আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

তেলের দাম কমানো নিয়ে যা বললেন অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় গত বছর নভেম্বরের শুরুতে এক লাফে লিটারে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম ১৫ টাকা বাড়ায় সরকার। এই অজুহাতে বাড়ানো হয় বাস-ট্রাক-লঞ্চের ভাড়া। তবে এর কিছুদিন পর বিশ্ববাজারে টানা তেলের দাম কমতে থাকলেও সুফল পায়নি দেশের সাধারণ মানুষ। তবে এবার তেলের দাম কমানোর বিষয়টি সরকার বিবেচনা করবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) অর্থনৈতিক বিষয়-সংক্রান্ত সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন জ্বালানি তেলের দাম কতটা ঊর্ধ্বমুখী ছিলে। এখন আমরা নিম্নমুখী দেখতে পাচ্ছি। আমার বিশ্বাস সরকার সেটি বিবেচনা করবে। এর জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করতে হবে। তবে দাম কমানোর বিষয়টি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ভালো বলতে পারবে।

তিনি বলেন, আজ রপ্তানি বাণিজ্যের পরিমাণ নির্ধারণ বিষয়ে একটি প্রস্তাব ছিল। আমরা কীভাবে রপ্তানি বাণিজ্য করব এর নীতি নির্ধারণ করার বিষয়টি প্রস্তাবে আসে। আমরা ২০২১ থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত এর খসড়া নীতি নির্ধারণ করেছি, এটা অনুমোদন করে দিয়েছি। আমাদের বিদ্যমান রপ্তানি বাণিজ্যের যে লক্ষ্যমাত্রা সেটি ৬০ বিলিয়ন মর্কিন ডলার, এটিকে বাড়িয়ে ৮০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত করেছি। এর জন্য আনুষঙ্গিক যেসব বিষয় রয়েছে, সেগুলোর জন্য যা যা করা দরকার, করব।


আরও খবর
অর্ধেক জনবলে চলবে ব্যাংক

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২

শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




রামপুরায় ঝটিকা অভিযানে মেয়র আতিক

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ২১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সড়ক তখনও মানুষের উপস্থিতিতে সরব হয়ে ওঠেনি, রাস্তা-ঘাট ফাঁকা। দোকানপাটও বেশি খোলেনি। এমন সময় কাউকে কিছু না জানিয়ে হঠাৎ রাজধানীর মহানগর আবাসিক এলাকা এবং পশ্চিম রামপুরা এলাকায় উপস্থিত হলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। সার্বিক অব্যবস্থাপনার চিত্র দেখে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য তার এই আকস্মিক পরিদর্শন।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনি হঠাৎ করেই এই এলাকায় পরিদর্শনে আসেন। এর আগে সম্প্রতি একইভাবে তিনি মিরপুরের বেশ কিছু এলাকায় আকস্মিক পরিদর্শন করে অব্যবস্থাপনার বিষয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

এ সময় বিভিন্ন অব্যবস্থাপনার চিত্র তার নজরে আসে। তিনি দেখতে পান, একটি নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে সড়কে ফুটপাত দখল করে নির্মাণসামগ্রী রাখা হয়েছে। এছাড়া ফুটপাত ও ড্রেন বন্ধ হয়ে আছে আবর্জনায়। অব্যবস্থাপনার কারণে তিনি তাৎক্ষণিক বাড়িটির নির্মাণকাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন। পাশাপাশি ফুটপাত দখলের দায়ে জরিমানার নির্দেশও প্রদান করে।

অন্যদিকে, একটি মিষ্টির দোকানের সামনে ময়লা ফেলে রাখায় তিনি কর্তৃপক্ষকে ডেকে তাৎক্ষণিক পরিষ্কারের নির্দেশ প্রদান করেন। পাশেই সড়কে এবং ফুটপাত দখল করে বালু রাখায় মালিককে ডেকে কারণ জানতে চান এবং বালু জব্দ করার নির্দেশ দেন।

আকস্মিক পরিদর্শনের বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ফুটপাত দখল করে এক শ্রেণির মানুষ সেখানে নির্মাণসামগ্রী রেখেছে। এতে সাধারণ মানুষকে চলাচলে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

তিনি বলেন, এই শহর আমাদের সবার। আমরা যদি নিজ নিজ জায়গা থেকে সবাই সচেতন না হই তাহলে শহরটার পরিবেশ আমরা সুন্দর করতে পারব না। তাই আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। সাধারণ মানুষের কথা ভাবতে হবে।

এদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, শহরের বিভিন্ন স্থানে অব্যবস্থাপনা দূর করতে মূলত মেয়র এমন আকস্মিক পরিদর্শনে যাচ্ছেন। যাতে সংশ্লিষ্ট সবাই সচেতন থাকেন এবং অব্যবস্থাপনা দূর করতে সিটি করপোরেশনসহ সবাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করেন।


আরও খবর



মদ উৎপাদন দ্বিগুণ করবে কেরু

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি অবলম্বনের মাধ্যমে উৎপাদন দ্বিগুণ করার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় মদ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ প্রতিষ্ঠান কেরু অ্যান্ড কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেড।

কর্মকর্তারা জানান, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এ বছরের অক্টোবর-ডিসেম্বরে কেরুর উৎপাদিত মদের বিক্রি ৫০ শতাংশেরও বেশি বেড়েছে

এ বছরের অক্টোবরে, নভেম্বর ও ডিসেম্বরে যথাক্রমে  ১৮ হাজার ৫৭৯, ১৯ হাজার ৪৪৬ এবং ২১ হাজার কেসেরও বেশি মদ বিক্রি করেছে কেরু। প্রতিষ্ঠানটি ১৭৫ মিলিলিটার, ৩৭৫ মিলিলিটার ও ৭৫০ মিলিলিটারের বোতলে মদ বাজারজাত করে। একটি কেসে ৭৫০ মিলিলিটারের ১২টি, ৩৭৫ মিলিলিটারের ২৪টি এবং ১৭৫ মিলিলিটারের ৪৮টি মদের বোতল থাকে।

কেরুর উৎপাদিত মদ প্রতি মাসে গড়ে ১২ থেকে ১৩ হাজার কেস বিক্রি হয়ে থাকে। উৎপাদনও সে অনুযায়ী করা হয়। তবে চুয়াডাঙার দর্শনায় অবস্থিত কারখানায় বর্তমানে উৎপাদন সক্ষমতার মাত্র ৫০ শতাংশ ব্যবহৃত হচ্ছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে কেরু মদ বিক্রি থেকে ১৯৫ কোটি টাকা লাভ করেছে।

কেরুর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোশাররফ হোসেন জানান, সরকার একটি ১০২ কোটি ২১ লাখ টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে, যা ২০২২ সালে শেষ হবে। এর মাধ্যমে উৎপাদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় করা হবে। এ ছাড়া রূপপুর, কক্সবাজার ও কুয়াকাটায় ১টি করে বিক্রয় কেন্দ্র এবং রাজশাহী ও রামুতে ১টি করে ওয়্যারহাউস নির্মাণের মাধ্যমে বাজার সম্প্রসারণের পরিকল্পনাও করেছে কেরু। বর্তমানে সারা দেশে কেরুর ১৩টি ওয়্যারহাউস ও ৩টি বিক্রয়কেন্দ্র আছে।

এরমধ্যে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কেরুর ২টি নতুন বিক্রয়কেন্দ্রের অনুমোদন দিয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির  কর্মকর্তারা। তারা বলেন, বিক্রয়কেন্দ্রগুলো পরিচালনা করার জন্য পর্যটন করপোরেশনের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করবে কেরু।

৮৩ বছরেরও বেশি পুরনো প্রতিষ্ঠানটির রয়েছে ৯টি ব্র্যান্ড। এগুলো হচ্ছে-  ইয়েলো লেবেল মল্টেড হুইস্কি, গোল্ড রিবন জিন, ফাইন ব্র্যান্ডি, চেরি ব্র্যান্ডি, ইম্পেরিয়াল হুইস্কি, অরেঞ্জ কুরাকাও, জারিনা ভদকা, রোসা রাম ও ওল্ড রাম।

কেরুর সূত্রগুলো জানায়, বর্তমানে তাদের কারখানায় ৯টি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আওতায় আন্তর্জাতিক বাজারের জন্য প্রস্তুতকৃত ১০ লাখ ৮০ হাজার প্রুফ লিটার মদ, ২৬ লাখ লিটার দেশি স্পিরিট ও ৮ লাখ লিটার ডিনেচার্ড স্পিরিট উৎপাদন করা হয়। মদের পাশাপাশি ভিনেগার, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সার, চিনি ও গুড়ের মতো অন্যান্য পণ্যও উৎপাদন করে থাকে এ প্রতিষ্ঠানটি।


আরও খবর
অর্ধেক জনবলে চলবে ব্যাংক

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২

শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




সোমবার থেকে সচিবালয়ে দর্শনার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২ | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সোমবার (২৪ জানুয়ারি) থেকে সচিবালয়ে দর্শনার্থী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার।

রবিবার (২৩ জানুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে উদ্ধৃত করে সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, আগামীকাল ২৪ জানুয়ারি থেকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশ সচিবালয়ে দর্শনার্থী প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে- মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

করোনা সংক্রমণ মোকাবিলায় গত ১৩ জানুয়ারি থেকে ১১টি বিধিনিষেধ দেয় সরকার। এরপরও ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণে প্রভাব না পড়ায় গত শুক্রবার থেকে স্কুল-কলেজ বন্ধ করে দেওয়াসহ নতুন করে ছয়টি নির্দেশেনা দেওয়া হয়।

ওই নির্দেশনায় বলা হয়- রাষ্ট্রীয়, সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় সমাবেশ ও অনুষ্ঠানগুলোতে ১০০ জনের বেশি মানুষের সমাবেশ করা যাবে না। এসব ক্ষেত্রে যারা যোগদান করবেন তাদের অবশ্যই করোনা টিকার সনদ অথবা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে করা পিসিআর টেস্টের নেগেটিভ সনদ সঙ্গে রাখতে হবে।

এদিকে, রবিবারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় (শনিবার সকাল ৮টা থেকে রোববার সকাল ৮টা পর্যন্ত) করোনায় আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে আক্রান্ত রোগী হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ১০ হাজার ৯০৬ জন। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ২৯।


আরও খবর



একদিনে নতুন করে ৩০ লাখ করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আরও বেড়েছে। একইসঙ্গে আগের দিনের উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩০ লাখ ১৫ হাজার।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন পোল্যান্ড ও ব্রাজিল। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৩ কোটি ৫১ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫৫ লাখ ৭২ হাজার।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮ হাজার ৩৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে তিন হাজারের বেশি। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৫৫ লাখ ৭২ হাজার ৮৯৪ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩০ লাখ ১৫ হাজার ১৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ১১ লাখ। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৩ কোটি ৫১ লাখ ১৩ হাজার ৪০৫ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৪৫ হাজার ২৯৯ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৭১৯ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৬ কোটি ৮৭ লাখ ৬৪ হাজার ৮৩২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ৮ লাখ ৭৭ হাজার ২৩৯ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৮৮ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩১ হাজার ২৫২ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮ লাখ ৬৫ হাজার ৮১২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ২২ হাজার ৬৭৮ জনের।

এছাড়া গত এক দিনে যুক্তরাজ্যে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ হাজার ৪৩২ জন এবং মারা গেছেন ৪৩৮ জন। মহামারির শুরু থেকে এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৫৩ লাখ ৯৯ হাজার ৩০০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৫২ হাজার ৫১৩ জন মারা গেছেন। একই সময়ে ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৮ হাজার ১৭৯ জন এবং মারা গেছেন ৪৩৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৭৬৯ জন এবং মারা গেছেন ৩৭৫ জন। মহামারির শুরু থেকে এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৪৭ লাখ ৩৯ হাজার ২৯৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ২৭ হাজার ৬৩৮ জন মারা গেছেন। একই সময়ে কলম্বিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ হাজার ৮৪৯ জন এবং মারা গেছেন ১৩৮ জন।

এছাড়া জার্মানিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৫ হাজার ৯৮ জন এবং মারা গেছেন ১৯৯ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮১ লাখ ৪০ হাজার ৪৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ১৬ হাজার ৬১০ জন মারা গেছেন। একই সময়ের মধ্যে ইউক্রেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৫৫৮ জন এবং মারা গেছেন ১৮৮ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩১৭ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ১ লাখ ৩২ হাজার ২৫৪ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ৩২ লাখ ১৫ হাজার ৫৫১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ২১ হাজার ৫৭৮ জনের।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ৩ কোটি ৭৮ লাখ ৯৬ হাজার ১১ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৮৭ হাজার ২২৬ জন।

এছাড়া করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় তুরস্কে ১৫৭ জন, হাঙ্গেরিতে ৯৪ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ১০০ জন, পোল্যান্ডে ৩৭৭ জন, কানাডায় ১৪৬ জন, স্পেনে ২৮৪ জন, আর্জেন্টিনায় ১৮৯ জন এবং ভিয়েতনামে ১৮৪ মারা গেছেন। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মেক্সিকোতে মারা গেছেন ৫৯ জন। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত উত্তর আমেরিকার এই দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ১ হাজার ৪৬৯ জনের।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৮২৮

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




জালভোট দিতে এসে আটক দশম শ্রেণির ছাত্র

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৮৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জালভোট দিতে এসে পুলিশের হাতে ধরা পড়ল দশম শ্রেণির এক ছাত্র। স্থানীয় এক বড় ভাইয়ের নির্দেশে জালভোট দিতে এসেছিল বলে জানায় আটক শিক্ষার্থী।

আটক শিক্ষার্থী (১৫) রাজবাড়ীর সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা এবং রাজবাড়ী সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

রোববার দুপুরে মিজানপুর ইউনিয়নের ১নং সূর্যনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা স্বপন কুমার সাহা, জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা রাজবাড়ীর সহকারী পরিচালক গোলাম রব্বানী ও প্রিসাইডিং অফিসার অমর অধিকারী উপস্থিত ছিলেন।

সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা স্বপন কুমার সাহা জানান, ১নং সূর্যনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কেন্দ্র পরিদর্শনে এলে ৪নং বুথে ও ছেলেটিকে দেখে সন্দেহ হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। একপর্যায়ে সে জালভোট দিতে আসার কথা স্বীকার করলে তাকে কর্তব্যরত পুলিশ আটক করে প্রিসাইডিং অফিসারের কাছে হস্তান্তর করেন।

প্রিসাইডিং অফিসার অমর অধিকারী বলেন, ভ্রাম্যমাণ টিম এসে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

নিউজ ট্যাগ: জালভোট

আরও খবর