আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

শাহজাদপুরে ট্রাক উল্টে খাদে, নিহত ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | ৮৩৫জন দেখেছেন

Image

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রিতিনিধি:

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুর উপজেলার শাহজাদপুর-জামিরতা আঞ্চলিক সড়কে ট্রাক উল্টে ২ জন শ্রমিক  নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১৭ জন শ্রমিক। মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার জামিরতা আঞ্চলিক সড়কের পারজামিরতা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন পোরজনা ইউনিয়নের বাশুরিয়া গ্রামের তানুক আলীর ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (৩০) ও একই গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে বাবর(৫০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানায়, জামিরতা গ্রাম থেকে ট্রাক নিয়ে অর্ধশত শ্রমিক ধান কাটার জন্য রাজশাহীর উদ্দেশ্যে রওনা দেন। ট্রাকটি পারজামিরতা এলাকায় পৌছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে ট্রাকটি উল্টে খাদে পরে যায়। এতে ১৭ জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়। আহতদের মধ্যে মুমূর্ষূ অবস্থায় দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত্যু ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনা আহত অন্যদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে শাহজাদপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে উল্টে যাওয়া ট্রাকটি উদ্ধার করে।


আরও খবর



উত্তর সিটিতে দিনে ময়লার গাড়ি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনের বেলা ময়লার গাড়ি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। সম্প্রতি সিটি করপোরেশনের গাড়িচাপায় দুই ব্যক্তির নিহতের পর শনিবার (২৭ নভেম্বর) এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএনসিসি কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা গণমাধ্যমকে জানান, রাতের মধ্যেই ময়লা পরিবহনের কাজ শেষ করতে ইতোমধ্যে চালকদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বর্জ্য সরানোর কাজ রাত ১০টায় থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত চলবে। এ সময়ের মধ্যেই ময়লা সরানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে।

তিনি বলেন, অনিবার্য কারণে (যান্ত্রিক ত্রুটি) কোথাও বর্জ্য থেকে গেলে দিনেও গাড়ি বের করে কিছু কাজ করা হতে পারে।

উল্লেখ্য, রাজধানীর গুলিস্তান গোলচত্বরে হল মার্কেটের সামনে ২৪ নভেম্বর বেলা ১১টায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নাঈম হাসান (১৭) নামে নটরডেম কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। এনিয়ে যখন শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলছিল ঠিক তার পরের দিন বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) পান্থপথ এলাকায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আরেকটি ময়লার গাড়ির ধাক্কায় আহসান কবীর নামে এক সংবাদকর্মীর মৃত্যু হয়।


আরও খবর



জনবল নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগ দিতে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এতে পয়েন্টম্যান পদে ৭৬২ জনকে নিয়োগ দেবে প্রতিষ্ঠানটি। এ পদটির জন্য আবেদন করতে পারবেন আগামী ২৩ নভেম্বর সকাল ১০টা থেকেই। আবেদন করা যাবে অনলাইনে।

পদের নাম: পয়েন্টম্যান (গ্রেড-১৮)

পদ সংখ্যা: ৭৬২ জন

যোগ্যতা: যে কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস।

বেতন: ৮,৮০০ থেকে ২১,৩১০

চাকরির ধরন: স্থায়ী

কাজের ধরন: ফুল টাইম

বয়স: আবেদনের সময়সীমা ১৮-৩০ বছর। তবে আগ্রহী প্রার্থীর বয়স ২০২০ সালের ২৫ মার্চ হিসাবে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। আবার এ বছরের ১৫ নভেম্বর যাদের বয়স ১৮ হয়েছে, তারাও আবেদন করতে পারেবেন। আর প্রতিবন্ধী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ক্ষেত্রে বয়স সর্বোচ্চ ৩২ বছর।

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীরা http://br.teletalk.com.bd/ -এ ওয়েবসাইট থেকে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনের শেষ সময়: ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ বিকাল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশ রেলওয়ে

আরও খবর



গোমূত্র-গোবরে অর্থনীতি শক্তিশালী করতে চান ভারতের মন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবাজি সিং চৌহান বলেন, গরু, গোবর ও গোমূত্রলোকজনের আর্থিক অবস্থার উন্নতি করতে পারে। আর এর জেরে বাড়তে পারে ভারতের অর্থনৈতিক সক্ষমতা। গতকাল শনিবার রাজ্যটিতে অনুষ্ঠিত ইন্ডিয়ান ভেটেরিনারি অ্যাসোসিয়েশনের এক সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। খবর এনডিটিভির।

শক্তি ২০২১ শীর্ষক ওই সম্মেলনের আয়োজন করা হয় নারী পশুচিকিৎসকদের নিয়ে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী শিবাজি সিং জানান, সরকার গরুর জন্য অভয়ারণ্য ও আশ্রয়কেন্দ্র গড়ে তুলেছে। তবে এতেই শুধু কাজ হবে না, লোকজনের অংশগ্রহণেরও প্রয়োজন পড়বে।

শিবাজি সিং বলেন, যদি আমরা চাই, তাহলে গরু, গোবর ও গোমূত্রের মাধ্যমে নিজেদের আর্থিক অবস্থা শক্তিশালী করতে পারব এবং দেশকে অর্থনৈতিকভাবে সক্ষম করে তুলতে পারব। কাঠের ওপর চাপ কমাতে সাংসদদের শ্মশানেও গোবর দিয়ে তৈরি জ্বালানি ব্যবহার করা হচ্ছে।

শিবাজি সিং আরও জানান, গরু পালন কীভাবে ছোট খামারি ও গবাদিপশুর মালিকদের জন্য একটি লাভজনক ব্যবসা হয়ে উঠতে পারে, তা নিয়ে কাজ করতে হবে পশুচিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের।

গতকালের সম্মেলনে বক্তব্য দেন মৎস্য, পশুপালন এবং ডেইরিসংক্রান্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পুরুষোত্তম রুপালা। তিনি বলেন, গুজরাটের গ্রামগুলোতে বিপুলসংখ্যক নারী গরু পালনের সঙ্গে জড়িত। এর জেরে দুধের ব্যবসা সফলতার মুখ দেখেছে।


আরও খবর



টাস্কফোর্সে ঝুলে গেছে ‘হাফ ভাড়া’র সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ মালিক সমিতির নেতা খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, বাস মালিকদের ক্ষতিপূরণ বা ভর্তুকির বিষয়টি নির্ধারণ করেই হাফ ভাড়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কোন তহবিল থেকে এই ভর্তুকি আসবে সেটিও নির্ধারণ করতে হবে।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) ঢাকার বনানীতে বিআরটিএ কার্যালয়ে গণপরিবহণে অর্ধেক ভাড়া চালু নিয়ে মালিকদের সঙ্গে সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের দ্বিতীয় দিনের বৈঠক শেষে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় এ সময় পরিবহণ মালিকরা টাস্কফোর্স গঠন করে তাদের জন্য ভর্তুকি নির্ধারণ করার দাবি জানান।

বৈঠক শেষে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, পরিবহণ মালিক-শ্রমিকরা অনেকগুলো প্রস্তাব দিয়েছেন। ঢাকা শহরে কত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কত শিক্ষার্থী, ইত্যাদি তথ্য তারা চেয়েছেন। হাফ ভাড়া নেওয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের আলাদা কোনো পরিচয়পত্র দেওয়া হবে কিনা, সে বিষয়টিও আলোচনায় এসেছে। পুরো বিষয়টি সুরাহা করার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিআরটিএ এবং পরিবহণ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে একটি টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব এসেছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) শিক্ষার্থীদের জন্য গণপরিবহণে হাফ পাশ (অর্ধেক ভাড়া) চালুর বিষয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ও বাস মালিক সমিতির মধ্যে অনুষ্ঠিত সভা কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়।

ওই বৈঠকে বাস মালিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, যেহেতু সরকার বেসরকারি বাসে ভর্তুকি দেয় না সেহেতু ভাড়া কম নেওয়ার সুযোগ নেই। কারণ যানজটের কারণে ট্রিপের সংখ্যা কমেছে, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, গাড়ির যন্ত্রাংশের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তাই হাফ ভাড়া নিলে লোকসান গুনতে হবে।

সম্প্রতি ডিজেলের দাম বাড়ার কারণে আরেক দফা বাসের ভাড়া বাড়ানো হলে শিক্ষার্থীরা আবারও হাফ পাসের দাবিতে রাস্তায় নামেন।


আরও খবর



বঙ্গবন্ধু শান্তি ও সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী ছিলেন: সায়মা ওয়াজেদ

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ন্যাশনাল এডভাইজারি কমিটি অন অটিজম ও নিউরোডেভেলপমেন্টাল ডিজঅর্ডারসর চেয়ারপার্সন সায়মা ওয়াজেদ হোসেন বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শান্তিতে বিশ্বাসী ছিলেন। তিনি বিশ্বাস করতেন একমাত্র শান্তির মাধ্যমেই সততা, ন্যায়বিচার ও সমতা অর্জন করা যেতে পারে।

তিনি বলেন, আমার নানা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সামাজিক সমতা ও সম্প্রীতি অর্জনে গোটা জীবন এই শান্তির জন্য কাজ করে গেছেন।

রাজধানীর ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে আয়োজিত দুদিনের বিশ্ব শান্তি সম্মেলনের দ্বিতীয় দিনে আজ পিস থ্রো ইন্টার-ফেইথ ডায়ালগ, কালচার এন্ড হ্যারিটেজ শীর্ষক আলোচনায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সায়মা বলেন, সামাজিক ন্যায়বিচার ও সততা হচ্ছে সবকিছুর ভিত্তি। তিনি (বঙ্গবন্ধু) তাঁর রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই এটি অনুসরণ করে আসছেন। 

জেনেভাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয় ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার ইউনাইটেড ন্যাশন্স ইউনিভার্সিটি ফর পিসর স্থায়ী পর্যবেক্ষক ডেভিড ফার্নান্দেজ অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে গত শনিবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে আয়োজিত দুদিনের এই বিশ্ব শান্তি সম্মেলন উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি বিশ্ব শান্তি সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন এবং বক্তব্য রাখেন। সম্মেলনে ১৬ দফা ঢাকা ঘোষণা গৃহীত হয়।

সমাপনী অনুষ্ঠানে সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জেমস গর্ডন ব্রাউনের একটি ভিডিও বার্তা দেখানো হয়।

এছাড়া সমাপনী অনুষ্ঠানে সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী গো চক টং, বুলগেরিয়ার রাজনীতিবিদ ও ইউনেস্কোর সাবেক মহাপরিচালক আইরিনা জর্জিয়েভা বোকোভা এবং সিনিয়র ফেলো হোসাইন হাক্কানীও বক্তব্য রাখেন।

জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব বান কি-মুন এবং পূর্ব তিমুরের সাবেক প্রেসিডেন্ট জোস রামোস হোর্তাসহ ৫০টি দেশের প্রতিনিধিরা ভার্চুয়ালি ও সশরীরে যুক্ত হয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।


আরও খবর