আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

সিলেটে মাদ্রাসার অধ্যক্ষকর্তৃক ৪ শিশুকে বলাৎকার !! অবশেষে গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ মে ২০২১ | ১৫৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেট থেকে আবুল কাশেম রুমন

সিলেটের এক মাদ্রাসার অধ্যক্ষকর্তৃক ৪ শিশুকে বলাৎকার অভিযোগ উঠছে। এ অভিযোগে ওই মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে গ্রেফতার করেছে দক্ষিণ সুরমা পুলিশ। তার নাম সৈয়দ দেলওয়ার হোসেন। তিনি সিলেটে জেলার গোলাপগঞ্জের ফুলসাইন্দ গ্রামের সৈয়দ আবু বাক্করের ছেলে ও দক্ষিণ সুরমার মেনিখলার শাহজালাল তমজিদিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ।

জানা গেছে, আবাসিক ঐ মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে মাঝে রাতে অধ্যক্ষ তার কক্ষে ডেকে নিয়ে নিজের বিকৃত যৌন নিপিড়ন লালসা চরিতার্থ করতেন বলে শিক্ষার্থী শনিবার (২২ মে) তার অভিভাবকের কাছে অভিযোগ করে। এসময় আরও ৩ শিক্ষার্থীও একই অভিযোগ করে ঐ অভিভাবকের কাছে। অভিভাবক ভুক্তভোগী অপর এক শিক্ষার্থীর অভিভাবকের সাথে যোগাযোগ করে ৯৯৯- এ কল দিয়ে বিস্তারিত অবগত করেন।

বিষয়টি পুলিশ গুরুত্বসহকারে ২৩ মে (রবিবার) রাত ৮টার দিকে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে অধ্যক্ষকে আটক করে থানায় নিয়ে যান।

এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত অধ্যক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছিল বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি মনিরুল ইসলাম।

নিউজ ট্যাগ: বলাৎকার সিলেট

আরও খবর



বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা নেওয়ার নির্দেশ দিলো ইউজিসি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৮ মে ২০২১ | ১৬১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা সরাসরি ও অনলাইনে নেওয়ার ব্যবস্থা করতে সব বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের কাছে চিঠি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

শুক্রবার (২৮ মে) ইউজিসি সচিব ড. ফেরদৌস জামান স্বাক্ষরিত চিঠি সব বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজের রেজিস্ট্রারদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

ইউজিসর চিঠিতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি বিবেচনায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখা জরুরি। তাই স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ের পরীক্ষা সরাসরি ও অনলাইন পদ্ধতিতে গ্রহণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সব বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের শারীরিক, মানসিক ও শিক্ষাজীবনের কথা বিবেচনা করে অনলাইনে শিক্ষা কার্যক্রম চালু করার বিষয়ে সকল বিশ্ববিদ্যালয়কে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও সরকার নির্দেশনা প্রদান করেছে।


আরও খবর



এলএসডিসহ গ্রেফতার পাঁচ শিক্ষার্থী ৫ দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ২০৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে এলএসডিসহ (লাইসার্জিক অ্যাসিড ডাইথ্যালামাইড) গ্রেফতার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে ৫ দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার বিকালে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের বিচারক আতিকুল ইসলাম এই আদেশ দেন। দুপুরে তাদের আদালতে হাজির করে প্রত্যেকের ১০ দিন করে রিমান্ড চান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

এর আগে রবিবার রাজধানীর শাহজাহানপুর, রামপুরা, বাড্ডা ও ভাটারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি গ্রুপের পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে ভয়ংকর মাদক ২ হাজার মাইক্রোগ্রাম এলসডি, আইস ও গাঁজা জব্দ করা হয়েছে।

পরে ওই দিন রাতেই এক ব্রিফিংয়ে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানায়, গত এক বছর ধরে দেশে এলএসডির ব্যবসা চালিয়ে আসছে তারা।

ঢাকা মেট্রোপলিটন (ডিএমপি) পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. আ. আহাদ বলেন, অনলাইন বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তারা আসক্ত হয়ে এলএসডি সেবন শুরু করে। মূলত বিদেশ থেকে এলএসডি মাদক সংগ্রহ করে তারা। রাজধানীতে ১৫টি গ্রুপ রয়েছে যারা এলএসডি বিক্রি করে আসছে। গ্রুপগুলো গত এক বছর ধরেই এই এলএসডি বিক্রি ও সেবনের সঙ্গে জড়িত।


আরও খবর



করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে খুলনায় এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১১ জুন ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুলনায় করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে জেলাজুড়ে এক সপ্তাহের বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকার পর বন্ধ করতে হবে দোকানপাট, শপিংমল ও রেস্তোরাঁ।

বিধিনিষেধে বলা হয়েছে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হয়ে অযথা ঘোরাঘুরি করতে পারবে না। ইজিবাইক চলবে অর্ধেক সংখ্যক যাত্রী নিয়ে। কাঁচাবাজার ও ওষুধের দোকান এই বিধিনিষেধের আওতামুক্ত থাকবে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে আজ শুক্রবার অনুষ্ঠিত করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভায় এ সব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এতে প্রধান অতিথি ছিলেন। সভায় খুলনার বিভাগীয় কমিশনার মো. ইসমাইল হোসেন অনলাইনে যুক্ত ছিলেন।

সভায় সিটি মেয়র বলেন, গত এক সপ্তাহে খুলনার কয়েকটি জায়গায় বিক্ষিপ্তভাবে বিধিনিষেধ আরোপ করে সংক্রমণ প্রতিরোধে কোনো ভালো ফল পাওয়া যায়নি। এ ক্ষেত্রে সমগ্র জেলায় বিধিনিষেধ আরোপ ও তা বাস্তাবায়ন করতে না পারলে খুলনার করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকানো যাবে না। সিটি মেয়র রাস্তাঘাটে অযথা জটলা করে আড্ডা দেওয়া এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানার বিরুদ্ধে কঠোর ভূমিকা পালনের জন্য খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতি আহ্বান জানান।

সভায় আরও সিদ্ধান্ত হয়, খুলনায় করোনা রোগীর চিকিৎসার শয্যা সংখ্যা বাড়ানো হবে। সে ক্ষেত্রে সদর হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্ত হয়। এ জন্য প্রয়োজনীয় জনবল ও লজিস্টিক সাপোর্টের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সত্ত্বর যোগাযোগ করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সভায় জাননো হয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি আরটিপিসিআর ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। সেখানে প্রতিদিন ৫০০ রোগীর নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। সভায় আরও জানানো হয়, স্বাস্থ্যবিধি মানাতে গত সাত দিনে ২২৩টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তিন লাখ ৬২ হাজার ৫৪৫ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ধরনের মোবাইল কোর্ট পরিচলনা অব্যাহত থাকবে।

সভায় খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ, খুলনা মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মো. ইকবাল হোসেন, খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মো. মাহবুব আলম সোহাগ, সরকারি কর্মকর্তাসহ কমিটির সদস্যেরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



মুনিয়ার মৃত্যু: তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে পারেননি পুলিশ

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ২১৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানী গুলশান ফ্ল্যাটে কলেজছাত্রী মোসারাত জাহান মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের (এমডি) বিরুদ্ধে পরিবারের করা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেনি পুলিশ। সোমবার (৩১ মে) আদালতে প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য থাকলেও তদন্ত শেষ হয়নি জানিয়ে সময় আবেদন করেছে পুলিশ।

গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল হাসান জানান, নিয়ম অনুযায়ী তদন্ত শেষ না হওয়াই তারা আদালতে মুনিয়ার মামলার প্রতিবেদন জমা দিতে পারেননি। পরবর্তী তারিখের জন্য সময় আবেদন করা হয়েছে।

গত ২৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর বাসার একটি ফ্ল্যাট থেকে মুনিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, সায়েম সোবহানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মুনিয়ার। প্রতিমাসে এক লাখ টাকা ভাড়ার বিনিময়ে সায়েম সোবহান মুনিয়াকে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। আনভীর নিয়মিত ওই বাসায় যাতায়াত করতেন। তারা স্বামী-স্ত্রীর মতো করে থাকতেন।

মুনিয়ার বোন অভিযোগ করেন, তার বোনকে বিয়ের কথা বলে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। একটি ছবি ফেসবুকে দেওয়াকে কেন্দ্র করে সায়েম সোবহান তার বোনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। তাদের মনে হচ্ছে, মুনিয়া আত্মহত্যা করেনি। তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

মামলার পর গত ২৭ এপ্রিল আদালত বসুন্ধরার এমডির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।



আরও খবর



সাকিবের শাস্তি কমাতে মোহামেডানের আবেদন

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাকিব আল হাসানের শাস্তি কমানোর আবেদন করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং লিমিটেড। স্টাম্পে লাথি ও আছাড় মারার ঘটনায় এবং আম্পায়ারের সঙ্গে অশোভন আচরণের কারণে মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ ও ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

রবিবার (১৩ জুন) সাকিবের শাস্তি কমানোর আবেদনের বিষয়টি মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন মোহামেডানের পরিচালক মাসুদুজ্জামান। তবে সিসিডিএম সদস্য সচিব আলী হোসেন জানিয়েছেন, তারা এখনো চিঠি পাননি।

মাসুদুজ্জামান বলেন, সাকিবের শাস্তি কমানোর বিষয়টা নিয়ে আমরা সিসিডিএমের কাছে আপিল করেছি। গতকাল রাতে আমরা মেইল করেছি। সিদ্ধান্ত পেতে দেরি হয়েছে। এরপর আমাদের ক্লাব কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কাল রাতে মেইল করেছিলাম। আজ সিসিডিএমের কাছে সরাসরি চিঠি দিয়েছি।

সিসিডিএম চিঠি না পাওয়ার বিষয়টি নিয়ে তিনি বলেন, সিসিডিএম পায়নি কেন আমি জানি না। আমরা তাদেরকে মেইল পাঠিয়েছি তারা মেইল চেক করলেই দেখতে পাবে।

সাকিবকে লেভেল থ্রি অফেন্স অনুযায়ী শাস্তি দেওয়া হয়েছে। দুইবার অসাদাচরণের জন্য তাকে ৩ ম্যাচ নিষিদ্ধ ও ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

গতকাল গুলশানে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে শাস্তির বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে সিসিডিএম চেয়ারম্যান বলেন, আমরা ম্যাচ অফিসিয়ালদের রিপোর্টের অপেক্ষায় ছিলাম, সেটা পেয়েছি। দুইটা অভিযোগ ছিল। একটি ৪.৬ ওভারে এলবিডব্লিউর আবেদন, যার প্রতিক্রিয়া সাকিব লাথি মেরে উইকেট ভেঙে দিয়েছেন। আরেকটা ছিল ৫.৫ ওভারের পর, যখন আম্পায়াররা মাঠে কভার ডাকেন এবং সাকিব উইকেট তুলে ছুঁড়ে ফেলে দেন। আমরা যে রিপোর্ট দেখেছি, তাতে দুই অপরাধের জন্য লেভেল-৩ সাকিবের বিরুদ্ধে গিয়েছে। সেক্ষেত্রে তার নিষেধাজ্ঞা ৩ ম্যাচ এবং জরিমানা ৫ লাখ টাকা।

 


আরও খবর
কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারাল ব্রাজিল

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১