আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

শরীয়তপুরে নারীকে দলবদ্ধ ধর্ষণের পর হত্যা, ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
শরীয়তপুর প্রতিনিধি

Image

শরীয়তপুরে এক নারীকে গণধর্ষণের পর হত্যার দায়ে ৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে শরীয়তপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. সোহেল আহমেদ এ রায় ঘোষণা করেন। এছাড়াও প্রত্যেক আসামিকে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেননিজাম বালী (৪৫), মোহাম্মদ আলী (৩৫), ওমর ফারুক বেপারী (২৪), আল আমীন বেপারী (২০) ও ইব্রাহীম মোল্লা (২১)।

দণ্ডপ্রাপ্তরা সবাই ডামুড্যা উপজেলার দক্ষিণ সুতলকাঠীর বাসিন্দা। রায় ঘোষণার সময় ২ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আদালতের নির্দেশে তাঁদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আর তিন আসামি পলাতক রয়েছেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৮ এপ্রিল বিকেল ৫টার দিকে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন ডামুড্যা উপজেলার ধানকাঠি ইউনিয়নের ভূঁইয়া বাজার এলাকার ৫৫ বছর বয়সী নারী ফিরোজা বেগম। ২১ এপ্রিল বাড়ি থেকে ১০ কিলোমিটার দূরের পূর্ব ডামুড্যা ইউনিয়নের বড় নওগা এলাকার আব্দুর রহমান মাস্টারের বাড়ির পূর্ব পাশের একটি পরিত্যক্ত ডোবা থেকে তাঁর হাত ভাঙা ও মাথায় আঘাতের চিহ্নসহ মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরের দিন ফিরোজার ছোট ভাই লাল মিয়া সরদার বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ২৩ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে শরীয়তপুর আদালতে একটি হত্যা মামলা করেন। আসামিদের মধ্যে পাঁচজন জড়িত থাকায় তাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। বাকি আসামিরা অব্যাহতি পায়।

পরে ২৮ এপ্রিল নিজাম বালীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরেরদিন ওমর ফারুক ও মোহাম্মদ আলীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা ওই নারীকে ধর্ষণের পর হত্যার কথা আদালতের কাছে স্বীকার করেন। আর অন্য দুই আসামি ইব্রাহিম ও আল-আমীন পলাতক আছেন। আর ওমর ফারুক জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছেন। এ ঘটনায় পরবর্তীতে পুলিশ ওই ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এরপর ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ দুপুরে শরীয়তপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেন।

নিহত ফিরোজা বেগমের ছেলে চিকিৎসক শাহ জালাল হাওলাদার বলেন, আমরা রায়ে খুশি হয়েছি। সরকারের কাছে দাবি দ্রুত যেন এই রায় কার্যকর হয়।

শরীয়তপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট ফিরোজ আহমেদ বলেন, এটি একটি ঐতিহাসিক হত্যাকাণ্ডের রায়। এক নারীকে গণধর্ষণ ও নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে। এই মামলায় পাঁচজন আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আমরা রাষ্ট্রপক্ষ এই রায়ে সন্তুষ্ট।

তবে এই রায়ে অসন্তোষ জানিয়ে আসামিপক্ষের আইনজীবী নাসরিন আক্তার বলেন, এই রায়ে আমরা সন্তুষ্ট নই। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।


আরও খবর



প্রথমবারের মতো চাঁদের মাটিতে বেসরকারি যান

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক

Image

প্রথমবারের মতো চাঁদের মাটিতে অবতরণ করল বেসরকারি কোনো সংস্থার তৈরি মহাকাশযান। শুক্রবার হুস্টনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইনটুইটিভ মেশিনসের তৈরি মহাকাশযানটি চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়।

ছয়-পা বিশিষ্ট রোবোট এই ল্যান্ডারটির নাম দেওয়া হয়েছে ওডিসিয়াস। অ্যাপলো ১৩ এর পর ৫০ বছরের মধ্যে প্রথম কোনো মার্কিন মহাকাশযান যা এই সাফল্য পেল।

সূর্যের আলোয় চার্জ হয়ে সাতদিন কার্যক্রম চালাতে পারবে ওডিসিয়াস। মালিকানা প্রতিষ্ঠানটি জানায়, যানটি এখনও পুরোপুরি সচল আছে।

ফ্লাইট ডিরেক্টর টিম ক্রেইন বলেন, আমরা কোনো সন্দেহ ছাড়া নিশ্চিত করতে পারছি যে আমাদের যানটি চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণ করেছে।

প্রায় অর্ধশতাব্দী আগে মার্কিন মহাকাশযান অ্যাপোলো চাঁদে অবতরণ করেছিল। চীনের সাম্প্রতিক চন্দ্রাভিযানের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে আর্টেমিস নামের একটি কার্যক্রম পরিচালনা করছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। নাসার এই আর্টেমিস কার্যক্রমের আওতায় চাঁদের উদ্দেশে পাঠানো হয়েছে ওডিসিয়াসকে।


আরও খবর



রাজশাহী-মুর্শিদাবাদ নৌপথ উদ্বোধন

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাজশাহী প্রতিনিধি

Image

বাংলাদেশ ও ভারতের নৌ প্রটোকলের আওতায় চালু হলো বহুল কাঙ্খিত রাজশাহীর গোদাগাড়ীর সুলতানগঞ্জ পোর্ট অব কল এবং সুলতানগঞ্জ-মায়া নৌপথে পণ্যবাহী নৌযান চলাচল।

পদ্মা ও মহানন্দার মোহনায় অবস্থিত গোদাগাড়ী উপজেলার সুলতানগঞ্জ অংশ সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১ টায় সুলতানগঞ্জ নৌবন্দর এবং ভারতের মুর্শিদাবাদের মায়া নৌবন্দর পর্যন্ত পণ্যবাহী নৌযান চলাচলের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এবং নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

উল্লেখ্য, রাজশাহী থেকে ভারতের মুর্শিদাবাদের ধূলিয়ান ও মায়া নৌবন্দর পর্যন্ত নৌরুটে নৌযান চালু ও রাজশাহীতে আন্তজার্তিক নৌবন্দর প্রতিষ্ঠায় গত ৫ বছর নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে আসছিলেন রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এটি মেয়র লিটনের একটি  নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। সুলতানগঞ্জ নৌবন্দর চালু ও সুলতানগঞ্জ-মায়া নৌপথে নৌযান চলাচল শুরুর মাধ্যমে মেয়র লিটনের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন হলো এবং পূরণ হলো রাজশাহীবাসীর বহুল কাঙ্খিত স্বপ্ন।

এদিকে সুলতানগঞ্জ নৌবন্দর ও সুলতানগঞ্জ-মায়া নৌপথে নৌযান চলাচলের উদ্বোধন উপলক্ষে এক সুধী সমাবেশের আয়োজন করে বিআইডব্লিউটিএ। সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র ও এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা, রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী, রাজশাহী-৩ আসনের সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান আসাদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ, রাজশাহী-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল কালাম আজাদ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) এর চেয়ারম্যান কমোডর আরিফ আহমেদ মোস্তফা। স্বাগত বক্তব্য দেন বিআইডব্লিউটিএর যুগ্মসচিব সেলিম ফকির।

রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন সাংবাদিকদের বলেন, পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের ধূলিয়ান থেকে নৌপথটি গোদাগাড়ীর সুলতানগঞ্জ, রাজশাহী ও পাকশী হয়ে আরিচাঘাট পর্যন্ত গেছে। দীর্ঘদিন এটির ব্যাপারে কোনো উদ্যোগ ছিল না। আমি গত পাঁচ বছর বিভিন্ন জায়গায় যাওয়া, লেখালেখি ও ডিও লেটার দিয়েছি। ফলে এটা গতিশীল হয়েছে। অবশেষে প্রথম পর্যায়ে সুলতানগঞ্জ-মায়া নৌপথে নৌযান চলাচলের শুরু হলো। পরবর্তীতে এটি রাজশাহী হয়ে আরিচা পর্যন্ত চালু হবে। রাজশাহী নগরীতে নৌবন্দর স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে রাজশাহীর অর্থনীতি গতিশীল হবে, অনেক কর্মসংস্থান হবে।

তিনি আরো বলেন, আমরা আজ অত্যন্ত আনন্দিত। পিছিয়ে পড়া রাজশাহীতে নৌবন্দর চালু হলো। এটির মাধ্যমে রাজশাহীর ব্যবসা বাণিজ্য বাড়বে। আমরা অনেক দিক দিয়ে উপকৃত হবো।

জানা গেছে, ১৯৬৫ সালে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের আগ পর্যন্ত সুলতানগঞ্জ-মায়া গোদাগাড়ী-ভারতের লালগোলা নৌঘাটের মধ্যে নৌপথে বাণিজ্য চালু ছিল। পরে রুটটি বন্ধ হয়ে যায়। সোমবার বাংলাদেশ সীমান্তের সুলতানগঞ্জ নৌ-বন্দরটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের পরে রাজশাহীর সুলতানগঞ্জ ঘাটটি নদী বন্দরের মর্যাদা পেলো। সুলতানগঞ্জ নৌ-বন্দরের মাধ্যমে এসব পণ্য ভারত থেকে আমদানিতে সময় ও খরচ কমে যাবে। এতে উপকৃত হবেন বাংলাদেশ-ভারত দুই দেশের ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীরা আশা করছেন, বছরে এই নৌপথে দুই দেশের মধ্যে হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য হবে।

এর আগে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সভায় সিদ্ধান্ত হয় বাংলাদেশের রাজশাহীর সুলতানগঞ্জ আর ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ধুলিয়ান নৌরুটে বাণিজ্য চালুর। রাজশাহী থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের ধুলিয়ান পর্যন্ত ৭৮ কিলোমিটার একটি নৌপথের অনুমোদন থাকলেও পদ্মার নাব্যতা সংকটের কারণে কার্যকর করা হয়নি। ফলে রুটটি সংক্ষিপ্ত করে রাজশাহীর গোদাগাড়ীর সুলতানগঞ্জ থেকে ভারতের মুর্শিদাবাদের ময়া নৌবন্দর পর্যন্ত আড়াআড়িভাবে ২০ কিলোমিটার পদ্মা নদী পাড়ি দিয়ে পণ্য আনা নেওয়া হবে। শুরুতে এই নৌপথে ভারত থেকে পাথর বালি ও বিভিন্ন ধরনের খাদ্য সামগ্রী আনা হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সুলতানগঞ্জ থেকে ময়া নৌঘাটের নদীপথে দূরত্ব মাত্র ১৭ কিলোমিটার। সুলতানগঞ্জ নৌঘাটটি রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জ মহাসড়ক থেকে এক কিলোমিটার দক্ষিণের পদ্মার শাখা নদী মহানন্দার মোহনার কাছাকাছি। সারা বছর সুলতানগঞ্জের এই পয়েন্টে গভীর পানি থাকে।

অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গের ময়া নৌঘাটটি মুর্শিদাবাদ জেলার জঙ্গিপুর মহকুমা শহরের কাছে ভারতীয় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের সঙ্গে যুক্ত। ফলে সুলতানগঞ্জ-ময়া পথে নৌবাণিজ্য শুরু হওয়ায় পরিবহন খরচ অনেকাংশে কমে যাবে। এতে রাজশাহীর অর্থনীতি গতিশীল হবে এবং ব্যাপক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে।


আরও খবর



মালদ্বীপের জলসীমায় ভারতীয় সেনা প্রবেশের অভিযোগ, ব্যাখ্যা চায় মুইজ্জু সরকার

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারত আগামী মে মাসের মধ্যে মালদ্বীপ থেকে নিজেদের সেনা প্রত্যাহার করে নেবে বলে শনিবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) জানিয়েছে মালদ্বীপের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। দুই পক্ষের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কয়েক দফা আলোচনার মধ্যে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। এর আগে, গত সপ্তাহে মালদ্বীপের বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলে (ইইজেড) ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা তিনটি মাছ ধরার নৌকায় করে ঢুকে পড়ার অভিযোগ উঠলো।

এ ঘটনায় ভারতের কাছে ব্যাখ্যা চেয়েছে মোহামেদ মুইজ্জুর সরকার। মালদ্বীপের একজন সরকারি কর্মকর্তা বলেন, ভারতের কাছে বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যাখ্যা চেয়েছে সরকার। বডু কানেলি মাসভেরিঞ্জ ইউনিয়ন এক্স’–এ পোস্ট করা এক বার্তায় লিখেছে, আসুরুমা৩, নিরু৭ ও মাহোয়ারা৩ নৌযানে করে ভারতের সেনারা মালদ্বীপের জলসীমায় প্রবেশ করেছেন।

ইউনিয়ন শুক্রবার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে, যাতে দেখে মনে হচ্ছে, ওই সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনী। তারা মালদ্বীপের মাছ ধরার নৌকায় ছিলেন। এ সময় তাদের হাতে অস্ত্র ছিল। ওই ভিডিওতে ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনীর একটি জাহাজও দেখা যায়। মালদ্বীপের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ভারতীয় সৈন্যরা আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে মালদ্বীপের নৌকায় চড়েছেন। যদিও মালদ্বীপের এ অভিযোগ নিয়ে এখনো কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি ভারত।

উল্লেখ্য, মালদ্বীপে ভারতের প্রায় ৮০ জন সেনা সদস্য নানা দায়িত্বে রয়েছেন। মে মাসে সেনা সদস্যদের প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর বেসামরিক কর্মকর্তারা তাদের স্থলাভিষিক্ত হবেন বলেও উভয় দেশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। ভারতীয় সেনাদের প্রথম দলটি আগামী ১০ মার্চ এবং শেষ দলটি ১০ মে মালদ্বীপ ছেড়ে যাবে বলেও দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়।


আরও খবর



১৮ বিশিষ্ট ব্যক্তিকে একুশে পদক দিচ্ছে চসিক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

প্রতি বছরের মতো এবারও ২০২৪ সালের জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন একুশে পদক ঘোষণা করেছেন।

অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কৃতি ব্যক্তিত্বদের সম্মাননা দিচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক)। এবছর ১৮ কবি-ছড়াকার, সাংবাদিক, নাট্যব্যক্তিত্ব, গবেষক, শিক্ষবিদ, চিকিৎসকসহ সমাজের বিশিষ্টজনদের পদকে ভূষিত করছে চসিক।

আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি (শুক্রবার) সিআরবি শিরীষতলায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত একুশের বইমেলা মঞ্চে এসব গুণীজনদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা এম রেজাউল করিম চৌধুরী।

চসিক একুশে পদকপ্রাপ্তরা হলেন- মো: নাছির উদ্দিন (শিল্প উন্নয়ন ও সমাজসেবায়)। রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী শ্রেয়সী রায়, (সংস্কৃতিতে), শহীদ সাইফুদ্দিন খালেদ, (মুক্তিযুদ্ধ-স্বাধীনতা আন্দোলনে), আসহাব উদ্দিন আহমদ, (ভাষা আন্দোলনে), প্রফেসর প্রদীপ চক্রবর্তী-শিক্ষায় (চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান), সম্পাদক রুশো মাহমুদ (সংবাদ পত্র শিল্পের বিকাশ ও মনোন্নয়নে), প্রফেসর ডা. মহাম্মদ গোফরানুল হক (চিকিৎসায়), জসীম চৌধুরী সবুজ (সাংবাদিকতায়), নাট্যব্যক্তিত্ব শিশির দত্ত (নাটকে), শৈবাল চৌধুরী (স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ ও গবেষণা), ফজিলাতুল কদর (নারী জাগরণ ও নারী নেতৃত্বে), জাকির হোসেন লুলু (ক্রীড়ায়), শামসুল আরেফীন (লোকসাহিত্য গবেষণা) ও ড. শামসুদ্দিন শিশির(প্রবন্ধ গবেষণা), কবি আবসার হাবীব ও কবি ভাগ্যধন বড়ুয়া (কবিতায়), শিশুসাহিত্যিক অরুণ শীল ও শিশুসাহিত্যিক শিবুকান্তি দাশ (শিশুসাহিত্যে)।


আরও খবর



ইজতেমা থেকে ফেরার পথে ট্রাক উল্টে ৩ জন নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

Image

বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখিরি মোনাজাত শেষে বাড়ি ফেরার পথে ময়মনসিংহের ভালুকায় ট্রাক উল্টে ৩ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১২ জন। তারা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

নিহতরা হলেন- ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার আবুল কালাম আকন্দের ছেলে নাঈম (১৩), ভালুকা উপজেলার ফারুক খানের ছেলে সানাউল্লাহ সজল (১৯) ও ফজলু (১৮)। তাৎক্ষণিক ফজলুর বাবার নাম জানা যায়নি। তারা সবাই ভালুকা উপজেলার জামিয়া ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী।

ভরাডোবা হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, ভালুকা জামিয়া ইসলামিয়া দারুস সুন্নাহ কওমি মাদ্রাসার ৩০ ছাত্র-শিক্ষক বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে যান। মোনাজাত শেষে সবাই ট্রাকযোগে মাদ্রাসায় ফিরছিলেন।

রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ঢালিবাড়ী মোড় ইউটার্নের কাছাকাছি এলে ট্রাকের সামনে থানা একটি কাভার্ডভ্যান ইউটার্ন নিতে দেখে তাৎক্ষণিক ব্রেক করেন চালক। এতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক উল্টে ঘটনাস্থলেই নাঈম নামের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। আহত হন ১৪ জন। তাদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।- বলেন তিনি।

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ভালুকায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ১৪ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। এর মধ্যে, সানাউল্লাহ সজল নামের একজন মারা গেছেন। গুরুতর ৫ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। পথে আরও একজন মারা গেছেন বলে শুনেছি।


আরও খবর