ্ঞতার অভাবে আমরা বিটুবি কার্যক্রম ভালো করতে পারিনি। এক্ষেত্রে আমরা আমাদের সক্ষমতা পুরোপুরি ব্যবহার করতে পারিনি। আমরা এখন দুর্বলতাগুলো চিহ্নিত করার কাজ করছি। ফলে আগামীতে আমরা এ বিভাগেও ভালো করতে পারব বলে আশা করছি। পাশাপাশি আমরা এখন বিদ্যমান অঞ্চলে নতুন ব্যবসা বিকাশের মাধ্যমে মুনাফা বাড়াতে জোর দিচ্ছি।

নিউজ ট্যাগ: ক্যাসিও

আরও খবর



করোনায় সুস্থ হওয়ার সূচকে বাংলাদেশ বিশ্বে ৫ম

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা থেকে সেরে উঠার সূচকে বিশ্বের ১২১ দেশের মধ্যে ৮ ধাপ এগিয়ে পঞ্চম অবস্থানে এসেছে বাংলাদেশ। সেই সঙ্গে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে করোনা মোকাবিলায় নেতৃত্বের দিক থেকে বাংলাদেশ প্রথম স্থানে রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (০৫ মে) প্রকাশিত নিকেই কোভিড-১৯ আরোগ্য সূচক থেকে এ তথ্য জানা যায়।

সূচেকে কাতার এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত ৮৭ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম এবং দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। সেখানে বাংলাদেশ পেয়েছে ৮০ পয়েন্ট। গত মার্চের শেষে ৭২ পয়েন্ট পেয়ে এ অবস্থান ছিল ১৩তম। 

 সূচকে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মধ্যে ২৩তম অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান এবং ৬২ দশমিক ৫ পয়েন্ট পেয়ে হাইতির সঙ্গে যৌথভাবে ৭০তম অবস্থানে রয়েছে ভারত।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলের ব্যবস্থাপনা, টিকা দেওয়ার হার এবং সামাজিক তৎপরতার ওপর ভিত্তি করে প্রতি মাসের শেষে এই সূচক প্রকাশ করে নিকেই।


আরও খবর



কিশোরগঞ্জে জাকাতের কাপড় নিতে গিয়ে প্রাণ গেল বৃদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় জাকাতের কাপড় নিতে যাওয়ার পথে মাইক্রোবাসের চাপায় সকিনা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়কের পুলেরঘাট বাজার জামে মসজিদের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত সকিনা বেগম কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার জালুয়াপাড়া গ্রামের মৃত তোরাবালিবের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকালে পাকুন্দিয়া উপজেলার পাঠুয়াভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ঝুটন তার বাড়িতে জাকাতের কাপড় বিতরণ করেন। সকিনা বেগম জাকাতের কাপড় নিতে বাড়ি থেকে রওনা হন। পথে পুলেরঘাট বাজার জামে মসজিদ এলাকায় কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়ক পার হওয়ার সময় ভৈরব থেকে ছেড়ে  আসা কিশোরগঞ্জগামী একটি মাইক্রোবাস তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

আহুতিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনর্চাজ সফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকাল সাড়ে ৭টা দিকে পুলেরঘাট বাজারে রাস্তা পার হওয়ার সময় ওই নারী নিহত হয়েছেন। পরিবারের অভিযোগ না থাকায় মরদেহ ময়নাতদন্ত ছাড়াই হস্তান্তর করা  হয়েছে।

পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমদাদুল হক জুটন বলেন, সকালে আমি আমার বাড়িতে জাকাতের কাপড় বিতরণ করেছি। ওই নারী নিহত হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এ ঘটনা শুনেছি।


আরও খবর
৬৮১ বস্তা সরকারি চালসহ কিশোরগঞ্জে আটক-১

বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২




বিএনপি নেতাদের মুখে গণতন্ত্রের কথায় মানুষ হাসে: তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৪১৫জন দেখেছেন

Image

নিজস্ব প্রতিবেদক

তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বিএনপি প্রসঙ্গে বলেছেন, যে দলের জন্ম অগণতান্ত্রিকভাবে, সেই দলের নেতা যখন গণতন্ত্রের কথা বলে তখন মানুষ হাসে। সুতরাং তাদের গণতন্ত্রের কথা বলার অধিকার কতটুকু আছে সেটিই প্রশ্ন।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) নবনির্বাচিত পরিষদের সদস্যদের সাথে মতবিনিময় করেন মন্ত্রী। প্রধান তথ্য অফিসার মো. শাহেনুর মিয়া, ডিআরইউ সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু, সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম হাসিব আলোচনায় অংশ নেন। আলোচনা শেষে সাংবাদিকরা বিএনপি মহাসচিবের সাম্প্রতিক মন্তব্য আওয়ামী লীগ দেশ ও গণতন্ত্রের শত্রু ও পাকিস্তানের পক্ষের দল এবং জিয়া স্বাধীনতার ঘোষকএ নিয়ে প্রশ্ন করলে ড. হাছান একথা বলেন।

সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, যাদের জন্মটা অগণতান্ত্রিকভাবে, ক্যান্টনমেন্টের মধ্যে ক্ষমতা দখল করে সেই ক্ষমতার উচ্ছিষ্ট বিলিয়ে রাজনীতির কাকদের সমন্বয় ঘটিয়ে যে দলের জন্ম, সেই দলের নেতা যখন গণতন্ত্রের কথা বলে মানুষ হাসে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপ-রাষ্ট্রপতি, তাজউদ্দিন আহমদকে প্রধানমন্ত্রী করে ১৯৭১ এর ১৭ এপ্রিল যে সরকার গঠিত হয়েছিলো, জিয়াউর রহমান সেই সরকারের ৪০০ টাকা বেতনের চাকুরে ছিলেন এবং নিয়মিত বেতন গ্রহণ করেছেন।

বঙ্গবন্ধুর দেয়া স্বাধীনতার ঘোষণা জিয়াউর রহমান পাঠ করেছেন, জিয়া স্বাধীনতার ঘোষক নন উল্লেখ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, স্বাধীনতার ঘোষণা বহুজন পাঠ করেছেন। ২৬ মার্চ প্রথম ঘোষণা পাঠ করেন চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ হান্নান, জিয়াউর রহমান ২৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর পক্ষে স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেন। স্কুলের দপ্তরিকে যারা হেডমাস্টার বানাতে চায় তাদের নিয়ে আমার কিছু বলার নাই। দপ্তরি ঘন্টা বাজায় কিন্তু স্কুল কখন ছুটি হবে সে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে হেডমাস্টার। সুতরাং দপ্তরিকে হেডমাস্টার বানানোর চেষ্টা করে কোনো লাভ নেই।

মন্ত্রী হাছান বলেন, শুধু তারাই নন, ২৬ মার্চ চট্টগ্রাম শহরে যখন বিভিন্ন জায়গায় পাকিস্তানি বাহিনীর তান্ডব-হত্যাকান্ড চলছে, চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগ অফিসের দপ্তরি নূরুল হক নিজের জীবন বাজি রেখে মাইকিং করে সমস্ত চট্টগ্রাম শহরে বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করে শুনিয়েছেন। অপরদিকে জিয়াউর রহমান চার দেয়ালের মধ্যে প্রহরী পরিবেষ্টিত অবস্থায় ২৭ মার্চ ঘোষণা পাঠ করেছেন। স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করার জন্য যদি বাহবা দিতে হয় তাহলে নূরুল হক অনেক বেশি বাহবা পাওয়ার যোগ্য। নূরুল হকের ভূমিকা অনেক বেশি সাহসী ও গুরুত্বপূর্ণ ছিলো।

আর কদিন আগে পাকিস্তানের গণতন্ত্রের উদাহরণ দিয়ে মির্জা ফখরুল সাহেবরা বেকায়দা পড়ে গেছেন, তাদের পাকিস্তানপ্রীতি কদিন আগে উন্মোচিত হয়েছে, সেকারণে তারা উল্টো কথা বলছেন বলেন তথ্যমন্ত্রী।

ঈদের পর বিএনপি অন্যান্য দলকে নিয়ে আন্দোলনে নামবে এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পাল্টা প্রশ্ন রেখে বলেন, তাদের আন্দোলন কোন ঈদের পরে? আমরা গত ১২-১৩ বছর ধরে ঈদের পরে, রোজার পরে, বার্ষিক পরীক্ষার পরে, শীতের পরে, বর্ষার পরে তাদের আন্দোলন হবে এরকম শুনে আসছি। তাই কোন ঈদের পরে সেটি একটু খোলসা করলে ভালো হয়।

এর আগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নবনির্বাচিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে ডিআরইউতে সব মত এবং পথের সাংবাদিকদের একসাথে কাজ করার প্রশংসা করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী। গণমাধ্যমকর্মী আইনের খসড়া প্রসঙ্গে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, আইনের খসড়া সংসদীয় কমিটিতে গেছে এবং সংসদীয় কমিটি সেটি পরিবর্তন, পরিমার্জন এমনকি ফেরত পাঠানো সবই করতে পারে, সেই ক্ষমতা কমিটির আছে। সেই সাথে আমি জানিয়েছি এটি পরিবর্তন-পরিমার্জন করার লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি। সুতরাং সেটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হবার কারণ নেই। তবে সবাই শুধু সেখানে অসংগতির কথাগুলো বলছে, ভালো দিকগুলো নিয়ে কেউ আলোচনা করছে না।

ডিআরইউ সভাপতি নজরুল ইসলাম মিঠু তার বক্তব্যে সাংবাদিকতার উৎকর্ষের জন্য প্রতিবছর জাতীয় বাজেটে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির জন্য ৩ থেকে ৫ কোটি টাকা বিশেষ বরাদ্দের দাবি উত্থাপন করেন। সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম হাসিব সংগঠনের কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন। তথ্যমন্ত্রী তাদের উত্থাপিত বিষয়গুলো বিধি অনুসারে বিবেচনায় নেয়ার আশ্বাস দেন।


আরও খবর



ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি: রেজাউলসহ দুজন রিমান্ডে

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ মে ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদযাত্রার ট্রেনের টি‌কিট কা‌লোবাজা‌রির অভিযোগে টি‌কিট বিক্রির দায়িত্বে থাকা সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার মো. রেজাউল করিম (৩৮) ও তার সহযোগী এমরানুল আলম সম্রাটের (২৮)  দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) তাদের আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকা রেলওয়ে থানার উপপরিদর্শক শাহ আলম তাদের বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় সাতদিন করে রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আশ্রাফ দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গত বুধবার রেজাউল করিমকে আটক করে র‍্যাব-১। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ওই দিন রাতে বিমানবন্দর স্টেশন থেকে সহযোগী এমরানুল আলম সম্রাটকেও আটক করা হয়। এ সময় তাদের স্মার্টফোন থেকে বিপুল পরিমাণ ট্রেনের ই-টিকিট জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় রেলওয়ে থানায় আসামিদের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

সহজ লি‌মি‌টে‌ডের মুখপাত্র ফরহাত আহমদ সমকাল‌কে জানান, রেজাউল করিম ছয় বছর ধরে রেলওয়ের টিকেট বিক্রয় পরিচালনার কাজে নিয়োজিত ছিলেন। গত ২১ মার্চ তা‌কে নি‌য়োগ দেয় সহজ।

রেজাউল ক‌রি‌মের বিরু‌দ্ধে অভিযোগ, স্টেশ‌নের সার্ভার নিয়ন্ত্রণের সু‌যো‌গে তি‌নি টি‌কিট কে‌টে তা তিন চার গুণ দা‌মে বাই‌রে বি‌ক্রি ক‌রে‌ছেন।

টানা ১৫ বছর ট্রেনের টি‌কিট বিক্রির দায়িত্বে ছিল ক‌ম্পিউটার নেটওয়ার্ক সি‌স্টেম (‌সিএনএস)। গত ২৬ মার্চ দায়িত্বে আসে সহজ, ভিন‌সেন ও সি‌নো‌সি‌সের জ‌য়েন্ট ভেঞ্চার। ‌ঈদযাত্রার ট্রেনের টি‌কি‌টের জন্য প্রতি‌দিন হাজা‌রো মানুষ কমলাপু‌রে দিনভর লাইন ধ‌রেও টি‌কিট পাননি। তারা টি‌কিট কা‌লোবাজা‌রির অ‌ভি‌যোগ কর‌লেও রেল এতদিন তা অস্বীকার ক‌রে‌ছে।

সহজ-সিনেসিস-ভিনসেন বিবৃ‌তি‌তে জা‌নি‌য়ে‌ছে, ভবিষ্যতে কো‌নো কর্মীর বিরু‌দ্ধে কা‌লোবাজা‌রির অভিযোগ এলে আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হ‌বে।

র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন জানান, প্রতিবছর ঈদে ২ থেকে ৩ হাজার ট্রেনের টিকিট সরিয়ে নিতেন রেজাউল। যা কালোবাজারিতে বিক্রি করে আয় করতেন ১০ থেকে ১২ লাখ টাকা।

জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-১ এর কর্মকর্তা বলেন, পরিচিতদের কাছে ৫০০ টাকা লাভে টিকিট বিক্রয় করতেন রেজাউল। এছাড়া অন্যদের কাছে নির্ধারিত দামের চেয়ে এক হাজার থেকে ১৫০০ টাকা বেশি দামে টিকিট বিক্রি করতেন।

র‍্যাবের এ কর্মকর্তা বলেন, রেজাউল পরিচিতজনদের মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে টিকিট প্রত্যাশীদের একটি বড় শ্রেণি গড়ে তুলেছেন। এর বাইরেও কালোবাজারিতে তার টিকিট বিক্রেতা রয়েছে।

তিনি আরও জানান, সহজ ডটকমের আগে অনলাইনে টিকিট বিক্রির দায়িত্বরত প্রতিষ্ঠান সিএনএস বিডিতেও কর্মরত ছিলেন রেজাউল। অভিজ্ঞকর্মী হিসেবে সহজ ডটকম তাকে নিয়োগ দেয়।

গত মার্চের শেষে বাংলাদেশ রেলওয়ের টিকেটি বিক্রির দায়িত্ব পায় সহজ-সিনেসিস-ভিনসেন জয়েন্ট ভেঞ্চার। এর আগে দেড় যুগ কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেম (সিএনএস) এ দায়িত্বে ছিল। সহজ দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই অনলাইনে টিকেট কিনতে গিয়ে সমস্যায় পড়ার অভিযোগ করে আসছেন যাত্রীরা। ঈদের অগ্রিম টিকেট বিক্রির সময়ও অনলাইনে টিকেট না পাওয়া এবং নির্ধারিত সময়ের আগেই টিকেট মেলার মত বিষয়ও আলোচনায় এসেছে।

রেলমন্ত্রী দাবি করেছিলেন, এখন সবার এনআইডি দেখে যেভাবে টিকেট বিক্রি হচ্ছে, তাতে কালোবাজারির কোনো সুযোগই নেই। তার মধ্যেই খোদ ভেন্ডরের কর্মীর কালোবাজারির অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ার খবর আসে।


আরও খবর