আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

সওজের প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট থাকার অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৭১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার বিরুদ্ধে ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় সংসদের সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে গতকাল এই অভিযোগ করেন কমিটির একজন সদস্য।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ সময় সভায় উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে অভিযোগের তদন্ত প্রতিবেদন কমিটির আগামী সভায় উপস্থাপনের জন্য সুপারিশ করা হয়।

জানতে চাইলে সংসদীয় কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন বলেন, ওই কর্মকর্তা বিভাগের নিয়মনীতি মেনে চলেন না। শুনেছি, তিনি ভারতীয় পাসপোর্ট ব্যবহার করেন। এ অভিযোগের সত্যতা জানতে তাঁকে তলব করা হয়েছে।

কমিটির একজন সদস্য বলেন, কমিটির কাছে অভিযোগ আছে, কলকাতায় তুষার কান্তি সাহার বাড়ি-গাড়ি রয়েছে। তাঁর পরিবারের সদস্যরা সেখানেই থাকেন। তিনি সরকারি কাজে অবহেলা করে প্রায়ই ভারতে যান। এ সময় তিনি সরকারি পাসপোর্ট ব্যবহার করেন না।

কমিটির সদস্য সাংসদ এনামুল হক বলেন, অভিযোগ আছে, অনেকবার ভারত গিয়েছেন কোনো ভিসা ও পাসপোর্ট ছাড়া। তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগও রয়েছে। সভাপতি নির্দেশ দিয়েছেন, মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন তদন্ত কমিটি করতে।

সংসদীয় কমিটির অভিযোগ প্রসঙ্গে তুষার কান্তি সাহার মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে এসএমএস পাঠালেও তিনি কোনো উত্তর দেননি। তাঁর সিলেটের কার্যালয়ে গিয়ে সেখানেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।

সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের সিলেট জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি সাহার বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগসমূহ সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব বা অতিরিক্ত সচিবের মাধ্যমে পুনঃ তদন্তপূর্বক আগামী সভায় উপস্থাপনের জন্য কমিটি মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে।

সূত্র জানায়, পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব বাহিনীর মাধ্যমে সড়কের নিরাপত্তা দিতে বলছে সংসদীয় কমিটি। একই সঙ্গে কমিটি সব সেতুর টোল আদায়ে একটি একক সফটওয়্যার ব্যবহারের সুপারিশ করেছে।

নিউজ ট্যাগ: সওজ প্রকৌশলী

আরও খবর



তাইওয়ানের আকাশে রেকর্ড চীনা যুদ্ধবিমানের অনুপ্রবেশ

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৬৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তাইওয়ান-চীনের সামরিক উত্তেজনা তুঙ্গে। তাইওয়ানের বিমান প্রতিরক্ষা সীমানা লঙ্ঘন করেছে চীনের ৩৮টি যুদ্ধবিমান। যার ভেতর পারমাণবিক বোমা হামলায় সক্ষম ৪টি এইচ-৬ যুদ্ধবিমানও ছিল। চীনের এমন সামরিক উস্কানির জবাবে নিজেদের সীমান্তে ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে তাইওয়ান। শনিবার এ বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

শনিবার তাইওয়ানের প্রিমিয়ার তুস তুসেং চ্যাং অভিযোগ করেন, চীন নিবিড়ভাবে সামরিক আগ্রাসনে জড়িত। তারা এই অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতা নষ্ট করছে।  জঙ্গিবিমান অনুপ্রবেশের বিষয়ে বেইজিং এখনও কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রাণালয় বিবৃতিতে জানিয়েছে, শুক্রবার চীনের ২৫টি বিমান পারতাস দ্বীপপুঞ্জের কাছ দিয়ে উড়ে যায়। সন্ধ্যায় দ্বিতীয় দফায় ১৩টি বিমান একই জায়গায় দিয়ে মহড়া দেয়।

শুক্রবার (১ অক্টোবর) গণপ্রজাতন্ত্রী চীন প্রতিষ্ঠার ৭২তম বার্ষিকীতে নিজেদের জঙ্গিবিমান তাইওয়ানের সীমান্তে পাঠিয়ে সতর্কবার্তা দেয় দেশটি।

চীন তাইওয়ানকে একটি নিজেদের বিচ্ছিন্ন প্রদেশ হিসেবে দেখে, কিন্তু তাইওয়ান নিজেদের সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে দাবি করে আসছে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় নিজেদের সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করছে তাইওয়ান। কিন্তু চীনের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে হস্তক্ষেপ না করতে ওয়াশিংটন সতর্ক করে আসছে দেশটি।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অঞ্চলটিতে উত্তেজনা বেড়েছে এবং দ্বীপটিকে নিয়ন্ত্রণে পেতে শক্তি ব্যবহারের হুঁশিয়ারিও দিয়েছে চীন। প্রায় সময় চীনের যুদ্ধবিমান তাইওয়ানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করছে, এমন অভিযোগ  তাইপের।


আরও খবর



গৃহবধূকে ধর্ষণ মামলায় ২ আসামির যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৫৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণ মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এসময় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারদণ্ডও দেয়া হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টা ১০ মিনিটে নোয়াখালীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক জয়নাল আবেদীন মামলার রায় ঘোষণা করেন।

এর আগে দুই আসামিকে ব্যাপক নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- দেলোয়ার হোসেন দেলু ও তার সহযোগী মোহাম্মদ আলী প্রকাশ আবুল কালাম। এদিকে রায়কে ঘিরে সকাল থেকে আদালত প্রাঙ্গণে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পরিদর্শক মো. শাহ আলম।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ লাবলু জানান, আলোচিত গৃহবধূ ধর্ষণ মামলাটিতে আমরা বিজ্ঞ আদালতে সাক্ষী উপস্থাপন, জেরা ও জবানবন্দি সঠিকভাবে উপস্থাপন করতে সক্ষম হয়েছি। এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে ১২ ও আসামিপক্ষে তিনজন সাফাই সাক্ষী প্রদান করেন।

সূত্র আরও জানায়, গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় গত ২০২০ সালের ৬ অক্টোবর নির্যাতিতা ওই নারী বাদী হয়ে দেলোয়ার হোসেন ও আবু কালমকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। ওই মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) স্থানান্তর করা হয়।

প্রসঙ্গত গত ২০২০ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই নারীর আগের স্বামী তার সঙ্গে দেখা করতে তার বাবার বাড়ি একলাশপুর ইউনিয়নের জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে এসে তাদের ঘরে ঢুকেন। বিষয়টি দেখতে পায় স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী ও দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার হোসেন দেলু। রাত ১০টার দিকে দেলোয়ারের লোকজন ওই নারীর ঘরে প্রবেশ করে পরপুরুষের সঙ্গে অনৈতিক কাজ ও তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর শুরু করে।

একপর্যায়ে পিটিয়ে নারীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও ধারণ করে। এর আগে ওই গৃহবধূর ঘরে ও বিভিন্ন স্থানে নিয়ে দেলোয়ার তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। ওই বছরের ৪ অক্টোবর দুপুরে নির্যাতনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পরে এ ঘটনায় নির্যাতিতার দায়েরকৃত নির্যাতন, ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফী মামলা অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআইতে হস্তান্তর করা হয়।


আরও খবর



একদিনে কত রুপি পারিশ্রমিক নেন শাহরুখপুত্রের আইনজীবী?

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৬৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাদক মামলায় গ্রেফতার ছেলে আরিয়ানকে ছাড়িয়ে নিতে সব ধরনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খান। নিজের সব শুটিং বাতিল করে মুম্বাইয়ে চরকি পাক কাটছেন। নিয়োগ দিয়েছেন ভারতের সবচাইতে নামি আইনজীবী সতীশ মানেশিন্দেকে।  সতীশের ওপর বেশ ভরসা শাহরুখের। কারণ বলিউডে এই আইনজীবী সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়।

বলা হচ্ছে, এই সতীশ মানেশিন্দে নাকি প্রতিটি কেসের জন্য দিনপ্রতি ১০ লাখ রুপি পারিশ্রমিক নেন মক্কেলের কাছ থেকে। শাহরুখের কাছ থেকে এর থেকে বেশি বই কম নিচ্ছেন না।

এতো অর্থ পাওয়া আইনজীবী এখনবধি সফল হননি। ঠেকাতে পারেননি আরিয়ানের জেল। তিনবার জামিন আবেদন করেও হেরে গেছেন। নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর কর্মকর্তাদের (এনসিবি) বুদ্ধিমত্তার কাছে হার মানছেন বারংবার।

আদালতে যুক্তি-তর্ক পরিবেশন করেও জামিনে বের করতে পারেননি আরিয়ান খানকে। তবে শাহরুখ কেন এতো অর্থ দিয়ে সতীশকে নিযুক্ত করেছেন? 

এর একটাই কারণ সতীশ মানেশিন্দের আগের সব রেকর্ড দেখে মুগ্ধ শাহরুখ। এই সেই আইনজীবী যিনি বেশ কয়েক মাস আগে প্রয়াত সুশান্ত সিং রাজপুতের মামলায় অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে জামিন পাইয়ে দিয়েছিলেন এই এনসিবির সঙ্গে লড়েই ।

শাহরুখ-গৌরিসহ বলিউডের অনেকের বিশ্বাস মাদক মামলায় ফেঁসে যাওয়া আরিয়ান খানকেও ছাড়িয়ে আনবেন সতীশ।

কে এই সতীশ মানিশিন্দে?

ভারতের সংবাদমাধ্যমের খবর, কর্নাটকের ধারওয়াড়ের আদি বাসিন্দা সতীশ মানেশিন্দে ১৯৮৩ সালে মুম্বাই আসেন। সেই সময়ে ফৌজদারি মামলার হাইপ্রোফাইল আইনজীবী রাম জেঠমলানির জুনিয়র হিসেবে কাজ শুরু করেন সতীশ। টানা ১০ বছর তার নেতৃত্বে কাজ করার পর নিজেই চেম্বার দিয়ে বসেন।

বলিউডে সতীশের জনপ্রিয়তা বাড়ে ১৯৯৩ সালে। মুম্বাইয়ে ধারাবাহিক বোমা বিস্ফোরণ মামলায় বলিউড তারকা সঞ্জয় দত্তের হয়ে আদালতে দাঁড়ান সতীশ। সতীশের বুদ্ধিদ্বীপ্ত ওকালতিতেই বিস্ফোরণ মামলায় জামিন পেয়ে যান সঞ্জয়।

ওই মামলাটি ছিল সে সময় টক অব দ্য কান্ট্রি। তাতে সফলকাম হয়ে রাতারাতি খ্যাতির শীর্ষে পৌঁছান সতীশ। কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলায় বলি ভাইজান সালমান খানকে জামিন এনে দেন সতীশ।

২০০২ সালে এই নায়ককে গাড়ি চালিয়ে মানুষ হত্যার অভিযোগ থেকে রেহাই পাইয়ে দেন সতীশ। আর এ কারণেই বলিউডে তার দাম যেন আকাশছোঁয়া। তবে শাহরুখ তাকে প্রতিদিন কত দিচ্ছেন তা নিশ্চিত করতে পারেনি ভারতীয় গণমাধ্যম। সেটি যে ১০ লাখ রুপির কম নয় তা অবশ্য নিশ্চিত। কারণ গত বছর এক সাক্ষাৎকারে সতীশকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, শোনা যায় আপনার পারিশ্রমিক ১০ লাখ টাকা। এটা কি সত্যি?

সহাস্যে সতীশ জবাব দিয়েছিলেন, যে তথ্যের ওপর ভিত্তি করে আমার পারিশ্রমিক ১০ লাখ টাকা বলছেন, সেটা ১০ বছরের পুরনো কথা! এবার হিসাব করে নিন।


আরও খবর



মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে আনবে করোনার ট্যাবলেট

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | ৭০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুখে খাওয়ার করোনা ওষুধ তৈরি করে আলোড়ন তৈরি করেছে বহুজাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি মার্ক অ্যন্ড কোর। গবেষকরা বলছেন, মুখে খাওয়া এ ওষুধ হাসপাতালে ভর্তি ও মৃত্যুঝুঁকি অর্ধেকে আনবে। খবর সিএনএনের

শুক্রবার প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমন তথ্য জানানো হয়। অংশীদার রিজেবাকের সঙ্গে নিয়ে মার্ক অ্যন্ড কোর যুক্তরাষ্ট্রে এ ওষুধের জরুরি ব্যবহারের অনুমতি চাইবে।

শিগগিরই ওষুধটি বাজারে আনার চেষ্টা চালাচ্ছে বহুজাতিক ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলো।

অন্য দেশগুলোর কর্তৃপক্ষের কাছেও অনুমোদন চাওয়া হবে জানিয়ে মার্কের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রব ডেভিস বলেন, ট্রায়ালে ভালো ফল পেয়েছি। হাসপাতালে বা অন্য কোথাও যেতে হবে না। বাড়িতে বসে এই ট্যাবলেট খাওয়া যাবে।

আগামী নভেম্বরে ক্লিনিকাল ট্রায়াল শেষ হবে বলে আশা প্রকাশ করে ডেভিস জানান, ট্রায়ালে আগস্টের শুরু থেকে ৭৭৫ জন রোগীর ওপর এ গবেষণাটি চালানো হচ্ছে। এটি অধিকতর গবেষণার জন্য আরও ১৫৫০ জনকে অন্তর্ভূক্ত করতে চায় এবং এরই মধ্যে ৯০ শতাংশ রাজি হয়েছেন।

বিবৃতিতে ডেভিস আরও দাবি করেন, করোনার নতুন এ ওষুধটি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রেও কার্যকর।

গবেষণা শেষে স্বাধীন কমিটির অনুমোদনের পর এবং এফডিএর সঙ্গে সমন্বয় করে এটি বাজারে আনার কথাও জানান তিনি।

অপরদিকে মার্কের প্রতিদ্বন্দ্বী কোম্পানি রোশ ও ফাইজারও কোভিডের মুখে খাওয়ার ওষুধ তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।


আরও খবর



বিয়ের আগে বর-কনের যেসব স্বাস্থ্য পরীক্ষা জরুরি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা কিংবা রোগব্যাধির কারণে অনেক সময় বিয়ের পর দুজনের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়।

বিয়ের আগেই যদি কয়েকটি স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা যায় তাহলে আর দ্বিধা-দন্দ্বের মধ্যে থাকতে হয় না। এ কারণে বিয়ের আগে হবু বর ও কনের কয়েকটি মেডিকেল পরীক্ষা করা জরুরি। জেনে নিন কোন পরীক্ষাগুলো করবেন-

এইচআইভি:

বিয়ের আগে হবু বর ও কনের এইচআইভি পরীক্ষা করা অত্যন্ত জরুরি। এক্ষেত্রে রক্ত, শরীরের সিরাম নিয়ে পরীক্ষা করা হয়। এই পরীক্ষা করলে শরীরের রোগ প্রতিরোধকারী ক্ষমতা রোধকারী ভাইরাসের উপস্থিতি জানা যায়।

এইচআইভি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। এই ভাইরাস শরীরে থাকলে তার থেকে এইডস পর্যন্ত হতে পারে। অনেকেই আগে থেকে শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি টের পান না।

ফলে ওই ব্যক্তি যৌন সম্পর্ক করলে তা সঙ্গীর শরীরে এমনকি গর্ভের সন্তানেরও হতে পারে এইডস। যদি হবু বর বা কনের কারও এইচআইভি সংক্রমণ থাকলে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আরও কয়েকবার ভাবা উচিত।

নারীর ওভারি পরীক্ষা :

বর্তমানে অনেক নারীই বেশি বয়সে বিয়ে করেন। আবার অনেক নারীদের জীবনযাত্রাতেও এসেছে পরিবর্তন। অনেকেই এখন ধূমপান, মদ্যপান বা অন্যান্য নেশায় আসক্ত। তাই বিয়ের আগে নারীরর ওভারি টেস্ট করানো একান্ত প্রয়োজন।

ওভারিতে সমস্যা থাকলে বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিম্বাণু তৈরির পরিমাণ কমতে শুরু থাকে। তাই বিয়ের পর সন্তান ধারণে সমস্যা হতে পারে।

বন্ধ্যাত্ব পরীক্ষা :

ভবিষ্যতে সন্তান হবে কি না তা জানতে হবু বর ও কনে দুজনারই বন্ধ্যাত্ব পরীক্ষা করানো প্রয়োজন। এই পরীক্ষা করলে পুরুষের শুক্রাণুর স্থিতি ও কাউন্ট কতটা আছে তা জানা যায়। সময় থাকতে থাকতে এর চিকিৎসাও করা যায়।

জেনেটিক টেস্ট :

বিয়ের আগে হবু বর ও কনে উভয়েরই জেনেটিক পরীক্ষা করানো প্রয়োজন। এই পরীক্ষা করলে জানা যাবে আপনার হবু সঙ্গীর কোনো জিনঘটিত সমস্যা আছে কি না।

এসটিডি পরীক্ষা :

নারী-পুরুষ উভয়েরই এসটিডি বা যৌন রোগের পরীক্ষা করা উচিত। বিয়ের আগে একাধিক সঙ্গীর সঙ্গে অসুরক্ষিত যৌন সম্পর্ক থাকলে এই পরীক্ষার মাধ্যমে তা জানা যায়।

রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা :

হবু বর ও কনের রক্ত পরীক্ষা করানো জরুরি। কারণ স্বামী-স্ত্রীর রক্তের গ্রুপ একে অপরের সঙ্গে সামঞ্জস্য না থাকলে গর্ভাবস্থায় সমস্যা দেখা দেয়। এ কারণে বিয়ের আগে দুজনেরই আরএইচ ফ্যাক্টর একই হওয়া দরকার।

ব্লাড ডিসঅর্ডার পরীক্ষা :

বিয়ের আগে নারীর ব্লাড ডিসঅর্ডার পরীক্ষা করানো উচিত। এই পরীক্ষা করালে জানা যাবে হবু কনে রক্তাল্পতায় ভুগছেন কি না। কারণ সন্তান ধারণের জন্য শরীরে রক্তের পরিমাণ ঠিক থাকা দরকার।

থ্যালাসেমিয়া পরীক্ষা :

বিয়ের আগে হবু বর ও কনের থ্যালাসেমিয়ার পরীক্ষাও জরুরি। দুজনের মধ্যে একজনের শরীরেও যদি এই রোগ থাকে তাহলে সন্তানও এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

মানসিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা :

একটি সুখী দাম্পত্য জীবন গড়তে দুজনকে মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে হবে। বর্তমানে অনেকেই মানসিক নানা সমস্যায় ভোগেন।

কেউ হয়তো অতিরিক্ত রাগ করেন, আবার কারও সন্দেহপ্রবণতা বেশি, হঠাৎ হতাশ হয়ে পড়া, অবসন্নতা ইত্যাদি সমস্যা মানসিক রোগের কারণ হতে পারে।


আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21