আজঃ শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

স্বরূপকাঠিতে ৪টি চোরাই ট্রলারসহ চোর চক্রের একজন গ্রেফতার

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে চারটি চোরাই ট্রলারসহ চোর চক্রের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার সাইদুল রহমান (৪৫) উপজেলার সোহাগদল ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের আ. রশিদ বেপারীর ছেলে। উদ্ধার হওয়া ট্রলার চারটির আনুমানিক মূল্য তের লক্ষ টাকা বলে জানায় পুলিশ।

নেছারাবাদ থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের শেষে বুধবার দুপুরে গ্রেফতারকৃত সাইদুলকে পিরোজপুর আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চোরাই ট্রলার বেচাকেনার খবর পেয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে পাটিকেলবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ওয়ালিদ হোসেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলা দৈহারী ইউনিয়নের গনকপাড়া এলাকার রঙ্গলাল সুতারের বাড়ি সংলগ্ন ষ্টিল ব্রিজের কাছে অভিযান চালায়। এসময় পুলিশের উপস্থিতিটের পেয়ে অন্য আসামীরা পালিয়ে গেলেও ওই চোরচক্রের সদস্য সোহাগদল ইউনিয়নের সাইদুল রহমানকে আটক করে পুলিশ। এসময় পুলিশ চোরদের বিক্রির উদ্দেশ্যে আনা হানিফ ঘরামী নামের একটি স্টিলবডি ট্রলার জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে। যার আনুমানিক মূল্য তিন লক্ষ টাকা। পরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটক সাইদুল জানায় পাশ্ববর্তী বানারীপাড়া উপজেলার দান্ডয়াট গ্রামের আশ্রাব আলী সরদারের ছেলে আইউব সরদার (৩০) এ চক্রের মূল হোতা। এছাড়াও সাইদুলের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ সাইদুলের বাড়ির খাল থেকে চোরাইকৃত আল্লাহ ভরশা, সেতু প্লাস ও মার্জিয়া প্লাস নামের আরও তিনটি স্টিলবড়ি ট্রলার জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে।

পরে পুলিশ বাদী হয়ে গ্রেফতার সাইদুল রহমান ও পালাতক আইউব সরদারকে আসামী করে নেছারাবাদ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

নেছারাবাদ থানার ওসি (তদন্ত) এইচ এম শাহিন বলেন, আসামীরা সংঘবদ্ধ চোরচক্রের সদস্য, তারা দীর্ঘদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে ট্রলার চুরি করে বিক্রি করে আসছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার আসামীর কাছ থেকে তাদের অন্য এক সহযোগীর নাম পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে আরও তথ্য সংগ্রহের জন্য আসামীর বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে রিমান্ডের আবেদন করবে পুলিশ।


আরও খবর



বেনাপোলে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৭ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
এম এ রহিম, বেনাপোল (যশোর)

Image

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আজ রোববার দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে সব ধরনের পণ্য আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকবে। তবে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বন্দর পরিচালক রেজাউল করিম ও বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্টস স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান।

রেজাউল করিম বলেন, রোববার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে সরকারি ছুটি থাকায় পেট্রাপোল ও বেনাপোল বন্দর দিয়ে কোনো আমদানি-রপ্তানি হবে না। সোমবার সকাল থেকে পুনরায় আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম চলবে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ থাকলেও দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

এ ছাড়া বন্দর থেকে আমদানি পণ্য খালি করা ট্রাক ফেরত যাওয়ার জন্য চেকপোস্ট কার্গো শাখা খোলা থাকবে।


আরও খবর



গাজায় হত্যাকাণ্ড বন্ধে পদক্ষেপ না নেয়া দুঃখজনক: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ মার্চ 20২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ মার্চ 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, সারাবিশ্ব গাজায় হত্যাকাণ্ড প্রত্যক্ষ করছে, কিন্তু তা বন্ধে কেউ কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এটি খুবই দুঃখজনক।

রোববার গণভবনে ফিলিস্তিনের ফতেহ আন্দোলনের (শাসক দল) মহাসচিব লেফটেন্যান্ট জেনারেল জেবরেল আলরজউবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এ কথা বলেন তিনি।

সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

নজরুল ইসলাম বলেন, গাজায় ইসরায়েলি হামলার বিষয়ে নীরব অবস্থানের জন্য মানবাধিকার সংস্থাগুলোর কঠোর সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এটি এক ধরনের ভন্ডামি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মুসলমানদের ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিত এবং এটি করা উচিত মুসলিম উম্মাহর নিরাপত্তা এবং ফিলিস্তিনিদের দুর্দশা লাঘবের জন্য।

শেখ হাসিনা ফিলিস্তিনিদের প্রতি তার দ্ব্যর্থহীন সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করে গাজায় নারী ও শিশুসহ হাজার হাজার মানুষ হত্যাসহ ইসরায়েলি বাহিনীর হাসপাতালে হামলার নিন্দা করেন। তিনি গাজায় মৃত্যুর জন্য শোক প্রকাশ করেন এবং গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবি জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ এরই মধ্যে মিশরের মাধ্যমে ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য দুই দফা ত্রাণ সহায়তা পাঠিয়েছে। আমি যেখানেই সুযোগ পেয়েছি ফিলিস্তিনি জনগণের জন্য আন্তর্জাতিক ফোরামে সবসময় আওয়াজ তুলেছি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী টিটু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৪ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৪ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে নিম্নমানের খেজুর লেখা নিয়ে ক্ষমা চাইলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু। তিনি বলেছেন, তাড়াহুড়োর কারণে ভুল হয়ে গেছে। এ সময় ভুলের জন্য ক্ষমাও চান তিনি। বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) সচিবালয়ে বিশ্ব ভোক্তা অধিকার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

আহসানুল ইসলাম টিটু বলেন, কয়েক দিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ট্রলিং হচ্ছে। আমাদের ছোট একটা ভুল, ছোট না আমি বলব যে, বড়ই ভুল। আমাদের ভাষাটা ঠিক হওয়া দরকার ছিল। সাধারণ মানের জায়গায় শব্দটা একটুই হয়ে গিয়েছিল। পরবর্তী সময়ে সেটি সংশোধন করে দিয়েছি, কিন্তু সেটি হাইলাইটেড হয়নি।

বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা সাধারণ মানের খেজুর এবং বহুল ব্যবহৃত জাইদি খেজুর দুটির নামে সংশোধন করে দিয়েছি। আমরা যখন দ্রুত কাজ করতে যাই তখন কিছুটা ভুলত্রুটি হয়ে যায়। আমরা চেয়েছিলাম প্রথম রমজানেই নোটিশটি দিয়ে দিতে। এক সপ্তাহ আগে তাদের বলেছিলাম স্ব-উদ্যোগী হয়ে দাম নির্ধারণ করে দেওয়ার। যেহেতু তারা গড়িমসি করছিল, আর আমরা চাচ্ছিলাম প্রথম রমজান থেকে, তাই তাড়াহুড়োয় আমাদের ভুল হয়ে গেছে। সে জন্য আমি বিনীতভাবে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

এর আগে গত ১১ মার্চ খেজুরের দাম নির্ধারণ করে এফবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ও বাংলাদেশ ফ্রেস ফ্রুটস ইম্পোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতির কাছে চিঠি পাঠায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। চিঠিতে প্রতি কেজি অতিসাধারণ/নিম্নমানের খেজুর এর দাম ১৫০-১৬৫ টাকা এবং বহুল ব্যবহৃত জাইদি খেজুর এর দাম নির্ধারণ করা হয় ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা। পরে অতিসাধারণ/নিম্নমানের খেজুর নির্ধারণ করে দাম বেঁধে দেওয়া নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। বলা হয়, তা হলে কি সরকারই নিম্নমানের খেজুর আমদানিকে উৎসাহিত করছে।


আরও খবর



ভ্লাদিমির পুতিনকে অভিনন্দন জানালেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাশিয়ার রাষ্ট্রপ্রধান হিসেবে ৫ম মেয়াদে নির্বাচিত ভ্লাদিমির পুতিনকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) প্রধানমন্ত্রীর প্রেস উইং থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

রাশিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্যমতে, সদ্য সমাপ্ত রুশ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ৯৯ শতাংশ ভোটকেন্দ্রের গণনা শেষে পুতিন ৮৭ দশমিক ৩৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। এটি তার রেকর্ড বিজয়।

পুতিনের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রুশ কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী নিকোলাই খারিতনভ পেয়েছেন মাত্র ৪ শতাংশের সামান্য বেশি ভোট। এর আগে টানা তিন দিন ধরে দেশটিতে ভোটগ্রহণ চলে।

তবে রাশিয়ার এই নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হয়নি বলে সমালোচনা করছে পশ্চিমা বিশ্ব। এই বিজয়ের মধ্য দিয়ে আরও ৬ বছরের জন্য ক্ষমতা পাকাপোক্ত হলো পুতিনের।

নির্বাচন-পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে পুতিন পশ্চিমা বিশ্বকে উপেক্ষা করার এবং ইউক্রেন আক্রমণ করার সিদ্ধান্তের প্রতিফলন হিসাবে এই ফলাফলটি তুলে ধরেন। ২০০০ সাল থেকেই রাশিয়ার ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে সাবেক কেজিবি প্রধান পুতিন।


আরও খবর



চাঁপাইনবাবগঞ্জে নদীতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দা ও পাগলা নদীতে ডুবে তিন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আজ শনিবার (৬ এপ্রিল) শিবগঞ্জ উপজেলার তর্তিপুর ও ভোলাহাট উপজেলার বজরাটেক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো, ভোলাহাট উপজেলার আব্দুল কাদেরের ছেলে জিহাদ মিয়া (১৩) ও সুবেদ মিস্ত্রির ছেলে আজিজুল হক (১২)। শিবগঞ্জ উপজেলার তর্তিপুর এলাকার রুপকুমারের মেয়ে প্রিয়াঙ্কা।

ভোলাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমন কুমার জানান, দুপুরে ভোলাহাটের বজরাটেক এলাকায় মহানন্দা নদীতে গোসল করতে যায় জিহাদ ও আজিজুলসহ আরো দুজন। তারা বল নিয়ে খেলছিল। এমন সময় চারজনই স্রোতের তোড়ে ভেসে যায়। দুজন সাঁতরে তীরে উঠলেও তলিয়ে যায় জিহাদ ও আজিজুল। পরে বেলা ৩ টার দিকে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

অন্যদিকে সকালে শিবগঞ্জে তর্তিপুরে গোসল করতে নামে স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী প্রিয়াঙ্কা। এসময় ডুবে যায় সে। পরে স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করে।


আরও খবর