আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

সূচকের উত্থানে শেষ হলো পুঁজিবাজারে লেনদেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৃহস্পতিবার শেয়ার বিক্রির চাপে শুরুতে সূচক পতন হয়। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সূচক বাড়তে শুরু করে। সবচেয়ে বেশি সূচক বাড়ে দিনের শেষ ঘণ্টায়। এসময়ে ব্যাংক খাতের শেয়ার বৃদ্ধির ফলে সূচকের উত্থানের মধ্যদিয়ে দিনের লেনদেন শেষে হয়। ফলে বৃহস্পতিবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ৬২ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে ১৫২ পয়েন্ট।

বুধবারের মতই এদিন ডিএসইতে ব্যাংক খাতের ৩২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ২২টির, কমেছে দুটির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৮ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। এছাড়াও গ্রামীণফোন, বার্জার পেইন্টস এবং স্কয়ার ফার্মা এবং ইবনে সিনাসহ বড় মূলধনী কোম্পানির দাম বেড়েছে। আর তাতে পুঁজিবাজারে বড় উত্থান হয়েছে।

ডিএসইর তথ্য মতে, বুধবার বাজারে মোট ৩৭৪টি প্রতিষ্ঠানের ৬২ কোটি ৪২ লাখ ৮১ হাজার ৮৮১টি শেয়ার হাত বদল হয়েছে। এর মধ্যে ১৭৭টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টির।

আজ ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২ হাজার ৬৯৬ কোটি ৫৮ লাখ ২৫ হাজার টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ২ হাজার ৫৫৫ কোটি ৫২ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কিছুটা বেড়েছে।

এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৬২ দশমিক ৪২ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ২৫৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২০ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৫৯২ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৩৩ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ৬৪৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

এদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৫২ পয়েন্ট বেড়ে ২০ হাজার ১৩১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৩২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৪৪টির শেয়ারের দাম বেড়েছে। কমেছে ১৬৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২১টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৯৬ কোটি ৭৩ লাখ ১৮ হাজার ২১৩ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৮৪ কোটি ৪৪ লাখ৫৬ হাজার ৪৫২ টাকা।


আরও খবর
পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




আজ আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানবকেন্দ্রিক পুনরুদ্ধারের জন্য সাক্ষরতা : ডিজিটাল বিভাজন কমিয়ে আনা এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারাবিশ্বে উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস। আজ বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে দেশের বিশাল কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীকে যথাযথ শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনসম্পদে পরিণত করে বাংলাদেশকে উন্নয়নের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এক যোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের নিরক্ষর জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে সাক্ষরতা ও জীবনমুখী দক্ষতা বৃদ্ধিতে বহুমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও সারাবিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও দিবসটি যথাযথভাবে পালন করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এই বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, দিবস উপলক্ষ্যে প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে দিবসটির উদ্বোধন করবেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ইউনেস্কো মহাপরিচালকের বক্তব্য পেশ করা হবে।

এছাড়াও দিবস উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠান, ক্রোড়পত্র প্রকাশ, গোলটেবিল বৈঠক, বাংলাদেশ টেলিভিশনে টক-শো অনুষ্ঠান করা হবে। পাশাপাশি দেশের প্রত্যেক জেলা প্রশাসক স্বাস্থ্যবিধি মেনে আলোচনা সভা করবেন। এ কারণে উপানুষ্ঠনিক প্রাথমিক ব্যুরো বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এছাড়া দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোও দিবসটি পালন করবে।

এর আগে সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্যানুযায়ী ২০১৯ সালের হিসাবে দেশে গড় সাক্ষরতার হার ৭৪ দশমিক ৭ শতাংশ আর ২০২০ সালের তথ্যানুযায়ী দেশে এখন সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ। ফলে করোনার মধ্যেও গত এক বছরে কোনো কার্যক্রম না থাকলেও সাক্ষরতার হার বেড়েছে দশমিক ৯০ শতাংশ।

করোনা মহামারির কারণে ১৭ মাস বন্ধ শিক্ষাব্যবস্থা। শ্রেণি কার্যক্রম ছিল না। এ কারণে শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। অনেক শিক্ষার্থীর ঝরে পড়ার আশঙ্কাও করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে সরকারি তথ্য বলছে, করোনায় সাক্ষরতার হার বেড়েছে। গত এক বছরে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মাঠ পর্যায়ে কোনো কার্যক্রম না থাকলেও বেড়েছে সাক্ষরতার হার। তবে এ বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।



আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ আগস্ট ২০২১ | ৬৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। সোমবার স্বাক্ষরিত আদেশ মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত নির্দেশনাসহ অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ করা হয়।

আদেশে বলা হয়, কোভিড-১৯ মহামারির কারণে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) প্রণীত ২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীদের জন্য পুনর্বিন্যাস করা পাঠ্যসূচির আলোকে নির্ধারিত গ্রিড অনুযায়ী ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাইনমেন্ট বিতরণ করা হল।  বিতরণ করা অ্যাসাইনমেন্ট সব শিক্ষার্থীদের দেওয়া ও গ্রহণের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত বিধিনিষেধ যথাযথভাবে অনুসরণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা হল।

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ভুগোল ও পরিবেশ, রসায়ন, হিসাববিজ্ঞান, অর্থনীতি, জীববিজ্ঞান, ফিন্যান্স ও ব্যাকিং, পৌরনীতি ও নাগরিকতা এবং উচ্চতর গণিত বিষয়ের অ্যসাইনমেন্ট দেওয়া হয়।

উপ-পরিচালক, জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা বা থানা শিক্ষা অফিসার এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আদেশে।

অপরদিকে ২০২১ সালের এসএসসি ইংরেজি ভার্সনের পরীক্ষার্থীদের জন্যও ষষ্ঠ সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ করা হয়।


আরও খবর



সিআইডির এএসপিসহ ৩ কর্মকর্তা জেলহাজতে

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ আগস্ট ২০২১ | ১০৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ভুক্তভোগী লুৎফর রহমানের ভাই খলিলুর রহমান বাদি হয়ে চিরিরবন্দর থানায় অপহরণ মামলা করেছেন। সেই মামলায় আটককৃতদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টায় চারটি গাড়ি বহরে করে দিনাজপুর আদালতে নেয়া হয়

দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থেকে মা-ছেলেকে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবির ঘটনায় রংপুর সিআইডির এএসপিসহ তিন পুলিশ কর্মকর্তা ও গাড়ির চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২৫ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার সময় তাদেরকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে হাজির করলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) বিকেলে দিনাজপুর সদর উপজেলার ১০ মাইল মোড় থেকে তাদের আটক করে দিনাজপুর জেলা পুলিশ।

আটকরা হলেন, রংপুর সিআইডির এএসপি সারোয়ার কবির, এএসআই হাসিনুর রহমান, কনস্টেবল আহসানুল হক ও চালক হাবিবুর রহমান।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী লুৎফর রহমানের ভাই খলিলুর রহমান বাদি হয়ে চিরিরবন্দর থানায় অপহরণ মামলা করেছেন। সেই মামলায় আটককৃতদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টায় চারটি গাড়ি বহরে করে দিনাজপুর আদালতে নেয়া হয়।

দিনাজপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত-৪ এর বিচারক শিশির কুমার বসু তাদে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।


আরও খবর
মসজিদ থেকে জঙ্গি সন্দেহে আটক ৪৫

শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১




ইভ্যালির সম্পদ বিক্রি ও হস্তান্তরে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করে অর্থ আদায়ের ঘটনার মামলায় ই-কমার্স কোম্পানি ইভ্যালির সম্পদ বিক্রি ও হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন।

আদালতের আদেশে বলা হয়, বিক্রি, হস্তান্তর বা অন্য কোনো উপায়ে ইভ্যালির সম্পদে কেউ হাত দিতে পারবে না।

একজন গ্রাহক গত ৫ মাস আগে ইভ্যালিতে ওয়াশিং মেশিন অর্ডার করেছিলেন। কিন্তু গত ৫ মাসেও তাকে অর্ডার বুঝিয়ে না দেওয়া এবং টাকা ফেরত না দেওয়ায় তিনি ইভ্যালির বিলুপ্তি চেয়ে হাইকোর্টে এ আবেদন করেন। তার আবেদনের প্রেক্ষিতেই আদালত এ আদেশ দেন।

 

নিউজ ট্যাগ: ইভ্যালি

আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আদালতে হাজির করা হচ্ছে ইভ্যালির রাসেলকে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের জেলে পাঠিয়ে লাভ নেই : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ই-কমার্স উদ্যোক্তাদের কাউকে জেলখানায় পাঠিয়ে দিলে কোনো লাভ নেই বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এছাড়াও ই-কমার্সের সার্বিক বিষয়ে মন্ত্রণালয় পজিটিভলি চেষ্টা করছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সম্মেলন কক্ষে সোর্সিং বাংলাদেশ ২০২১-ভার্চুয়াল সংস্করণ নামে সপ্তাহব্যাপী অনলাইন মেলার আয়োজন উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

প্রতারণার অভিযোগে আলোচিত ই-কমার্স ইভ্যালি ও ই-অরেঞ্জের মালিকরা জেলখানায় থাকায় ভুক্তভোগী গ্রাহকদের কী হবে?- এমন প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ই-কমার্সের কারণে অনেক গ্রাহকের অর্থ নষ্ট হয়েছে। এখন অনেককে বলতে শোনা যাচ্ছে, যাদের প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়েছে তাদের যদি ব্যবসা করতে দিয়ে কঠিনভাবে অবজারবেশন করা হতো, তাহলে কিছুটা ক্ষতি কাভার করতে পারতো। এ ধরনের সাজেশন আসছে। এ বিষয়গুলো কতটা যৌক্তিক তা নিয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা সার্বিক বিষয়গুলো অবজারভেশন করছি। আমরাসহ চার মন্ত্রণালয় (অর্থ, বাণিজ্য, আইন ও স্বরাষ্ট্র) বিষয়টি নিয়ে কথা বলছি। তাদের অবস্থান নির্ণয় করা হচ্ছে, কোনো উন্নতি করা যায় কিনা সে বিষয়ে দেখা হচ্ছে।

ইভ্যালি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, অনেক বড় গ্রুপ অব কোম্পানি বিনিয়োগ করতে চেয়েছিল। কিন্তু নেতিবাচক এসব ঘটনার কারণে তারা সরে দাঁড়িয়েছে।

সংবাদ সম্মেলন বাণিজ্যসচিব তপন কান্তি ঘোষ, ইপিবির ভাইস চেয়ারম্যান এ এইচ এম আহসানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলে।


আরও খবর
পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১