আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

শরিয়তের দোহাই দিয়ে সৎ মাকে বিয়ে করেছিলেন মামুনুল (ভিডিও)

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | ৭৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

মামুনুল হক তার বাবার শেষ স্ত্রীকেও বিয়ে করেছিল, তথ্যটি জানাচ্ছেন কমরেড ডা. এম এ সামাদ। তিনি কমিউনিস্ট পার্টি অব বাংলাদেশ-এর (মার্কসিস্ট) জেনারেল সেক্রেটারি এবং দৈনিক সিপিবিএপত্রিকার সম্পাদক। তিনি প্রয়োজনীয় তথ্য-প্রমাণ হাতে নিয়েই  ফেসবুক লাইভে এসে এমন তথ্য জানান।

 

ডা. এম এ সামাদ তার ফেসবুক লাইভে বিস্তারিত তুলে ধরে জানান, মামুনুল হকের সেই সৎ মা এবং পরবর্তীতে স্ত্রীর নাম ফারহানা। তিনি বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী। সেখান থেকে মামুনুল হকের গ্রেপ্তারের খবরে উতলা হয়ে বিভিন্ন ধরণের গুজব অপপ্রচার চালাচ্ছেন, সেই সাথে উসকানি দিচ্ছেন মামুনুল হকের অনুসারীদের রাস্তায় নেমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে আন্দোলন এবং জ্বালাও পোড়াও শুরু করার জন্য।

 

ডা. এম এ সামাদ এর সাথে মামুনুল হকের পিতা স্বঘোষিত স্বাধীনতাবিরোধী শাইখুল হাদিস আল্লামা আজিজুল হকের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠতা ছিল। ডা. সামাদ সেই পরিচয় এবং পারিবারিক সম্পর্কের সুবাদে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন।

 

তিনি জানান, মামুনুল হকের পিতার স্ত্রীর সংখ্যা অনেক, যাদের অনেকেই ছিলেন তার বাড়ির গৃহ পরিচারিকা। তাদেরকে একে একে বিয়ে করেন আজিজুল হক। এসব বিয়ের কোনো রেজিষ্ট্রি বা কাবিন নাই। শুধুমাত্র মুখে কলেমা পড়ে বিয়ে এবং ছেড়ে দিলামবলে ডিভোর্স দেয়া হয়। এই স্ত্রীদের গর্ভে মোট সন্তানের সংখ্যা ১৪ জন।

 

মামুনুল হক যাকে বিয়ে করেছেন সেই ফারহানা তার পিতা আজিজুল হকের শেষ বয়সে করা বিয়ের অতি অল্প বয়সী এক স্ত্রী। বয়সের বিস্তর ব্যবধানের কারণে এ নিয়ে মাদ্রাসায় এবং ধর্মীয় অঙ্গনে বেশ রসালো আলাপ হতো। এ নিয়ে ১৯৯১ সালে এক আলোচনায় তিনি খোদ মহানবী (স.) এর ৬ বছর বয়সী হযরত আয়েশা (রা.) কে বিয়ের উদাহরণ দিয়ে নিজের বিয়ের বৈধতা দান করেন।

 

এমনকি আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফের সাথে এক আলোচনায় আজিজুল হক দেশের প্রচলিত আইনকে মুরতাদদের আইন আখ্যা দিয়ে বলেছিলেন, বিয়ের সংখ্যা এবং বয়স নির্ধারণ করা এই মুরতাদদের আইন আমরা মানি না। বরং ১৩টি পর্যন্ত বিয়ের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন তিনি।

 

ডা. এম এ সামাদ জানান, মামুনুল হকের সেই সৎ মা এবং পরবর্তীতে স্ত্রী হওয়া নারী ফারহানা এখনও তার ফেসবুক প্রোফাইলে মামুনুল হকের এক্স স্ত্রী হিসেবে নিজের পরিচিতি বহন করেন।


আরও খবর



শিমুলিয়ায় ঘরমুখো হাজারো মানুষের ভিড়

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ মে ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে দেশের দক্ষিণবঙ্গের ঘরমুখো যাত্রী ও যানবাহনের চাপ দেখা দিয়েছে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরিঘাটে। পারাপারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছে ব্যক্তিগত ও পণ্যবাহী সাত শতাধিক যানবাহন।

শুক্রবার (৭ মে) সকাল থেকেই যাত্রীরা গন্তব্যে পৌঁছাতে শিমুলিঘাট এলাকায় এসে জড়ো হচ্ছেন। পদ্মায় লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় ফেরিতে যাত্রীদের চাপ বেশি। 

এদিকে, অত্যধিক চাপে ফেরিগুলোতে পার করা যাচ্ছে না গাড়ি। এতে ঘাট এলাকায় পারাপারের অপেক্ষায় আটকা পড়েছে ব্যক্তিগত ও পণ্যবাহী সাত শতাধিক যানবাহন।

নৌরুটে বর্তমানে ১৩টি ফেরি সচল রয়েছে বলে জানিয়ে শিমুলিয়াঘাট কর্তৃপক্ষ। ফেরিতে যাত্রীরা গাদাগাদি করে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে সংক্রমণ ঝুঁকি নিয়ে পদ্মা পার হচ্ছেন।

বিআইডাব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সাফায়েত আহমেদ জানান, আসন্ন ঈদ ও শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় যাত্রীদের চাপ বেড়েছে অনেক। যানবাহন ও যাত্রীদের নির্বিঘ্নে পারাপারে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হচ্ছে। নৌরুটে ১৩টি ফেরি চলছে।


আরও খবর



ভরিতে ২৩৩৩ টাকা বাড়ছে স্বর্ণের দাম, দুপুরেই কার্যকর

প্রকাশিত:সোমবার ১০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ মে ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোনার দামে বড় ধরণের পরিবর্তন আসছে। প্রতি ভরিতে ২৩৩৩ টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। বিশ্ববাজারে দাম বাড়ায় সোমবার জরুরি সভা করে এই দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। দুপুর থেকেই বর্ধিত মূল্য কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছে বাজুস।

সূত্রটি জানায়, সোমবার কার্যনির্বাহী কমিটির সভা করে প্রতি গ্রাম স্বর্ণের দাম ২০০ টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে ভরিতে স্বর্ণের দাম বাড়বে ২৩৩৩ টাকা। আজ সোমবার থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।


আরও খবর



সাংবাদিকদের সহায়তার জন্য ১০ কোটি টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ এপ্রিল ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংক্রমণের এ দুঃসময়ে দেশব্যাপী সাংবাদিকদের সহযোগিতার জন্য সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টকে ১০ কোটি টাকা দিয়েছেন

করোনা মহামারির এ সংকটময় সময়ে সারাদেশের সাংবাদিকদের সহযোগিতার জন্য সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টকে ১০ কোটি টাকা সহায়তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনা সংক্রমণের এ দুঃসময়ে দেশব্যাপী সাংবাদিকদের সহযোগিতার জন্য সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টকে ১০ কোটি টাকা দিয়েছেন।


আরও খবর



শ্রীপুরে ২’শ বানরের মুখে খাবার তুলে দেন ইউএনও

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ এপ্রিল ২০২১ | ১৩১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীপুর (গাজীপুর ) প্রতিনিধি:

চলমান লকডাউনে অনেকটা না খেয়েই কাটছে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী বাজারের বানর। বাজার-ঘাট সীমিত, মানুষের চলাচল সীমিতের চলতি সময়ে খাবারের অভাবে বেশ কিছুদিন খাবারের অভাবে ভুগছিল বানরগুলো।

শনিবার বেলা আনুমাণিক ১১টার দিকে শ্রীপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাশলিমা মোস্তারী প্রায় ২শ বানরের খাবার সরবরাহ করেন। ইউএনও জানান, বানরগুলো সাধারণত বাজারের দোকানপাট, বাজার এলাকার বাসিন্দাদের বাসা বাড়ী থেকে যা পায় তা থেকেই নিজেদের খাদ্যের যোগান দিয়ে থাকে। বানরের সংখ্যার তুলনায় এ খাদ্য অনেকটাই অপ্রতুল। অন্যদিকে চলমান লকডাউনে খাদ্য সংকট আরও বেড়েছে। প্রকৃতির প্রাণিদের কথা ভেবে নিজ উদ্যোগে তিনি শনিবার নিজ হাতে ২শ বানরের মুখে খাবার তুলে দেন। খাদ্য উপাদানের মধ্যে ছিল কলা, রুটি ও কেক।

এসময় বরমী ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য ও বাজার পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন বলেন, বরমী বাজারে বানর বসবাসের ইতিহাস অতি প্রাচীন। হাজার হাজার বানর ছিল এ বাজারে। খাদ্য সংকটসহ নানা কারণে বানরের সংখ্যা কমে গেছে। তবে প্রকৃত সংখ্যা তিনি বলতে পারেননি।

শ্রীপুর বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী বাবুল হোসেন বলেন, বাজারে বানরের নির্ধারিত কোনো খাবার নেই। বাজারের বিভিন্ দোকানপাট, বাসিন্দাদের বাড়ি ঘরে হানা দিয়ে, শুকাতে দেওয়া কাপড়-চোপর, হালকা আসবাবপত্র টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়ার সময় কেউ খাবার দিয়ে সেগুলো ফেরত পায়। খাদ্য সংকটে ভুগলে সাধারণত এভাবেই খাবারের অভাব মেটায় বানরগুলো।

অপর ব্যবসায়ী জাকির হোসেন বলেন, চলতি লকডাউনের কারণে বানরগুলোর খাদ্য সংকট চমের পৌঁছেছে।

ইউএনও জানান, বানরগুলোর জন্য খাবারের স্থায়ী বন্দোবস্তের ব্যাপারে ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে একটা উপায় খোঁজে বের করা হবে।

নিউজ ট্যাগ: ইউএনও লকডাউন

আরও খবর



৩৫ লাখ নিম্ন আয়ের পরিবারকে ২ মে থেকে অর্থ সহায়তা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ এপ্রিল ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীনতা ও আয়ের সুযোগ কমে যাওয়া থেকে দেশের অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীকে সুরক্ষা দিতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার কার্যক্রম নেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, গত বছর করোনা মহামারির কারণে নিম্ন আয়ের যারা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত এবং কর্মহীন হয়ে পড়েছিল, তাদেরকে সহায়তার জন্য নগদ আর্থিক সহায়তা প্রদান কর্মসূচি চালু করা হয়েছিল। ২০২০ সালে করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ নিম্ন আয়ের পরিবারকে পরিবারপ্রতি ২ হাজার ৫০০ টাকা করে ৮৮০ কোটি টাকা আর্থিক সহায়তা দেওয়া হয়। মোবাইল ব্যাংকিং বা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সরাসরি এই অর্থ দেওয়া হয়েছিল।

গতবারের ধারাবাহিকতায় এবারও চলমান করোনা মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৫ লাখ নিম্ন আয়ের পরিবারকে পরিবারপ্রতি ২ হাজার ৫০০ টাকা করে মোট ৮৮০ কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা দিতে সম্মতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (২ মে) তিনি এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন। এ কার্যক্রমের আওতায় ৩৫ লাখ পরিবারকে ইএফটির মাধ্যমে তাদের নির্দিষ্ট মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে বা ব্যাংক একাউন্টে অর্থ সহায়তা সরাসরি পাঠানো হবে।

অতিদরিদ্র, কর্মহীন নিম্ন আয়ের জনগোষ্ঠী যাতে এ কার্যক্রমের আওতায় আসে, সে লক্ষ্যে বরাদ্দ দেওয়ার ক্ষেত্রে দুর্যোগপ্রবণ, অতিদরিদ্র এলাকা এবং জনসংখ্যার অনুপাত বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে দিনমজুর, কৃষক, শ্রমিক, পরিবহন শ্রমিক ইত্যাদিপেশার নিম্ন আয়ের লোকজন যাতে এ আর্থিক সহায়তা পান তা নিশ্চিত করা হয়েছে। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রকৃত দরিদ্র ব্যক্তি চিহ্নিত করা হয়েছে, যাতে কেবলমাত্র প্রকৃত অতি দরিদ্র জনগোষ্ঠী এ অর্থ পায়।

নিউজ ট্যাগ: অর্থ সহায়তা

আরও খবর