আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

শরীয়তপুরে প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য নেই পর্যাপ্ত শিক্ষক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুর জেলায় করোনার প্রভাবে টানা ছুটিতে প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা মারাত্বক হুমকির মুখে রয়েছে। পড়াশুনা বাদ দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা মোবাইল গেমসে আসক্ত হয়ে পড়েছে। অভিভাবক মহল শঙ্কার কথা জানালেও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বলছেন শিক্ষা কার্যক্রম চলছে ও প্রতিষ্ঠান খুলে দিতে পুরোপুরি প্রস্তত রয়েছে তারা।

শরীয়তপুর জেলায় ৬৯৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে এবং এতে পড়াশুনা করছে জেলার প্রায় ২ লক্ষাধিক কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রী। যাদের আবার অধিকাংশই দরিদ্র পরিবারের সন্তান। করোনার কারণে বিদ্যালয়গুলো বন্ধ থাকাতে শিক্ষা ব্যবস্থা পড়েছে মহাসংকটে। শিশুরা আর আগের মত পড়াশোনায় মনোযোগী হতে পারছেনা। তারা এখন পড়াশুনা রেখে মোবাইল গেমসে আসক্ত হয়ে পড়েছে। যা শিশুদের দৈহিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। অভিভাবকরা অভিযোগ করে জানান,স্কুল বন্ধ থাকার কারণে ছেলে-মেয়েদের পড়াশুনার যে ক্ষতি হচ্ছে তা পূরণ করা সম্ভব না। সব কিছু খুলে দেওয়া হলেও স্কুলগুলো কেন খুলে দেওয়া হচ্ছে না?

স্কুল বন্ধ থাকার কারণে বেহাল দশা স্কুলগুলোর। এমনই কিছু স্কুলের চিত্র এসেছে হাতে। এতে দেখা যায় স্কুলগুলোতে গবাদি পশু পালন করা হচ্ছে, রাখা হচ্ছে গবাদি পশুর খাবার। ফসল কেটে রাখা হচ্ছে স্কুলের আঙিনা ও ক্লাসরুমে।


অন্যদিকে জেলায় মোট কিন্ডারগার্টেন রয়েছে ১৮৫টি। প্রায় ৩৫ হাজার ছাত্র-ছাত্রী এই কিন্ডারগার্টেন গুলোতে পড়াশুনা করে। অভিভাবকদের অর্থনৈতিক সংকটের কারণে যাদের একটি বড় অংশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দিকে ঝুঁকে যাবে বলে ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা। এতে করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে চাপ বাড়বে। কিন্তু এই চাপ সামলাতে নেই পর্যাপ্ত শিক্ষক।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের দেওয়া তথ্যমতে, সহকারি শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে  ৩৩২টি, প্রধান শিক্ষকের ২১৪ টি এবং বছরে গড়ে প্রায় ৬৫ জন শিক্ষিকা মাতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকেন। এতে করে সারা বছর ধরে শিক্ষক সংকট লেগেই থাকে। এর উপর স্কুল খুলে দেওয়া হলে বাড়তি শিক্ষার্থীদের চাপ সামলাতে কতটা প্রস্তুত প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন জেলার শিক্ষাবিদরা। শরীয়তপুর জেলায় মাত্র ২ জন শিক্ষক দিয়ে চলে এমন বিদ্যালয় রয়েছে ১১টি। এছাড়াও ৩ জন শিক্ষক দিয়ে চলে এমন বিদ্যালয় রয়েছে অসংখ্য। অথচ শিক্ষা অধিদপ্তরের নির্দেশনা মেনে পাঠ্য কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন বলে দাবী করেছেন জেলার শিক্ষকবৃন্দ।


শরীয়তপুর সদর উপজেলার ৬৫ নং কীর্তিনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা গেল শিক্ষার্থীদের বাড়ি বাড়ি যাওয়ার জন্য সহকারি শিক্ষিকা নাসরিন আক্তার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। কিভাবে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা প্রতিদিন ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পড়া দেই, সীটে করে লেখা জমা নেই এবং তা মূল্যায়ন করি।

জেলা প্রাথমিক অফিসার মো: আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমাদের পাঠদান থেমে নেই। ফিল্ড পর্যায়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমাদের সকল শিক্ষক স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। স্কুল খোলার জন্য আমরা প্রস্তত। সরকারি নির্দেশনা পেলেই আমরা যথাযথ নিয়ম মেনে স্কুল খুলে দিবো


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আনোয়ারায় বাবার লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষাকেন্দ্রে মেয়ে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মো.আমজাদ হোসেন, আনোয়ারা

Image

চট্টগ্রামের আনোয়ারায় বাবার লাশ বাড়িতে রেখে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে রিপা আকতার নামের এক পরীক্ষার্থী। রিপা এবার রায়পুর ইউনিয়ন বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। বুধবার রাতে তার পিতা আহমদ নবী (৩৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার বটতলী শাহ মোহছেন আউলিয়া রহঃ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ইংরেজি ২য় পত্র পরীক্ষায় অংশ নেয় সে। এদিকে সকাল ১১টায় রায়পুর ইউনিয়নের দক্ষিণ পরুয়া পাড়ার রহিম তালুকদারের বাড়ির গ্রামে মরহুমের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন সম্পন্ন করা হয়।

স্বজনরা জানান,বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রিফার বাবা আহমেদ নবী। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় তার বাবার জানাজার সময় নির্ধারণ করে স্বজনেরা। কিন্তু ১০টা থেকে রিফার এসএসসি পরীক্ষা ছিল। পরে সে পরীক্ষা দিতে কেন্দ্রে যায়। এ সময় আত্মীয়স্বজন, সহপাঠী ও শিক্ষক তাকে মানসিকভাবে সান্ত্বনা দিলে সে পরীক্ষায় অংশ নেয়।

বটতলী শাহ মোহছেন আউলিয়া রহঃ উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব মোঃ ফরিদুল ইসলাম জানান, রিপার বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা সকালেই জানতে পেরেছিলাম। সে সবার সঙ্গে বসে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। তবে তাকে মানসিকভাবে সান্ত্বনা দিলে মনোবল শক্ত রেখে পরীক্ষা দেয়। এক হাতে বারবার চোখ মুছছিল, আর অন্য হাতে পরীক্ষার খাতায় লিখেছে রিপা।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মা-মেয়েকে দলবদ্ধ ধর্ষণ : প্রধান আসামি আ.লীগ নেতা গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে মা-মেয়েকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি আওয়ামী লীগ নেতা আবুল খায়ের প্রকাশ মুন্সি মেম্বারকে (৫০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে সদরের কাদির হানিফ ইউনিয়ন থেকে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও চরজব্বার থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার আবুল খায়ের প্রকাশ মুন্সি মেম্বার চরওয়াপদা ইউনিয়নের চরকাজী মোখলেছ গ্রামের মৃত গোলাপের রহমানের ছেলে। তিনি চরওয়াপদা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি এবং ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ভুক্তোভোগী নারীর দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি আবুল খায়ের মুন্সি মেম্বারকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এর আগে দুপুরে ভুক্তোভোগী নারী (৩০) বাদী হয়ে সূবর্ণচরের চরজব্বর থানায় মা-মেয়েকে দলবদ্ধ ধর্ষণ ও নগদ টাকাসহ স্বর্ণালঙ্কার লুটের ঘটনায় মামলা করেছেন। এতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল খায়ের প্রকাশ মুন্সি মেম্বারকে প্রধান আসামি করা হয়। মামলায় অপর আসামিরা হলেন, চর কাজী মোখলেছ গ্রামের মৃত বশির আহম্মদের ছেলে মো. হারুন (৪২) ও অপরজন অজ্ঞাত।

এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে ভুক্তোভোগী মা-মেয়ের চিকিৎসা ও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ২৫০ শয্যার নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের গাইনি সার্জারি বিভাগে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. আবদুল মন্নান শাকিল মা-মেয়েকে ভর্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নির্যাতিতা মা-মেয়ে খুবই অসুস্থ। তাদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও অপস্) বিজয়া সেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এলাকাবাসীর বক্তব্য অনুযায়ী প্রধান আসামি আবুল খায়ের মুন্সি মেম্বারের স্বভাব-চরিত্র ভালো নয়। তাকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফতারদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ২টায় বাড়িতে মা-মেয়েকে একা পেয়ে সিঁদকেটে একজন দরজা খুলে দেয়। পরে আরও দুইজন ঘরে ঢুকে তিন সন্তানের জননী (৩০) ও তার পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ের (১২) ওপর নির্যাতন চালায়। পরে ৯৯৯-এ কল পেয়ে চরজব্বর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগীদের উদ্ধার করে।

ভুক্তভোগী নারীর অভিযোগ, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা আবুল খায়ের মুন্সি মেম্বার দীর্ঘদিন থেকে তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। মাঝে মধ্যে টেলিফোন করে কুপ্রস্তাব দিতেন। কথা না শুনলে খারাপ পরিণতির হুমকি দিতেন। সোমবার রাতে পুরুষহীন বাড়িতে সিঁদকেটে ঘরে ঢুকে হাত-মুখ বেঁধে মাকে দুজন এবং মেয়ের অপরজন ধর্ষণ করেন। পরে মা-মেয়ের নাকে কানের স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টকা নিয়ে আসামিরা চলে যান।

নির্যাতনের শিকার ওই নারীর স্বামী (৪২) বলেন, আমরা গরিব মানুষ। দিনমজুরি করে দিনযাপন করি। কয়েকমাস আগে ওই এলাকায় পাঁচ শতক জমি কিনে বাড়ি করি। আসামিরা খুবই খারাপ প্রকৃতির। আমি এ জঘন্যতম ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের ফাঁসি চাই।

চর ওয়াপদা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল মন্নান বলেন, মা-মেয়েকে ধর্ষণের ন্যাক্কাজনক ঘটনায় দায়ী ব্যক্তিদের ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি। আওয়ামী লীগ সভাপতি আবুল খায়ের মুন্সি মেম্বারের বিষয়টি সূবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. চৌধুরীকে জানানো হয়েছে।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনের ভোটের রাতে নোয়াখালীর সুবর্ণচরের চরবাগ্গ্যা গ্রামের এক গৃহবধূকে (৪০) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয় দেশজুড়ে। সেই মামলার রায় ঘোষণা করা হয় সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি)। রায়ে সাবেক মেম্বার রুহুল আমিনসহ ১০ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। এ ছাড়া মামলার আরও ছয় আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। একই সঙ্গে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন বিচারক। সেই রায় ঘোষণার দিনগত রাতে এমন ঘটনায় এলাকাবাসী উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




চট্টগ্রামে কর্ণফুলী ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত, চালকসহ আহত ২০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে একটি লাইট ইঞ্জিনকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এ সময় দুই ট্রেনের চালকসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে সীতাকুণ্ডের ফৌজদারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের চালক মোহাম্মদ আলী (৪২), শান্টিং ইঞ্জিনের চালক নজরুল ইসলাম (৫৪) এবং সহকারী চালক মো. সজিব (৩৫)। বাকিদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে মধ্যে নজরুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর। বাকি আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্টগ্রামগামী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সন্ধ্যা ৭টায় ফৌজদারহাট অতিক্রম করে ক্যাডেট কলেজ এলাকায় ক্রসিংয়ের সময় সামনে থাকা একটি শান্টিং ইঞ্জিনে ধাক্কা দেয়। এতে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়।

ফৌজদারহাট রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফারুক হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় চট্টগ্রামমুখী ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে।

সীতাকুণ্ড রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার নিজাম উদ্দিন বলেন, আমি নিজেই কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের যাত্রী ছিলাম। এ ঘটনায় ট্রেনটির প্রায় ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।

রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বলেন, ক্রসিংয়ের সময় কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ইঞ্জিনটিকে পিছন থেকে ধাক্কা দিয়েছে। এতে কিছু যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




চট্টগ্রাম বন্দরে পণ্যবাহী কন্টেইনার স্ক্যানার স্থাপন

‘বন্দরের স্বার্থ, দেশের স্বার্থ ক্ষুন হয় এমন কিছু শেখ হাসিনার সরকার করবে না’

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করছে এবং আরো বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করছে। দেশের স্বার্থ বিকিয়ে শেখ হাসিনা কিছু করবেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সামগ্রিক চিন্তা করেন। চট্টগ্রাম বন্দরের স্বার্থ, দেশের স্বার্থ ক্ষুন হয় এমন কিছু শেখ হাসিনার সরকার করবে না।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম বন্দরের ৪নং গেইট সংলগ্ন চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সংযোজিত রপ্তানিমুখী পণ্যবাহী কন্টেইনার স্ক্যানার স্থাপন ও হস্তান্তর এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম সোহায়েল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল, প্রকল্প পরিচালক ও চট্টগ্রাম বন্দরের পরিচালক (নিরাপত্তা) লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোস্তফা আরিফুর রহমান খান।

প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ২০১৯ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা এনবিআর চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছিলেন সব বন্দরে স্ক্যানার বসাতে হবে। তাঁর আন্তরিকতায় অনেক স্ক্যানার বসানো হয়েছে। চট্টগ্রাম বন্দর রপ্তানি পণ্যের জন্য দুইটি স্ক্যানার বসানোর খবর শুনে প্রধানমন্ত্রী অবশ্যই খুশি হবেন।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আইএসপিএস কোড কমপ্লায়েন্স চট্টগ্রাম বন্দরের আন্তর্জাতিক মানদণ্ড বজায় রাখার জন্য আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। আন্তর্জাতিক মহলে নিরাপদ হিসেবে আখ্যায়িত করার জন্য আধুনিক নিরাপত্তা সরঞ্জামাদি চট্টগ্রাম বন্দরে স্থাপন করা হচ্ছে। এছাড়া মোংলা, পায়রা এবং অন্যান্য স্থল বন্দর ডিজিটালাইজেশন করা হচ্ছে। সেখানেও স্ক্যানার বসানো হবে।

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের গৃহীত ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত, সমৃদ্ধ ও স্মার্ট বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম বন্দরের নিরাপত্তা বহরে যুক্ত হয়েছে রপ্তানিমুখী কন্টেইনার স্ক্যানার। এটি রপ্তানি পণ্যের জাহাজীকরণ প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করবে, বন্দরের কন্টেইনার জট হ্রাস করবে, বৈধ বাণিজ্য সহজতর করবে, অবৈধ ও ঝুঁকিপূর্ণ পণ্যের রপ্তানি নিবৃত্ত করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক বন্দর নিরাপত্তা সংস্থা এবং রপ্তানি সহযোগী দেশের চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ ও কার্যকর ব্যবস্থা বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালনে সহায়তা করবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

চট্টগ্রাম বন্দরের সংরক্ষিত এলাকার অভ্যন্তরে ৪ নম্বর ও সিপিএআর গেট সংলগ্ন এলাকায় এ স্ক্যানার দুইটি স্থাপন করা হয়। এ প্রকল্পের আওতায় ২টি রপ্তানিমুখী গেটে ২টি কন্টেইনার স্ক্যানার, ২ সেট রেডিও একটিভ পোর্টাল মনিটর, স্ক্যান্ড ইমেজ মনিটরিং সেন্টার, রিয়েল টাইম সিসিটিভি ও ইমেজ মনিটরিং সিস্টেম স্থাপন করা হয়েছে। এর ফলে কার্গো রপ্তানির ক্ষেত্রে কার্যকর প্রয়োগ ও স্বেচ্ছা পরিপালনের মাধ্যমে বিদ্যমান কার্গো পরীক্ষা পদ্ধতিতে প্রচলিত ব্যক্তি কর্তৃক হস্তক্ষেপ প্রতিহত করা সম্ভব হবে, নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে, বাণিজ্যিক ব্যয় হ্রাস করাসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সমন্বিত মনিটরিং ব্যবস্থা চালু হবে। বন্দরের সার্বিক উন্নয়ন উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এরিয়া কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল আজিম, চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কমিশনার ফাইজুর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এটিএম পেয়ারুল ইসলাম, মেট্রোপলিটন চেম্বার সভাপতি খলিলুর রহমান, বন্দর সচিব মো. ওমর ফারুক, ফাইভ আর অ্যাসোসিয়েটসের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট রায়ান জাহিদ রহমান প্রমূখ।


আরও খবর
৯ ছাত্রীর চুল কাটার ঘটনায় শিক্ষিকা বরখাস্ত

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বইমেলা দুই দিন বাড়ানোর অনুরোধ প্রকাশকদের

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অমর একুশে বইমেলা আগামী ২ মার্চ পর্যন্ত বাড়ানোর জন্য অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির নেতারা। এ ব্যাপারে মেলার আয়োজক বাংলা একাডেমির মহাপরিচালককে চিঠিও দিয়েছে তারা।

চিঠিতে আগামী ১ ও ২ মার্চ যথাক্রমে শুক্র ও শনিবার সময় বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়।

গতকাল শনিবার এই চিঠি পাঠিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন সমিতির সহ-সভাপতি শ্যামল পাল। তিনি বলেন, ‌মেলার স্টল বরাদ্দ পেতে বিলম্ব হওয়া এবং প্রথম দিকেই বৃষ্টি হওয়ার কারণে প্রকাশকরা আর্থিকভাবে ক্ষতির মুখে পড়েছেন। এজন্য প্রকাশকদের চাওয়া মেলা যেন দুদিন বাড়ানো হয়।

বইমেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব কে এম মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা চিঠি পেয়েছি। তবে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। মেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা করেএ ব্যাপারে যা সিদ্ধান্ত হয়, তা জানানো হবে।

নিউজ ট্যাগ: বইমেলা প্রকাশক

আরও খবর
বেইলি রোডে আগুনে নিহত বেড়ে ৪৫

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪