আজঃ শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১
শিরোনাম

স্বামী-স্ত্রী বন্ধু হয়ে উঠবেন কিভাবে

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সংসার সুখী হয় রমনীর গুনে। অনেক সংসারে রমনীকেই অবহেলা করেন তার স্বামী। আবার কিছু স্ত্রী তার স্বামীকে জনসম্মুখে হেয় করেন। স্বামী-স্ত্রীর নিয়মিত একে-অপরকে অবহেলায় করায় সংসার বিচ্ছেদের ঘটনা কম নয়। এজন্য বিশেষজ্ঞদের মতে, স্বামী-স্ত্রী সম্পর্কে আগে একে-অপরের বন্ধু হয়ে উঠতে হবে। এতে একটি পরিবারের ভাল-মন্দ সহজেই দুজনার মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব ছাড়াই ভাগ করে নিতে পারেন। আর এতেই দৃঢ় হয় সম্পর্কের বন্ধন।

সমস্যায় পাশে থেকে ভরসা যোগান

কর্মজীবনে একজন পুরুষ নানা ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন। আর এই সমস্যার সময়ে ঠান্ডা মাথায় একজন স্ত্রী তার স্বামীকে শক্ত হওয়ার পরামর্শ দিতে পারেন। কখন স্বামীর সমস্যার মধ্যেই স্ত্রী রেগে না যাওয়াই ভাল। আবার স্ত্রীর সমস্যার সময়ে স্বামীকে সবার আগে পাশে থেকে শান্ত্বনা দিতে হবে। তাই তো দুজনার মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠলে রাগ, অভিমানগুলো সহজেই মেনে নিতে পারেন। সারা জীবনের প্রিয় সঙ্গী কিন্তু স্বামী, এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাদের মতে,  একজন নারী ও পুরুষ যখন বিবাহবন্ধনে জড়িয়ে পড়েন তখন তারা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকেন যে, সারা জীবন এভাবেই একে অপরের পাশে থাকবেন। যাবতীয় দায়িত্ব একে অপরের সঙ্গে ভাগ করে নেবেন। যদিও এখন ডিভোর্স রেট আগের থেকে অনেকটাই বেশি, তবুও খুব সহজে কেউই সেপারেশনে যেতে চান না। যে কোনও সম্পর্কেই ভাঙ্গন খুব কষ্টের। তবে সেসব কথা এখন থাক। কিভাবে  স্বামী-স্ত্রী একে-অপরের  বেস্ট ফ্রেন্ড হয়ে উঠবেন সেই সম্পর্কে কিছু টিপস জেনে নিন-

বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়া আর প্রেমের মধ্যে বিশাল ফারাক। বিয়ের আগে একজন নারী ও পুরুষের মধ্যে যে সম্পর্ক বিয়ের পরে তা থাকে না। সংসার জীবনে এসে সংসার চালানোর ক্ষেত্রে আড্ডা দিয়ে ভালোবাসার গল্প শোনানোর সময় হাতে পাওয়া যায় না। কারণ এরপর দুজনের একসঙ্গে থাকা, একসঙ্গে পথ চলা বদলে দেয় সম্পর্কের সমীকরণ। আর তাই প্রতিটা মুহূর্ত একসঙ্গে উপভোগ করে নিন। প্রেমে ভালোবাসা, ঝগড়া এসব থাকবেই। কিন্তু এসব বাদ দিয়েও ছোট, ছোট মুহূর্তেও ভালোবাসতে শিখুন। শুধুমাত্র I LoveYou বললেই ভালোবাসা প্রকাশ করা যায় না। বিয়ের পর সংসারের চাপ জটুলতা এসব থাকবেই। কিন্তু কখনও নিজেদের মধ্যে তৃতীয় কোনও ব্যক্তিকে আনবেন না । নিজেদের যাবতীয় সিদ্ধান্ত নিজেরাই নেবেন। একে অপরের অভিভাবকের কাছে অভিযোগও জানাবেন না। আপনার হাসিই কিন্তু স্বামীর মুখে তৃপ্তি ফোটাবে।

ভাল-খারাপ সব সময় সঙ্গীকে পাশে রাখুন। একে অপরের ভুল হলে অবশ্যই যেমন ধরিয়ে দেবেন, তেমনই অন্য কেউ যাতে তাকে অপমান না করেন সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। কারণ এভাবে একে অপরের পাশে থাকলেই সুন্দর সম্পর্ক তৈরি হবে। ভুল বোঝাবুঝি হলে কথা দিয়েই তা মিটিয়ে ফেলার চেষ্টা করুন। সেই সঙ্গে নিজেরা নিজেদের জন্যই গোল সেট করুন।

'আমি' থেকে 'আমাদের' বলা জরুরি

আমার বাড়ি, তোমার গাড়ি নয়, বরং আমাদের বাড়ি বা আমাদের গাড়ি এই ভাবেই বলুন। একইভাবে বাড়ির লোকদেরও আপন করে নিন। নিজের মা-বাবা বেশি গুরুত্বের আর শ্বশুর শাশুড়ি বলে গুরুত্ব কম এমন মনোভাব রাখবেন না। নিজের বাড়িতে যেমন ভাবে থাকেন, শ্বশুর বাড়িতেও সেই ভাবে থাকার চেষ্টা করুন।

মানুষের সঙ্গে মিশলে তবেই অনেক কিছু জানা যায়। মন উদার হয়। আর তাই সকলের সঙ্গে ভালো ব্যবহার জরুরি। কোন কারণে যদি কেউ আপনার স্বামীকেই নিমন্ত্রণ করে বলেন যে আপনাকেও সঙ্গে আসতে তাহলে অবশ্যই যাওয়ার চেষ্টা করুন। আপনাকে কেন আলাদাভাবে নিমন্ত্রণ করা হল না এই নিয়ে রাগারাগি করবেন না, যদি না খুব গুরুত্বপূর্ণ কোনও কারণ থাকে। বরং সবার সঙ্গেই সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলুন। খুব বেশি ঘনিষ্ঠতাও নয়, কিন্তু তা বলে এমন কোনও ব্যবহার করবেন না যাতে অন্যজ অস্বস্তিতে পড়েন।

নিউজ ট্যাগ: স্বামী-স্ত্রী
Share

আরও খবর
৪ মার্চ: আজকের দিনটি কেমন যাবে?

বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১




ভারতের সাবেকদের ঝড়ে বিধ্বস্ত বাংলাদেশের সাবেকরা

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ মার্চ ২০২১ | ৩৪জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বয়সের সংখ্যাটা বেড়েছে ঠিকই। কিন্তু, ব্যাটিংয়ে আগ্রাসী মনোভাবের বীরেন্দ্র শেবাগ একটুও বদলাননি। দীর্ঘদিন পর খেলতে নেমে ঝড় তুললেন বাইশ গজে। মাত্র ৩৫ বলে খেললেন ৮০ রানের ইনিংস। তাঁর ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে রীতিমতো বিধ্বস্ত হয়েছে বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটারদের নিয়ে গড়া দল বাংলাদেশ লেজেন্ডস।

গতকাল শুক্রবার রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজ টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারত লেজেন্ডসের কাছে ১০ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ লেজেন্ডস।

আগে ব্যাট করতে নেমে ১৯.৪ ওভারে ১০৯ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। যদিও বাংলাদেশের শুরুটা ছিল আশা জাগানিয়া। টস জিতে ৬ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়েই ৫০ ছুঁয়ে ফেলে বাংলাদেশ। এর পরেই ছন্দ হারাতে থাকে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত ভারতকে ১১০ রানের লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ। দলের পক্ষে সর্বাধিক ৪৯ রান করেন নাজিমউদ্দিন। বাকিরা কেউ ২০-এর ঘর পার করতে পারেননি।

জবাব দিতে নেমে শেবাগ ও শচীন টেন্ডুলকারের ওপেনিং জুটিতে ১০.১ ওভারেই জয় তুলে নেয় ভারত। ১০ চার ও ৫ ছক্কায় শেবাগ অপরাজিত ৩৫ বলে ৮০ রান করে। আরেক কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকার অপরাজিত থেকে যান ২৬ বলে ৩৩ রান করে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ লেজেন্ডস : ১৯.৪ ওভারে ১০৯ (নাজিমউদ্দিন ৪৯, জাভেদ ওমর ১২, নাফিস ইকবাল ৭, মোহাম্মদ রফিক ১, রাজিন সালেহ ১২, হান্নান সরকার ৩, আব্দুর রাজ্জাক ২, মোহাম্মদ শরিফ ৫, খালেদ মাসুদ ৬*, খালেদ মাহমুদ ৭, আলমগীর কবির ০; ইরফান পাঠান ২-০-১৩-০, বিনয় কুমার ৩.৪-০-২৫-২, মুনাফ প্যাটেল ২-০-২১-০, মানপ্রিত গনি ৪-০-১৯-১, প্রজ্ঞান ওঝা ৪-০-১২-২, যুবরাজ সিং ৩-০-১৫-২, ইউসুফ পাঠান ১-০-৩-১)।

ভারত লেজেন্ডস : ১০.১ ওভারে ১১৪/০ ( বিরেন্দর শেবাগ ৮০*, শচিন টেন্ডুলকার ৩৩*; মোহাম্মদ রফিক ৩-০-২৬-০, মোহাম্মদ শরিফ ৩-০-৩০-০, আলমগীর কবির ২-০-২৫-০, খালেদ মাহমুদ ২.১-০-৩২-০)।

ফল : ভারত লেজেন্ডস ১০ উইকেটে জয়ী।

Share

আরও খবর



অস্ত্র ও মাদক মামলা থেকে ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি

প্রকাশিত:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাদক আইনে করা মামলায় ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ড (বরখাস্ত) কাউন্সিলর ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১ মার্চ) ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান চূড়ান্ত প্রতিবেদন গ্রহণ করে তাকে অব্যাহতি দেন।

৫ জানুয়ারি ইরফানকে অব্যাহতির সুপারিশ করে মাদক ও অস্ত্র মামলায় চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন পরিদর্শক মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদনটি গ্রহণ করে ওই মামলা থেকে ইরফান সেলিমকে অব্যাহতি দেন আদালত।

গত বছরের ২৫ অক্টোবর নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমদ খান মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন। এ সময় হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমের গাড়ি তাকে ধাক্কা মারে। এরপর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেল থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে নেমে ইরফান সেলিম ও তার সঙ্গে থাকা অন্যরা তাকে কিল-ঘুষি মারেন এবং হত্যার হুমকি দেন। তার স্ত্রীকেও অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন অভিযুক্তরা।

পরদিন (২৬ অক্টোবর) সকালে ইরফান সেলিম, তার দেহরক্ষী মো. জাহিদুল মোল্লা, এ বি সিদ্দিক দিপু এবং গাড়িচালক মিজানুর রহমানসহ অজ্ঞাত দু-তিনজনকে আসামি করে ধানমন্ডি থানায় মামলা করেন ওয়াসিফ আহমদ খান। ওই দিনই পুরান ঢাকার বড় কাটরায় ইরফানের বাবা হাজী সেলিমের বাড়িতে দিনভর অভিযান চালায় র‍্যাব। এ সময় র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত মাদক রাখার দায়ে ইরফান সেলিমকে এক বছর কারাদণ্ড দেন। ইরফানের দেহরক্ষী মো. জাহিদকে ওয়াকিটকি বহন করার দায়ে দেন ছয় মাসের সাজা।

 

নিউজ ট্যাগ: ইরফান সেলিম
Share

আরও খবর
অবশেষে জামিন পেলেন কার্টুনিস্ট কিশোর

বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১




স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ আছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অবশেষে আগামী ৩০ মার্চ খুলছে স্কুল-কলেজগুলো।

শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে স্কুল-কলেজ খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আজ বৈঠকে বসে ছয় মন্ত্রণালয়। সভা শেষে রাতে সংবাদ সম্মেলনে স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্তের কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।

বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন অংশ নেন। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল মান্নান, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন, পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এর আগে গত ২২ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিসভার বৈঠকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার পরিবেশ পর্যালোচনা করতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের সেদিন জানিয়েছিলেন, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো কবে খুলে দেওয়া যায়, তা পর্যালোচনার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

একই দিন দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানিয়েছেন, ২৪ মে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেওয়া হবে। আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে ১৭ মে।

Share

আরও খবর



নিউজিল্যান্ডে ভূমিকম্প, নিরাপদে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ মার্চ ২০২১ | ৬২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিউজিল্যান্ডে দফায় দফায় আঘাত হেনেছে শক্তিশালী ভূমিকম্প। দেশটির উপকূলে স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে ৮ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী আরও একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে। তৃতীয় ভূমিকম্পের পর আবারও জারি করা হয়েছে সুনামি সতর্কতা। উপকূলীয় লোকজনকে উচু ও নিরাপদ স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ডয়েচে ভেলে জানিয়েছে, স্থানীয় সময় সকাল ৯টার আগে উত্তর-পূর্বের কেরমাডেক আইল্যান্ডে শক্তিশালী এই ভূমিকম্প আঘাত হানে।

এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, শুক্রবার নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানে সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে।

ভূমিকম্পের পর দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করে দেশটির পূর্ব উপকূলে অকল্পনীয় জলোচ্ছ্বাসের ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে বাসিন্দাদের।

বিভিন্ন প্রতিবেদনের বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, তৃতীয় দফায় সবচেয়ে শক্তিশালী ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর নিউজিল্যান্ডের বেশ কিছু শহরের মানুষের মধ্যে উঁচু স্থানে যাওয়ার হিড়িক পড়ে গিয়েছে। দিগ্বিদিক হয়ে মানুষজন ছোটাছুটি করছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টা ২৭ মিনিটে প্রথম ৭ দশমিক ২ মাত্রার এবং ভোর ৬টা ৪১ মিনিট দ্বিতীয়বার ৭ দশমিক ৪ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল দেশটি। কর্তৃপক্ষ সমুদ্রতীরবর্তী কিছু এলাকার লোকজনকে দ্রুত উঁচু স্থানে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে।

প্রথম ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়েছিল। পরে সুনামি সতর্কতা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। কিন্তু শুক্রবার সকালে আগের দুটির চেয়ে শক্তিশালী তৃতীয় ভূমিকম্পটি আঘাত হানার পর কর্তৃপক্ষ আবারও সুনামি সতর্কতা জারি করতে বাধ্য হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ভূমিকম্প
Share

আরও খবর



বাংলাদেশে আসবেন বাইডেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন প্রত্যাশা করে জানিয়েছেন, শিগগিরই বাংলাদেশে আসবেন যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি জে ব্লিনকেনের সঙ্গে ফোনালাপে এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।

বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তিন দিনের সফরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে আছেন। ওয়াশিংটনে অবস্থানরত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে করোনাভাইরাসের কারণে সরাসরি বৈঠক করতে না পেরে দুঃখ প্রকাশ করেন ব্লিনকেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ফোনালাপে দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ককে আরও গভীর করার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। দুদেশের সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী এবং বৈশ্বিক বিষয়ে সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য তারা সম্মত হন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন আশাবাদ ব্যক্ত করেন, খুব শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বাংলাদেশ সফর করবেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিনকেনকেও বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন দেখতে এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব উপলক্ষে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানান বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: জো বাইডেন
Share

আরও খবর