আজঃ শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১
শিরোনাম

সাবেক এমপি আউয়ালের জামিন কেন বাতিল নয়, হাইকোর্টের রুল

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭১৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
দুদকের মামলায় বিচারিক আদালত থেকে জামিন পেয়েছিলেন তিনি। সেই জামিন বাতিল চেয়ে দুদক হাইকোর্টে আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে আদালত তার জামিন বাতিল প্রশ্নে দুই সপ্তাহের রুল জারি করেছেন

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) এ কে এম এ আউয়ালের জামিন কেন বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। 

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা (পরিচালক) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য জানান, দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান ও রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন।

পরে আমিন উদ্দিন মানিক জানান, দুদকের মামলায় বিচারিক আদালত থেকে জামিন পেয়েছিলেন তিনি। সেই জামিন বাতিল চেয়ে দুদক হাইকোর্টে আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে আদালত তার জামিন বাতিল প্রশ্নে দুই সপ্তাহের রুল জারি করেছেন। গত ৩০ সেপ্টেম্বর দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ সংস্থাটির উপ-পরিচালক আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দুইটি দায়ের করেন।

সাবেক এমপি আউয়ালের বিরুদ্ধে ৩৩ কোটি ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫৫ টাকা এবং তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৯০ হাজার ৫০ টাকা অবৈধ সম্পদের উল্লেখ করে এ মামলা দুটি দায়ের করা হয়।

প্রথম মামলার অভিযোগে বলা হয়, সাবেক এমপি আউয়াল অবৈধভাবে ৩৩ কোটি ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫৫ টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন। তবে, তিনি দুদকে দাখিককৃত সম্পদের বিবরণীতে ১৫ কোটি ৭২ লাখ ৪৮ হাজার ৪৩ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। দ্বিতীয় মামলার অভিযোগে বলা হয়, তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৯০ হাজার ৫০ টাকার অবৈধ সম্পদের মালিকার তথ্য রয়েছে। এমপি এ কে এম এ আউয়াল ২০০৮-২০১৪ সালে পরপর দুইবার পিরোজপুর-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন।

Share



মিলার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সঙ্গীত শিল্পী মিলার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত। রাজধানীর পল্লবী থানা পুলিশকে এই গ্রেফতারি পবোয়ানা পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পল্লবী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. শরিফ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ২০১৯ সালের উত্তরা পশ্চিম থানায় সঙ্গীত শিল্পী মিলার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছিলো। ওই মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা আদালত থেকে পল্লবী থানায় পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, আদালতের নির্দেশে আমরা সঙ্গীত শিল্পী মিলাকে গ্রেফতার অভিযান শুরু করেছি। বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত তার বাসায় গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

Share

প্রথমবারের মতো একসঙ্গে আলিয়া-অজয়

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১

খোলামেলা লুকে হাজির হলেন সোহিনী

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১




রাঙামাটির কাউখালীতে ভাগ্নিকে ধর্ষণের অভিযোগে মামা গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৭৫জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শহিদুল ইসলাম হৃদয়, রাঙামাটি

আত্মীয়তার সূত্র ধরে পাড়াতো বোনের বাড়িতে আসা-যাওয়ার মাধ্যমে কিশোরী ভাগ্নিকে ধর্ষণ করার অভিযোগে ফারুক নামের এক বখাটেকে গ্রেফতার করেছে রাঙামাটির কাউখালী থানা পুলিশ।

রবিবার মধ্যরাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার বেতবুনিয়া ইউনিয়ন হতে তাকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শহিদুল্যা-পিপিএম। তিনি জানিয়েছেন, ধর্ষনের অভিযুক্ত ফারুক কিশোরীর সম্পর্কে মামা হয়।

বেতবুনিয়ার একই এলাকায় পাশাপাড়ি বসবাস করে অভিযোগকারী ও অভিযুক্ত। আত্মতীয়তার সুবাধে বোনের বাড়িতে প্রায়ই যাতায়ত ছিলো ফারুকের। প্রায়ই যাতায়াতের ফলে ফারুকের সাথে কিশোরীর (ভাগ্নীর) প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সুযোগে ফারুক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এবছরের জুন মাস থেকে বিভিন্ন সময়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে এই কিশোরীকে।

সবশেষ মামলা দায়েরের সপ্তাহ খানেক আগে ওই কিশোরীর পেটে ব্যাথার কথা বলিলে কিশোরীর মা প্যাটের আকার অস্বাভাবিক মনে হলে মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদে সে তার মাকে মামা কর্তৃক ধর্ষণের কথা জানায়। পরবর্তীতে মামার লালসার শিকার কিশোরী ৫ মাসের গর্ভবতী বলে নিশ্চিত হয় তার পরিবার। পরে কাউখালী থানায় মামলা করলে রবিবার তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

নিউজ ট্যাগ: রাঙামাটি ধর্ষণ
Share

সাজেকে সড়ক দুর্ঘটনায় এক মেজরসহ আহত ৮

শনিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২১

বেইলি ব্রিজ ভেঙে রাঙামাটিতে নিহত ৩

মঙ্গলবার ১২ জানুয়ারী ২০২১




জনগণকে বিনামূল্যে করোনার টিকা দেওয়া হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
টিকা নিয়ে শারীরিক কোনও সমস্যা অনুভব করছি না। টিকা নিতে জনগণের মধ্যে আগ্রহ বেড়েছে। বুথগুলোতে ভিড় বাড়ছে

করোনার টিকা বাংলাদেশে আসবে কি আসবে না, অনেকেই এ বিষয়ে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, টিকার বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে কোনও কাজ হয়নি। সময়মতো টিকা বাংলাদেশে এসেছে এবং জনগণকে বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। অনেক দেশ এখন পর্যন্ত করোনা টিকা পায়নি। সারাদেশে করোনার টিকা দেওয়ার কাজ চলছে। সুরক্ষিত থাকতে ভয় না পেয়ে সবাইকে টিকা নিতে হবে।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সেখানে তিনি করোনার টিকা নেন। এসময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন ও আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদও টিকা নেন।

টিকা দেওয়ার পর কিছুক্ষণ অবজারভেশনে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, টিকা নিয়ে শারীরিক কোনও সমস্যা অনুভব করছি না। টিকা নিতে জনগণের মধ্যে আগ্রহ বেড়েছে। বুথগুলোতে ভিড় বাড়ছে। তিনি পুলিশ সদস্যদের টিকা নেওয়ার তাগিদ দেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শিতার কারণে কোভিড নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে করোনা নিয়ন্ত্রণের দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ১৭তম। সংক্রমণের প্রথম দিকে অনেকটাই কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে যায় পুলিশ সদস্যরা। বর্তমান পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমেদের সঠিক সিদ্ধান্ত পুলিশ সদস্যদের সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল করোনা চিকিৎসায় সাফল্যের সঙ্গে কাজ করেছে। পুলিশ হাসপাতালে সেবার মান বেড়েছে। প্রথম শ্রেণির হাসপাতাল হিসেবে এটিকে গড়ে তুলতে কাজ চলছে বলেও জানান মন্ত্রী।

রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে প্রতিদিন ১৮টি বুথে তিন হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ সদস্য ছাড়াও সাধারণ জনগণও রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে টিকা দিতে পারছেন।

মন্ত্রী এসময় জানান, পুলিশ সদস্যরা ফ্রন্টলাইনার হিসেবে কাজ করছেন। তারা সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্কিত হয়নি। পুলিশ নিজেরা আক্রান্ত হলেও দাফনের কাজে পুলিশ সদস্যরা এগিয়ে এসেছেন। এটি প্রশংসনীয় বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

Share



বরেণ্য অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের মৃত্যুতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রীর শোক

প্রকাশিত:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০21 | ৩৮১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি।

মন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

শোক বার্তায় মন্ত্রী আরো জানান, "দেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র এ টি এম শামসুজ্জামানের মৃত্যু অপূরণীয় ক্ষতি। চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন নাটকের অপ্রতিদ্বন্দ্বী এই অভিনেতা তাঁর অসামান্য অভিনয়ের মাধ্যমে দেশের মানুষের হৃদয়ে দীর্ঘকাল বেঁচে থাকবেন।"

অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান, সূত্রাপুরের নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার মেয়ে কোয়েল আহমেদ।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টা ০৬ মিনিটে কান্নাজড়িত কণ্ঠে কোয়েল আহমেদ বলেন, ‘আব্বা আর নেই। আব্বা আর নেই। শুক্রবার বিকেলে আব্বাকে বাসায় নিয়ে আসছিলাম। উনি হাসপাতালে থাকতে চাইছিলেন না। তাই বাসায় নিয়ে আসছিলাম। আমি রাত ২টা ৩০ মিনিটে আব্বার বাসায় আসছি।

অভিনেতা কখন মারা গেছেন জানতে চাইলে ‘জানি না’ বলেই আবারও অঝোরে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তার মেয়ে। বাবার আত্মার শান্তির জন্য দোয়া চেয়েছেন কোয়েল।

এর আগে গত বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে পুরান ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল এটিএম শামসুজ্জামানকে। তার অক্সিজেন লেভেল কমে গিয়েছিল। হাসপাতালে ডা. আতাউর রহমান খানের তত্ত্বাবধানে ছিলেন জনপ্রিয় এ অভিনেতা।

১৯৬৫ সালে অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র আগমন হয় এটিএম শামসুজ্জামানের। ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমণি’ সিনেমায় খল চরিত্রে অভিনয় করে আলোচনায় আসেন তিনি। প্রবীণ এ অভিনেতা আজও দর্শকের কাছে নন্দিত।

Share



শেখ হাসিনাকে হত্যা চেষ্টার এক আসামি গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার ঘটনায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাতে রাজধানীর দিয়াবাড়ি এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তবে ঘটনার প্রায় ১৭ বছর পর গ্রেফতার হওয়া এ আসামির প্রাথমিকভাবে বিস্তারিত নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

র‍্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ জানান, সোমবার রাতে দিয়াবাড়ি এলাকা থেকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর কারওয়ান বাজারের র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাবেন।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় সেই সময়ের বিরোধী দলের নেতা শেখ হাসিনা বেঁচে গেলেও নিহত হন নারী আওয়ামী লীগের সভাপতি আইভি রহমানসহ ২৪ জন।

Share