আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

স্বরূপকাঠিতে গুমের মামলা তুলে না নেয়ায় বাদীকে পিটিয়ে আহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ১১২০জন দেখেছেন

Image

স্বরূপকাঠি (পিরোজপুর) প্রতিনিধি:

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে মেয়েকে অপহরণ করে গুম করার অভিযোগে দায়েরকৃত মামলা তুলে না নেয়ায় মামলার প্রধান আসামী সরকারি কর্মকর্তা কর্তৃক নির্যাতনের শিকার হয়েছে মামলার বাদী অপহৃত মেয়েটির মা।

নির্যাতনে শিকার ওই হতভাগ্য মায়ের নাম বিউটি বেগম (৬০) তিনি উপজেলার গুয়ারেখা ইউনিয়নের পাটিকেল বাড়ি এলাকার মো. তোফাজ্জেল হোসেনের স্ত্রী। নির্যাতনকারী হারুন অর রশিদ গাজী ওরফে হিরন (৫৫) একই এলাকার আনোয়ার হোসেন গাজীর ছেলে সে স্বরূপকাঠি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জনস্বাস্থ্য পরিদর্শক।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন গৃহবধু বিউটি বেগম জানায়, ২০২০ সালে তার মেয়ে তানিয়ার সাথে জনস্বাস্থ্য পরিদর্শক হিরনের ছোট ভাই মিজানুর রহমান মিরনের বিবাহ হয়। তাদের এই বিয়েকে মানতে পারেনি হিরণ সে বিবাহ বিচ্ছেদের জন্য তানিয়াকে বিভিন্ন সময় হুমকি দিত। বিয়ের তিন মাসের মাথায় তানিয়া নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় তানিয়ার মা বিউটি বেগম বাদী হয়ে বরিশাল বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন বিশেষ আদালতে হিরনকে প্রধান করে নামীয় ৪ জন ও অজ্ঞাত ৫ জনকে আসামী করে একটি অপহণ গুমের মামলা দায়ের করেন। সেই মামলা তুলে নিতে বিউটি বেগমকে বিভিন্ন সময় চাপ প্রয়োগ করে হুমকি দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার বিউটি বেগম তার এক আত্মিয়ের বাড়ি বেড়াতে যাবার সময় গুয়ারেখা এগারোগ্রাম সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কাছে পৌছুলে হিরন বিউটির উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় হিরনের এলাপাথাড়ি পিটানে বিউটি চিৎকার দিলে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে হিরন পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে বিউটির স্বামি তোফাজ্জেল হোসেন নেছারাবাদ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নিখোঁজ গৃহবধু তানিয়ার স্বামি মিজানুর রহমান মিরন জানায় তার ভাই হিরন একজন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। হিরন তার স্ত্রীকে গুম করেছে এখন মামলা তুলে নিতে তার শাশুড়ীকে মেরে আহত করেছে।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত জনস্বাস্থ্য পরিদর্শক মো. হারুন অর রশিদ হিরন ওই গৃহবুর উপর হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে উল্টো তার উপর গৃহবধু বিউটি এবং তার ছেলে সোহান হামলা করেছে এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অপহরণ গুমের মামলা দেয়া হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন। আমার উপর হামলা করেছে।

নেছারাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবির মোহাম্মদ হোসেন জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর
পিরোজপুর মুক্ত দিবস আগামীকাল

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১




বাগেরহাটে চন্দ্রমহল ইকোপার্ক থেকে ৪৩টি বন্যপ্রাণি উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | ৮১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
অবৈধভাবে বন্যপ্রাণি সংরক্ষণের দায়ে চন্দ্রমহল ইকোপার্কের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আলী চাকলাদারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

বাগেরহাটের চন্দ্রমহল ইকোপার্ক থেকে ১৬ প্রজাতির ৪৩টি বন্যপ্রাণি উদ্ধার করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ সোমবার দুপুরে বন্যপ্রাণি ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ এবং র‌্যাব-৬ যৌথ অভিযান চালিয়ে বাগেরহাট সদর উপজেলার রঞ্জিতপুর এলাকার চন্দ্রমহল ইকোপার্ক থেকে বন্য প্রাণিগুলো উদ্ধার করে।

অবৈধভাবে বন্যপ্রাণি সংরক্ষণের দায়ে চন্দ্রমহল ইকোপার্কের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আলী চাকলাদারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

উদ্ধার বন্যপ্রাণির মধ্যে আছে- কুমির, হরিণ, হনুমান, বানর, ময়ূর, উটপাখি, অস্ট্রেলিয়ান ঘুঘু, কচ্ছপ, বক এবং মাসমুটাল পাখি। এছাড়া, র‌্যাব-৬ সদস্যরা ৬টি হরিণের শিং, ৬টি হরিণের চামড়া, ১টি ভালুকের চামড়া, ১টি ক্যাঙ্গারুর চামড়া ও ১টি তিমির কঙ্কাল জব্দ করেছে।

উদ্ধার প্রাণিগুলো বন্যপ্রাণি ও প্রকৃতি সংরক্ষণ অধিদপ্তরে হস্তান্তর করা হয়েছে।

র‌্যাব-৬-এর পুলিশ সুপার আল আসাদ মোহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম জানান, চন্দ্রমহল ইকোপার্কের মালিক ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে এসব পশু পালন করছিলেন। এটি বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের পরিপন্থী। এ জন্য সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে চন্দ্রমহল ইকোপার্কে অভিযান চালিয়ে ১৬ প্রজাতির ৪৩টি প্রাণি উদ্ধার করা হয়েছে। পরে এসব প্রাণি ছেড়ে দেওয়া হবে।

বন্যপ্রাণি রক্ষায় আগামীতেও র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান এই র‌্যাব কর্মকর্তা।

নিউজ ট্যাগ: বাগেরহাট

আরও খবর
মোরেলগঞ্জে সুজন সভা

শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১




রামপুরায় বাসে অগ্নিসংযোগ, ২ মামলায় আসামি ৮০০

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৯৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর রামপুরায় শিক্ষার্থী মৃত্যু কেন্দ্র করে বাসে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দুটি মামলা করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার করা মামলা দুটিতে অজ্ঞাত ৮০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বাসচাপায় শিক্ষার্থী মাঈনুদ্দিন নিহত হওয়ার পর উত্তেজিত জনতা কয়েকটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালায়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করে। একটি মামলায় ২৫০ থেকে ৩০০ জন এবং অপরটিতে ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

এ ছাড়া নিহত শিক্ষার্থীর মা রাশেদা বেগম বাদী হয়ে নিরাপদ সড়ক আইনে একটি মামলা করেছেন। এ মামলায় অনাবিল পরিবহণের বাসচালককে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে জানান ওসি।

প্রসঙ্গত গত সোমবার রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর রামপুরা এলাকায় গ্রিন অনাবিল পরিবহণের বাসের চাপায় মাঈনুদ্দিন নিহত হন। এ ঘটনায় রাতে সড়ক অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ঘাতক বাসসহ আটটি বাসে আগুন দেওয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় আরো চারটি বাস।


আরও খবর
আবরার হত্যায় ২০ আসামির মৃত্যুদণ্ড

বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১




বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে ৩ মামলা

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
রাজপাড়া থানার ওসি মাজাহারুল ইসলাম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটূক্তিসহ বঙ্গবন্ধু মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণার অভিযোগের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি এজাহার পেয়েছি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি এবং বঙ্গবন্ধু মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণার অভিযোগে রাজশাহীর কাটাখালি পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে থানায় তিনটি এজাহার দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাজশাহী মহানগরের রাজপাড়া, বোয়ালিয়া ও চন্দ্রিমা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে এ তিনটি এজাহার দায়ের করা হয়। পুলিশ এজাহারগুলো গ্রহণ করে মামলা রেকর্ডের প্রক্রিয়া শুরু করেছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

বোয়ালিয়া থানায় দায়ের করা অভিযোগে বাদী হয়েছেন, রাজশাহী নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন।

এছাড়াও চন্দ্রিমা থানায় দায়ের করা এজাহারের বাদী নগর যুবলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তহিদুল হক সুমান এবং রাজপাড়া থানায় ১৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে এজাহার দায়ের করেন।

রাজপাড়া থানার ওসি মাজাহারুল ইসলাম বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটূক্তিসহ বঙ্গবন্ধু মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণার অভিযোগের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি এজাহার পেয়েছি। সেটি মামলা হিসেবে রেকর্ডের প্রক্রিয়া চলছে। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে এজাহারটি দায়ের করেন বলে জানান ওসি মাজহারুল।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি এবং বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল নির্মাণ প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে বক্তব্য দেন নৌকা প্রতীকে দুইবারের নির্বাচিত মেয়র আব্বাস আলী। এ নিয়ে তার ফাঁস হওয়া অডিও ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সোমবার রাত থেকে অডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পাড়ে।

ইসলামের দৃষ্টিতে পাপ সে জন্য রাজশাহী সিটি গেটে বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল না বসানোর নির্দেশ দেন এই মেয়র; যা জীবন দিয়ে হলেও প্রতিহত করার ঘোষণাও দেন তিনি। তার এমন বক্তব্যে রাজশাহীজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। যদিও পুরো ঘটনাটি অস্বীকার করেছেন মেয়র আব্বাস।


আরও খবর
আবরার হত্যায় ২০ আসামির মৃত্যুদণ্ড

বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১




মাদক বিরোধী অভিযানে আটক ১২৫

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে মাদক বিরোধী অভিযানে বিক্রি ও সেবনের অপরাধে ১২৫ জনকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। 

বুধবার (১৭ নভেম্বর) সকাল ছয়টা থেকে বৃহস্পতিবার  (১৮ নভেম্বর) সকাল ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) হাফিজ আল আসাদ জানান, তাদের কাছ থেকে ৭,৫০৪ পিস ইয়াবা,  ৫৪৬ গ্রাম ৪৬০ পুরিয়া হেরোইন, ১৩.২ লিটার দেশি মদ, ৩৩ কেজি ৪৪০ গ্রাম গাঁজা, ১০টি নেশা জাতীয় ইনজেকশন, ৬০টি ট্যাপেনটাডিল ট্যাবলেট ও ৮০টি বুপ্রেনরফিন জব্দ করা হয়।

আসামিদের বিরুদ্ধে ডিএমপির থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৯৭ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।  


আরও খবর



মার্বেল দিয়ে ভোট দিচ্ছে গাম্বিয়ার জনগণ

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ব্যালট পেপার নয়, বরং মার্বেল দিয়ে ভোট দিয়েছে গাম্বিয়ার জনগণ। স্থানীয় সময় শনিবার সকালে দেশটিতে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ২০১৬ সালের পর এটি গাম্বিয়ায় প্রথম প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। ওই বছর নির্বাচনে পরাজিত হন প্রেসিডেন্ট ইয়াহইয়া জামেহ। নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করলেও পরে ব্যাপক চাপের মুখে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান তিনি।

পরে সরকার গঠন করেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট আদামা ব্যারো। গাম্বিয়ার স্বাধীন নির্বাচন কমিশন আইইসি জানিয়েছে, ২৫ লাখ জনগোষ্ঠীর মধ্যে ভোটার হচ্ছেন ১০ লাখ। নির্বাচনে বিপুলসংখ্যক মানুষ ভোট দেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, রাজধানী বানজুলের একটি ভোটকেন্দ্রে কর্মকর্তাদের ভোটের ড্রাম বহন করে নিয়ে যান। ড্রামগুলোতে প্রার্থীর ছবি সেঁটে দেওয়া ছিল। সেই ছবি দেখে প্রার্থী বাছাই করে এসব ড্রামে মার্বেল ফেলে ভোটাররা।

আইইসির রিটার্নিং কর্মকর্তা মামাদু এ. ব্যারি জানিয়েছেন, গাম্বিয়ার জনগণ ভোট দেওয়ার জন্য কাচের মার্বেল ব্যবহার করার প্রক্রিয়াতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেছে। উচ্চ নিরক্ষরতার হারের দেশটিতে ব্যালট নষ্ট হওয়া বন্ধে ১৯৬০-এর দশকে ব্যবস্থাটি চালু করা হয়েছিল।


আরও খবর