আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

সিনেমা ছাড়া ক্যাটরিনা আরও যেসব উৎস থেকে আয় করেন

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

দর্শকপ্রিয় নায়িকা ক্যাটরিনা কাইফ বলিউড চলচ্চিত্রে প্রায় দুদশক কাটিয়ে দিয়েছেন। ২০০৫ সালে ম্যায়নে পেয়্যার কিউঁ কিয়া সিনেমার মাধ্যমে তিনি সবার নজরকাড়েন।

ক্যাটরিনা নিজের পরিশ্রম আর যোগ্যতা দিয়ে বলিউডে নিজের স্থান পাকাপোক্ত করেছেন। ওয়েলকাম, পার্টনার, নিউ ইয়র্ক, এক থা টাইগার ক্যাটরিনার ক্যারিয়ারের ঝুলিতে ব্যবসাসফল অনেক সিনেমা রয়েছে।

শুধু তা-ই নয়, পারিশ্রমিকের দিক দিয়েও ক্যাটরিনা অনেককেই পেছনে ফেলেছেন। ক্যাটরিনাকে নায়িকা হিসেব নেওয়ার আগে প্রযোজক-পরিচালকদের কিছুটা চিন্তা-করতে হয়।

গত কয়েক বছর ধরে ক্যাটরিনার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ২২৪ কোটি রুপি। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৯৫ কোটি টাকারও বেশি। ক্যাটরিনা বার্ষিক যত অর্থ আয় করেন, তার বেশির ভাগেরই উৎস সিনেমা। কিন্তু সেটিও একমাত্র নয়। অভিনয় ছাড়া আরও ক্যাটরিনা অনেক কাজ করেন। যেখান থেকেও তিনি বিপুল পরিমাণ আয় করেন।

ক্যাটরিনার প্রসাধনী প্রতিষ্ঠান কে বিউটির কথা অনেকেরই জানা। এ প্রতিষ্ঠানটি ২০১৯ সালে প্রথম বাজারে তাদের কার্যক্রম শুরু করেন। ২০২২ সালের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মাত্র তিন বছরের মধ্যেই ১০০ কোটি রুপি অর্থ আয় করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ক্যাটরিনা নিজের প্রতিষ্ঠান বাদ দিয়েও সম্প্রতি অন্য একটি সংস্থায় বিনিয়োগ করেছেন। সেখান থেকেও বছরে বিপুল পরিমাণ অর্থ তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা হয়। এ ছাড়া ইনস্টাগ্রামে অন্যান্য সংস্থার হয়ে প্রচারও করেন ক্যাটরিনা।

প্রচারণামূলক কাজের জন্য ৮০ লাখ থেকে ১ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন ক্যাটরিনা। বেশ কিছু বড় প্রতিষ্ঠানের মডেল হিসেবে ক্যাটরিনা কাইফ কাজ করছেন। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান থেকে বছরে ৬ থেকে ৭ কোটি রুপি পান তিনি।

নিউজ ট্যাগ: ক্যাটরিনা কাইফ

আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সন্তান নিলেই মিলবে ৮২ লাখ টাকা

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

একটি সন্তান নিলেই মিলবে ৭৫ হাজার ডলার বা ৮২ লাখ ১২ হাজার টাকার বেশি। এমন আকর্ষণীয় সুযোগ দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি কোম্পানি। মূলত দেশটির জন্মহার অস্বাভাবিকভাবে কমে যাওয়ায় দম্পতিদের বাচ্চা নিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটি।

সিউলভিত্তিক এই কনস্ট্রাকশন কোম্পানিটির নাম বুইয়ং গ্রুপ। গত সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, তাদের কোনো কর্মীর একটি বাচ্চা হলেই তাকে ১০ কোটি কোরিয়ান ওয়ন বা ৭৫ হাজার ডলার দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে তারা।

প্রতিষ্ঠানটির একজন মুখপাত্র মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে জানিয়েছে, পুরুষ ও নারী সব কর্মীর জন্যই এই সুবিধা প্রযোজ্য হবে।

স্ট্যাটিসটিকস কোরিয়া সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালে ফারটিলিটি বা উর্বরতার হারের দিক থেকে দক্ষিণ কোরিয়ায় বিশ্বের সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে, এটি ০.৭৮। এ অনুপাতে একজন নারী তাঁর জীবদ্দশায় গড়ে কতটি সন্তান ধারণ করবেন তা নির্দেশ করে। এটি ২০২৫ সাল নাগাদ ০.৬৫ এ নেমে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

বুইয়ং গ্রুপ ১৯৮৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং কোম্পানির ওয়েবসাইট অনুসারে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৭০ হাজারের বেশি বাড়ি তৈরি করেছে।

নিউজ ট্যাগ: দক্ষিণ কোরিয়া

আরও খবর



যথাসময়ে আইএমএফের ঋণের তৃতীয় কিস্তি পাওয়া যাবে: অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বা আইএমএফের দেয়া বেশিরভাগ টার্গেটই পূরণ করায় সংস্থাটির দেয়া ঋণের তৃতীয় কিস্তি বাংলাদেশ সময় মতোই পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের একথা বলেছেন তিনি। এর আগে বাংলাদেশে আইএমএফের  আবাসিক প্রতিনিধি জায়েন্দু দে এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার লিলি নিকলসের সঙ্গে বৈঠক করেন।

মাহমুদ আলী বলেন, আএমএফ যেসব টার্গেট দিয়েছিলো তার বেশিরভাগই আমরা পূরণ করতে পেরেছি। আইএমএফ এর পরীক্ষায় আমরা পাস করেছি। আরেকটা টিম আসবে। তৃতীয় কিস্তি ঋণের টাকাও যথাসময়ে পাওয়া যাবে, আশা প্রকাশ করেন অর্থমন্ত্রী।

আইএমএফের কাছ থেকে ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিচ্ছে বাংলাদেশ। ওই ঋণের প্রথম কিস্তির ৪৭ কোটি ৬২ লাখ ডলার বাংলাদেশ পায় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। আর ডিসেম্বরে আসে দ্বিতীয় কিস্তির ৬৮ কোটি ৯৮ লাখ ডলার।

এদিকে দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত বা মার্জ করার বিষয়ে একমত অর্থমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, দুর্বল ব্যাংককে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা ভালো। এ বিষয়ে আমাদের দুটি আইডিয়া আছে। দু-একটা ব্যাংক এমন আছে তারা একেবারেই কাজই করতে পারছে না। তাদের শক্তিশালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করাই ভালো।

দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সংস্কার করে সবল কোনো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর এই পদক্ষেপ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোকে প্রস্তুতও থাকতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

অর্থমন্ত্রী জানান, উন্নত অর্থনীতিতে দেশগুলোতে একীভূতকরণ অহরহই হচ্ছে। তবে এখানে তা করতে সময় দিতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তৎপরতা থাকলেও এই বিষয়ের বাস্তবায়ন সময় সাপেক্ষ। অর্থ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে এখনো উদ্যোগ নেয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


আরও খবর
এক মাসে রিজার্ভ বাড়ল ৬৩ কোটি ডলার

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




ছোট ছেলেকে নিয়ে অপরাধবোধে ভোগেন কারিনা

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

বলিউডের তারকা মায়েদের মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছেন কারিনা কাপুর। সম্প্রতি সাইফ-কারিনার ছোট ছেলে জাহাঙ্গীরের জন্মদিন পালন করা হয়। তিন বছর পূর্ণ করল সে। এই বিশেষ দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে আয়োজনে খামতি রাখেননি কারিনা। গোটা কাপুর পরিবার এবং শ্বশুরবাড়ির পরিবারের সকলকে নিয়ে বড়সড় পার্টি দিয়েছিলেন অভিনেত্রী। তিন বছরের জন্মদিন উপলক্ষে চুলে নতুন ছাঁট, নতুন জামা পরে সারাদিন হইহই করতে দেখা যায় ছোট্ট জেহকে। নানা রণধীর কাপুরের বাড়িতে জন্মদিনের আয়োজন করা হয়। সব কিছু ভালভাবে মিটলেও ছোট ছেলেকে নিয়ে মাঝে মধ্যেই অপরাধবোধে ভোগেন কারিনা।

বাবা-মা দু’জনই তারকা। তারা সব সময় কাছাকাছি থাকতে পারেন না। তাদের সঙ্গ ছাড়াই বড় হতে হবে, এসব বুঝে গেছে বড় ছেলে তৈমুর। সে তার বয়সের তুলনায় অনেকটা এগিয়ে, জানেন মা কারিনা কাপুর।

তিনি জানান, ছোট ছেলে জাহাঙ্গীরও এখন ভাইয়ের সঙ্গে থেকে থেকে অনেক কিছুই দ্রুত শিখছে। তবু জেহকে সময় দিতে না পারলে মনখারাপ হয় কারিনার।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানান, জেহের জীবনের প্রথম কনসার্টে থাকতে পারিনি। সে জন্য অপরাধবোধে ভুগী।

করিনার কথায়, জেহের যখন কনসার্ট ছিল, তখন একটা বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে আমি ব্যস্ত ছিলাম। সাইফ ব্যস্ত ছিল ওর পরবর্তী ছবির রিহার্সালে। তবু সেদিন সাইফই সামলান ছেলের কনসার্টের দিনটা।’

যদিও কারিনা জানান, এ বছর মিস করলেও পরের বছর ছেলের সঙ্গে ওর অনুষ্ঠান দেখতে যাবেন। কারণ এই অপরাধবোধ নিয়ে তিনি সারাজীবন থাকতে পারবেন না, এছাড়াও ছেলের জীবনের আনন্দের মুহূর্তগুলোর সাক্ষী থাকতে চান কারিনা।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ট্রাম্পের কাছে ‘ঘরের মাঠেও’ হারলেন নিকি হেইলি

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থিতার দৌড়ে নিজের জন্মস্থান সাউথ ক্যারোলিনাতেও ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে হেরেছেন নিকি হেইলি। এর ফলে আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার প্রতিযোগিতায় আরও এগিয়ে গেলেন ট্রাম্প।

এর আগের চারটি অঙ্গরাজ্যে অনুষ্ঠিত রিপাবলিকান পার্টির প্রাথমিক প্রার্থী নির্বাচনেও বড় জয় পেয়েছিলেন ৭৭ বছর বয়সী এ নেতা।

ট্রাম্পের মানসিক সুস্থতা নিয়ে প্রশ্ন ও তিনি ফের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে যুক্তরাষ্ট্রে অরাজকতা সৃষ্টি হবে দাবি করে জোরালো প্রচারণা চালিয়েছিলেন নিকি হেইলি। কিন্তু তার সেসব দাবি যে রিপাবলিকান শিবিরে খুব একটা প্রভাব ফেলতে পারেনি, তা প্রাথমিক ভোটের ফলাফলেই স্পষ্ট।

তাৎক্ষণিকভাবে সাউথ ক্যারোলিনায় ট্রাম্পের জয় ব্যবধান জানা যায়নি। তবে সেটি বেশ বড় হবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে। ২০১০র দশকে সাউথ ক্যারোলিনার গভর্নর হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন নিকি হেইলি। রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে অংশ নেওয়া একমাত্র নারীও তিনি।

অন্যান্য অঙ্গরাজ্যে হারলেও নিজের ঘরের মাঠ সাউথ ক্যারোলিনায় জেতার আশা করেছিলেন নিকি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ট্রাম্পের ডানপন্থি আমেরিকা ফার্স্ট ব্র্যান্ডের জনপ্রিয়তার সামনে দাঁড়াতে পারলেন না তিনি।

ট্রাম্প এর আগে আইওয়ায় ৩০ পয়েন্টে এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারে ১০ পয়েন্টের ব্যবধানে জিতেছেন। নেভাদায় জয়ী হয়েছেন একেবারে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায়। জয় পেয়েছেন ভার্জিন আইল্যান্ডের নির্বাচনেও।

বিশ্লেষকদের ধারণা, সাউথ ক্যারোলিনায় অন্তত ১৫ পয়েন্টের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন ট্রাম্প।


আরও খবর



অনুপ্রবেশকালে ৯ রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠাল বিজিবি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোহাম্মদ ফারুক, কক্সবাজার

Image

মিয়ানমারের রাখাইন ছেড়ে নাফ নদ পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে রোহিঙ্গাদের একটি হস্তচালিত নৌকা প্রতিহত করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ সংলগ্ন নাফ নদের মাঝপথে নৌকাটি বাধা দেয় বিজিবি।

টেকনাফ-২ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

টেকনাফ-২ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জান্তা ও বিদ্রোহীদের মধ্যে চলমান সংঘাতের রেশ বাংলাদেশ সীমান্তে কমে এসেছে। গত তিন দিন কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার দক্ষিণ-পূর্ব সীমান্তের লোকজন স্বস্তিতে রয়েছেন। এরই মধ্যে আজ নৌকায় ৯ জন রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে তাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে।

শাহপরীর দ্বীপের বাসিন্দা মোহাম্মদ মাসুদ বলেন, সকালে মিয়ানমারের দিক থেকে একটি নৌকা নাফ নদ দিয়ে শাহপরীর দ্বীপ আসতে দেখি। পরে নাফ নদে ইঞ্জিনচালিত নৌকায় টহলরত বিজিবির টহলদল নাফ নদের মাঝখানে নৌকাটিকে বাঁধা দেয়। কিছুক্ষণ পর নৌকাটি মিয়ানমারের দিকে ফিরে যায়। বেড়িবাঁধে দাঁড়িয়ে নৌকায় কিছু লোকজন দেখেছি। সম্ভবত তারা রোহিঙ্গা হতে পারে।

এদিকে আজ টেকনাফ সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের রাখাইনে গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়নি। এ নিয়ে পাঁচদিন সীমান্তে মর্টার শেল ও গোলাগুলি বন্ধ রয়েছে। মর্টার ও গুলির শব্দ না থাকায় সীমান্তে স্বাভাবিকতা ফিরে এসেছে। স্থানীয় লোকজন কোন ধরনের ভয় ও আতঙ্ক ছাড়াই নিজেদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।


আরও খবর