আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

সোনারগাঁয়ে ট্রাকের ধাক্কায় ২ সবজি ব্যবসায়ী নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার দড়িকান্দী এলাকায় ট্রাকের ধাক্কায় সবজিভর্তি পিকআপভ্যানে থাকা দুই ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

শনিবার ভোরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের আমদী গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে কবির হোসেন (৩৮) ও নাজিরপুর এলাকার রিয়াদ হোসেনের ছেলে আমির মিয়া (৪৪)।

আহত হলেন- একই এলাকার খলিল মিয়া ও আল আমিন নামে অপর দুই সবজি ব্যবসায়ী।

কাচঁপুর হাইওয়ে থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, শনিবার ভোরে একটি পিকআপভ্যানে করে সবজি নিয়ে ঢাকার যাত্রাবাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হন চার সবজি ব্যবসায়ী।

উপজেলার দড়িকান্দী এলাকায় মহাসড়কে উঠার সময় চট্টগ্রামগামী একটি দ্রুতগতির ট্রাক পিকাপভ্যানকে ধাক্কা দিলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ট্রাকটিকে শনাক্ত করে চালককে আটক করার জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।


আরও খবর



মামুনুলকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে ডিবি

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মোহাম্মদপুর থানায় গত বছর দায়ের করা একটি মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারীর আদালতে রিমান্ড শুনানি হবে

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে আদালতে তোলা হয়েছে। সোমবার (১৯ এপ্রিল) সকাল সোয়া ১১টার দিকে মামুনুলকে নিয়ে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) গাড়ি আদালত চত্বরে পৌঁছায়।

মোহাম্মদপুর থানায় গত বছর দায়ের করা একটি মামলায় তার সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারীর আদালতে রিমান্ড শুনানি হবে। 

এদিকে, এজন্য জোরদার করা হয়েছে আদালত এলাকায় নিরাপত্তা। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত চত্বরে প্রবেশে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে। আর সিএমএম আদালতের মূল ফটক পুলিশ ঘিরে রেখেছে। এ ভবনে কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। 

সিএমএম কোর্ট হাজতের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম জানান, যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে আমরা তৎপর আছি।

এর আগে মোহাম্মদপুর থানা সূত্র জানায়, মামুনুলের সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ জানান, ২০২০ সালে মোহাম্মদপুর থানায় দায়েরকৃত একটি হামলা ও নাশকতার মামলায় মামুনুলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই মামলায় অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠানো হচ্ছে। সোমবার সকাল ১১টার দিকে ডিবি কার্যালয় থেকে পুলিশ তাকে নিয়ে আদালতে দিকে রওনা হয়।

রবিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া মাদ্রাসা থেকে মামুনুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ।


আরও খবর



স্পিডবোট দুর্ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা নদীতে বালু বোঝাই বাল্কহেড ও স্পিড বোটের সংঘর্ষের ঘটনায় ২৬ জন নিহতের ঘটনায় ৬ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। স্থানীয় সরকার অধিদফতরের উপপরিচালক আজহারুল ইসলামকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন।

সোমবার (৩ মে) ভোরে বাংলাবাজার ঘাট এলাকায় থাকা বালুবোঝাই বাল্কহেডের সঙ্গে স্পিডবোটের ধাক্কায় ২৬ জন যাত্রী নিহত হন। এ দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের উদ্ধারে অভিযান চালাচ্ছে নৌপুলিশ।

একই সঙ্গে আগামী ৩ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া নিহতের প্রত্যেকের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেওয়া ঘোষণা দিয়েছে জেলা প্রশাসক ডা. রহিমা খাতুন।

এ বিষয়ে বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ট্রাফিক পরিদর্শক আশিকুর রহমান জানান, ভোরে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া থেকে ৩০ থেকে ৩৫ জন যাত্রী নিয়ে মাদারীপুরের শিবচরের বাংলাবাজারের দিকে আসছিল স্পিডবোটটি। ঘাটের কাছাকাছি এলে নোঙর করা বালুবোঝাই একটি বাল্কহেডে ধাক্কা দিয়ে স্পিডবোটটি উল্টে যায়। পরে সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও নৌপুলিশ উদ্ধার অভিযান শুরু করে।


আরও খবর



নেত্রকোণায় করোনা প্রতিরোধে শিল্পীদের অংশগ্রহণে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ৯২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নেত্রকোণা থেকে মোনায়েম খান

নিজে সুস্থ থাকি, অন্যকে সুস্থ রাখি এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সুযোগ্য জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমানের নেতৃত্বে নেত্রকোণা জেলা শহরে শিল্পীদের অংশগ্রহণে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারণার উদ্বোধন করা হয়।

জনস্বার্থে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শনিবার বেলা ১১ঘটিকার সময় জেলা শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনের সড়কে জনউদ্যোগ ও উদীচির সহযোগিতায় জনসচেতনতামূলক প্রচারণায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক কাজি মোঃ আব্দুর রহমান।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদা আক্তার, শিল্পকলা একাডেমির কালচারাল অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন, জনউদ্যোগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সাবেক সম্পাদক ও জনউদ্যোগ নেত্রকোণা সম্মানিত ফেলো শ্যামলেন্দু পাল, উদিচীর সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অসিত কুমার ঘোষ, সাংবাদিক সঞ্জয় সরকারসহ জেলার সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও জেলায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় নেত্রকোণা সহ সারাদেশের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান। ও করোনা সচেতনতায় মাক্স ও লিপলেট  বিতরণ করা হয়। শেষে করোনা মোকাবেলায় উদীচির শিল্পীদের সাংস্কৃতিক উনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করা হয়।


আরও খবর



নজরদারিতে রয়েছেন বাবুনগরী: প্রমাণ মিললেই গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | ১৩৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
রাষ্ট্রবিরোধী কাজে উসকানির অভিযোগে হেফাজতের ১৯৪ জন নেতার তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন জুনাইদ বাবুনগরী। তবে আপাতত তাঁকে নজরদারিতে রেখে বাকিদের গ্রেপ্তারে

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের বিরোধিতা করে চালানো তাণ্ডবের ঘটনায় সরকারের কঠোর অবস্থানে বিপাকে পড়েছে হেফাজতে ইসলাম। রাষ্ট্রবিরোধী উসকানি ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং সহিংসতাসহ বিভিন্ন অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় এরই মধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছেন হেফাজতের শীর্ষ পর্যায়ের বেশ কয়েকজন নেতা। এদের মধ্যে অন্তত ৩২ জন কেন্দ্রীয় নেতা রয়েছেন। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে গ্রেপ্তার হয়েছেন আরো অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী। গ্রেপ্তার আতঙ্কে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকা নেতারা।

সম্প্রতি গোয়েন্দা পুলিশের হাতে আটক হওয়া হেফাজতের হেভিওয়েট নেতাদের মধ্যে আছেন নারীকাণ্ডে বিতর্কিত মাওলানা মামুনুল হক, আজিজুল হক ইসলামাবাদী, ইলিয়াস হামিদী, ওয়াসেক বিল্লাহ নোমানী, লোকমান হোসেন আমিনী, শাখাওয়াত হোসাইন রাজী, মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মুফতি বশির উল্লাহ, মাওলানা জুবায়ের, মাওলানা জালাল উদ্দিন ও জুনায়েদ আল হাবীব। এসব নেতাই হেফাজতের মূল নিয়ন্ত্রক ছিলেন বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দারা।

বাবুনগরীও কি গ্রেপ্তার হবেন?

একের পর এক কেন্দ্রীয় নেতা গ্রেপ্তারের ঘটনার মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে তবে কি হেফাজত আমির মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরীকেও গ্রেপ্তার করা হবে নাকি এই যাত্রায় রক্ষা পাবেন?

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক সংস্থার সংগে যোগাযোগ করে জানা গেছে, আপাতত জুনাইদ বাবুনগরীকে গ্রেপ্তারের সম্ভাবনা কম। তবে তিনি নজরদারিতে রয়েছেন। শীর্ষ নেতাদের গ্রেপ্তারে অনেকটা কোণঠাসা হয়ে পড়েছেন বাবুনগরী। হেফাজতের আরো যেসব নেতাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে তাঁরা গ্রেপ্তার হলে তিনি জিম্মি পরিস্থিতিতে পড়ে যাবেন। ফলে তাঁকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে সেভাবে ভাবছে না গোয়েন্দা পুলিশ।

গোয়েন্দা সংস্থার অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে, রাষ্ট্রবিরোধী কাজে উসকানির অভিযোগে হেফাজতের ১৯৪ জন নেতার তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তালিকায় প্রথমেই রয়েছেন জুনাইদ বাবুনগরী। তবে আপাতত তাঁকে নজরদারিতে রেখে বাকিদের গ্রেপ্তারে জোর দিচ্ছেন গোয়েন্দা পুলিশসহ অন্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

সূত্রটি আরো বলছে, জুনাইদ বাবুনগরীকে গ্রেপ্তারের মতো পর্যাপ্ত তথ্যপ্রমাণ এখনও হাতে আসেনি। তবে অনুসন্ধান অব্যাহত রয়েছে।

অন্য একটি গোয়েন্দা সূত্র বলছে, ২০১৩ সালে হেফাজতকাণ্ডে দায়েরকৃত মামলার আসামি জুনাইদ বাবুনগরী। সম্প্রতি দায়েরকৃত মামলাগুলোতেও তাঁকে অভিযুক্ত করা হচ্ছে। কিন্তু রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপের যেসব অভিযোগ তাঁর বিরুদ্ধে আনা হচ্ছে, সেগুলোর শক্ত কোনো প্রমাণ এখনও সংগ্রহে করতে পারেননি তদন্তকারীরা।

পরিচয় প্রকাশে অনিচ্ছুক ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের ঊর্ধ্বতন একজন কর্মকর্তা বলেন, সম্প্রতি হেফাজতের মামুনুল হকসহ যেসব নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাঁদের জবানবন্দিতে রাষ্ট্রবিরোধী যেসব কর্মকাণ্ডের তথ্য উঠে এসেছে তাতে বাবুনগরীর জড়িত থাকার বিষয়ে সুস্পষ্ট প্রমাণ মিলছে না। তবু তদন্ত অব্যাহত রেখেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

তিনি আরো বলেন, মূলত বর্তমানে যেসব হেফাজত নেতা গ্রেপ্তার হয়েছেন এবং যাদের বাবুনগরীপন্থী হিসেবে বিবেচনা করা হয়, তাঁদের অনেকেই বাবুনগরীর কমান্ড মানতেন না। বিশেষ করে মামুনুল হক বাবুনগরীর সিদ্ধান্ত সব সময় উপেক্ষা করতেন। সম্প্রতি জবানবন্দিতেও তিনি এসব বিষয়ে স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন। একই সঙ্গে অন্য যারা গ্রেপ্তার হয়েছেন তাঁদের জবানবন্দিতেও এটি স্পষ্ট নয় যে, বাবুনগরী নাশকতার কোনো নির্দেশনা বা উসকানি দিয়েছেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, জুনাইদ বাবুনগরীর বিরুদ্ধেও মামলা রয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধেও আমাদের তদন্ত অব্যাহত আছে। তদন্তে নাশকতা কিংবা রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকাণ্ডের প্রমাণ মিললে অবশ্যই তাঁকেও গ্রেপ্তার করা হবে। তিনি আমাদের নজরদারির বাইরে নন।


আরও খবর



কক্সবাজার থেকে মালয়েশিয়াগামী ৩০ রোহিঙ্গা উদ্ধার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের টেকনাফের উপকূল থেকে ভাসমান অবস্থায় মালয়েশিয়াগামী ৩০ রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুকে উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড। মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) সকালে টেকনাফের উপকূলীয় ইউনিয়ন বাহারছড়ার বড় ডেইল সৈকত থেকে উদ্ধার করা হয় তাদের। এদের মধ্যে পুরুষ ৫ জন, নারী ২০ জন ও শিশু রয়েছে ৫ জন। এ সময় পাচারে জড়িত ট্রলারটিও জব্দ করা হয়।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. কমান্ডার আমিরুল হক বলেন, উদ্ধারকৃত রোহিঙ্গারা গত ২৩ এপ্রিল বাহারছড়া মেরিন ড্রাইভ এলাকার বড়ডেল ঘাট থেকে একটি নৌকায় করে মালয়েশিয়া যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। গত ২৫ এপ্রিল রাতে সমুদ্রে অবস্থানকালীন সময় ডাকাতদের কবলে পড়ে তারা। ডাকাতরা মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায় এবং নৌকার ইঞ্জিন বিকল করে দেয়। নৌকাটি নিয়ন্ত্রণহীনভাবে সমুদ্রে ভাসতে থাকে। এই খবরের ভিত্তিতে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড স্টেশন বাহারছড়ার উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে যায় এবং রোহিঙ্গাদের অবস্থায় উদ্ধার করে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা জানিয়েছে দালালের মাধ্যমে মালয়েশিয়া রওনা হয়েছিল তারা। প্রকৃত দালালের নাম কেউ বলতে পারেনি। রোহিঙ্গা শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের সঙ্গে সমন্বয় করে তাদের স্ব স্ব রোহিঙ্গা ক্যাম্পে প্রেরণের প্রক্রিয়া চলছে।


আরও খবর