আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ ভাড়া চেয়ে রিট

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৫৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শিক্ষার্থীদের জন্য দেশের সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি বাস, লঞ্চ ও ট্রেনে ভাড়া অর্ধেক করতে সরকারের প্রতি নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। আজ বুধবার (২৪ নভেম্বর) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিটটি করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

রিট আবেদনে স্বরাষ্ট্র সচিব, নৌ সচিব, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সচিব, রেলপথ মন্ত্রণালয় সচিব ও পুলিশ প্রধানকে বিবাদী করা হয়েছে। রিটে শিক্ষার্থীদের জন্য ভাড়া অর্ধেক করার বিষয়ে অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ চাওয়া হয়েছে। এছাড়া শিক্ষার্থীদের জন্য সব ধরনের পরিবহনে অর্ধেক ভাড়ার ব্যবস্থা নিতে সরকারকে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা করা হয়েছে।

আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে চলতি মাসে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়। শিক্ষার্থীরা দাবি, তাদের জন্য অর্ধেক ভাড়া চালুর। রাজধানীর সায়েন্সল্যাব, ফার্মগেটসহ কয়েক স্থানে এ দাবিতে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পরিবহন শ্রমিকদের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে।

আবেদনে বলা হয়, সংবিধানের ১৭ অনুচ্ছেদে সরকারকে শিক্ষার নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে। সে কারণে শিক্ষার ব্যয় সরকারকে বহন করা উচিত। অথচ সংবিধান লংঘন করে শিক্ষার্থীদের অন্যান্য আনুষঙ্গিক ব্যয় বহন করছে। এরপরও অর্ধেক ভাড়ার বিষয়টি দীর্ঘদিন ধরে প্রচলণের মাঝেও শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার ক্ষুণ্ন হচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়লে অরাজকতা তৈরি হতে পারে।


আরও খবর
আবরার হত্যায় ২০ আসামির মৃত্যুদণ্ড

বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১




সীমা লঙ্ঘনকারী কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না : আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার পরও যারা সাবেক সরকারের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের হত্যা বা গুম করে সীমা লঙ্ঘন করবে তাদের কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ইসলামিক আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্দুল কাহার বালখি এ কথা জানান। আব্দুল কাহার বালখি টুইটারে লেখেন, সাধারণ ক্ষমা বাস্তবায়নে মুজাহিদিনরা পুরোপুরি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং পূর্ববর্তী প্রশাসনের কর্মীরা নির্যাতিত হচ্ছেন না।

যদি ইসলামিক আমিরাতের কোনো সদস্য ঘোষিত সাধারণ ক্ষমা লঙ্ঘন করেন তবে তার বিচার করা হবে এবং শাস্তি দেওয়া হবে, যোগ করেন বালখি।

গত সপ্তাহে হিউম্যান রাইটস ওয়াচের প্রতিবেদনে বলা হয়, ইসলামিক আমিরাতের সাধারণ ক্ষমা স্থানীয় কমান্ডারদের নিরাপত্তা বাহিনীর সাবেক সদস্যদের হত্যা থেকে নিবৃত্ত করতে পারেনি।’

এইচআরডব্লিউর এ প্রতিবেদন প্রকাশের পর উদ্বেগ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও আরও ২০টির মতো দেশের সরকার।

এদিকে ইসলামিক আমিরাতের সংস্কার কমিশন বলছে, সাবেক সরকারের নিরাপত্তা বাহিনীর কোনো সদস্যকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

কমিশনের প্রধান লুৎফুল্লাহ হাকিমি বলেন, ইসলামিক আমিরাতের কোনো সদস্য সাবেক সরকারের জন্য কাজ করা কাউকে বিরক্ত করেছেন এমন অভিযোগ আমরা পাইনি।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক আহমাদ খান আন্দ্রা বলেন, আমরা আশা করব ইসলামিক আমিরাত সাধারণ ক্ষমার যে ঘোষণা দিয়েছিল তা অনুসরণ করবে।

নিউইয়র্কভিত্তিক বেসরকারি মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) বলছে, তৎকালীন পুলিশ ও সেনাদের টার্গেট করে হত্যা ও গুম করেছে তালেবানের স্থানীয় নেতারা। কিন্তু তালেবানের সিনিয়র নেতারা স্থানীয় কমান্ডারদের বাধা দেননি। যদিও তালেবানের এক মুখপাত্র এমন প্রতিশোধমূলক কর্মকাণ্ডের কথা অস্বীকার করেছেন।


আরও খবর



লকডাউনবিরোধী বিক্ষোভ থামছেই না নেদারল্যান্ডসে

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউরোপে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এ অবস্থায় এরইমধ্যে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে লকডাউন এবং করোনা বিধিনিষেধ কঠোর করা হয়েছে। লকডাউন জারি করা হয়েছে নেদারল্যান্ডসের বিভিন্ন শহরেও। তবে এর প্রতিবাদেই সাধারণ মানুষের বিক্ষোভ শুরু হয়েছে দেশটিতে। 

দেশটির রটারডাম শহরে পথে নেমে বিক্ষোভ শুরু করেছেন বহু মানুষ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে শনিবার বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি ছোড়ে দেশটির পুলিশ বাহিনী। এ সময় তিন জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে জানা গেছে। এই বিক্ষোভকে দাঙ্গা হিসেবেও উল্লেখ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এবং বিবিসি।

কারণ শুক্রবার সন্ধ্যার বিক্ষোভ থেকে রাস্তায় বহু গাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হয় এবং রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়। এসময় পুলিশের বিরুদ্ধে পাথরও নিক্ষেপ করে বিক্ষোভকারীরা।

রটারডাম শহরের পুলিশ জানিয়েছে, শনিবারের বিক্ষোভের পর ওই বিক্ষোভে বিশৃঙখলা সৃষ্টি করার অপরাধে ৫১ জনকে আটক করা হয়েছে। নতুন করে করোনার বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে অস্ট্রিয়া, ক্রোয়েশিয়া এবং ইতালিতেও বিক্ষোভ হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

করোনাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে তিন সপ্তাহের লকডাউন দেওয়া হয়েছে নেদারল্যান্ডসে। নতুন এই নিয়মের আওতায় রেস্তোরাঁ, বার এবং নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকানগুলো রাত ৮ টার মধ্যে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকলিনের ‘ঘনিষ্ঠ’ ছবি

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে প্রেম করতেন জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ। অতীতে এমনই দাবি করেছিলেন সুকেশের আইনজীবী। এ বার সামনে এল এক ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি। তাতে জ্যাকলিনের সঙ্গীর মুখ পুরো দেখা না গেলেও অনুমান, সেই ব্যক্তিই সুকেশ।

এক ওষুধ সংস্থার প্রাক্তন মালিক শিবেন্দ্র সিংহ এবং মালবেন্দ্র সিংহের পরিবারকে ২০০ কোটি টাকার প্রতারণায় অভিযুক্ত সুকেশ এবং তাঁর স্ত্রী লীনা পাল। অভিযুক্তের সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জনকে ভুয়ো বলে উড়িয়ে দিয়েছিলেন রেস থ্রি-র অভিনেত্রী। সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা ঘনিষ্ঠ ছবিটি নতুন করে উস্কে দিয়েছে সেই বিতর্ক।

কী দেখা যাচ্ছে সেই ছবিতে?

নিজস্বীতে নায়িকার গালে চুমু দিচ্ছেন এক ব্যক্তি। জ্যাকলিনের মুখে হাসি। ছবিতে সঙ্গের ব্যক্তির মুখ অর্ধেকটা ধরা পড়েছে। তাতেই মনে করা হচ্ছে, তিনি আর কেউ নন, সুকেশ।

সূত্রের খবর, চলতি বছরের এপ্রিল-জুন মাস নাগাদ ছবিটি তোলা হয়েছে। সুকেশ তখন অন্তর্বর্তী জামিন পেয়ে হাজতের বাইরে ছিলেন। সেই সময়ে নাকি জ্যাকলিনের সঙ্গে চার বার দেখা হয়েছিল তাঁর। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) সূত্রে খবর, জ্যাকলিনের জন্য একটি ব্যক্তিগত বিমানেরও ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন সুকেশ।

অক্টোবর মাসে ২০০ কোটি টাকার প্রতারণার মামলায় একাধিক বার জেরা করা হয় জ্যাকলিনকে। অভিনেত্রীর মুখপাত্রের বিবৃতিতে লেখা জ্যাকলিনকে শুধুমাত্র এই মামলার সাক্ষী হিসেবে তলব করে ইডি। তিনি নিজের বয়ান রেকর্ড করেছেন। পরবর্তীতে ডাকলে তিনি একই ভাবে তদন্তকারী সংস্থার সঙ্গে সহযোগিতা করবেন।


আরও খবর
অদ্ভুত অনুভূতি রেখেই শেষ হলো ‘মানি হাইস্ট’

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১

সায়ন্তিকার গাড়িতে ট্রাকের ধাক্কা

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১




পরনে কেবল শাড়ি, মেহেদি দিয়েই ব্লাউজ!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর 2০২1 | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারী অঙ্গে শাড়ি যেন এক নিবিড় ভালবাসা। আর তাতে যদি সঙ্গে হয় চটকদার ব্লাউজ, তাহলে তা আর কথাই নেই! তবে সেই ব্লাউজ যদি হয় মেহেদি দিয়ে আঁকা? বুঝলেন না তো? এবারে ব্লাউজের ডিজাইনে আঁকা মেহেদি পরেই, ব্লাউজের কাজ সারলেন ভারতের এক তরুণী। 

প্রথম ঝলকে কিন্তু দেখে বোঝা দায়। তবে একটু ভাল করে খেয়াল করলেই দেখবেন ওই তরুণীর শরীরের উপরের অংশ ব্লাউজ নয়, মেহেদি দিয়েই ঢাকা। সাদা শাড়ির সঙ্গে গাঢ় খয়েরিং রঙের মেহেদি কিন্তু বেশ মানিয়েও গেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই তরুণীর ছবি এবং ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে এরইমধ্যে। যেখানে প্রথমে তরুণীর পিঠের অংশটি দেখা যায়। মাথায় সুন্দর খোপা করা। তাতে সাদা ফুল জড়ানো। আর পুরো পিঠ জুড়ে মেহেদি দিয়ে ব্লাউজ আঁকা।

সামনের দিকে যেতে যেতে হাসি মুখে পিছন ফিরে তাকান তরুণী। ক্যামেরাম্যানের দিকে ফ্লাইং কিস ছুড়ে দেন। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হতেই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে, কেউ প্রশংসা করেছেন, কেউ আবার সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

কমেন্টবক্সে কেউ লিখেছেন, ফ্যাশনের নামে যা খুশি তাই করবে নাকি! কেউ আবার তাকে দেখে মেহেদি শিল্পী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই তরুণীর এই ট্রেন্ড কিন্তু একেবারে নতুন নয়। নেটদুনিয়ায় খোঁজ করলে একাধিক মেহেদি ব্লাউজের ডিজাইন দেখতে পাওয়া যায়।


আরও খবর



বেগম রোকেয়া দিবস আগামীকাল

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
নারী জাগরণের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়ার কর্ম ও আদর্শকে সামনে রেখে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অনন্য অর্জনের জন্য প্রতিবছর ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া পদক প্রদান করা হয়

আগামীকাল বৃহস্পতিবার বেগম রোকেয়া দিবস। বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করা হবে। এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। এছাড়া দিবসটি উদযাপনের লক্ষে দেশব্যাপী জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এ উপলক্ষে প্রকাশ করা হচ্ছে বিশেষ ক্রোড়পত্র, পোস্টার, বুকলেট ও স্যুভেনির।

করোনা মহামারির এই সময়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকল কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে। এবার কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখায় দেশের পাঁচজন নারী পাচ্ছেন  রোকেয়া পদক’।

আগামীকাল ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া পদক -২০২১ প্রাপ্তরা রাজধানীর  ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরার নিকট  থেকে সম্মাননা পদক গ্রহণ করবেন।

মনোনীতরা হলেন, নারী শিক্ষায় অবদানের ক্ষেত্রে কুমিল্লা জেলার প্রফেসর হাসিনা জাকারিয়া বেলা। নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় যশোর জেলার অর্চনা বিশ্বাস, নারীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখায় কুমিল্লার শামসুন্নাহার রহমান পরাণ (মরোণোত্তর), পল্লী উন্নয়নে অবদান রাখায় মনোনীত হয়েছেন কুস্টিয়া জেলার গবেষক ড. সারিয়া সুলতানা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ও রোকেয়া হলের প্রভোস্ট ড. জিনাত হুদা সাহিত্য ও সংস্কৃতির মাধ্যমে নারী জাগরণের ক্ষেত্রে অবদান রাখায় মনোনীত হয়েছেন। তার নিজ জেলা মুন্সিগঞ্জ।

নারী জাগরণের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়ার কর্ম ও আদর্শকে সামনে রেখে সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অনন্য অর্জনের জন্য প্রতিবছর ৯ ডিসেম্বর বেগম রোকেয়া পদক প্রদান করা হয়।

বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন  ১৮৮০ সালের ৯ ডিসেম্বর রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। সে সময় মুসলিম সমাজে মেয়েদের লেখাপড়া শেখানোর কোন চল ছিল না। তাই প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা না থাকলেও পরিবারের সবার অগোচরে তার বড় ভাইয়ের কাছে উর্দূ, বাংলা, আরবী ও ফারসি পড়তে এবং লিখতে শেখেন। তার জীবনে শিক্ষালাভ ও মূল্যবোধ গঠনে তার ভাই ও বড় বোন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছিলেন। পরবর্তীতে বিহারের ভাগলপুরে সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেনের সঙ্গে বিয়ে হয়। স্বামীর উৎসাহে ও নিজের আগ্রহে তিনি লেখাপড়ার প্রসার ঘটান। বেগম রোকেয়া ১৯৩২ সালের ৯ ডিসেম্বর মারা যান।

বেগম রোকেয়া ২০০৪ সালে বিবিসি বাংলার সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি’ জরিপে ষষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি প্রাবন্ধিক, ঔপন্যাসিক, সাহিত্যিক ও সমাজ সংস্কারক হিসেবে পরিচিত। তার উল্লেখযোগ্য রচনা হলো-মতিচূর, সুলতানার স্বপ্ন, পদ্মরাগ, অবরোধ-বাসিনী।এই দিবসটি সরকারিভাবে পালিত একটি জাতীয় দিবস।

নিউজ ট্যাগ: বেগম রোকেয়া

আরও খবর
শুরু হলো মহান বিজয়ের মাস

বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১

১৬ নভেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১