আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

শিল্পার স্বামীর হাত ধরেই অ্যাডাল্ট সিনেমায় পুনম-শার্লিন!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | ১৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বহু দিন ধরেই নাকি পর্ন ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রাজ কুন্দ্রা। শিল্পা শেট্টির স্বামীর হাত ধরেই এই জগতে এসেছিলেন পুনম পাণ্ডে, শার্লিন চোপড়া। সূত্রের খবর মানলে, মহারাষ্ট্রের সাইবার সেলকে বহু আগেই এই তথ্য দিয়েছিলেন দুই অভিনেত্রী।

অ্যাডাল্ট ভিডিওর জগতে বেশ পরিচিত নাম শার্লিন চোপড়া ও পুনম পাণ্ডে। প্রায় দিনই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি ও ভিডিও পোস্ট করেন তাঁরা। শোনা যায়, বহু আগে রাজের প্রজেক্টে কাজ করেছিলেন দুই অভিনেত্রী। সূত্রের খবর মানলে সেই সময়ও এক একেকটি প্রজেক্টের জন্য রাজের কাছ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা পেতেন শার্লিন চোপড়া। এমন ১৫ থেকে ২০টি প্রজেক্টে কাজ করেছিলেন তিনি। শুধু রাজ কুন্দ্রা নন, আরও কয়েকজন এই পর্ন কনটেন্ট তৈরির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তবে মাস্টারমাইন্ড বা মূল ষড়যন্ত্রকারী শিল্পা শেট্টির স্বামী। মুম্বই পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসেই কুন্দ্রার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছিল। সোমবার তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তারপরই রাতের দিকে গ্রেপ্তার করা হয়। কুন্দ্রা যে এই কাজে জড়িত সেই ব্যাপারে যথেষ্ট প্রমাণ ছিল। সেই কারণেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি মুম্বই পুলিশের।

শোনা গিয়েছে, দেশে তৈরি অ্যাপের মাধ্যমে পর্ন কনটেন্টগুলি তৈরি করা হত। তারপর তা বিদেশের এক OTT প্ল্যাটফর্মে আপলোড করা হত। সাতদিন পর নাকি সেগুলি আপনা থেকেই ডিলিট হয়ে যেত। এই কাজে উঠতি অভিনেত্রী-মডেলদেরও জড়ানো হত বলে অভিযোগ। প্রতি প্রজেক্টের জন্য নাকি দুই থেকে আড়াই লক্ষ টাকা দেওয়া হত। সংস্থায় রাজ কুন্দ্রার ৮ থেকে ১০ কোটি টাকা বিনিয়োগ ছিল।

২০০৯ সালে রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে বিয়ে হয় শিল্পা শেট্টির। ২০১২ সালে তাঁদের সন্তান ভিয়ানের জন্ম হয়। গত বছর রাজ ও শিল্পার ঘরে আসে কন্যা সামিশা। এর আগে আইপিএলে ম্যাচ গড়াপেটা কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়েছিল রাজ কুন্দ্রার। তখন তিনি রাজস্থান রয়্যালসের মালিক ছিলেন। ২০১৩ সালের আইপিএলে স্পট ফিক্সিং কাণ্ড ঘটেছিল। সেই ঘটনার প্রেক্ষিতে দুবছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছিল রাজস্থান রয়্যালসকে। দুবছরের নির্বাসন কাটিয়ে রাজস্থান রয়্যালস আবার আইপিএলের মূল স্রোতে ফেরে। কিন্তু রাজ কুন্দ্রাকে আর দেখা যায়নি মেগা টুর্নামেন্টে।



আরও খবর
পরীমনির বাসায় শত শত মদের বোতল

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১

নায়িকা পরীমণি আটক

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




ঈদের আগের ৩ দিন ট্রেনে আসবে কোরবানির পশু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১১৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোরবানির পশু পরিবহনের জন্য বিশেষ ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন পরিচালনা করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ঈদের আগে তিন দিন পশু আনা হবে বলে রেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ১৭, ১৮ ও ১৯ জুলাই পশুগুলো আনা হবে।

ব্যবসায়ীদের চাহিদার ভিত্তিতে এর সংখ্যা কমবেশি হতে পারে।

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ বাজার থেকে ঢাকার মধ্যে এই ট্রেন চলবে। দেওয়ানগঞ্জ বাজার থেকে বেলা সাড়ে তিনটায় ট্রেনটি ছেড়ে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছাবে পরের দিন সকাল ছয়টায়। একটি ট্রেনে ৪০০টি পর্যন্ত পশু পরিবহন করা যাবে।

এর পাশাপাশি খুলনা এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকায় পশু পরিবহনের জন্য ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে ব্যবসায়ীদের আগ্রহ থাকলে এখান থেকেও স্পেশাল ট্রেন চালানো হবে বলে রেলওয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

গত বছর পবিত্র ঈদুল আজহায় কোরবানির পশু পরিবহনে বিশেষ ট্রেন চালু করা হয়েছিল। এ ছাড়া দুই বছর ধরে আম পরিবহনেও বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।


আরও খবর



সোমবার আসছে মডার্নার আরও ৩৫ লাখ ডোজ টিকা

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক টিকা বণ্টন কর্মসূচি কোভ্যাক্সের আওতায় মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি মডার্নার তৈরি করোনা টিকার আরও ৩৫ লাখ ডোজ আসছে বাংলাদেশে। আগামী সোমবার সেগুলো দেশে পৌঁছাবে। শুক্রবার হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, কোভ্যাক্স কর্মসূচির আওতায় ইউক্রেনকেও মডার্নার টিকা দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এই টিকার ২০ লাখ ডোজ ইতোমধ্যে পূর্ব ইউরোপীয় দেশটিতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিশ্বের অন্য দেশগুলোর সঙ্গে করোনা টিকা ভাগাভাগি করতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রতিশ্রুতির অংশ হিসেবে এসব টিকা বাংলাদেশ ও ইউক্রেনে পাঠানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওই কর্মকর্তা। তিনি বলেছেন, বৈজ্ঞানিক দল এবং উভয় দেশের নীতিনির্ধারণী কর্তৃপক্ষ নিরাপদ ও কার্যকর ভ্যাকসিন সরবরাহ নিশ্চিত করতে একত্রে কাজ করছে।

বাংলাদেশ ইতোমধ্যে কোভ্যাক্স কর্মসূচির আওতায় মডার্না টিকার ২৫ লাখ ডোজ পেয়েছে। গত ২ জুলাই রাত ১১টা ২২ মিনিটে মর্ডানার ১২ লাখ ৫০ হাজার ডোজ টিকা দেশে এসে পৌঁছায়। পরের দিন সকালে আসে আরও সাড়ে ১২ লাখ ডোজ। এসব টিকা বিতরণ শুরু হয়েছে দেশের বিভিন্ন টিকাকেন্দ্রে।

শাহজালাল বিমানবন্দরে মডার্নার টিকা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলার বলেছিলেন, এটি যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের জনগণের জন্য উপহার। বাংলাদেশ গত পাঁচ দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্রের ঘনিষ্ঠ অংশীদার। বিশ্বকে এই সংক্রামক ব্যাধির হুমকি থেকে নিরাপদ রাখতে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করবে।

 


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




‘গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার অপরাধের প্রাথমিক প্রমাণ মিলেছে’

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | ১৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গ্যাটকো দুর্নীতিতে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অপরাধের প্রাথমিক দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে। আগামী ছয় মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশ হাইকোর্টের।

বুধবার (১৪ জুলাই) গ্যাটকো দুর্নীতি মামলার বিষয়ে এই নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট।

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী বাদী হয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে তেজগাঁও থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর জরুরি ক্ষমতা আইনে মামলাটি অন্তর্ভূক্ত করা হয়। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনকে অভিযুক্ত করে এ মামলার চার্জশিট দাখিল করা হয়।

মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গ্যাটকোকে ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কনটেইনার হ্যান্ডলিংয়ের কাজ পাইয়ে দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকার ক্ষতি করেছেন।

মামলার ২৪ আসামির মধ্যে ছয়জন ইতোমধ্যে মারা গেছেন। তারা হলেন-সাবেক মন্ত্রী এম সাইফুর রহমান, আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, এম কে আনোয়ার, জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির মতিউর রহমান নিজামী, চট্টগ্রাম বন্দরের প্রধান অর্থ ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা আহমেদ আবুল কাশেম ও বিএনপি চেয়ারপারসনের ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো।

অন্য আসামিরা হলেন, বিএনপির সাবেক মন্ত্রী এম শামছুল ইসলাম, সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন, সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান কমোডর জুলফিকার আলী, প্রয়াত মন্ত্রী কর্নেল (অব.) আকবর হোসেনের স্ত্রী জাহানারা আকবর, দুছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন এবং এ কে এম মুসা কাজল, এহসান ইউসুফ, সাবেক নৌ-সচিব জুলফিকার হায়দার চৌধুরী, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক সদস্য এ কে রশিদ উদ্দিন আহমেদ, গ্লোবাল অ্যাগ্রোট্রেড প্রাইভেট লিমিটেডের (গ্যাটকো) পরিচালক শাহজাহান এম হাসিব, গ্যাটকোর পরিচালক সৈয়দ তানভির আহমেদ ও সৈয়দ গালিব আহমেদ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান এ এস এম শাহাদত হোসেন, বন্দরের সাবেক পরিচালক (পরিবহন) এ এম সানোয়ার হোসেন এবং বন্দরের সাবেক সদস্য লুৎফুল কবীর।


আরও খবর



শিমুলিয়া-বাংলাবাজার উভয়পাড়ে যানবাহন ও যাত্রীর চাপ

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কঠোর বিধিনিষেধের তোয়াক্কা না করে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরিতে আজ শুক্রবার যাত্রী ও ব্যক্তিগত গাড়ি পারাপারের হিড়িক পরেছে। আটদিন ধরে চলা বিধি নিষেধের প্রতিদিনই দেখা যাচ্ছে বিধিভঙ্গের একইচিত্র।

শুক্রবার সকাল হতে নৌরুটে সচল ৯টি ফেরিতে বৈরি আবহওয়ার মধ্যেও পারাপার হচ্ছে শতশত যাত্রী, ব্যক্তিগতগাড়ি । শুধুমাত্র জরুরি ও লকডাউনের আওতামুক্ত গাড়ি পারাপারে ফেরি চালু থাকলেও মোটেরও মানা হচ্ছে না নিয়ম। ঘাট অভিমুখে পুলিশের চেকপোস্ট ও ঘাট এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হলেও যাত্রীরা দেখাচ্ছে নানা অজুহাত। বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়াঘাটে আসা ঢাকামুখী যাত্রীদের চাপ রয়েছে।

এদিকে ফেরিতে যাত্রীর চাপে উধাও স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব। শিমুলিয়াঘাটে পৌছে ঢাকামুখী যাত্রীরা সড়কে পুলিশের চেকপোস্ট এড়িয়ে ছোট যানবাহনে ভেঙে ভেঙে রওনা হচ্ছে ঢাকার গন্তব্যে। এতে যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে দুই তিনগুণ বেশি ভাড়া। যাত্রীদের দাবি, জীবিকার জন্য কর্মস্থলে আর নানা রকম প্রয়োজনের তাগিদেই ছুটছেন তারা।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক মাহবুব জানান, নৌরুটে ছোটবড় মিলিয়ে ৯টি ফেরি সচল রয়েছে। শুধু জরুরি গাড়ি পারাপারেই ফেরি চালু রয়েছে। শিমুলিয়া থেকে বাংলাবাজারগামী যাত্রীর সংখ্যা কম। তবে বাংলাবাজার থেকে শিমুলিয়া ঘাটে আগত প্রতিটি ফেরিতেই চাপ রয়েছে। ঘাটে গাড়ির চাপ না থাকায় যেসব গাড়ি পারাপারের জন্য আসছে তাদের খুব একটা অপেক্ষা করতে হচ্ছে না।

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ঘাটে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাউসার হামিদ জানান, যাত্রীরা নানা অজুহাত দেখাচ্ছে। অনেকে অসুস্থ, কেউ বিদেশ যাবে, কেউ টিকা নেবে, কারো পরিবারের সদস্যের মৃত্যু হয়েছে, কেউ সিম কোম্পানির নেটওয়ার্ক বিভাগে করছে। কিছু লোক বলছে তাদের অফিস থেকে কল আসছে, তাই তারা যাচ্ছে। ফেরির বিষয়ে ফেরি কর্তৃপক্ষ দেখছে। যদি এমনিতেই কেউ ঘুরতে আসে তাদের জরিমানা করা হচ্ছে, অযৌক্তিক কারণে নদী পারের চেষ্টা করলে তাদের ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে।


আরও খবর



যাত্রীদের হুড়োহুড়ি নেই কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিধিনিষেধ শিথিল করায় অন্যান্য পরিবহনের মতে ট্রেনেও ঈদযাত্রা শুরু হয়েছে। তবে ঈদযাত্রায় অন্যান্য সময়ের মতো যাত্রীদের হুড়োহুড়ি নেই কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে।

শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল থেকে কমলাপুর রেলস্টেশন ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে। স্টেশন কর্তৃপক্ষ বলছে, অনলাইনে টিকিট কাটা ও টিকিট ছাড়া স্টেশনে প্রবেশ করতে না দেয়ার কারণে স্টেশনে হুড়োহুড়ি নেই।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করছে ট্রেন। শনিবার সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত কমলাপুর স্টেশনে যাত্রী ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সব ট্রেনই সময়মতো প্রবেশ এবং স্টেশন ত্যাগ করেছে।

আগামী ২১ জুলাই বুধবার দেশে মুসলমানদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন, জনসাধারণের যাতায়াত, ঈদ পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা, দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে গত ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে আগামী ২৩ জুলাই সকাল ৬টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করেছে সরকার।

শনিবার সকালে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে গিয়ে দেখা গেছে, টিকিট চেক করে যাত্রীদের স্টেশনে প্রবেশ করানো হচ্ছে। সঙ্গে হ্যান্ড মাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানার জন্য যাত্রীদের অনুরোধ জানানো হচ্ছে। পুরো স্টেশন জুড়ে ছড়িয়ে আছেন রোবার স্কাউটের সদস্যরা। কারো মুখে মাস্ক না থাকলে মাস্ক পরার অনুরোধ জানাচ্ছিলেন তারা। স্বাস্থ্যবিধি মানা সংক্রান্ত বিভিন্ন স্লোগানের ফেস্টুনও দেখা গেছে তাদের হাতে। যাত্রী প্রবেশ মুখেই রাখা আছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার।


আরও খবর