আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু মহাকাশে ভেসে খাবার খাচ্ছেন চীনা নভোচারীরা কলম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারাল ব্রাজিল স্পেনের কারাগারে ম্যাকাফি অ্যান্টিভাইরাস আবিষ্কারকের ‘আত্মহত্যা’ আগস্টে মুক্তি পাচ্ছে চলচ্চিত্র ‘চিরঞ্জীব মুজিব’ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহীতে আরও ১৮ জনের মৃত্যু ‘আ.লীগ হীরার টুকরা, যতবার কেটেছে নতুন করে জ্যোতি ছড়িয়েছে’ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নামে মিথ্যাচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন স্বাক্ষর জালিয়াতি ও তথ্য গোপন করায় ছাত্র ইউনিয়নের দুই শীর্ষ নেতা বহিষ্কার ইতিহাসে আওয়ামী লীগ, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনা সমার্থক হয়ে থাকবে: : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

স্বামী পরিত্যক্তাকে ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করল ভাইয়ের ছেলেরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৭ জুন ২০২১ | ১১৫জন দেখেছেন
মনিরুল ইসলাম, মঠবাড়িয়া

Image

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় এমিলি (৫০) নামের এক স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে মারধর করে তার পৈত্রিক ভিটেমাটি থেকে উচ্ছেদ করার পর তালা ঝুলিয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওই স্বামী পরিত্যাক্তা নারী দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে উপজেলার দাউদখালী ইউনিয়নের পাঠাকাটা গ্রামে পিতা মৃতঃ আঃ মজিদ কবিরাজের গৃহে বসবাস করে আসছিল। মজিদ কবিরাজ জীবিত থাকাকালীন ৬ ছেলে মেয়ের মধ্যে মৌখিক ভাবে অসিয়ত করেন যে, এমিলি স্বামী পরিত্যক্তা ও অসহায় বিধায় তার পুরাতন ঘরে আমৃত্যু থাকার স্বীকৃতি প্রদান করেন। এতে তার ভাই বোন ও ভাইয়ের ছেলেরা সে প্রস্তাবকে মৌখিক ভাবে মেনে নেন। এদিকে মজিদ কবিরাজ ও তার দুই ছেলে শামছুল হক ও সিরাজুল হকের মৃত্যুর পরে শামছুল হকের পুত্র এমাদুল হক (৩৮) ও জহিরুল হক মিন্টু (৩৬) পূর্ব পরিকল্পিত ও ষড়যন্ত্রমূলক মঠবাড়িয়া থেকে ভাড়াটে লোকজন নিয়ে এমিলিকে মারধর করে ঘর থেকে উচ্ছেদ করে এবং ঘরে রক্ষিত মালামাল ভাংচুরসহ ব্যাপক তান্ডবলীলা চালায়। এ ঘটনায় স্থানীয় ভাবে এলাকাবাসির মধ্যে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এমাদুল ও জহিরুল হক মিন্টু প্রভাবশালী বিধায় এলাকার কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পাচ্ছেন না। এমিলি বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে টানা দুই দিন ভারি বর্ষণে ক্ষুধার্ত অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এমিলি বেগম জানান, তার মাথা গোঁজার ঠাঁই স্বরূপ তার বাবার ভিটে বাড়িতে জীবনের শেষ নিঃশ্বাস টুকু ত্যাগ করতে পারেন সে আশা কামনা করে পুণরায় যাতে তার বসত বাড়িতে ফিরে যেতে পারেন। সে লক্ষে স্থানীয় প্রশাসন ও গণমাধ্যম কর্মীদের একান্ত সহযোগীতা কামনা করছেন।


আরও খবর



হাড়ক্ষয় হয়েছে কিনা বুঝবেন কীভাবে

প্রকাশিত:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৬ জুন ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অস্টিওপোরোসিস হচ্ছে ক্যালসিয়ামের ঘাটতিজনিত একটা রোগ। এ রোগ হলে হাড় দুর্বল হয়ে যায়। ফলে হাড় ভেঙে যাওয়ার ঝুঁকি অনেক বেড়ে যায়।

মূলত ভিটামিন ও ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার কম খাওয়ার ফলে এ রোগ হয়ে থাকে। এ ছাড়া বয়স বেশি হলে বংশগত কারণে, ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডির অভাবে হাড়ক্ষয় রোগ হয়ে থাকে।  তবে এ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পরও অনেকে বুঝতে পারেন না।

এ বিষয়ে স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট ইটদিস ডটকমর এক প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল স্কুল অব মেডিসিন-এর ডা. আনিকা কে আনাম বলেন, অস্টিওপোরোসিস হচ্ছে হাড়ের অসুখ। এই রোগে হাড় দুর্বল হওয়া এবং এর গঠনগত মান কমে যাওয়ার কারণে তা ভাঙা কিংবা ফেটে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে অনেক বেশি।  ফলে সামান্য দুর্ঘটনা থেকেই হাঁড় ভেঙে যেতে পারে।  রোগের মাত্রা যখন তীব্র হয়, তখন সামান্য হাঁচি দেওয়ার কারণেও রোগীর বুকের হাড় ভেঙে যেতে পারে।  আবার দাঁড়ানো অবস্থা থেকে পড়ে গিয়েও হাড় ভেঙে যেতে পারে।

বেশিরভাগ রোগী প্রথমবার হাড় ফেটে না যাওয়া পর্যন্ত কোনো লক্ষণই টের পান না।  আর এই রোগে সাধারণত মেরুদণ্ড, নিতম্ব ও হাতের কব্জির হাড়ে সবচাইতে বেশি ফাটল দেখা দেয়।  তাই শরীরের এই অংশগুলোতে বোন মিনারেল ডেনসিটি টেস্ট করার মাধ্যমে হাড়ক্ষয় হয়েছে কিনা তা জানা যাবে।

ডা. আনিকা কে. আনাম জনান, বোন মিনারেল ডেনসিটি টেস্ট পরীক্ষায় সময় কম লাগে, এটি ব্যথাহীন ও নিরাপদ।  এ পরীক্ষায় হাড়ের ঘনত্ব কম কিনা তা পরীক্ষা করা হয়। এ ছাড়া অন্য কোনো কারণে হাড়ের ক্ষয় হচ্ছে কিনা তা জানার জন্য রক্ত ও মূত্র পরীক্ষা করা হয়।

এ রোগ হওয়ার কারণসমূহ

ডা. আনাম এ রোগের প্রধান কারণ হিসেবে দ্বায়ী করেন বয়স বেশি হওয়া, বংশগত কারণ, ক্যালসিয়াম ও ভিটামিন ডি এর অভাব, ধূমপান ও মদ্যপান বেশি করা ইত্যাদি।

তিনি আরও বলেন, এগুলো বাদে যকৃতের রোগ, রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস, ইনফ্লামাটরি বাওয়েল ডিজিজ, দীর্ঘদিন স্টেরয়েড ব্যবহার ইত্যাদিও হাড়ের ক্ষয়রোগের কারণ হতে পারে।  আবার হাইপারথাইরয়েডিজম, অ্যানোরেক্সিয়া নারভোসা, বৃক্কের সমস্যা ইত্যাদি রোগে আক্রান্ত রোগীদেরও অস্টিওপোরোসিস হবার ঝুঁকি থাকে

তবে সব সম্ভাব্য কারণের মধ্যে সবচেয়ে ভয়ানক বিষয়টি হলো ইস্ট্রোজেন হরমোনের অভাব।  এটি নারীদের মাসিক বন্ধ হওয়ার পর হওয়াটাই স্বাভাবিক। তাই নারীদের এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

এ রোগ সম্পর্কে পরিসংখ্যান করে দেখা যায়, ৫০ বা তার বেশি বয়সের প্রতি তিনজন নারীর মধ্যে একজনের এই রোগে হাড় ফেটে থাকে।

এ রোগ প্রতিরোধে করণীয়

এ রোগ প্রতিরোধ করার বিষয়ে ডা. আনাম বলেন, হাড়ক্ষয় রোগ থেকে সুরক্ষিত থাকতে হলে হাড়ের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার বিকল্প নেই। এ জন্য শরীরে পর্যাপ্ত ক্যালসিয়াম, ভিটামিন ডি ও প্রোটিন সরবরাহ করাতে হবে। এবং খেতে হবে প্রচুর পরিমাণে ফল ও সবজি।

দুধ ক্যালসিয়ামের আদর্শ উৎস। তবে এটি ছাড়াও আরও অনেক খাবার থেকে ক্যালসিয়ামের চাহিদা জোগানো যেতে পারে। শরীরচর্চার গুরুত্বকেও অবহেলা করা যাবে না। নিয়মিত ভারোত্তোলন ও শক্তিবর্ধক ব্যায়াম করা ভালো। বাদ দিতে হবে ধূমপান ও মদ্যপান।

নিউজ ট্যাগ: হাড়ক্ষয়

আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১




বিশেষ লকডাউনের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী : জাহিদ মালেক

প্রকাশিত:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩১ মে ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
Image

সীমান্তবর্তী সাত জেলায় দ্রুত বিশেষ লকডাউনের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মন্ত্রিসভা বৈঠকে আজ সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশনা দেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। স্বাস্থ্যমন্ত্রী আজ সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, মন্ত্রী পরিষদ সচিবকে লকডাউন দেওয়ার বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রিসভা থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, সীমান্তবর্তী জেলাগুলোতে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে, যা উদ্‌বেগজনক। এই জেলাগুলোতে করোনার সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার কারণে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব লকডাউন দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এটা নিয়ে কাজ করছে। তবে সেসব জেলায় এখন আমের ব্যবসা চলছে, তাই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে কখন দেওয়া হবে।

এ ছাড়া স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, চীনের টিকা এলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, চীনা টিকা আসবে মোট দেড় কোটি। প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে তিন মাসে আসবে এই টিকা। এই টিকা প্রথমেই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেওয়া হবে মেডিকেল শিক্ষার্থীসহ সব সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের। এরপর বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে।


আরও খবর



সরকারি তথ্য ৯৯ শতাংশ ক্ষেত্রে লুকানোর কিছু নেই: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক শতাংশ সরকারি তথ্যে গোপনীয়তা রয়েছে জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান সেগুলোর প্রতি গণমাধ্যমকে সম্মান দেখানোর আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আমলাতন্ত্রের বিকল্প শূন্যতা। জীবনে শূন্যতা ভয়ংকর বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি আরোও বলেন, সরকারি তথ্য লুকানোর কিছু নেই। ৯৯ শতাংশ ক্ষেত্রে সরকারি তথ্য প্রকাশে কোনো সমস্যা নেই। শুধু রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার কারণে ১ শতাংশ গোপনীয়তা রয়েছে। সেটির প্রতি গণমাধ্যম সম্মান দেখাবে অবশ্যই।  আগামীতে হয়তো সেই ১ শতাংশও আর গোপন রাখার প্রয়োজন নাও হতে পারে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিসংখ্যান ভবনে বিবিএস গ্রোসারি (কনসেপ্টস অ্যান্ড ডেফিশেন) শীর্ষক বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব মোহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী। বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) মহাপরিচালক মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম। মূল প্রবদ্ধ উপস্থাপন করেন ন্যাশনাল স্ট্রাটেজি ফর দ্য ডেভেলপমেন্ট অব স্ট্যাটিস্টিকসের (এনএসডিএস) প্রকল্প পরিচালক দিলদার হোসেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সরকার অত্যন্ত স্বচ্ছ। কোনো তথ্য লুকাবেন না। আপনাদের জরিপে যদি কোনো ভয়ঙ্কর কিছু আসে, সে ক্ষেত্রে মহাপরিচালক ও সচিবকে জানাবেন। তারা মনে করলে আমাকে জানাবেন। আমি মনে করলে সরকারপ্রধানকে জানাব। 

তিনি আরও বলেন, সরকার বিবিএসের ওপর নির্ভরশীল। বিশেষ করে পরিকল্পনা প্রণয়নের ক্ষেত্রে মূল আকার আসে বিবিএস থেকে। এ জন্য পরিসংখ্যান ব্যুরোর বিশুদ্ধতা দরকার। আমরা জনগণের পক্ষে কাজ করি।  আমলাদের দক্ষতা বাড়াতে হবে।  বেশি বেশি প্রশিক্ষণ দিতে হবে। 

মোহাম্মদ ইয়ামিন চৌধুরী বলেন, অনেক জরিপ বা শুমারির ফল নিয়ে বিতর্ক হয়। এতে একেকজন একেক রকম ব্যাখা দিয়ে থাকেন। এসব বিতর্কেও অবসান ঘটাবে এ প্রকাশনাটি।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এসডিজির অগ্রগতি মনিটরিংয়ের জন্য সঠিক উপাত্ত সরবরাহ নিশ্চিত করা। এসডিজির ২৩১টি ইন্ডিকেটরের মধ্যে ১০০টির তথ্য বিবিএস সরাসরি প্রণয়ন ও সরবরাহ করে । বিবিএসের বিভিন্ন শুমারি ও জরিপ বা অন্যান্য পরিসংখ্যান কার্যক্রম একই বিষয়ে ভিন্ন ভিন্ন ধারণা ব্যবহৃত হয়। ফলে অনেক ক্ষেত্রে একটি বিষয়ের তথ্য ভিন্ন ভিন্ন হয়। এ সমস্যা দূর করার জন্য অর্থাৎ সব শুমারি ও জরিপ বা অন্যান্য পরিসংখ্যান কার্যক্রম একই বিষয়ে যেন একই ধারণা বা সংজ্ঞা ব্যবহার করা হয় তা নিশ্চিত করা। বিবিএসের বিভিন্ন শুমারি ও জরিপ বা অন্যান্য পরিসংখ্যান কার্যক্রম ব্যবহৃত সব ধারণাপ ও সংজ্ঞা আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী প্রমিতকরণ করা।



আরও খবর



যৌনতায় ভরপুর তাপসীর নতুন ছবির টিজার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোশ্যাল মিডিয়ায় খোলামেলা ছবি পোস্ট করে প্রশংসা ও সমালোচনা দুটোই কপালে জুটেছে তাপসী পান্নুর। দিনকে দিন আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছেন তিনি।

এবার নতুন ছবি মুক্তি পাচ্ছে তার। গতকাল সোমবার নায়িকার বহু প্রতীক্ষিত ছবি হাসিন দিলরুবার টিজার। আর ছবির টিজারটির মুক্তির সঙ্গে সঙ্গেই মুহূর্তে তা ভাইরাল হলো নেটমাধ্যমে।

হাসিনা দিলরুবার টিজারের পরতে পরতে শুধুই যৌনতা আর টান টান গল্পের ঝিলিক। প্রেম প্রতারণার হাত ধরেই থাকবে অপরাধ আর যৌনতার ভরপুর মিশেল। ছবিতে তাপসীকে রোমান্স করতে দেখা যাবে বিক্রান্ত মেসি এবং হর্ষবর্ধন রানের সঙ্গে। তাদের অনস্ক্রিন কেমিস্ট্রি আর ঠোঁট ঠাসা সেই চুম্বন বেশ কিছুক্ষণ রেশ রেখে যায় ৩০ সেকেন্ডের ছোট টিজারেও।

ছবির টিজার শেয়ার করে তাপসী ইনস্টাগ্রামে লেখেন- প্যায়ার কে তিন রং, খুন কে ছিটেকে সঙ্গ

আসছে ২ জুলাই ওটিটি প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে হাসিন দিলরুবা


নিউজ ট্যাগ: তাপসী পান্নু

আরও খবর



বিশ্বে করোনায় মৃত্যু ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ছাড়াল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ৭৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির সংখ্যা কোনোভাবেই কমছে না। সংক্রমণ কমলেও, বেড়েছে মৃত্যু। সবশেষ করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৭ কোটি ৪৩ লাখ ৭৪ হাজার ৮৭৩ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭ লাখ ৫১ হাজার ৯৩৫ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছে ১৫ কোটি ৭৬ লাখ ২৪ হাজার ১৫৬ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার থেকে মঙ্গলবার (৮ মে) সকালে এই তথ্য জানা গেছে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের সবশেষ তথ্য অনুযায়ী, করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪২ লাখ ২৭ হাজার ২২৭ জন আর ৬ লাখ ১২ হাজার ৭০১ জন মারা গেছেন।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৮৯ লাখ ৯৬ হাজার ৯৪৯ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৫১ হাজার ৩৪৪ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৬৯ লাখ ৮৫ হাজার ৮১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৬১৪ জনের।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৭ লাখ ১৩ হাজার ৯১৭ জন, রাশিয়ায় ৫১ লাখ ৩৫ হাজার ৮৬৬ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৫ লাখ ২২ হাজার ৪৭৬ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৩৩ হাজার ৬৯৮ জন, তুরস্কে ৫২ লাখ ৯৩ হাজার ৬২৭ জন, স্পেনে ৩৭ লাখ ৭ হাজার ৫২৩ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ১০ হাজার ৩৪১ জন এবং মেক্সিকোতে ২৪ লাখ ৩৩ হাজার ৬৮১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১০ হাজার ৬২ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ২৪ হাজার ১১৭ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ৮৪১ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৬ হাজার ৫৮৮ জন, তুরস্কে ৪৮ হাজার ২৫৫ জন, স্পেনে ৮০ হাজার ২৩৬ জন, জার্মানিতে ৮৯ হাজার ৯৬৫ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ২৮ হাজার ৮০৪ জন মারা গেছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।



আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১