আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

টগর হত্যা মামলার ১৮ আসামির খালাস

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রায় ২৭ বছর আগে ১৯৯৪ সালের নওগাঁর বদলগাছিতে চাঞ্চল্যকর টগর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলার মূল আসামিসহ ১৮ জনকে খালাস দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বুধবার প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই রায় দেন। রায়ের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

তাদের কেন খালাস দেয়া হয়েছে তার তথ্য রায় প্রকাশের পর জানা যাবে বলে জানান ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল। এর আগে টগর হত্যা মামলায় ২০০৫ সালের ১০ জুলাই নওগাঁর আদালত মূল আসামি ডা. নুরুল ইসলামকে মৃত্যুদণ্ড দেন। একই সঙ্গে বাকি ১৮ জনকে যাবজ্জীবন দেওয়া হয়।

এরপর ২০২০ সালের ২৮ নভেম্বর হাইকোর্ট নুরুলের মৃত্যুদণ্ড কমিয়ে যাবজ্জীবন দেন।  বাকি ১৮ জনের সাজাও বহাল থাকে।  এর মধ্যে মূল আসামি নুরুল ইসলাম মারা গেছেন।

সেই মামলারই সব আসামিকে ২৭ বছর পর খালাস দিলেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।


নিউজ ট্যাগ: টগর হত্যা

আরও খবর



দরিদ্র দেশগুলোকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে জি-৭

প্রকাশিত:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১২ জুন ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক তহবিল ইউনিসেফ ও বিশ্ব নেতাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোতে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দিতে ঐকমত্যে পৌঁছেছে শিল্পোন্নত দেশগুলোর জোট জি-৭।

শুক্রবার দক্ষিণ-পশ্চিম ইংল্যান্ডের কর্নওয়ালের শুরু হওয়া জি-৭ সম্মেলনের প্রথম দিনেই নেতারা মতৈক্যে পৌঁছেছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, জি-৭ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ৫০ কোটি ও যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ১০ কোটি টিকা ৯২টি নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশে পাঠাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। দুই দেশই দেবে ফাইজারের টিকা। এছাড়া কানাডা দেবে ১০ কোটি ডোজ টিকা।

জি-৭ভুক্ত বাকি দেশগুলোও তাদের সাধ্যমতো কোভিড-ভ্যাকসিন গরীব দেশগুলোতে পাঠাবে বলে সম্মত হয়েছে।

সম্মেলনের উদ্বোধন করে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেন, আগামী বছরের শেষভাগের মধ্যে আমাদের ৮০০ কোটি লোককে টিকা দিতে হবে।

ধনী দেশগুলো যদি কোভিড-টিকার বড় অংশ এখনও নিজেদের জিম্মায় রেখে দেয়, তবে টিকার লাখো ডোজ নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে ক'দিন আগেই সতর্ক করেছিল জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক তহবিল ইউনিসেফ।

সম্প্রতি বিভিন্ন দেশের ১০০ জনেরও বেশি সাবেক প্রধানমন্ত্রী, প্রেসিডেন্ট ও মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা জি-৭ জোটকে অনুরোধ করেছেন, তারা যেন বৈদেশিক সহায়তা তহবিলের বরাদ্দ দেওয়া ৬৬ বিলিয়ন ডলারের দুই তৃতীয়াংশ দরিদ্র দেশগুলোর টিকা ক্রয়ে ব্যয় করেন।

দরিদ্র দেশগুলোতে টিকা দানের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, তার থেকেও বেশি টিকার দরকার ছিল আমাদের। অর্থনৈতিক যুদ্ধকে প্রাধান্য দিয়ে এসময়ে আমাদের যৌক্তিক উপায়ে এগোতে হবে।

অবশ্য দাতব্য সংস্থা অক্সফাম জি-৭ এর সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। অক্সফামের স্বাস্থ্য নীতিমালার পরিচালক আন্না মেরিয়ট বলেন, এ মুহূর্তে ১১০০ কোটি ভ্যাকসিনের দরকার। সেখানে জি-৭ দিচ্ছে মাত্র ১০০ কোটি। বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিনের সঙ্কট তো দাতব্য সংস্থাগুলো সমাধান করতে পারবে না। ভ্যাকসিন প্রযুক্তি বিশ্বজুড়ে কীভাবে ভাগ করে দেওয়া যায়, কীভাবে ভ্যাকসিনের একচেটিয়া ব্যবসা ভেঙ্গে দেওয়া যায় তা নিয়ে এ সম্মেলনে আলোচনা হওয়া দরকার ছিল।

করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনীতিকে চাঙ্গা করে তুলতে নতুন উপায় খুঁজতে এই সম্মেলনে অংশ নিচ্ছে শিল্পোন্নত সাতটি দেশের জোট জি-৭; যাতে অংশ নিচ্ছে কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র।

সম্মেললে বরিস জনসন বলেন, করোনাভাইরাস মহামারি থেকে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। আর যেন কোনো ভুলের পুনরাবৃত্তি না ঘটে। আমাদের সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার করে অর্থনীতিকে পুনরুদ্ধার করতে হবে।

শনিবার জি-৭ সম্মেলনের শেষ দিনে প্রকাশিত হবে কার্বিস বে ঘোষণাপত্র

এ ঘোষণাপত্রে প্রাধান্য পাবে- ভবিষ্যতে যেকোনো রোগের জন্য ভ্যাকসিন, চিকিৎসা এবং রোগের পরীক্ষা-নিরীক্ষা পদ্ধতির বিকাশের জন্য এবং লাইসেন্স দেওয়ার সময়সীমাকে ১০০দিনের নিচে নামিয়ে আনা, বৈশ্বিক নজরদারি নেটওয়ার্ক এবং জিনোমিক সিকোয়েন্সিং কার্যক্রমকে শক্তিশালী করা, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সংস্কার ও শক্তিশালীকরণের জন্য সমর্থন দেওয়া।


আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




বিড়াল, কবুতর দেখামাত্রই গুলি করে হত্যার নির্দেশ কিমের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের নিষ্ঠুরতা কথা প্রায়ই শোনা যায়। সবশেষ যে আদেশ তিনি দিয়েছেন, তাতে নিষ্ঠুরতা মাত্রা আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে ছাড়িয়ে গেছে। সীমান্ত পার হয়ে কোনও বিড়াল ও কবুতর প্রবেশ করলে হত্যা নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। খবর মিররের।

কিমের দাবি, সীমান্ত পেরিয়ে চীন থেকে উত্তর কোরিয়া করোনাভাইরাস নিয়ে আসছে বিড়াল ও কবুতর। জানা গেছে, উত্তর কোরিয়ায় করোনার প্রকোপ খতিয়ে দেখতে তদন্তে নামে প্রশাসন। আর সেই তদন্তের রিপোর্টে করোনার ছড়ানোর জন্য বিড়ালদের দায়ী করা হয়েছে।

এরপরই চীনের সীমান্ত পেরিয়ে কোনও পশু বা পাখি উত্তর কোরিয়ায় ঢুকলেই গুলি করে মেরে ফেলার নির্দেশ জারি করেছেন কিম। এমনকি বিড়াল পোষার কারণে কর্তৃপক্ষের রোষের মুখেও পড়তে হচ্ছে মানুষজনকে। এজন্য শাস্তির পাশাপাশি আইসোলেশনেও থাকতে হচ্ছে এসব পরিবারকে।

এদিকে স্থানীয় প্রশাসনকে পশু-পাখি মারার জন্য চাপ দিচ্ছে কিম সরকার বলে জানা যাচ্ছে। যদিও কিমের এমন আদেশে উত্তর কোরিয়া জনগণের একাংশ ক্ষুদ্ধ বলেও শোনা যাচ্ছে। যদিও এগুলোর কোনও কিছুই তোয়াক্কা করেন না কিম জং উন।


নিউজ ট্যাগ: কিম জং উন

আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




মুন্সিগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতার পিটুনিতে আহত যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১০ জুন ২০২১ | ১৩৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আমাদের চোখের সামনে আমার বাবাকে কীভাবে মারল! বাবার হাত-পা, মাথা গুঁড়িয়ে দিয়েছে। আমরা কত হাতে-পায়ে ধরলাম। আমার বাবাকে ওরা ছাড়ল না

মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতার পিটুনিতে আহত মো. নয়ন মিজি (৩৫) মারা গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ওই যুবক। নয়ন সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের উত্তর কাজী কসবা গ্রামের প্রয়াত আবদুল বাতেন মিজির ছেলে।

নিহত ব্যক্তির ছোট বোন পিংকি আক্তার বলেন, গতকাল বুধবার বিকেল চারটার দিকে তাঁর ভাই বাড়ি থেকে বের হন। এর আধা ঘণ্টা পরই জানতে পারেন উত্তর কাজী কসবা প্রাইমারি স্কুলের সামনে থেকে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত শেখ ও তাঁর সহযোগী রনি, কাঞ্চনেরা তাঁর ভাইকে তুলে নিয়ে গেছেন। ঘটনা শুনতে পেয়ে তাঁরা সিপাহিপাড়া এলাকার একটি স্কুলের কাছে গিয়ে দেখেন, প্রান্তরা কাঠের ডাসা দিয়ে নয়নকে পেটাচ্ছেন। তিনি ভাইকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। রাস্তায় গিয়ে পুলিশ ডাকেন।

নিহত ব্যক্তির ছোট মেয়ে নিজুম (১০) বলে, আমাদের চোখের সামনে আমার বাবাকে কীভাবে মারল! বাবার হাত-পা, মাথা গুঁড়িয়ে দিয়েছে। আমরা কত হাতে-পায়ে ধরলাম। আমার বাবাকে ওরা ছাড়ল না। যখন ছাড়ল বাবা আর চোখ খুলে দেখল না। আমার বাবার হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নয়ন এলাকায় মুরগি ফার্মের ব্যবসা করতেন। পাশাপাশি কবুতর পালতেন। কয়েক মাস আগে তাঁর ফার্ম থেকে রামপাল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রান্ত শেখ, শোভন, কাঞ্চন, রনিরা কবুতর, মুরগি চুরি করে। এ নিয়ে নয়নের সঙ্গে তাদের দ্বন্দ্ব হয়। এগুলো নিয়ে এলাকায় সালিস হয়। সেই থেকে নয়নের সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলছিল। গতকাল বুধবার এর জের ধরে মূলত প্রান্ত শেখরা, নয়নকে তুলে নিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি স্থানীয় ব্যক্তিদের।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মুন্সিগঞ্জ সদর সার্কেল) মিনহাজ উল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় গতকাল বুধবার রাতেই একটি মামলা হয়েছিল। মামলাটি হত্যা মামলায় রূপান্তর করা হবে। এখন পর্যন্ত এজাহারভুক্ত আসামি নাহিদ ও তৌকির নামে দুজন গ্রেপ্তার আছে। অন্যদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।


আরও খবর



ভারতে দ্বিতীয় ঢেউয়ে স্বস্তি ফিরছে, মৃত্যু কমে ২৬৭৭

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৬ জুন ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রায় দুই মাস তাণ্ডব চালানোর পর ধারাবাহিকভাবে প্রতিদিনই কিছু কিছু করে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা কমছে ভারতে। শনিবারের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ছয় হাজার কমেছে। সেদিন সাড়ে ৩ হাজারে পৌঁছানো মৃত্যু কমে রোববার তা কমে এসে দাঁড়িয়েছে আড়াই হাজারের ঘরে।

রবিবার (৬ জুন) করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটার ও ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের থেকে জানা গেছে এ তথ্য।

জানা গেছে, ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ১৪ হাজার ৪৬০ জন। নতুন সংক্রমিত রোগী কমেছে ৬ হাজারের বেশি। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্ত ২ কোটি ৮৮ লাখ ৮ হাজার ৩৭২ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৭৮৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬৭৭ জনের। গত দিনের তুলনায় রোববার এই সংখ্যা কমেছে সাত শতাধিক।

এছাড়াও প্রতিদিনই সক্রিয় রোগী থেকে সুস্থ হয়ে উঠছেন অনেক মানুষ। কয়েক মাস আগেও দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ছিল ৩৭ লাখের বেশি। তবে শেষ এক মাসে সেই সংখ্যা কমতে কমতে ১৪ লাখের ঘরে নেমে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত রোগী কমেছে ৭৮ হাজারের বেশি। এ পর্যন্ত মোট সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৪ লাখ ৭৭ হাজার ৭৯৯ জন।



আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




ভোলায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৫ জুন ২০২১ | ১১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভোলা থেকে ইয়াছিনুল ঈমন

ভোলা সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশায় আজ শনিবার সকালে নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাঙ্কির সেন্টারিং এর কাঠ খুলতে গিয়ে আবদুল মালেক ও জসিম দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও আরো ৩ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে গুরুতর ২ জনকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, ভোলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের জংসনের পন্ডিতের পোল এলাকায় নিরব বুলাই বাড়িতে রাজ শ্রমিক মালেক মিয়া গত ১ মাস আগে তার নিজের একটি সেফিটি ট্যাঙ্কি নির্মাণ করেন। আজ শনিবার সকালে আবদুল মালেক (৪৫) প্রথমে নিজেই সেপটিক ট্যাঙ্কির সেন্টারিং এর কাঠ খুলতে ভিতরে প্রবেশ করেন। তার সাড়া না পেয়ে এর পর জসিম (৪০), কবির (৩৫) ও সাহাবুদ্দিন (২১) নামে আরো ৩ রাজ শ্রমিক ট্যাঙ্কির ভিতরে গেলে বিষাক্ত গ্যাসের আক্রান্ত হন। এসময় মো: নবী (৪৫) অপর এক শ্রমিক উদ্ধার করতে গিয়ে ডাক চিৎকার দিয়ে তিনিও অসুস্থ পড়েন। খবর পেয়ে স্থানীয়রা বিষাক্ত গ্যাসে আক্রান্ত অবস্থায় ৫ জনকে উদ্ধার করেন। এদের মধ্যে ৪ আশংকাজনক অবস্থায় ৪ জনকে ভোলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে মেডিক্যাল অফিসার ডা: আমানউল্লাহ মালেক ও জসিম নামে ২ জনকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া কবির ও সাহাবুদ্দিন ভোলা সদর হাসপাতালে ও মো: নবী বাড়িতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


আরও খবর
ভোলার মেঘনায় ফেরিতে আগুন, পুড়ল ৮ ট্রাক

বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১