আজঃ বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

সিলেটে হোটেল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

সিলেট নগরীর লালাবাজার এলাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে হোটেলের কক্ষ থেকে শাহেদ মোশাররফ (৩৫) নামের ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

শাহেদ মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার মিয়ারপাড়া এলাকার আবদুল করিমের ছেলে। তিনি ওই হোটেলে প্রায়ই থাকতেন।

বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সাজেদুল করিম সরকার জানান, শাহেদ মোশাররফ নামের ওই যুবক দীর্ঘদিন ধরে হোটেলটিতে থাকতেন। তিনি যক্ষা রোগী ছিলেন। তার কক্ষে যক্ষা রোগের চিকিৎসার কাগজপত্র পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে তিনি অসুস্থতাজনিত কারণে মারা গেছেন। তবে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হতে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরির সময় তার শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন ছিল না বলে জানিয়েছেন এসআই সাজেদুল করিম।


আরও খবর
সিলেট নগরী থেকে গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দ্বিতীয় দিনেই একুশে বইমেলায় মানুষের ঢল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দেখে বোঝার উপায় নেই যে, আজ মাত্র বইমেলার দ্বিতীয় দিন। মানুষের ভিড়, হৈ-হুল্লোড়, তরুণ-তরুণীদের ঘোরাফেরা, ছবি-সেলফি আর বইয়ের কেনাকাটায় পুরোদমে জমজমাট অমর একুশে বইমেলা। সকাল ১১টায় মেলা শুরুর পর মানুষের উপস্থিতি কম থাকলেও বিকেল থেকে তা বাড়তে থাকে। এরপর সন্ধ্যা নামতেই যেন পুরো এলাকাজুড়ে ঢল নামে মানুষের।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে বইমেলার বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণ ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়। মেলায় আগত পাঠক-দর্শনার্থীরাও বলছেন, সাধারণত এমন দৃশ্য মেলার শেষের দিকে অথবা মেলার সময় অর্ধেক গড়ানোর পরে দেখা যায়। তবে আজ ছুটির দিন হওয়ার সুবাদে এবং পরিবেশও অনুকূলে থাকার কারণে বইমেলায় মানুষের উপস্থিতি বেড়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সায়মা নাহার দিনা বলেন, শুরুর দিকে হওয়ার কারণে ভিড় কম হবে এমনটি ভেবে মেলায় এসেছিলাম। কিন্তু এসে দেখি অনেক মানুষ এসেছেন। মনে হচ্ছে, আজকে ছুটির দিন হওয়াতে মানুষের উপস্থিতি বেড়েছে। সাধারণত অন্যান্য বছর বইমেলার শুরুর দিকেই এমন উপস্থিতি দেখা যায় না। তবে এবারের পরিসর বাড়ানো হয়েছে। যার কারণে প্রবেশ পথে হকার কিংবা অন্যান্য সমস্যাগুলো একেবারে নেই বললেই চলে।

তবে এখনও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে বেশ কয়েকটি স্টলের সাজসজ্জা এবং আনুষঙ্গিক কার্যক্রম চালাতে দেখা গেছে।

বিষয়টি নিয়ে বইমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড. কে এম মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রকাশকদের সঙ্গে বসেই সব সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সে অনুযায়ী ২৩ তারিখেই স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সময় কোনো অজুহাত নয়। অধিকাংশ প্রকাশনীগুলোই প্যাভিলিয়ন ও স্টল নির্মাণ করে ফেলছে। তাদের তো সময় লাগেনি। এরা কেন এখনো কাজ শেষ করতে পারেনি।

তিনি বলেন, বইমেলায় ছোট-ছোট স্টলগুলোর কাজ কম। বিষয়টি মনিটরিং এর জন্য আমি লোক পাঠিয়েছি। আমি তারা রিপোর্ট দিলেই সিদ্ধান্ত নেব।

উল্লেখ্য, বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এবার বইমেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ এবং ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রায় সাড়ে ১১ লাখ বর্গফুট জায়গায়। একাডেমি প্রাঙ্গণে ১২০টি প্রতিষ্ঠানকে ১৭৩টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৫১৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৬৪টি ইউনিট অর্থাৎ মোট ৬৩৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৯৩৭টি ইউনিট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। মেলায় ৩৭টি (একাডেমি প্রাঙ্গণে ১টি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৩৬টি) প্যাভিলিয়ন রয়েছে।


আরও খবর
একুশে বইমেলার সময় বাড়লো ২ দিন

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

শেষ ছুটির দিনে জমজমাট বইমেলা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




শোক-শ্রদ্ধায় ভাষা শহিদদের স্মরণ করছে জাতি

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আজ একুশে ফেব্রুয়ারি, মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দিবসটিতে হাজারো মানুষ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এসে ভাষা শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। শ্রদ্ধার ফুলে ফুলে ভরে গেছে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের বেদি।

বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ আজ প্রভাতফেরি করে শ্রদ্ধার ফুল দিয়ে ভাষাশহিদদের শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।

এর আগে একুশের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে এসে ভাষাশহিদদের প্রতি জাতির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরপর মন্ত্রিসভার সদস্যসহ বিভিন্ন পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা শ্রদ্ধা জানান। তার পর থেকে সাধারণ মানুষ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শুরু করেন, যা এখনো চলছে।

মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। দিবসটি উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।


আরও খবর



অবশেষে টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই স্বত্ব পেতে আবেদন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

Image

টাঙ্গাইল শাড়ি নিজেদের দাবি করেছে ভারতের একটি মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশের ঐতিহ্যগত এই শিল্পকর্মকে নিজেদের দাবির প্রতিবাদ উঠেছে সব মহলে। এর মধ্যেই টাঙ্গাইল শাড়ির পেটেন্ট (জিআই স্বত্ব বা ভৌগলিক নির্দেশক) পাওয়ার জন্য আবেদন করেছে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন পেটেন্ট, শিল্প-নকশা ও ট্রেড মার্কস অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে এ আবেদন করা হয়। বিকালে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক কায়ছারুল ইসলাম। 

কায়ছারুল ইসলাম বলেন, টাঙ্গাইল শাড়ি যেকোনো বিচারে বাংলাদেশের জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার দাবিদার। আমরা গত ৩ মাস ধরে টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি লাভের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তৈরি করেছিলাম। আজ আবেদন করেছি।

সম্প্রতি ভারতের সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ফেসবুক পেজ থেকে করা একটি পোস্টে উল্লেখ দাবি হয়- টাঙ্গাইল শাড়ি, পশ্চিমবঙ্গ থেকে উদ্ভূত, একটি ঐতিহ্যবাহী হাতে বোনা মাস্টারপিস। এর মিহি গঠন, বৈচিত্র্যময় রং এবং সূক্ষ্ম জামদানি মোটিফের জন্য বিখ্যাত এটি এই অঞ্চলের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের প্রতীক। টাঙ্গাইলের প্রতিটি শাড়ি ঐতিহ্য ও সমৃদ্ধ সৌন্দর্য্যরে মেলবন্ধনে দক্ষ কারুকার্যের নিদর্শন।

এরপর থেকে টাঙ্গাইলসহ সারাদেশে ক্ষোভ ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। মানববন্ধন করেছেন টাঙ্গাইলের মানুষ।

জেলা প্রশাসক কায়ছারুল ইসলাম বলেন, শাড়িটির ইতিহাস, সংশ্লিষ্টদের জীবন জীবিকার তথ্য, আড়াইশ বছরের ইতিহাসের তথ্য সংগ্রহ করে কাগজপত্র তৈরি করে আবেদন করা হয়েছে। আবেদনটি গ্রহণ করা হয়েছে। আশা করছি দ্রুতই টাঙ্গাইল শাড়ি নামে জিআই স্বীকৃতি পাব।

তিনি আরও বলেন, টাঙ্গাইল শাড়ির জিআই স্বীকৃতি পাওয়ার পরে ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি অর্গানাইজেশন-এর গঠনতন্ত্র  অনুযায়ী আপিল করব। ভারতের টাঙ্গাইল শাড়ি অব বেঙ্গল নামে যে জিআই পণ্যটি পেয়েছে, এটি বাংলাদেশের স্বার্থের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। আমরা পুরোপুরো আশাবাদী টাঙ্গাইল শাড়ি চূড়ান্ত বিচারে বাংলাদেশের জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি নিয়ে আসতে পারব।

নিউজ ট্যাগ: টাঙ্গাইল

আরও খবর
সিলেট নগরী থেকে গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ঢাবিতে শিক্ষাবিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুরু

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ঢাবি প্রতিনিধি

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু হয়েছে 'গ্লোবাল অ্যাসেম্বলি অন ফিউচার অব এডুকেশন' শীর্ষক দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক সম্মেলন। বাংলাদেশ, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, সুইডেনসহ ৮টি দেশের বিশেষজ্ঞরা থাকছেন এবারের সম্মেলনে।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল।

সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে 'বিল্ডিং স্মার্ট গ্লোবাল এডুকেশন কমিউনিটিজ: ইন্টারন্যাশনাল কোলাবোরেশন ফর সাসটেইনেবিলিটি ইন এডুকেশন'। বাংলাদেশ সরকারের আইসিটি বিভাগ এবং ইউএনডিপি'র সহযোগিতায় গ্লোবাল এডুকেটরস ইনিশিয়েটিভ ফর সাসটেইনেবল ট্রান্সফরমেশন (জিইআইএসটি) এই সম্মেলন আয়োজন করেছে।

ইউনেস্কো বাংলাদেশের প্রতিনিধি ড. সুসান ভাইজ, জিইআইএসটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বিপ্লব কুমার দেব, জিইআইএসটি গ্লোবাল-এর সভাপতি ড. সব্যসাচী মজুমদার এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট বামন কুমার ঘিমির উদ্বোধনী অধিবেশনে বক্তব্য দেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল জ্ঞান, প্রজ্ঞা ও দক্ষতার সমন্বয়ে নতুন প্রজন্মকে বিশ্ব নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, দেশে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরে ইতোমধ্যেই নতুন পাঠ্যক্রম চালু করা হয়েছে। এই আন্তর্জাতিক সম্মেলন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা ও অভিজ্ঞতা বিনিময়ের ক্ষেত্রে একটি কমন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করবে এবং আমাদের দেশের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা এর মাধ্যমে অত্যন্ত উপকৃত হবেন।


আরও খবর



চলতি সপ্তাহে টানা ৪ দিন ছুটি কাটানোর সুযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান মাসের এই সপ্তাহে একটানা চার দিনের ছুটি কাটানোর সুযোগ রয়েছে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য। আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবারের ছুটি কোনোভাবে ম্যানেজ করতে পারলেই টানা চার দিনের ছুটি পাবেন তারা।

ক্যালেন্ডার অনুযায়ী, ২১ ফেব্রুয়ারি বুধবার সরকারি ছুটি পড়েছে। একদিন পর ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ও শনিবার হওয়ায় এই দুদিন সাপ্তাহিক ছুটি। কোনো সরকারি চাকরিজীবী বা ব্যাংক কর্মী ২২ ফেব্রুয়ারির (বৃহস্পতিবার) ছুটি নিতে পারলে তিনি টানা চারদিন ছুটি ভোগ করতে পারবেন।

এ ছাড়া কোনো সরকারি চাকুরে বা ব্যাংক কর্মী এ সপ্তাহে ছুটি না নিতে পারলে তাদের নিরাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই। কারণ ২৩ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার শনিবার হওয়ায় এই দুদিন সাপ্তাহিক ছুটি। একদিন পর ২৬ তারিখ শবে বরাতের সরকারি ছুটি। মাঝের ২৫ ফেব্রুয়ারি (রবিবার) সরকারি অফিস আদালত খোলা রয়েছে। এই এক দিনের ছুটিও কোনোভাবে ম্যানেজ করতে পারলেই সেসময়ও টানা চারদিনের ছুটি ভোগ করা যাবে।

এর আগে গত বছরের ২৫ অক্টোবর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ২০২৪ সালের ছুটির তালিকা প্রকাশ করে।


আরও খবর