আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে বৃদ্ধ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহীতে সাত বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী অভিযুক্ত কবির হোসেনকে (৬০) আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এ ঘটনায় আজ সোমবার শিশুটির বাবা অভিযুক্ত কবির হোসেনের বিরুদ্ধে নগরীর রাজপাড়া থানায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগের একটি মামলা করেন।

জানা যায়, অভিযুক্ত কবিরের বাড়ি নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকায়। রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম কবিরের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম এজাহারের বরাত দিয়ে বলেন, 'গতকাল রোববার বিকেলে কবির হোসেন প্রতিবেশী এক শিশুকে বরই দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়িতে নিয়ে যান। এরপর টাকার লোভ দেখিয়ে ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় শিশুটি কান্নাকাটিতে কবির হোসেন তাকে ছেড়ে দেন। পরে মেয়েটি বাড়ি গিয়ে তার বাবা-মাকে ঘটনার কথা জানায়।

এ ঘটনা জানাজানি হলে কয়েকজন এলাকাবাসী কবিরকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁকে থানায় আসেন। এ নিয়ে পরদিন সকালে ভুক্তভোগী শিশুর বাবা থানায় মামলা করেন। আজ দুপুরে কবির হোসেনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।'


আরও খবর



পশুখাদ্যে ভেজালরোধে ডিসিদের সতর্ক থাকার নির্দেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ৬৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পশুখাদ্যে কেউ যাতে ভেজাল দিতে না পারে সেজন্য জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন মৎস ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসক সম্মেলনে তৃতীয় দিনের দ্বিতীয় অধিবেশনে মৎস ও প্রাণিসম্পদ, নৌপরিবহন ও পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মন্ত্রী এ কথা বলেন।

রেজাউল করিম বলেন, জেলা প্রশাসকদের মন্ত্রণালয়ের অধীনস্ত দপ্তর সংস্থাসমূহে সহযোগিতার জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানিয়েছি। পাশাপাশি বাংলাদেশের প্রান্তিক সীমা থেকে শুরু করে ক্যাপিটাল পর্যন্ত আমাদের মাছ মাংস দুধ, ডিম উৎপাদন, বিপণন প্রক্রিয়ায় প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে যতো কর্মকাণ্ড আছে সেই কর্মকাণ্ডে তাদের দেখভাল করা, তদারকি করার অনুরোধ করেছি।

তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প যাতে যথাযথ বাস্তবায়ন হয়, কোন প্রকল্পের অর্থ অপব্যবহার না হয় সেজন্য তাদের অনুরোধ করেছি। কারেন্ট জাল বা অন্যান্য জাল দিয়ে মাছ ধরা অথবা পশুখাদ্যে ভেজাল যাতে কেউ দিতে না পারে, মৎস উৎপাদন ও পরিবহনের ক্ষেত্রে সরকারের যেসকল পরিকল্পনা আছে সেগুলো বাস্তবায়নে প্রশাসন যাতে সহায়তা করে সে বিষয়গুলোর প্রতি তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ মাছ, মাংস, দুধ, ডিম উৎপাদনে একটা বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে। এই ধারাবাহিকতা যাতে অব্যাহত রাখা যায় সেক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসনের সকল প্রকার সহযোগিতার জন্য আমরা আশাবাদ ব্যক্ত করেছি। আমাদের মৌলিক জায়গা হচ্ছে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে মিঠাপানির মাছে তৃতীয় স্থানে, ইলিশ উৎপাদনে বিশ্বের বিস্ময় সৃস্টি করে সর্বোচ্চ উৎপাদনে। যেসকল মাছগুলো হারিয়ে গিয়েছিলো আমরা কৃত্রিম প্রজননের প্রক্রিয়ার মধ্য থেকে সেই মাছগুলোকে আমরা ফিরিয়ে এনেছি। এই বিস্ময়কর সাফল্যের জায়গাটা যাতে আমরা ধরে রাখতে পারি সেক্ষেত্রে প্রশাসন যাতে সহায়তা করে সেবিষয়গুলো আমরা তাদের দৃষ্টিতে এনেছি।

মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী আরও বলেন, জেলা প্রশাসকদের কিছু প্রস্তাব ছিল। সমুদ্র উপকূলীয়বর্তী এলাকায় যেসব ভেসেজগুলোতে লাইসেন্স জরুরি না সেগুলোকে কিভাবে ডিমার্ক করা যায়, আমরা সেখানে বলেছি বাংলাদেশি সিম্বল দিয়ে আমরা তাদের ডিমার্ক করব। কোন কোন এলাকায় আধুনিক শুটকি পল্লী করা যায় কি না সে প্রস্তাব ছিল, আমরা বলেছি অবশ্যই করা যাবে। কোন কোন এলাকায় নতুন করে কোন উদ্যোগ নেয়া যায় কি না বা যেসকল এলাকায় কোন কাজ চলছে তার ধরন পরিবর্তন করা যায় কি না, প্রশাসনকে কিভাবে সম্পৃক্ত করা যায় সে বিষয়গুলোতে আমরা বলেছি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে কো-অপারেশনন থাকবে।

নিউজ ট্যাগ: শ ম রেজাউল করিম

আরও খবর



বুধবার থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারের জারি করা নতুন বিধিনিষেধে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে ট্রেন চলাচলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশ অনুযায়ী বুধবার (১২ জানুয়ারি) থেকে ট্রেনের মোট আসনের অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে বাংলাদেশ রেলওয়ের উপপরিচালক (টিসি) মো. নাহিদ হাসান খান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

রেলওয়ে জানিয়েছে, ৫০ শতাংশের অর্ধেক টিকিট কাউন্টারে এবং অর্ধেক টিকিট অনলাইনে বিক্রি করা হবে। আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাসজনিত রোগের বিস্তাররোধে সার্বিক কার্যাবলি/চলাচলে সরকার কর্তৃক বিধিনিষেধ আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রজ্ঞাপনে ট্রেন, বাস ও লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে মর্মে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

এমতাবস্থায় যাত্রীবাহী ট্রেন পরিচালনার ক্ষেত্রে রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে শারীরিক দূরত্ব ও মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রয়ে নিম্নে বর্ণিত সংশোধনী আনা হলো।

১. যাত্রীদের সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করণার্থে আন্তঃনগর ট্রেনসমূহের বিদ্যমান আসনসংখ্যার অর্ধেক

টিকিট ইস্যুকরণ।

২.  হ্রাসকৃত আসনসংখ্যার অর্ধেক (অর্থাৎ মোট আসনসংখ্যার ২৫%) টিকিট কাউন্টারের মাধ্যমে এবং বাকি অর্ধেক

আসনের (অর্থাৎ মোট আসনসংখ্যার ২৫%) টিকিট মোবাইল অ্যাপ/অনলাইনের মাধ্যমে ইস্যু করা।

৩. আন্তঃনগর ট্রেনসমূহের স্ট্যান্ডিং টিকিট ও স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম টিকিট ইস্যু সম্পূর্ণরূপে বন্ধ থাকবে।

৪. ইতিপূর্বে রেলপথ মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত ইমার্জন্সি কোটা ও আন্তঃনগর ট্রেন ম্যানুয়াল অনুযায়ী পাস কোটা ব্যতীত আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রয়ে বিদ্যমান সকল প্রকার কোটা ব্যবস্থা রহিত করা।

৫. কাউন্টারে টিকিট ইস্যু ও ট্রেনে ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাত্রীর মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে হবে।

৬. প্রচলিত নিয়মানুযায়ী ও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে প্রতিপালনপূর্বক আন্তঃনগর ট্রেনে ক্যাটারিং সেবা প্রদান ও ট্রেনে রাত্রিকালীন বেডিং সরবরাহ করতে হবে।

টিকিট ইস্যুর উপরিল্লিখিত সংশোধনীসমূহ আগামী ১৫ জানুয়ারি (যাত্রার তারিখ বিবেচনায়) থেকে কার্যকর হবে। এক্ষেত্রে সময়ে সময়ে জারিকৃত টিকিট ইস্যু এবং স্বাস্থ্যবিধি পরিপালন করার অন্যান্য নিয়মাবলি অপরিবর্তিত থাকবে।

এর আগে মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ রোধে ১১টি বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। সোমবার (১০ জানুয়ারি) এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এ ১১ দফা নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ট্রেন, বাস এবং লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক সংখ্যক যাত্রী নেওয়া যাবে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কার্যকারিতার তারিখসহ সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা জারি করবে। সর্বপ্রকার যানের চালক ও সহকারীদের আবশ্যিকভাবে কোভিড-১৯ টিকা সনদধারী হতে হবে।


আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আরও ৪ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২৮ হাজার ৬০ জনে।

রোববার স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ২৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। দেশে বর্তমানে মোট শনাক্ত রোগী ১৫ লাখ ৮৩ হাজার ২৫৩ জন।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। চলতি বছরের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বোচ্চ ২৬৪ জনের মৃত্যু হয়।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় চলতি বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

চলতি বছরের গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এরপর বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়।

এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।

২০২০ সালের এপ্রিলের পর চলতি বছরের ১৯ নভেম্বর প্রথম করোনাভাইরাস মহামারিতে মৃত্যুহীন দিন পার করে বাংলাদেশ।সর্বশেষ দ্বিতীয়বারের মতো ৯ ডিসেম্বর মৃত্যুশূন্য দিন পার করেছে দেশ।

 


আরও খবর



উখিয়ায় ৫ লাখ ইয়াবাসহ রোহিঙ্গা যুবক আটক

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের উখিয়ায় ৫ লাখ পিস ইয়াবাসহ সৈয়দুল আমিন (২৩) নামের এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে র‌্যাব। সোমবার সকালে এক প্রেস বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১৫ সিনিয়র সহকারী পরিচালক (ল এন্ড মিডিয়া) এএসপি আবু সালাম চৌধুরী। এর আগে রোববার (৯ জানুয়ারি) রাতে কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী এলাকা থেকে ইয়াবাসহ তাকে আটক করা হয়। আটক সৈয়দুল আমিন (২৩) বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লক-বি/৭৪-এর মো. আমিনের ছেলে।

এএসপি আবু সালাম চৌধুরী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি দল ওই এলাকায় অভিযানে যায়। এ সময় এক ব্যক্তিকে বস্তা নিয়ে ব্রিজের নিচ দিয়ে পার হতে দেখে থামতে বলা হয়। তখন সে বস্তা ফেলে দৌড় দেয়। এসময় ধাওয়া দিয়ে তাকে আটক ও বস্তাগুলো জব্দ করা হয়। বস্তায় ৫ লাখ ইয়াবা পাওয়া যায়। এসময় একটি ইজিবাইকও জব্দ করে র‌্যাব।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইয়াবা পাচারের সঙ্গে তিনিসহ আরও একটি গ্রুপ সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করেছে সে। আটক রোহিঙ্গা যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর উখিয়া থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

নিউজ ট্যাগ: রোহিঙ্গা আটক

আরও খবর



দেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুহার বাড়ছে

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার ২ শতাংশের নিচে ছিল। কখনও কখনও তা ছিল ১ শতাংশের কাছাকাছি। কিন্তু ২১ ডিসেম্বর থেকে ক্রমেই সংক্রমণের হার বেড়ে বর্তমানে দুই দশমিক ৭৮ পর্যন্ত বেড়েছে

দেশে বেড়েছে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুহার। গত এক সপ্তাহে আগের সপ্তাহের তুলনায় নতুন রোগী শনাক্ত বেড়েছে ৬০ শতাংশ এবং মৃত্যু ১৫০ শতাংশ।

রোববার (২ জানুয়ারি) দুপুরে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চুয়াল বুলেটিনে এ কথা জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডিরেক্টর (অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. মো. রোবেদ আমিন বলেন, গত এক সপ্তাহে এক লাখ ৩০ হাজার ৭৪৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, যা আগের সপ্তাহের তুলনায় ২০ শতাংশ বেশি। এছাড়া গত এক সপ্তাহে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে দুই হাজার ৯২৪ জন। এর আগের সপ্তাহের তুলনায় শনাক্ত রোগী ৬০ শতাংশ বেড়েছে।

গত সপ্তাহের তুলনায় সর্বশেষ সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১২ জন বেশি মারা গেছেন। অর্থাৎ মৃত্যুহার ১৫০ শতাংশ বেশি। ২৬ ডিসেম্বর করোনায় আক্রান্তের হার ছিল ২ শতাংশের কম। ৩১ ডিসেম্বর এ হার বেড়ে দুই দশমিক ৭৪ শতাংশ হয়েছে।

ডা. মো. রোবেদ আমিন বলেন, ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার ২ শতাংশের নিচে ছিল। কখনও কখনও তা ছিল ১ শতাংশের কাছাকাছি। কিন্তু ২১ ডিসেম্বর থেকে ক্রমেই সংক্রমণের হার বেড়ে বর্তমানে দুই দশমিক ৭৮ পর্যন্ত বেড়েছে।

বলা যায়, বেশ কিছুদিন করোনা সংক্রমণ স্থিতিশীল থেকে তা আবার বাড়ছে। নভেম্বর মাসে শনাক্ত হওয়া করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল ছয় হাজার ৭৪৫ জন। ডিসেম্বর মাসে তা নয় হাজার ২৫৫ জনে বেড়েছে।

করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই বলে অভিমত অধ্যাপক ডা. মো. রোবেদ আমিনের।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৮২৮

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২