আজঃ মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

টিকা নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী, ভাইরাল ভিডিওটি ভুয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ মার্চ ২০২১ | ২৪৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক


গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সচিবালয় ক্লিনিকে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। মন্ত্রীর ভ্যাকসিন নেয়ার ভিডিওটি গণমাধ্যমের কাছে সংরক্ষিত আছে। যদিও তার টিকা নেয়ার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভুয়া ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে অনলাইনে-অফলাইনে চলছে সমালোচনার ঝড়।

জানা গেছে, ১৭ ফেব্রুয়ারি সাড়ে সকাল ১০টায় ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী। ওই সময় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সচিব, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীরা জানান, প্রথমে মন্ত্রী ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন, সে সময় ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করেন সাংবাদিকরা। পরে একজন গণমাধ্যমকর্মী ফুটেজ পাননি উল্লেখ করে মন্ত্রীর কাছে পুনরায় ভিডিও নেয়ার জন্য আরেকবার ভ্যাকসিন দেয়ার চিত্র ধারণের সুযোগ চেয়ে অনুরোধ করেন। এসময় মন্ত্রী পুনরায় সাংবাদিকের সুবিধার্থে বসে ভ্যাকসিন নেয়ার ফুটেজ নিতে সহায়তা করেন।

সেসময় টিকা নেয়ার পর অনুভূতি জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, খুবই স্বাভাবিক, মনেই হয়নি যে টিকা নিলাম। বুঝতেই পারিনি কখন টিকা পুশ করেছে। কোনো রকম খারাপ কিছু মনে হওয়া বা ব্যথা পাওয়া এমন কিছুই নয়। অত্যন্ত সুন্দরভাবে টিকা দিয়েছে। আমার ভ্যাকসিন নেয়ার তারিখ আগে ছিল, জ্বরের কারণে আমি প্রথমদিন টিকা নিতে পারিনি। পরে আবার রেজিস্ট্রেশন ট্রান্সফার করে আজ টিকা নিয়ে নিলাম।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মন্ত্রী ভ্যাকসিন নিচ্ছেন না- এমন একটি ভুয়া ভিডিও আজ শনিবার ভাইরাল হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নিয়ে জানতে চাইলে আ ক ম মোজাম্মেল হক গণমাধ্যমকে বলেন, ১৭ তারিখে (১৭ ফেব্রুয়ারি) আমি ভ্যাকসিন নিয়েছি। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর সচিবের সঙ্গে আমরা যখন বাইরের দিকে যাচ্ছি, ওই সময় একটি চ্যানেলের সাংবাদিক এসে বলেন, তারা ফুটেজ পাননি। ওই সাংবাদিক অনুরোধ করেন, আমি যেন আবার একটু ভ্যাকসিন নেওয়ার ডেমো করি। মূলত তার অনুরোধেই আবার একটু ভ্যাকসিন নেওয়ার ডেমো করতে হয়েছে।

আ ক ম মোজাম্মেল হক আরও বলেন, আমার ভ্যাকসিন নেওয়ার ফুটেজ বিটিভির কাছে রয়েছে। কেউ যদি চ্যালেঞ্জ করতে চায় যে আমি ভ্যাকসিন নিইনি, আমি ওই ফুটেজ দেখাতে পারব।

এর আগে, গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সংসদ সচিবালয় ক্লিনিকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ও সচিব তপন কান্তি ঘোষ ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলে জানিয়েছিল মন্ত্রণালয়। সব গণমাধ্যমেই সে খবর প্রকাশ পেয়েছিল।

তবে শনিবার ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ ও স্বাস্থ্য সচিব মো. আব্দুল মান্নানের সঙ্গে সংসদ সচিবালয় ক্লিনিকের কোভিড ভ্যাকসিন প্রয়োগ কেন্দ্রের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন আ ক ম মোজাম্মেল হক। কিছুক্ষণ পর তারা একটি রুমে প্রবেশ করেন। এসময় মন্ত্রী চেয়ারে বসলে একজন নার্স একটি সিরিঞ্জ নিয়ে তার বাম হাতে ভ্যাকসিন প্রয়োগের অভিনয় করেন। এসময় হাসিমুখে চেয়ারে বসেছিলেন মন্ত্রী। পরে বের হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলছেন, এই অভিনয়টুকু করলেও এর আগেই ভ্যাকসিন নিয়েছেন তিনি। গণমাধ্যমের অনুরোধ ফেলতে না পেরেই তিনি এই অভিনয় করেছেন।

যোগাযোগ করলে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষও জানান, মন্ত্রী ভ্যাকসিন নিয়েছেন। তিনি বলেন, সেদিন আমরা দুজনেই ভ্যাকসিন নিয়েছি। মন্ত্রী আমার আগেই ভ্যাকসিন নিয়েছেন। উনি নেওয়ার পর আমি নিয়েছি।


আরও খবর



শাহজালালে ৮৯৫০ ইয়াবাসহ সৌদিগামী যাত্রী আটক

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৮ হাজার ৯৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ এক যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। সৌদিতে পাচারের উদ্দেশে এসব ইয়াবা নিয়ে আসে সাদ্দাম নামের এক যাত্রী।

বুধবার বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর বিমানবন্দরের এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান এপিবিএন এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) জিয়াউল হক।

তিনি বলেন, সালাম এয়ারের ফ্লাইটে সৌদি আরবের দাম্মামের উদ্দেশ্যে যেতে সাদ্দাম ভোর ৬টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন। প্রথমে ঢাকা থেকে ওমানের মাসকাট এবং কানেন্টিং ফ্লাইটে সৌদি আরবের দাম্মাম যাওয়ার কথা ছিল তার।

আটক সাদ্দামের বাড়ি কুমিল্লার কোটবাড়ি এলাকায়। এসব ইয়াবা তিনি কুমিল্লার এক ব্যক্তির কাছ থেকে নিয়েছেন। ওই ব্যক্তিদের একটি চক্র সাদ্দামকে সৌদি আরবে যাওয়ার টিকিট বা ভিসা করে দিয়েছে। জিয়াউল হক বলেন, আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আমরা জানতে পারি, এই ইয়াবাগুলো ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এগুলো সৌদিআরবে নিতে পারলে সেখানে প্রতি পিস এক থেকে দেড় হাজার টাকায় বিক্রি করতেন। সেখানে প্রতি পিস ইয়াবাতে তার ৮শ থেকে ১৩শ টাকা করে লাভ থাকতো।

সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদে আর্মড পুলিশ আরও জানতে পেরেছে, এই ইয়াবাগুলো বিক্রির পর তিনিও একটি লভ্যাংশ পেতেন। ইয়াবাগুলো নিয়ে সৌদিআরবের দাম্মামের এক প্রবাসীর কাছে হস্তান্তর করার কথা ছিল তার।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) জিয়াউল হক বলেন, আসামি সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদে আমরা ইয়াবা পাচার চক্রের সদস্যদের বেশকিছু নাম পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে এই চক্রের বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান জিয়াউল হক।

ইয়াবা পাচার সাদ্দামের এটাই প্রথম নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছি। ২০২০ সালে আসামি সাদ্দাম ইয়াবা পাচারের সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল। সেই মামলায় তিনি বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। এরই মধ্যে ইয়াবার বড় এই চালান তিনি সৌদি আরবে পাচার করতে যাচ্ছিলেন। তিনি এই পথে নতুন নন।


আরও খবর



টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সহজ গ্রুপে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে যৌথ ভাবে অনুষ্ঠিত হবে এবারের আসর। ওমানে হবে বাছাই পর্বের ম্যাচগুলো।

রাউন্ড-১ খ্যাত বাছাই পর্ব পার করেই বাংলাদেশকে খেলতে হবে সুপার টুয়েলভ পর্বে। তার আগে আটটি দলকে দুই গ্রুপে ভাগ করে দেয়া হয়েছে রাউন্ড-১ এ।

গ্রুপে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ড ও নামিবিয়া। বি গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি ও ওমান। বলা যায় গ্রুপের তুলনায় বি গ্রুপে বাংলাদেশের তিন প্রতিপক্ষে অনেকটা সহজ দল।

এই দুই গ্রুপের খেলা শেষে সেরা চার দল টিকিট পাবে সুপার টুয়েলভে খেলার। যেখানে গ্রুপে রয়েছে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গ্রুপে যোগ দেবে রাউন্ড-১ পর্বের সেরা এ-১ ও বি-২ দল। বি গ্রুপে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে যোগ দেবে এ-২ ও বি-১ দল।

তবে আইসিসি এখনও বাছাইপর্ব ও মূল পর্বের পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ করেনি। ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ১৪ নভেম্বরে ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে আসরের।


আরও খবর
৩ উইকেট হারাল বিপাকে অজিরা

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




জুস কারখানায় অগ্নিকাণ্ড

সংঘর্ষের পর আনসারদের অস্ত্র লুটের অভিযোগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | ১২২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৮ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এতে তিনজন নিহত হওয়ার খবর নিশ্চিত হওয়া গেলেও এ সংখ্যা আরো বাড়বে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা।

দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

এদিকে নিখোঁজ শ্রমিকদের খোঁজ করতে এসে ভিড় করা স্বজনদের সরাতে পুলিশ ধাওয়া দিলে সংঘর্ষ বেধে যায়। দুপক্ষের সংঘর্ষ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। ইতোমধ্যে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেছে, এদিকে স্বজনরাও ইট পাটকেল ছুড়ে মেরেছেন। পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে। তবে সংঘর্ষের সময় কারখানার আনসার ক্যাম্প থেকে আনসার সদস্যদের অস্ত্র লুটের অভিযোগ করেছেন তারা। যদিও এ ব্যাপারে কেউ সরাসরি বক্তব্য দিতে চাননি তবে তারা আশেপাশের ডোবা ও বিভিন্ন স্থানে অস্ত্রের খোঁজে পুলিশের সহযোগিতায় তল্লাশি করছেন।

শুক্রবার (৯ জুলাই) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। সাড়ে ১০টায় শুরু হয় সংঘর্ষ। এদিকে পুলিশের দাবি, একটি চক্র লুটপাট চালাতে স্বজনদের বেশে এখানে হামলা করে।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ডেমরা, কাঞ্চনসহ ফায়ার সার্ভিসের ১৮টি ইউনিট আগুন নেভানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।


আরও খবর
লাশ না, এখন আমরা হাড্ডি খুঁজি

রবিবার ১১ জুলাই ২০২১




ময়মনসিংহ মেডিকেলে একদিনে সর্বোচ্চ ১৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ জুলাই ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত ৫ জন ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) সকালে করোনা ইউনিটের ফোকালপারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

করোনায় মৃত ব্যক্তিরা হলেন, ময়মনসিংহ সদরের ইদুন্নেসা (৮০), শামসুল আলম (৭৫), কুলসুম আক্তার (৫৫), শেরপুর সদরের বিশ্বজিত দেব (৫৪) ও ঝিনাইগাতির মোর্শেদা (৬৫)।

উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার ইব্রাহিম (৫০), নান্দাইলের রুপা (১৯), সদরের ডা. মো. মোস্তফা (৭৩), আব্দুল আজিজ (৪২), জামালপুর সদরের আবু বক্কর (৫৯), মোজাহিদ (২২), সরিষাবাড়ির নারগিস (২২), শেরপুর সদরের রিপন ঘোষ (৪৫), রাশিদা বেগম (৪০), নালিতাবাড়ির শামিমা বেগম (৪৫), নেত্রকোনা সদরের হোসেন আলী (৮০) ও আব্দুল জব্বার (৯২)।

ডা. মহিউদ্দিন খান মুন বলেন, আইসিইউর ২১ জনসহ মোট ৩৭১ জন রোগী করোনা ইউনিটে ভর্তি আছেন। নতুন ভর্তি হয়েছেন ৫৫ জন, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৯ জন। করোনা ইউনিটে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ২৪৪ জন।

ময়মনসিংহ জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব ও এন্টিজেন টেস্টে ৬৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৩৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।



আরও খবর



বাংলাদেশি তরুণী নির্যাতন, বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার ১২

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে বাংলাদেশি তরুণীকে যৌন নির্যাতন ও গণধর্ষণের মামলায় ১২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বেঙ্গালুরুর পুলিশ। বেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার কমল পন্থ এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার সিরিজ টুইট করেছেন। পরে এ নিয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে এনডিটিভি।

তবে গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিদের নাম জানায়নি গণমাধ্যমটি। সেখানে বলা হয়, গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ১১ জন বাংলাদেশি। গ্রেপ্তারকৃত ১২ জনের মধ্যে দুজন নারী।

পরে সিরিজ টুইট বার্তায় ওই গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার কমল পন্থ। তিনি বলেন, মাত্র পাঁচ সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত শেষ করা হয়েছে এবং আদালতে অভিযোগপত্রও দাখিল করা হয়েছে।

এসময় তদন্ত দ্রুত শেষ করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিলের জন্য তদন্তকারী দলের প্রশংসা করেছেন পন্থ। তদন্তকারী দলের জন্য ১ লাখ রুপি পুরস্কার অনুমোদন দেয়ার কথাও জানান বেঙ্গালুরুর পুলিশ কমিশনার।

উল্লেখ্য, গত মে মাসে নির্যাতনের শিকার হয় বাংলাদেশের ওই তরুণী। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তখন বলা হয়, ২২ বছর বয়সী ওই তরুণীকে নির্যাতনের পর গণধর্ষণও করা হয়েছিল।


আরও খবর